আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

একসঙ্গে ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন সাদিয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | ৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক গৃহবধূ। মঙ্গলবার (০২ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে প্রথমবারের মতো পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি সাদিয়া খাতুন (২৪)।

গর্ভধারণের পাঁচ মাসের মাথায় জন্ম হওয়ায় শিশুদের ওজন কম হয়েছে। পাঁচ শিশুর মধ্যে চার মেয়ে ও এক ছেলে সন্তান রয়েছে। বর্তমানে মা সুস্থ থাকলেও শিশুরা ঝুঁকিতে রয়েছে।

সাদিয়া খাতুন কুমারখালী উপজেলার পান্টি ইউনিয়নের পান্টি গ্রামের কলেজপাড়া এলাকার সোহেল রানার স্ত্রী।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৫-৬ মাসের মাথায় সাদিয়া সন্তান প্রসব করেছেন। একসঙ্গে পাঁচ বাচ্চার প্রসবে অনেক ঝুঁকি ছিল। তবে মা সুস্থ থাকলেও ওজন কম হওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে শিশুরা। শিশুদের দেখতে হাসপাতালের রোগী ও রোগীর স্বজনরা ভিড় করছে।

শিশুদের বাবা সোহেল রানা জানান, খুবই ভালো লাগছে। অনুভূতি প্রকাশের ভাষা পাচ্ছি না। মা সুস্থ আছে। কিন্তু শিশুর ওজন কম হওয়ায় ঢাকায় নিয়ে যেতে বলছে চিকিৎসক। শিশুদের অক্সিজেন চলছে। তারা শিশু ওয়ার্ডের দুই নম্বর রুমের নবজাতক ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

দায়িত্বরত চিকিৎসক ও নার্সরা বলেন, সকাল ১০টার দিকে ওই গৃহবধূ পাঁচ সন্তানের জন্ম দেন। তাকে সোমবার রাত ১০টার দিকে   হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মা সুস্থ রয়েছে কিন্তু শিশুরা ঝুঁকিতে আছে।

জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহীন আক্তার সুমন বলেন, বাচ্চাদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসা চলছে। তবে ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। তাদের ওজন কম হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগে অথবা শিশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বাচ্চাগুলোর ওজন ৫০০-৬০০ গ্রাম। তবে মা সুস্থ রয়েছেন।


আরও খবর



করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৩

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭ হাজার ৯২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশে নতুন করে ২১৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ১৫ লাখ ৭২ হাজার ৯৪৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে ২২৩ জন। এ নিয়ে দেশে মোট ১৫ লাখ ৩৬ হাজার ৯৬৭ জন করোনা থেকে সুস্থ হলো।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৩৬টি ল্যাবে ২০ হাজার ৭৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা সংগ্রহ করা হয় ২১ হাজার ৩৩টি। করোনা শনাক্তের হার এক দশমিক ০৩ শতাংশ। এই পর্যন্ত গড় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারী দুইজনই নারী। এ নিয়ে ১০ হাজার ৫১ জন নারী করোনায় মারা গেছেন। আর পুরুষ মারা গেছেন ১৭ হাজার ৮৭৭ জন।

মৃত দুই নারীর বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। তাঁদের বাড়ি ঢাকা বিভাগে। তাঁরা সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।

দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ওই বছরের ১৮ জুন তিন হাজার ৮০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে লাখ ছাড়িয়েছিল করোনার রোগী। সেদিন পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছিল এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন। এ ছাড়া দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর
করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১




ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন কুড়িগ্রাম

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৫৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উত্তরের সীমান্তঘেঁষা জেলা কুড়িগ্রাম। হিমালয়ের নিকটবর্তী হওয়ায় এ জেলার গ্রামীণসহ শহরের জনপদ আচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে ঘন কুয়াশায়।

ঘন কুয়াশাচ্ছন্ন সকালই বলছে জেঁকে বসেছে শীত। জীবিকার সন্ধানে ঘর থেকে বের হওয়া মানুষ সাধ্য অনুযায়ী গায়ে জড়িয়ে নিয়েছেন গরম কাপড়। কারও কারও গরম কাপড় না থাকায় হালকা কাপড় পরে বেরিয়ে পড়েছেন কাজের সন্ধানে।

