আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

একজন মানবিক ও জনবান্ধব প্রধানমন্ত্রী আছেন বলেই রাষ্ট্র এগিয়ে যাচ্ছে: শ ম রেজাউল করিম

প্রকাশিত:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | ৫৬৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রজনন স্বাস্থ্য ও অধিকার প্রাধান্য পেলে কাঙ্ক্ষিত জন্মহারে সমাধান মেলে- এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে রবিবার পিরোজপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০২১ উপলক্ষে এক ভার্চুয়ালি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম। তিনি বলেন, সারা বিশ্ব যখন করোনায় বিপর্যস্ত তখন বাংলাদেশ সার্বিক দিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে, আর এটি সম্ভব হয়েছে আমরা একজন মানবিক ও জনবান্ধব শেখ হাসিনার সরকার পেয়েছি বলেই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে, অপরিকল্পিতভাবে পরিবার গঠনের বোঝা যেমন একটি পরিবার বইতে পারে না তেমনি দেশের জন্যও অনাকাঙ্ক্ষিত বোঝা হয়ে দাঁড়ায়, ফলে তারা আরও বিপর্যস্ত অবস্থার মধ্যে পতিত হন। বাংলাদেশ এখন উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্রের পথে, আমাদের দারিদ্রসীমা থেকে উত্তরণ হয়েছে। করোনার এই ভয়াবহ অবস্থার মধ্যেও প্রবাসীরা যে রেমিটেন্স বা বৈদেশিক মুদ্রা পাঠাচ্ছে এবং এই যে জনসম্পদ আমাদের- এটিই বড় শক্তি আমাদের।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা-উত্তর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেছিলেন, আমার আছে জনগণ, এরাই আমার জনসম্পদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিনিও প্রায়ই বলেন, আমাদের যে হিউম্যান সোর্স আছে, মানবসম্পদ আছে এবং ওই সম্পদকে যদি আমরা শক্তিতে পরিণত করতে পারি, তাহলে আমাদের দরিদ্রতা আমাদের বিপর্যস্ত করতে পারবে না, বিপন্ন করতে পারবে না।

পিরোজপুর জেলা ও সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ আয়োজিত ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. হাসানাত ইউসুফ জাকী ও জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক খালেদা বেগম, মাঠপর্যায়ের কর্মী, সাংবাদিকরা ভার্চুয়ালি সভায় যুক্ত ছিলেন। 



আরও খবর



৫ আগস্টের পর লকডাউন দেওয়া হবে না- বলেননি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | ২১৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ৫ আগস্টের পর আর লকডাউন দেওয়া হবে না বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালকে উদ্ধৃতি দিয়ে প্রচারিত সংবাদের ব্যাখ্যা দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বুধবার (২৮ জুলাই) মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে বলা হয়, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কোট করে কয়েকটি মিডিয়ায় একটি নিউজ যাচ্ছে যে ৫ আগস্টের পর আর লকডাউন দেওয়া হবে না

প্রকৃতপক্ষে মন্ত্রী এ ধরনের কোনো কথা বলেননি।

এর আগে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে কোভিড-১৯ প্রতিরোধকল্পে আরোপিত বিধি-নিষেধের কার্যক্রম পর্যালোচনা ও কোডিড-১৯ প্রতিরোধক টিকাদান কার্যক্রম জোরদারকরণ বিষয়ে অনুষ্ঠিত সভা শেষে চলমান লকডাউন নিয়ে কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বৈঠকে সিদ্ধান্ত এমন এসেছে আমাদের যে লকডাউন চলছে তা ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলতে থাকবে। যদিও আমাদের শিল্পপতিরা এবং অনেকেই রিকোয়েস্ট করেছিলেন, আমরা সেই রিকোয়েস্ট বোধহয় রাখতে পারছি না।

তিনি বলেন, লকডাউন ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। অন্যান্য দেশের মতো সংক্রমণ ধীরে ধীরে কমবে বলে আমরা আশা করছি। আমাদের কাছে যে টিকা এসেছে সেগুলোর কার্যক্রম চলবে, পরবর্তীতে যে টিকা আসবে সেটার ব্যবহার পরবর্তী সময়ে করবো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখেছেন পৃথিবীর যেখানেই টিকা দেওয়া হয়েছে সেখানেই সংক্রমণের গতি কমেছে। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশেও আমরা এ দৃশ্যটা দেখেছি। সে কারণেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা আমাদের টিকার কার্যক্রম জোরদার করতে হবে। আমাদের তিনটি বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যেমন, সবাই মাস্ক পরবো, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবো এবং সবাই টিকা নেবে, এটাই হলো আমাদের মূল কথা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব, সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী, নৌবাহিনী, পুলিশ ও র‌্যাবসহ প্রশাসনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ঈদের ছুটির পর করোনা টিকাদান শুরু

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৫৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদুল আজহার চারদিন বন্ধ থাকার পর শনিবার (২৪ জুলাই) থেকে ফের করোনার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এর আগে, ঈদের ছুটির তিনদিন এবং শুক্রবারসহ (সাপ্তাহিক ছুটির দিন) চারদিন টিকাদান কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

