আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ায় আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে গরু চুরির ঘটনা

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি

Image

ঈশ্বরদী ও আটঘরিয়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে বেড়েই চলছে গরু চুরির ঘটনা। সপ্তাহের ব্যবধানে ৯ গরু চুরি হয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হওয়ায় পিকআপ ও মাইক্রোবাস ব্যবহার করে খুব সহজেই করা হয় চুরি। এদিকে জীবিকার একমাত্র অবলম্বন গবাদি পশু হারিয়ে নিঃস্ব অনেক দরিদ্র কৃষক।

তবে সম্প্রতি পুলিশের অভিযানে জেলায় গরুসহ আন্ত: চোরদলের একাধিক ব্যক্তি আটক হলেও ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে মূলহোতারা। তাই থামছে না চুরিও।

ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের বয়রা গ্রামের মৃত আয়েজ উদ্দিন এর ছেলে কৃষক আশরাফুল আলম চেতন (৫৬) জানান, রবিবার দিবাগত রাতে(১৪ জানুয়ারী) তার গোয়ালঘর থেকে আনুমানিক রাত ৩ টার দিকে ২টি গরু চুরি হয়েছে যার মধ্যে ১টি গাভী ও ১টি ষাড়। গরু দুটির আনুমানিক মূল্য দুই লক্ষ টাকা। চুরির ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় জিডি করেছি।

উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের মৃত কবির উদ্দিন (পুলিশ) এর ছেলে আব্দুল বাতেন বিপুল (৩৫) জানান, গত ১৩ জানুয়ারী দিবাগত রাতের কোন এক প্রহরে তার গোয়াল ঘরের তালা কেটে আনুমানিক ১ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি গাভী চুরি করে নিয়ে গেছে সংঘবদ্ধ চোর দল। তিনি আরোও জানান, চোর দলের চুরির কাজে পিকআপ ও চোরদের সাপোর্ট দেওয়ার জন্য সাদা রঙের হাইচ(মাইক্রোবাস) ব্যবহার করে। চুরির বিষয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। জিডি নং-৮৮১।

পাশ্ববর্তী আটঘরিয়া থানার পাড়াশিধাই গ্রামের দত দরিদ্র কৃষক আজাহার আলী (৫০) বলেন, ১৩ তারিখ দিবাগত রাতে আমার গোয়াল ঘর থেকে ৩টি গাভী করে চুরি করে নিয়ে যায় চোরদল। আমরা চোরদের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের রুখতে চেষ্টা করি। কিন্তু তাদের কাছে ধারালো অস্ত্র (রাম দা, চাপাতি, ছুরি) থাকায় আমরা তাদের ধাওয়া করেও আটকাতে পারি নাই। আমি এখন সর্বহারা হয়ে গেছি। আমার প্রায় ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এবিষয়ে আটঘরিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।

স্থানীয়দের পক্ষ থেকে বয়রা গ্রামের আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, চুরি করা গরু পাচারের জন্য পিকআপ ও মাইক্রোবাস ব্যবহার করে থাকে চোর চক্রের সদস্যরা। তিনি জানান, গবাদি পশু চুরির কারণে অতিষ্ঠ গ্রাম এলাকার বাসিন্দারা।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, গবাদি পশু মালিকদের অসচেতনতার কারণেও সুযোগ পাচ্ছে চোরেরা। নিজ বাড়ির গোয়াল ঘর অরক্ষিত দেখা যাচ্ছে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। আমরা চোরদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি, পুলিশি টহলের ব্যবস্থা করা হবে। প্রতিটি গ্রামে রাতে ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে পাহারার ব্যবস্থা করলে চুরির ঘটনা রোধ করা সম্ভব হবে বলে আমি মনে করি।


আরও খবর



মিশরের নীল নদে নৌকাডুবিতে ১০ শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

