আজঃ শনিবার ২২ জুন ২০২৪
শিরোনাম

এপ্রিলে ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন কমেছে ৫.১ শতাংশ

প্রকাশিত:শনিবার ২৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৮ মে ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বব্যাপী শিল্প ধাতু ইস্পাতের উৎপাদন কমেছে ৫ দশমিক ১ শতাংশ। এপ্রিলে ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন কমে দাঁড়ায় ১৬ কোটি ২৭ লাখ টন। একই সময়ে বিশ্বের শীর্ষ ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ চীনে শিল্প ধাতুটির উৎপাদন কমেছে ৫ দশমিক ২ শতাংশ। এপ্রিলে চীনের উৎপাদিত ইস্পাতের পরিমাণ দাঁড়ায় ৯ কোটি ২৮ লাখ টন। ওয়ার্ল্ড স্টিল অ্যাসোসিয়েশনের সম্প্রতি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ চিত্র দেখা যায়।

গত বছরের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম চার মাসে (জানুয়ারি-এপ্রিল) ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন কমে ৭ দশমিক ১ শতাংশ। উল্লিখিত সময়ে শিল্প ধাতুটির মোট বৈশ্বিক উৎপাদন দাঁড়ায় ৬১ কোটি ৯১ লাখ টন। গত মাসে শীর্ষ ইস্পাত উৎপাদনকারী ১০টি দেশের সাতটি দেশই নেতিবাচক চিত্র দেখেছে। এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ভারত, রাশিয়া ও তুরস্ক। এপ্রিলে ভারতে ইস্পাত উৎপাদনে সবচেয়ে বেশি ৬ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেখা যায়। এ সময়ে তুরস্কের ইস্পাত উৎপাদন বেড়েছে ১ দশমিক ৬ শতাংশ ও রাশিয়ার দশমিক ৬ শতাংশ। অন্যদিকে অন্য শীর্ষ দেশ ইরান শিল্প ধাতুটির উৎপাদনে সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক চিত্র দেখেছে। গত মাসে দেশটির ইস্পাত উৎপাদন কমে ২০ দশমিক ৭ শতাংশ।

চীনে নতুন করে কোভিড সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। ফলে ইস্পাতের চাহিদা ও দামে বেশ নেতিবাচক দৃশ্য দেখছে দেশটি। বছরের প্রথম চার মাসে চীনের ইস্পাত উৎপাদন কমেছে ১০ দশমিক ৩ শতাংশ। এ সময়ে দেশটিতে ইস্পাত উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৩ কোটি ৬২ লাখ টন। দ্বিতীয় বৃহত্তম ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ ভারতে শিল্প ধাতুটির অবস্থান বেশ ইতিবাচক দেখা গিয়েছে। বছরের প্রথম চার মাসে দেশটির ইস্পাত উৎপাদনের হার বেড়েছে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ। এ সময়ে মোট ৪ কোটি ২৩ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন করে ভারত। সম্প্রতি ইস্পাতের ওপর রফতানি শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত, যা দেশটির ইস্পাত উৎপাদনকে প্রভাবিত করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এপ্রিলে তৃতীয় বৃহত্তম ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ জাপানের উৎপাদনের হার কমেছে ৪ দশমিক ৪ শতাংশ। এ সময়ে দেশটির মোট উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৭৫ লাখ টন। বছরের প্রথম চার মাসে জাপানের ইস্পাত উৎপাদন কমেছে ৩ দশমিক ৩ শতাংশ। উল্লিখিত সময়ে দেশটির মোট উৎপাদিত ইস্পাতের পরিমাণ ছিল ৩ কোটি ৫ লাখ টন। এ সময়ে চতুর্থ শীর্ষ ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ যুক্তরাষ্ট্রের উৎপাদন হার কমে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ। এপ্রিলে দেশটির মোট উৎপাদিত ইস্পাতের পরিমাণ ৬৯ লাখ টন। বছরের প্রথম চার মাসে যুক্তরাষ্ট্রের মোট উৎপাদিত ইস্পাতের পরিমাণ দাঁড়ায় ২ কোটি ৭১ লাখ টন, যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ১ দশমিক ৭ শতাংশ কম। কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনা ও ইস্পাত শিল্পের আধুনিকায়নের উদ্যোগের ফলে দেশটিতে ইস্পাতের দাম কমে আসার সম্ভাবনা কম বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

