আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

এবার হাইকোর্টে জামিন চাইলেন ফখরুল

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

প্রধান বিচারপতির বাসভবন ভাঙচুরের মামলায় হাইকোর্টে জামিন চেয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার (৩ ডিসেম্বর) সকালে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চে জামিন আবেদনটি করেন বিএনপির আইনজীবীরা। বিচারপতি মো. সেলিমের হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদনের শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

এর আগে, গত ২২ নভেম্বর ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আছাদুজ্জামানের আদালত মির্জা ফখরুলের জামিন নামঞ্জুর করেন। তার আগে গত ২০ নভেম্বর জামিন শুনানির দিন ধার্য ছিল। তবে ওইদিন সময়ের আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। পরে আদালত শুনানি পিছিয়ে ২২ নভেম্বর তারিখ নির্ধারণ করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ শুরুর আগে প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে বিএনপির নেতাকর্মীরা গাছের ডাল ভেঙে ও হাতের লাঠি দিয়ে নামফলক, গেটে হামলা চালানো হয়। আসামিরা ভেতরে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। এ ঘটনায় মির্জা ফখরুলসহ ৫৯ বিএনপির নেতার বিরুদ্ধে রমনা থানায় একটি মামলা করা হয়। 

আরও পড়ুন>> চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির মনোনয়ন বাতিল

এরপর ২৯ অক্টোবর সকালে মির্জা ফখরুলকে তার গুলশানের বাসা থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। এরপর তাকে আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। অন্যদিকে ফখরুলের জামিন চেয়ে আবেদন করেন তার আইনজীবী। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিন তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।


আরও খবর



ক্যালিফোর্নিয়ায় মরুভূমি থেকে ৬ মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার মোজেভ মরুভূমির দুর্গম এলাকা থেকে ছয় জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার পর পুলিশ পাঁচ সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান এ খবর জানিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, গুলিবিদ্ধ হয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত ছয়জনের মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহতরা সবাই পুরুষ। নিহতদের মধ্যে চারজনের শরীরে আগুনে পোড়ার চিহ্ন রয়েছে। 

আরও পড়ুন>> বাংলাদেশে রাজনৈতিক বন্দীদের মুক্তির আহ্বান জাতিসংঘের

পুলিশ আরও জানিয়েছে, অবৈধ গাঁজা নিয়ে বিরোধের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। ভুক্তভোগীরা বলছেন, গাজা লেনদেনের জন্য তারা ওই স্থানে গিয়েছিলেন।

গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তি জরুরি সেবা ৯১১-এ ফোন করে জানালে, পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে। ঘটনাটির এখনো তদন্ত চলছে। মোট আটটি বন্দুক বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ২০১৬ সাল থেকে ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য গাঁজা ক্রয় বৈধ করা হলেও গাঁজার একটি কালোবাজার রয়ে গেছে।


আরও খবর
পেট্রোল রপ্তানি নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাড়িঘর পুড়িয়ে ছাই করে দিচ্ছে জান্তা সরকার

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বাংলাদেশসহ যেসব দেশে পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিলো ভারত

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কূটনৈতিক প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশসহ কয়েকটি দেশে পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে ভারত। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশে সরকার-টু-সরকার (জিটুজি) ভিত্তিতে এ অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বাণিজ্যভিত্তিক প্রভাবশালী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

বিষয়টির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়াদিল্লি সরকারের এক কর্মকর্তা বলেন, দ্বিপক্ষীয় উদ্দেশে সীমিত পরিমাণে পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে মসলাজাতীয় পণ্যটি রপ্তানিতে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা সম্পূর্ণ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

আরেক ব্যক্তি বলেন, বাংলাদেশসহ শ্রীলঙ্কা, মাউরিশিয়াস, বাহরাইন, ভুটান ও নেপালে সীমিত পরিমাণ পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে কত মেট্রিক টন পণ্যটি রপ্তানি করা হবে-এ নিয়ে স্পষ্ট কিছু জানায়নি তারা।

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ পেঁয়াজ রপ্তানিকারক ভারত। ২০২৩ সালের ডিসেম্বরে রান্নাঘরের মুখ্য পণ্যটি রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দেশটির সরকার। ২০২৪ সালের মার্চ পর্যন্ত তা বহাল রাখার কথা জানিয়েছিল তারা। দেশের অভ্যন্তরে ক্রমবর্ধমান মূল্য বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ এবং পর্যাপ্ত সরবরাহ নিশ্চিত করতে এ পদক্ষেপ নেয়া হয়। ফলে প্রতিবেশী দেশগুলোতে পেঁয়াজের দর বেড়ে যায়।

নিউজ ট্যাগ: পেঁয়াজ রপ্তানি

আরও খবর



চিকিৎসকদের ওপর অযাচিত হামলা হলে শাস্তি নিশ্চিত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

চিকিৎসকদের ওপর অযাচিত কোনো হামলা হলে হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন।

আজ শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসারত দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত শরিয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নুসরাত তানিম তন্মীর শারীরিক অবস্থার সরেজমিন দেখতে গিয়ে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চিকিৎসকদের ওপর যত্রতত্র হামলা হলে সেটি আর মেনে নেওয়া হবে না। হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, শরিয়তপুর জেলা প্রশাসনকে নির্দেশনা দেওয়ার পর ইতোমধ্যে সেখানে মূল আসামিদের আটক করেছে প্রশাসন। বাকি সন্ত্রাসীদেরও গ্রেপ্তারে কাজ চলছে।

এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. নুসরাত তানিম তন্মীর সঙ্গে কথা বলেন এবং চিকিৎসার খোঁজ নেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ডা. নুসরাত তন্নীর ওপর হামলাকারীদের উপযুক্ত শাস্তির জন্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে ডা. নুসরাত তানিমকে আশ্বাস দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ডা. নুসরাত তানিম তন্নী জানান, নিম্নমানের ওষুধ ব্যবস্থাপত্রে লিখতে রাজি না হওয়ায় ল্যাবএইড ফার্মার একজন মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ শহীদুল ইসলাম মৃধার সঙ্গে স্থানীয় নেতা জুলহাস মাতবর, লিখন মাতবরসহ প্রায় ১০-১৫ জন তার ওপর এই হামলা চালায়। হামলায় ডা. তন্নী ও তার স্বামী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার ডা. রাফিও আহত হন।

ডা. তন্নী আরও জানান, আহত অবস্থায় তারা বাসায় পৌঁছালে হামলাকারীরা পুনরায় বাসায় গিয়ে আবারও তাদের ওপর হামলা চালায়। বাধা দিতে গেলে ডা. তন্নীর মাও হামলার শিকার হন। পরে রাতে ডা. তন্নী ও তার মাকে শরিয়তপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় কর্মস্থল থেকে ফেরার পথে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হন শরিয়তপুরের ডামুড্ডা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নুসরাত তানিম তন্নী। হামলায় আহত অবস্থায় তিনি (ডা. নুসরাত তানিম) চিকিৎসার জন্য বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিরত আছেন।

এর আগে, চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডা. তন্নী হাসপাতালের বিছানা থেকে সরাসরি স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেনকে ফোন করলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেদিনই ডা. তন্নীর সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী তৎক্ষণাৎ শরিয়তপুর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেন এবং দ্রুততম সময়ে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করার অনুরোধ জানান। পরে আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পরিপ্রেক্ষিতে সেদিন রাতেই মূল আসামি মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ শহীদুল ইসলাম এবং পরদিন সকালে স্থানীয় নেতা জুলহাস মাতবরকে গ্রেপ্তার করা হয়।


আরও খবর



সাতক্ষীরা সীমান্ত নদী ইছামতি থেকে বিএসএফ সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

Image

সাতক্ষীরার সীমান্ত নদী ইছামতিতে ঘূর্ণিঝড়ে ট্রলার ডুবে ভারতীয় বিএসএফ সদস্য রিয়াজুল ইসলাম (৩০) নিহত হয়েছেন। দেবহাটা উপজেলার দক্ষিণ হাড়তদ্দাহ এলাকায় নদীর চরে তার মৃতদেহ পড়ে ছিল। পরে ভারতীয় বিএসএফ উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে মৃতদেহটি নিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টার দিকে ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে ইছামতি নদীতে টহলকারী ট্রলার ডুবে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে তার মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া যায়। নিহত বিএসএফ সদস্য সৈনিক পদে চাকরিরত ছিলেন।

১৭ বিজিবির শাখরা টাউন শ্রীপুর কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার মুজিবর রহমান জানান, রাতে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড় ও বৃষ্টিপাত হয়। ওই সময়ে নদীতে ভারতীয় বিএসএফের একটি টহলকারী ট্রলার অবস্থান করছিল। ঘূর্ণিঝড় কবলে পড়ে ট্রলারটি ডুবে যায়। রাতেই বিএসএফ অভিযান করে ট্রলারের মাঝিকে খুঁজে পায়। তবে একজন সৈনিক নিখোঁজ ছিলেন। নদীতে তখন জোয়ার ছিল। সকালে ভাটার সময় নিখোঁজ ট্রলার ও বিএসএফ সৈনিকের মৃতদেহ দক্ষিণ হাড়তদ্দাহ বালুরচরে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তখন ভারতীয় বিএসএফ উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে মৃতদেহটি নিয়ে যায়। বিএসএফের কাছে থাকা অস্ত্র উদ্ধার হলেও একটি ওয়ারলেস পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



নির্বাচন বাতিল চেয়ে পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্টে আবেদন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানর জাতীয় নির্বাচন বাতিল চেয়ে দেশটির সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছে। আবেদন গ্রহণ করে শুনানির জন্য অনুমোদন দিয়েছেন আদালত। প্রধান বিচারপতি কাজী ফয়েজ ইসার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ এই শুনানি কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ৩০ দিনের মধ্যে নতুন করে নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানিয়ে আলী খান নামের এক নাগরিক আবেদন করেছেন। আবেদনে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি) ও কেন্দ্রীয় সরকারকে বিবাদী করা হয়েছে।

৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে সাধারণ পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ৬০ ঘণ্টা পর প্রকাশিত ফলে দেখা যায়, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পেয়েছেন ১০২টি আসন, পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ৭৪টি এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ৫৪টি। এ ছাড়া মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট পাকিস্তান (এমকিউএম) ১৭ আসনে জয়ী হয়েছে। অন্য দলগুলো পেয়েছে ১৭টি আসন। পাকিস্তানে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন ১৩৪ আসন। কিন্তু কোনো দলই এই সংখ্যায় না পৌঁছানোয় জোট সরকার গঠনের পদক্ষেপ নেন দেশটির রাজনীতিবিদরা।

তবে এই নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পিটিআই, পিপিপি, জামায়াতে ইসলামি ও জমিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম ফজল (জেইউআই-এফ) এর মতো দলগুলো।  যুক্তরাষ্ট্রও পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষকে নিরপেক্ষ ও স্বাধীন কমিশন গঠন করে নির্বাচনের অভিযোগ নিয়ে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে। 


আরও খবর
পেট্রোল রপ্তানি নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাড়িঘর পুড়িয়ে ছাই করে দিচ্ছে জান্তা সরকার

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