মিশরের রাজধানী কায়রোর কাছে নীল নদে নৌকাডুবির ঘটনায় ১০ জন শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় ডুবে যাওয়া ৫ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যম ডয়েচ ভেলে জানিয়েছে, ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে মোট ১৫ জন ছিলেন। তারা সকলেই ঠিকাদারি শ্রমিক। দৈনিক অর্থ প্রাপ্তির চুক্তিতে কাজ করতেন। উদ্ধারকারী দল ৫ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। তাদের চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মিশরের শ্রম মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মৃত শ্রমিকদের প্রত্যেকের পরিবারকে মিশরের মুদ্রায় ২ লাখ পাউন্ড বা ৫ হাজার ৯৫৭ ইউরো দেওয়া হবে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য ৭ লাখ ৯ হাজার টাকা। এছাড়াও আহতরা প্রত্যেকে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৭০ হাজার টাকা করে পাবেন।

স্থানীয় মিডিয়া জানিয়েছে, ধারণক্ষমতার তুলনায় বেশি মানুষ থাকায় নৌকাটি ডুবে যায়। তবে সরকারিভাবে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল, উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

টাঙ্গাইলের বাসাইলে কমিউটার ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়েছে। এতে দুই ঘণ্টা ধরে উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টা ২০ মিনিটের দিকে উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের সোনালিয়া দক্ষিণপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

মহেড়া রেল স্টেশন অফিসার সোহেল মিয়া বলেন, সকাল ৭টা ১০ মিনিটে টাঙ্গাইল স্টেশন থেকে টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসে। ঘটনাস্থলে এলে ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়।

টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেনটির পরিচালক মুহাম্মদ ওমর আলী বলেন, সকাল ৭টা ২০ মিনিটের দিকে ট্রেনটি বিকল হয়েছে। ফলে সব ট্রেনের যাতায়াত বন্ধ রয়েছে। ঢাকা থেকে রিলিফ ট্রেন এলে এরপর ট্রেনটি সরানো হলে চলাচল স্বাভাবিক হবে।


আরও খবর



পণ্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আসন্ন রমজান উপলক্ষে অবৈধভাবে নিত্যপণ্য মজুত করে কৃত্রিম সংকট তৈরি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর মধুবাগে শেরেবাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী অবৈধভাবে যারা নিত্যপণ্য মজুত করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী কাজ করছে। 

আরও পড়ুন>> দেশের মানুষের ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

বিএনপির চলমান আন্দোলন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে জবাবে মন্ত্রী বলেন, আন্দোলনের জন্য দল গুছিয়ে বিএনপির লাভ নেই। মানুষ তাদের সঙ্গে নেই। এ দেশের মানুষ আগুনসন্ত্রাস-জঙ্গিবাদকে পছন্দ করে না। আন্দোলনের নামে বিএনপি যদি ২৮ অক্টোবরের মতো নাশকতার চেষ্টা করে তাহলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

বিএনপির নেতাকর্মীরা জামিনের বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, জামিন আমাদের হাতে নেই, জামিন আদালতের বিষয়। তারা (বিএনপি) যদি আবারও অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুর চালায় তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।


আরও খবর



রোহিঙ্গা প্রবেশে উদারতা দেখানোর সুযোগ নেই : কাদের

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নতুন করে আর কোনো রোহিঙ্গাকে অনুপ্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। আমরা একবার উদারভাবে সীমান্ত খুলে দিয়েছিলাম। এখন সেই উদারতা দেখানোর আরো কোনো সুযোগ নেই।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বনানীর সেতু ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গারা আমাদের জন্য একটা বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। রোহিঙ্গাদের জন্য আন্তর্জাতিক যে সাহায্য ছিল, সেটা অনেক কমে গেছে। এমন অবস্থায় এই বোঝা আমরা আর কতদিন বইবো?

