আজঃ শনিবার ২০ এপ্রিল ২০24
শিরোনাম

এসআই পদে নিয়োগের লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৬ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই নিরস্ত্র) পদে নিয়োগের জন্য লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষার তারিখ ও সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে গত ১৩ মার্চ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এসআই পদের লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষা ২২ থেকে ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। ১০০ নম্বরের ইংরেজি এবং বাংলা রচনা ও কম্পোজিশন লিখিত পরীক্ষা ২২ মার্চ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ১০০ নম্বরের সাধারণ জ্ঞান ও গণিত লিখিত পরীক্ষা ২৩ মার্চ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এবং ৫০ নম্বরের মনস্তত্ত্ব পরীক্ষা ২৩ মার্চ বেলা ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। এসব পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট রেঞ্জের অধীন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সংশ্লিষ্ট রেঞ্জের অধীন নির্দিষ্ট পরীক্ষাকেন্দ্র ও বিস্তারিত তথ্য যথাসময়ে টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক প্রার্থীর আবেদনে উল্লেখ করা মোবাইল নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হবে।

বাংলাদেশ পুলিশে উপপরিদর্শক (এসআই-নিরস্ত্র) পদে আবেদনের শেষ সময় ছিল গত ২২ ফেব্রুয়ারি। আবেদনকারী প্রার্থীদের মধ্য থেকে প্রিলিমিনারি স্ক্রিনিং ও শারীরিক মাপ ও সহনশীলতা পরীক্ষা নেওয়া হয়। শারীরিক মাপ ও সহনশীলতা পরীক্ষায় সাতটি ইভেন্টে অংশ নিতে হয়েছিল প্রার্থীদের।

ইভেন্টগুলো হলো দৌড়, লংজাম্প, হাইজাম্প, পুশআপ, সিটআপ, ড্র্যাগিং ও রোপ ক্লাইম্বিং। এ ধাপে মোট তিন দিন প্রার্থীর যোগ্যতা যাচাই করা হয়। শারীরিক মাপ ও সহনশীলতা পরীক্ষায় যাঁরা উত্তীর্ণ হয়েছেন, তাঁরাই এখন লিখিত ও মনস্তত্ত্ব পরীক্ষায় বসবেন।


আরও খবর



রুমার পর এবার থানচিতে সোনালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টা

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বান্দরবান প্রতিনিধি

Image

বান্দরবানের রুমায় ভল্ট থেকে এক কোটি ৫৯ লাখ টাকা লুটের পর এবার থানচি সোনালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে থানচি বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাহাড়ের একদল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী দুপুর ১টার দিকে এসে থানচি বাজারের সোনালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টা করে। বিষয়টি নিরাপত্তারক্ষী ও পুলিশের নজরে এলে তারা প্রতিহতে এগিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

বান্দারবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রায়হান আল কাদেরি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন>> এখনো উদ্ধার করা যায়নি সোনালী ব্যাংক ম্যানেজারকে

তিনি বলেন, একদল অস্ত্রধারী হামলা চালিয়েছে। তবে এটা ডাকাতির উদ্দেশ্যে হামলা কিনা সেটা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে পুলিশ ও নিরাপত্তারক্ষীদের লক্ষ্য করে গুলি করেছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বান্দরবানের রুমায় সোনালী ব্যাংকে ডাকাতি করে ভল্ট থেকে ১ কোটি ৫৯ লাখ টাকা লুট করে সন্ত্রাসীরা। এ সময় ব্যাংকের ম্যানেজার ও নিরাপত্তায় থাকা ১০ পুলিশ সদস্য ও ৪ আনসার সদস্যের অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পাহাড়ের সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ কুকিচিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) শতাধিক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী রাত সাড়ে ৮টার দিকে এসে বাজারের মসজিদ ও ব্যাংক ঘেরাও করে সবাইকে জিম্মি করে রাখে। এ সময় তারা সোনালী ব্যাংকের ভল্ট থেকে এক কোটি ৫৯ লাখ টাকাসহ ডিউটি পুলিশের ১০টি অস্ত্র ও আনসার বাহিনীর ৪টি অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তারা চলে যাওয়ার সময় রুমা সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজারকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় রুমা উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ওসি) দিদারুল জানান, কেএনএফের শতাধিক সদস্য এসে বাজারের মসজিদ ও ব্যাংক ঘেরাও করে ব্যাংক লুট করে এবং পুলিশ ও আনসার সদস্যদের ১৪টি অস্ত্র লুট করে। এসময় সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজারকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।