পঞ্চম বৃহত্তম ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ রাশিয়া এপ্রিলে শিল্প ধাতুটির উৎপাদনে ক্ষুদ্র প্রবৃদ্ধি দেখেছে। এ সময়ে দেশটির উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৬৪ লাখ টন। তবে গত বছরের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম চার মাসে রাশিয়ার ইস্পাত উৎপাদন কমে দশমিক ৭ শতাংশ। ইউক্রেনে দেশটির সামরিক অভিযানের ফলে শিল্প খাতে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞায় এ শ্লথগতি দেখছে দেশটি। এ সময়ে অভ্যন্তরীণ ইস্পাতের ব্যবহারের পরিমাণও কমিয়ে এনেছে রাশিয়া। এপ্রিলে দক্ষিণ কোরিয়ার ইস্পাত উৎপাদনের পরিমাণ ৪ দশমিক ১ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ৫৫ লাখ টন। এ সময়ে সপ্তম বৃহত্তম উৎপাদনকারী জার্মানির ইস্পাত উৎপাদনের পরিমাণ ১ দশমিক ১ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ৩৩ লাখ টন। একই সময়ে তুরস্কের ইস্পাত উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৪ লাখ টন, ব্রাজিলের ২ দশমিক ৯ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ২৯ লাখ টন ও ইরানে এর পরিমাণ দাঁড়ায় ২২ লাখ টন।

নিউজ ট্যাগ: ইস্পাত

আরও খবর



জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে এলআইইউপিসি: আফরোজা কালাম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে এলআইইউপিসি গত পাঁচ বছরে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ গরীব পরিবারকে স্বাস্থ্য সম্মত পরিবেশে বসবাসের সুযোগ করে দিয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউ হলে এলআইইউপিসি প্রকল্পের উদ্যোগে অভিজ্ঞতা বিনিময় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আফরোজা কালাম একথা বলেন।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুল আমিন এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছালেহ্ আহমদ চৌধুরী, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা মঈনুল হোসেন আলী (জয়)। বক্তব্য রাখেন- ডিপিএইচই এর সিনিয়র অফিসার ইঞ্জিনিয়ার মো. গোলাম মোরশেদ, কারিতাস চট্টগ্রামের প্রকল্প সমন্বয়ক অজয় ব্রায়েন এন্থনি, কমিউনিটি ডেভেলাপমেন্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি কৌহিনুর আক্তার, কমিউনিটি হাউজিং ডেভেলাপমেন্ট ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক নিলুফার আক্তার ও ক্লাষ্টার লিডার নুর আক্তার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এলআইইউপিসির টাউন ম্যানেজার মোহাম্মদ সারোয়ার হোসেন খান।

ভারপ্রাপ্ত মেয়র বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সহযোগিতায় নগরীর ২২টি ওয়ার্ডে পাঁচ লক্ষ জনগনের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে এলআইইউপিসি। বিশেষ করে দরিদ্র নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ৪০ হাজার পরিবারকে বিভিন্ন ধরণের অনুদান প্রদান করা হয়ছে। এর মধ্যদিয়ে গরীব মানুষ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হয়েছে এবং আমি মনে করি প্রকল্পের এ ধরনের কার্যক্রম মানুষকে দরিদ্র অবস্থা থেকে বের করে আনতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। ইতোমধ্যে তারা স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশ গড়ার লক্ষ্যে দরিদ্র বসতি এলাকায় রাস্তা, ড্রেন, ফুটপাত, লেট্রিন, গোলসখানা, ডিপ টিউবওয়েল, সড়কবাতিসহ  অবকাঠামো এবং পরীক্ষামূলকভাবে একটি পানি শোধণ ব্যবস্থা নির্মাণ করেছে। ভারপ্রাপ্ত মেয়র প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধিসহ নগরীর অন্যান্য ওয়ার্ডকে প্রকল্পে অন্তর্ভূক্ত করার পরামর্শ দেন।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর



দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৮ কর্মী-সমর্থকের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
পটুয়াখালী প্রতিনিধি

Image

পটুয়াখালীর দুমকিতে নির্বাচনি প্রচারণায় বাধা, উত্তেজনা ও গোলযোগ সৃষ্টির অভিযোগে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর ৮ সমর্থকের প্রত্যেককে ৭ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নির্বাচনে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউল হাসান রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাদের এ কারাদণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন, সাতানী গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো. শহীদুল ইসলাম (২০), বাহেরচর গ্রামের বজলুর রহমান মাঝির ছেলে সোহাগ (২৪), একই গ্রামের ইউসুব সিকদারের ছেলে রাকিব শিকদার (২২), আইয়ুব আলী মোল্লার ছেলে রিয়াজ মোল্লা (২২), দুমকি গ্রামের আবুল কালামের ছেলে সাইদুল হক (২৫), সাতানী গ্রামের হাবিব হাং-এর ছেলে ইমরান হাওলাদার (২৫), দুমকি গ্রামের আ. লতিফ মৃধার ছেলে হাবিবুর রহমান খোকন (৪৩) ও ঝাটরা গ্রামের মান্নান খানের ছেলে সায়েম খান (৩৪)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের রূপাশিয়া গ্রামের তালুকদার পাড়ায় জনৈক এসএম ফজলুল হকের অসুস্থ শ্বশুরকে দেখতে যান কাপ-পিরিচ মার্কার চেয়াম্যান প্রার্থী কাওসার আমীন হাওলাদার। খবর পেয়ে মোটরসাইকেল মার্কার শতাধিক কর্মী-সমর্থক ওই বাড়ির সামনে অবস্থান নিয়ে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নানা উসকানিমূলক স্লোগান দেয়। এতে দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা দেখা দেয়।

অবস্থা বেগতিক দেখে চেয়ারম্যান প্রার্থী কাওসার আমীন হাওলাদার ওই বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে দুপক্ষের উত্তেজিত কর্মী-সমর্থকদের সাথে হাতাহাতি, ধাক্কাধাক্কি হয়। এসময় নির্বাচনে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউল হাসান ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুপক্ষের অন্তত ১১ জনকে আটক করে। পরে রাত সাড়ে ১১টায় ইউএনও কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচার বসিয়ে নির্বাচনি প্রচারণায় বাধা প্রদান, গোলযোগ ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির দায়ে ৮ জনের প্রত্যেককে ৭ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

এ ছাড়া অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় ৩ কিশোর নয়ন গাজী (১৪), শাহাদত মৃধা (১৫) ও জায়েদ মৃধাকে (১৪) মুচলেকায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। দণ্ডাদেশপ্রাপ্তদের তিনজন কাপ-পিরিচ ও পাঁচজন মোটরসাইকেল প্রতীকের কর্মী-সমর্থক বলে জানা গেছে।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সফিউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



কনসার্টের টাকায় ৩ হাজার শিশুর অস্ত্রোপচার করিয়েছেন পলক মুচ্ছাল

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বাংলা ও হিন্দি ছাড়াও তেলেগু, কন্নড়, তামিল, গুজরাটি, মারাঠি, পাঞ্জাবি, ভোজপুরি ও উর্দুসহ বিভিন্ন ভাষায় গান গেয়ে দর্শকহৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ভারতীয় সংগীতশিল্পী পলক মুচ্ছাল। বিভিন্ন প্রোগ্রামে তার উপস্থিতির কথা ছড়িয়ে পড়তেই ভিড় বাড়ে দর্শক-শ্রোতাদের। আর কনসার্ট থেকে প্রাপ্ত পারিশ্রমিকের অর্থ কোথায় খরচ করেন, এ প্রশ্ন করলে সবাই হয়তো বলবেন ব্যক্তি কিংবা পারিবারিক খাতে খরচ করেন। কিন্তু অবাক করার বিষয় হচ্ছে, সমাজসেবামূলক কাজে সেই অর্থ ব্যয় করেন এ গায়িকা।