তিনি বলেন, এটা মিয়ানমারের নিজস্ব সমস্যা। আরাকান আর্মিদের তাদের দেশের সমস্যা। তাদের ইন্টারনাল বিষয় নিয়ে তারা কী করবে সেটা তাদের ব্যাপার। তাদের সমস্যার জন্য আমাদের এখানে যেন কোনো শঙ্কা বা উদ্বেগ না হয়, সে বিষয়ে যারা যারা সংশ্লিষ্ট তাদের সঙ্গে কথা বলব। আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতে গিয়েছেন। চীনের সঙ্গেও আমরা আলাপ আলোচনা করছি।

বিএনপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপির মন্তব্য নিয়ে কথা বলার সময় আমার নেই। তাদের নিয়ে আমাদের চিন্তা করার কিছু নেই। তাদের মধ্যে ব্যর্থ আন্দোলন, নির্বাচনে অংশ না নেওয়া-এসব কারণে একটা হতাশা আছে। এ কারণে তারা বিরোধিতা করছে, করবে। তারা তো বিরোধী দল, তাদের পেছনে কিছু তো বলতেই হবে। বললে সরকারের খারাপটাই বলতে হবে। কারণ তারা এখন কোনোকিছু ভালো চোখে দেখছে না। তারা হতাশার মধ্যে আছে। এই হতাশা থেকে তারা এসব আবোল-তাবোল বলছে। এগুলোর কোনো বাস্তবতা নেই, এগুলো নিয়ে আমাদের কোনো মাথাব্যথা নেই।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেওয়া সৌদি যুবদল নেতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

২০২৩ সালের এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদেশ সফরে ছিলেন। সেসময় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অফিসিয়াল ইমেইল [email protected][email protected] নামের আইডি থেকে ইংরেজিতে একটি হুমকি বার্তা সম্বলিত ইমেইল আসে।

হুমকি বার্তায় বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ২৭ এপ্রিল ভোর ৪টায় গুলি করা হবে। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি ডিএমপি ও পুলিশ সদর দপ্তরের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে জানানো হয়। ফলে বিদেশ সফরকালেই প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বাড়ানো হয়।

এ ঘটনা সৌদি আরবে অবস্থানরত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ও সাবেক আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারীর মাধ্যমে সৌদি সরকার এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবগত করা হয়। এরপর চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি দুজনকে শনাক্ত করে বাংলাদেশে পাঠানো হলে তাদের গ্রেপ্তার করে সিটিটিসি।

গ্রেপ্তাররা হলেন, সৌদি যুবদলের সভাপতি কবির হোসেন ও সহযোগী দীন ইসলাম।

সিটিটিসি বলছে, রাষ্ট্রীয় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাঁয়তারার অংশ হিসেবে খোদ প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছিল।

সিটিটিসি প্রধান ও ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

সিটিটিসি জানায়, ইমেইলের সাবজেক্ট লাইনে লেখা ছিল- Prime Minister Sheikh Hasina will be shot at 4 am on April 27. Bangladesh police do not have the power to prevent this attack (২৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভোর ৪টায় গুলি করা হবে। বাংলাদেশ পুলিশের ক্ষমতা নেই এই হামলা ঠেকানোর)। ইমেইলের বডিতেও একই হুমকি বার্তা লেখা ছিল।

সিটিটিসি প্রধান বলেন, বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে হুমকি বার্তার ভয়াবহতা, জাতীয় নিরাপত্তা ও শান্তি-শৃংখলার স্বার্থে বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি বার্তামূলক ইমেইল প্রেরণকারীকে দ্রুত শনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সিটিটিসি সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

গোপনীয় অনুসন্ধান এবং প্রযুক্তিগত বিশ্লেষণ শেষে ইমেইল বার্তা পাঠানো ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয় সিটিটিসি। হুমকি বার্তা পাঠানো ব্যক্তির নাম দীন ইসলাম বাদল বলে নিশ্চিত হয় পুলিশ। হুমকি বার্তা প্রদানকারীর ইন্টারনেট (IP) অ্যাকটিভিটি পর্যালোচনা করে তার অবস্থান সৌদি আরব বলে তদন্তে নিশ্চিত হয় তদন্ত টিম।

এ ঘটনায় গত বছর ২০২৩ এর ২০ এপ্রিল ডিএমপি মিডিয়া পাবলিক রিলেশন সেন্টারের ইমেইলে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকিদাতাসহ অজ্ঞাতনামা সহযোগীদের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানায় মামলা করে সিটিটিসি। যার মামলা নং ১৫।


আরও খবর