রবিবার (১৪ নভেম্বর) কুড়িগ্রামের রাজারহাট আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পাঁচগাছী ইউনিয়নের মিলপাড়া গ্রামের জামাল মিয়া জানান, প্রচুর ঠান্ডা পড়ছে। বাচ্চাদের নিয়ে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে। ঠান্ডার কারণে মাঠে কাজ করতে যেতে পারছি না। কয়েক দিন ধরে খুবই শীত পড়ছে। সকাল ৯টাতেও সূর্যের দেখা নেই।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, আজ জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। যা গতকাল ছিল ১৪ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আকাশে মেঘ ও কুয়াশা আছে। সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হওয়ায় আকাশে মেঘ রয়েছে।

 

 


আরও খবর



পরনে কেবল শাড়ি, মেহেদি দিয়েই ব্লাউজ!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারী অঙ্গে শাড়ি যেন এক নিবিড় ভালবাসা। আর তাতে যদি সঙ্গে হয় চটকদার ব্লাউজ, তাহলে তা আর কথাই নেই! তবে সেই ব্লাউজ যদি হয় মেহেদি দিয়ে আঁকা? বুঝলেন না তো? এবারে ব্লাউজের ডিজাইনে আঁকা মেহেদি পরেই, ব্লাউজের কাজ সারলেন ভারতের এক তরুণী। 

প্রথম ঝলকে কিন্তু দেখে বোঝা দায়। তবে একটু ভাল করে খেয়াল করলেই দেখবেন ওই তরুণীর শরীরের উপরের অংশ ব্লাউজ নয়, মেহেদি দিয়েই ঢাকা। সাদা শাড়ির সঙ্গে গাঢ় খয়েরিং রঙের মেহেদি কিন্তু বেশ মানিয়েও গেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই তরুণীর ছবি এবং ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে এরইমধ্যে। যেখানে প্রথমে তরুণীর পিঠের অংশটি দেখা যায়। মাথায় সুন্দর খোপা করা। তাতে সাদা ফুল জড়ানো। আর পুরো পিঠ জুড়ে মেহেদি দিয়ে ব্লাউজ আঁকা।

সামনের দিকে যেতে যেতে হাসি মুখে পিছন ফিরে তাকান তরুণী। ক্যামেরাম্যানের দিকে ফ্লাইং কিস ছুড়ে দেন। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে, কেউ প্রশংসা করেছেন, কেউ আবার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

কমেন্টবক্সে কেউ লিখেছেন, ফ্যাশনের নামে যা খুশি তাই করবে নাকি! কেউ আবার তাকে দেখে মেহেদি শিল্পী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই তরুণীর এই ট্রেন্ড কিন্তু একেবারে নতুন নয়। নেটদুনিয়ায় খোঁজ করলে একাধিক মেহেদি ব্লাউজের ডিজাইন দেখতে পাওয়া যায়।


আরও খবর



সুনামগঞ্জে পরিবহন বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ২৮০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মামলা প্রত্যাহার, ট্রাফিক পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশের সকল প্রকার হয়রানি বন্ধ, মেয়াদোত্তীর্ণ সেতু থেকে টোল আদায় বন্ধসহ ৫ দফা দাবি আদায়ে সুনামগঞ্জে পরিবহন ধর্মঘট চলছে। সোমবার (২২ নভেম্বর) সকাল থেকে সিলেটের ন্যায় সুনামগঞ্জে কর্মবিরতি পালন করছে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন।