সেভিং লিটল হার্টস নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা রয়েছে গায়িকা পলক মুচ্ছালের। বিভিন্ন অনুষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত অর্থ সেই সংস্থায় দেন তিনি। সংস্থা থেকে হৃদরোগে আক্রান্ত শিশুদের অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা করা হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, মঙ্গলবার (১১ জুন) জীবনের বিশেষ একটি দিন ছিল গায়িকা পলকের। বিশেষ দিনটিতে সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে আট বছর বয়সী অলক সাহুকে নিয়ে একটি পোস্ট দেন তিনি। জানান, শিশুটি হৃদরোগে আক্রান্ত। তার সফল অস্ত্রোপচার করা হয়। আর অস্ত্রোপচারের সময় বরাবরের মতো অপারেশন থিয়েটারে হাজির ছিলেন পলক মুচ্ছাল।

এ গায়িকা জানান, শিশু অলকের হৃদরোগের অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে একটি মাইলফলক অর্জন হলো। এ নিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত মোট তিন হাজার শিশুর অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।

পলক মুচ্ছাল বলেন, মিশনটি যখন শুরু করি ওই সময় উদ্যোগটা খুবই ছোট ছিল। তবে এখন সেটি আমার জীবনের বড় মিশন হয়ে গেছে। এখন অস্ত্রোপচারের জন্য ৪১৩ জন শিশু অপেক্ষায় আছেন। যাদের পরিবার চিকিৎসার খরচ বহন করতে পারে না, তাদের জন্যই আমার এই উদ্যোগ। আমি এটাকে আমার দায়িত্ব বলে মনে করি। সত্যিই আমি খুশি যে, ঈশ্বর এ কাজের জন্য মাধ্যম হিসেবে আমাকে বেছে নিয়েছেন।

একাধিক ভাষায় গান করা এ গায়িকা জানান, বিভিন্ন কনসার্টে পারফর্ম করে যে অর্থ পান, তা নিজের জন্য খরচ করেন না তিনি। প্রাপ্ত অর্থের প্রায় পুরোটাই এসব শিশুদের চিকিৎসায় ব্যয় করা হয়। পলক মুচ্ছাল বলেন, আমার প্রতিটি কনসার্ট হৃদরোগ আক্রান্ত শিশুদের অস্ত্রোপচারের জন্য। আমার কাছে যখন প্লে-ব্যাকের কোনো কাজ ছিল না, ওই সময়ও আমি তিন ঘণ্টা গান করেছি। যা শুধুই এসব শিশুদের অর্থ সংগ্রহের জন্য।

এ গায়িকা বলেন, আমার গানগুলো যত জনপ্রিয় হতে থাকে, ততটাই পারিশ্রমিক বাড়তে থাকে। এখন প্রতিটি কনসার্ট থেকে যে অর্থ আসে, তা দিয়ে ১৩-১৪টি শিশুর অস্ত্রোপচার সম্ভব। আর এই গানকে আমি সমাজের পরিবর্তনের মাধ্যম হিসেবে দেখে আসছি সবসময়।


আরও খবর



সোনার দাম ভরিতে বাড়ল ১০৭৩ টাকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

কয়েক দফা কমার পর এবার দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস)। সবচেয়ে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের এক ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম এক হাজার ৭৩ টাকা বাড়িয়ে নতুন মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে এক লাখ ১৬ হাজার ৯৫৫ টাকা। এতদিন যা ছিল ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৮২ টাকা।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্থানীয় বাজারে তেজাবী সোনার দাম বেড়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সোনার নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। যা আগামীকাল বুধবার (১২ জুন) থেকে কার্যকর হবে।