রাজধানীসহ সারাদেশে সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করে যারা টিকা নেওয়ার ক্ষুদে বার্তা পেয়েছেন তারা আজ টিকা নিতে বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ, হাসপাতাল ও জেলা সদর হাসপাতালে যাচ্ছেন। 

স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ জুলাই পর্যন্ত ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ডের কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৩৩ জন এবং দ্বিতীয় ডোজের টিকা নেন ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬ জন। 

টিকার মজুত শেষ হওয়ায় প্রথম ডোজের টিকা নিলেও কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় ডোজের টিকা এখনো অনেকেই পাননি। কোভ্যাক্সের আওতায় জাপান সরকারের উপহারের প্রায় আড়াই লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসছে শনিবার (২৪ জুলাই) বিকেলে। যারা দ্বিতীয় ডোজের টিকা পাননি তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ টিকা দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে সিনোফার্ম, ফাইজার ও মডার্নার টিকা দেওয়া হচ্ছে।



আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




জ্বর হলে করোনা টেস্টের পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সম্প্রতি জ্বর হলে করোনা টেস্টের পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে। এমনটাই বলছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গতকাল রবিবার (১৮ জুলাই) সারাদেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন দেশের করোনা পরিস্থিতি এখন ঊর্ধ্বগামী। এ অবস্থায় ডেঙ্গু পরিস্থিতিও যদি অবনতি হয়, তাহলে আমাদের পক্ষে সামাল দেওয়া কঠিন হবে। আর রাজধানীসহ সারাদেশের মশক নিয়ন্ত্রণে যারা দায়িত্বপ্রাপ্ত আছেন, তারা যদি নিজেদের জায়গা থেকে নিজেকে উজাড় করে না দেন, তাহলে পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকবে।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে সাধারণ মানুষকেও অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। ছাদে ফুলের টব, বাসার আশেপাশের ড্রেনসহ সবকিছু পরিষ্কার রাখতে হবে। বাথরুমের কমোড, বালতিসহ কিছুতেই যেন পানি জমে না থাকে। বিশেষ করে ৩ দিন বা তার অধিক সময়ের জন্য কোথাও চলে গেলে বাসায় কোনো পাত্রে পানি জমিয়ে রাখা যাবে না।

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু পরীক্ষা

আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




লকডাউনে ব্যাংক লেনদেনে নতুন সময়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১৩১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
করোনাভাইরাস সংক্রমণের রোধে সরকারি বিধিনিষেধের মেয়াদ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে সীমিত পরিসরে ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে ৩০ জুন জারি করা ডিওএস

করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বগতির কারণে চলমান লকডাউন ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ সময় ব্যাংকে লেনদেনের সময় আরও এক ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে। নতুন সময় অনুযায়ী সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ব্যাংক লেনদেন চলবে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, করোনাভাইরাস সংক্রমণের রোধে সরকারি বিধিনিষেধের মেয়াদ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে সীমিত পরিসরে ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে ৩০ জুন জারি করা ডিওএস সার্কুলার লেটারে কিছুটা পরিবর্তন এনে নতুন এ চিঠি দেওয়া হয়েছে। সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্র ও শনিবার ছাড়াও ১১ জুলাই রবিবার ব্যাংক বন্ধ থাকবে। ৮ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ব্যাংক লেনদেন চলবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত। লেনদেন পরবর্তী কাজ গোছানোর জন্য ব্যাংক খোলা রাখা যাবে বেলা ৪টা পর্যন্ত।


আরও খবর
আজ ব্যাংক বন্ধ

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪২ লাখ ৪৮ হাজার ছাড়ালো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | ৩৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সর্বশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ কোটি ৯৫ লাখ ৬০ হাজার ৫১৪ জনে। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪২ লাখ ৪৮ হাজার ২৩ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৮ কোটি ৩০ হাজার ৭৫৪ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ও সংক্রমণ কিছুটা বেড়েছে। এ সময় মারা গেছেন আরও ৭ হাজার ৬৪৯ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৪৮৯ জন। আর গতকাল সোমবার ৭ হাজার ৩৪৮ জনের মৃত্যু এবং ৪ লাখ ৬৬ হাজার ৩৯ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর দিয়েছে ওয়ার্ল্ডওমিটার। গত তিনদিনে করোনার আক্রান্ত-মৃত্যুর সংখ্যাও ছিলো নিম্নমুখী।

এ নিয়ে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় মৃত্যু ৪২ লাখ ৪৮ হাজার ৭৮৫ জন। এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ কোটি ৯৫ লাখ ৯২ হাজার ৯৮ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৮ কোটি ৮২ হাজার ৩০০ জন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৭ লাখ ২৫ হাজার ৩৯৯ জনে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ২৫ হাজার ২২৮ জনের।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৯৯ লাখ ৫৩ হাজার ৫০১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৫৭ হাজার ৩৫৯ জনের।


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১