জানা গেছে, কর্মবিরতির ফলে সোমবার (২২ নভেম্বর) থেকে দূর পাল্লার বাস চলাচল বন্ধের পাশাপাশি সুনামগঞ্জ, ছাতক, জগন্নাথপুর, দিরাই, জামালগঞ্জ, তাহিরপুর বিশ্বম্ভরপুর ও দোয়ারাবাজারসহ ১০টি রুটে বাস-মিনিবাসসহ সবধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এদিকে হটাৎ করে জেলাজুড়ে সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। অনেক যাত্রীরা বাসস্ট্যান্ডে এসে জানতে পারেন শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করছেন। সবধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকায় অনেক যাত্রী এম্বুলেন্স, অটোরিকশা এবং মোটরসাইকেল যোগে গন্তব্যে পৌঁছেছেন।

বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পলাশ গ্রামের রিনা বেগম তার তিন শিশুকে নিয়ে সুনামগঞ্জ শহরের বাসস্ট্যান্ডে এসেছিলেন সিলেটে যাওয়ার জন্য। বাস না পেয়ে চরম হতাশা ব্যক্ত করে তিনি বলেন, আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার জন্য ভোরে বাড়ি থেকে এসেছি। সুনামগঞ্জ এসে দেখি বাস চলাচল বন্ধ। আমার মেয়ের চিকিৎসা কিভাবে করবো।

সদর উপজেলার মঙ্গলকাটা এলাকার রফিক মিয়া বলেন, চট্টগ্রাম যাওয়ার জন্য সিলেটে রেলের টিকেট সংগ্রহ করে রেখেছিলাম কিন্তু সকালে বাসস্ট্যান্ডে এসে জানতে পারি ধর্মঘট চলছে।

সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক জানান, ৫ দফা দাবি নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে অনেক বার শ্রমিকরা বসেছেন কিন্তু কোনো সুরাহা হয়নি। তাই আজ সোমবার থেকে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন করা হচ্ছে।

সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. সেজাউল করিম বলেন, ৫ দফা দাবি আদায়ের জন্য আমরা কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করছি। আজ সোমবার সকাল থেকে প্রাইভেট যানবাহন ব্যতীত সব গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। শ্রমিকদের দাবি মানা না হলে অনির্দিষ্টকাল পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে।

সুনামগঞ্জ জেলা বাস মিনিবাস-মাইক্রোবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া বলেন, সিলেট পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে সুনামগঞ্জ জেলার সড়ক পরিবহন শ্রমিকরাও কর্মবিরতি পালন করছে। শ্রমিকরা গাড়ি চালাবেন না বলে জানিয়েছেন।


আরও খবর
চট্টগ্রামে পাট গুদামে ভয়াবহ আগুন

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১




পিছিয়ে গেল ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে আগামী ১৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকি। এশিয়ান হকির র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচ দল যথাক্রমে ভারত, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবে র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯ম স্থানে থাকা বাংলাদেশ।

এই আসরে ১৬ ডিসেম্বর ছিল ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের দিনে ঢাকায় ভারত-পাকিস্তানের হকি ম্যাচটি নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় সূচিতে বদল আনতে উদ্যোগী হয় বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। তাদের আবেদনে সাড়া দিয়েছে এশিয়ান হকি ফেডারেশন (এএইচএফ)। ফলে আগামী ১৬ ডিসেম্বরে হচ্ছে না ম্যাচটি। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি এক দিন পিছিয়ে হবে ১৭ ডিসেম্বরে।

ম্যাচটি পিছিয়ে দেওয়ার কারণ হিসেবে গণমাধ্যমে বিজয় দিবসের নিরাপত্তাজনিত কারণের কথা বলেছেন হকি ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ। তিনি বলেন, বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে অনেক দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ১৬ ডিসেম্বর ঢাকায় থাকবেন।

যে কারণে ভারত ও পাকিস্তানের মতো দুই দলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দেওয়া কঠিন। এ জন্যই আমরা ওই দিনের তিনটি ম্যাচ পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলাম। এশিয়ান হকি ফেডারেশন আমাদের আবেদনে সাড়া দিয়েছে। তবে সেদিনের ম্যাচ পেছালেও টুর্নামেন্টের বাকি ম্যাচগুলোর তারিখ ও সময় অপরিবর্তিত থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।


আরও খবর
মেসির সামনেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন এমবাপে

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১