নতুন দাম অনুযায়ী, সবচেয়ে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সোনা এক লাখ ১৬ হাজার ৯৫৫ টাকা, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম এক লাখ ১১ হাজার ৬৩৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের ৯৫ হাজার ৬৯১ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ৭৯ হাজার ১১৭ টাকায় বিক্রি করা হবে।

সোনার দাম বাড়ানো হ‌লেও অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে রূপার দাম। ক্যাটাগরি অনুযায়ী বর্তমানে ২২ ক্যারেটে প্রতি ভরি রুপার দাম দুই হাজার ১০০ টাকা, ২১ ক্যারেটের দাম দুই হাজার ৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের দাম এক হাজার ৭১৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম এক হাজার ২৮৩ টাকা।

আজ (মঙ্গলবার) ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সোনা বিক্রি হয়েছে এক লাখ ১৫ হাজার ৮৮২ টাকায়। এ ছাড়া ২১ ক্যারেটের সোনার ভরি এক লাখ ১০ হাজার ৬১০ টাকা, ১৮ ক্যারেটের ৯৪ হাজার ৮১৭ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা ৭৮ হাজার ৩৮২ টাকায় বিক্রি হয়েছে।


আরও খবর



অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও ফাঁস, বিপাকে জনপ্রিয় অভিনেত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ভারতের কন্নড় টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতি রাই। টিভি ধারাবাহিক গুপেদন্ত মনসুতে জগাথি ম্যাডামের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকমহলে বেশ আলোচিত ও প্রশংসিত তিনি। আর সম্প্রতি এই অভিনেত্রীর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের কিছু ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা এখন ভাইরাল। এ ঘটনায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন দক্ষিণী এই অভিনেত্রী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনের খবর, অজ্ঞাত এক ব্যক্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী জ্যোতির ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিওগুলো ছড়িয়ে দিয়েছেন। যা এখন নেটিজেন ও তারকাদের কাছে উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

জানা গেছে, অজ্ঞাত এক ব্যক্তি এক্স (সাবেক টুইটার) হ্যান্ডেলে এক টুইটবার্তায় অভিনেত্রী জ্যোতিকে তার ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও ফাঁসের হুমকি দেন। শর্ত ছিল, ওই ব্যক্তির ইউটিউব চ্যানেলে এক হাজার সাবস্ক্রাইবার করে দিতে হবে। বিষয়টি নেটিজেনদের নজরে আসলে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয় অভিনেত্রীকে।

তবে এরই মধ্যে ওই অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত কিছু ছবি ও ভিডিও হোয়াটসঅ্যাপের মতো ম্যাসেজিং প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় পুলিশের দ্বারস্থও হয়েছেন অভিনেত্রী জ্যোতি। গোপনীয়তা লঙ্ঘন ও মানহানির ভয়ে বেঙ্গালুরু সাইবার ক্রাইম ইউনিটে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। জ্যোতি রাই বলেন, আমি বার্তাগুলো পেয়ে আতঙ্ক হয়েছি এবং আইনশৃঙ্লা বাহিনীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছি, অপরাধীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হোক এবং যাতে আমার ও আমার পরিবারের সুনাম যথাযথ থাকে।

এদিকে তার ভক্ত ও নেটিজেনরা বলছেন, অভিনেত্রী জ্যেতি ডিপফেকের শিকার হয়েছেন। একইসঙ্গে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনার দাবিও জানিয়েছেন তারা।

প্রসঙ্গত, পর্দায় বোল্ড লুকে ধরা দেয়ার জন্য ফ্যাশন আইকন হিসেবেও পরিচিত অভিনেত্রী জ্যেতি। বন্দে বারতাভা কালাসহ ২০টিরও বেশি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন তিনি। এছাড়া সীতারাম কল্যাণ, গন্ধদা গুড়ি, ৯৯দিয়া বর্ণপাতালার মতো কন্নড় সিনেমায়ও দেখা গেছে এ অভিনেত্রীকে।

নিউজ ট্যাগ: জ্যোতি রাই

আরও খবর