আরও খবর



শ্রমিক বিক্ষোভ: ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় রণক্ষেত্র মোংলা ইপিজেড

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আবু বকর সিদ্দিক, মোংলা প্রতিনিধি

Image

ঈদের আগে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে মোংলা ইপিজেড। কারখানার প্রধান ফটক বন্ধ করে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ গেলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ভাঙচুর ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে; রণক্ষেত্রে পরিণত হয় ইপিজেড এলাকা।

সোমবার (২৫ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মোংলা ইপিজেডের প্রধান ফটকে এ ঘটনা ঘটে। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে অবস্থান নেয়া শ্রমিকদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। এ সময় দুই শ্রমিক আহত হয়।

শ্রমিকরা জানান, মোংলা ইপিজেডে দেশি-বিদেশি প্রায় ৩৪টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার মধ্যে ৯টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে ভিআইপির। সেই কোম্পানির কয়েকটি কারখানা থেকে আজ সকালের শিফটে প্রায় দুই হাজার শ্রমিকের কাছ থেকে কাগজে স্বাক্ষর নেয়া হয়। কিছুক্ষণ পর কিছু বুঝে ওঠার আগেই পূর্ব ঘোষণা ছাড়া তাদের কারখানা থেকে চলে যেতে বলেন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা।

ভিআইপি কর্তৃপক্ষ বলেন, একে একে ছাটাই করা শ্রমিকরা ইপিজেডের সামনে জড়ো হন এবং ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রধান গেট বন্ধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মূলগেটে অবস্থান নেয়া শ্রমিকদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় শ্রমিকরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। এ সময় দুই শ্রমিক আহত হয়েছেন।

শ্রমিকদের দাবি, পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই তাদের ছাটাই করে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন শ্রমিকরা।

এ নিয়ে ভিআইপি কর্তৃপক্ষ জানায়, রফতানি পণ্যের চাহিদা কমে যাওয়ায় কিছু শ্রমিককে ছাটাই করা হয়েছে। তবে তাদের আগাম এক মাসের বেতন, ঈদ বোনাস ও তাদের সব পাওনা বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

অহেতুক কিছু শ্রমিক প্রতিষ্ঠানের সুনাম নষ্ট করার জন্য বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে পরিস্থিতি ঘোলাটে করেছে। এ সময় অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার স্বার্থে জেলা থেকে ৬ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করেছে ইপিজেড কর্তৃপক্ষ।

এ দিকে শ্রমিকদের দাবি, রমজান মাস চলছে, এ ছাড়া সামনে পবিত্র ঈদ। এই মুহূর্তে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ছাটাই করলে আমাদের পরিবার পরিজন নিয়ে না খেয়ে থাকতে হবে। গত বছরও একই সময় অহেতুক প্রায় দেড় হাজার শ্রমিক ছাটাই করেছিল এই ভিআইপি নামের প্রতিষ্ঠানটি।

এ বিষয়ে মোংলা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মুশফিকুর রহমান তুষার জানান, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে, সমঝোতার জন্য মালিক পক্ষের সঙ্গে আলোচনা চলছিল, কিন্তু কিছু শ্রমিক উত্তেজিত হয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করে তুলে। এ সময় পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয় এবং সবাইকে শান্ত হয়ে বাড়ি চলে যেতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



জনপ্রকাশ্যে ইউপি সদস্যকে গুলি, পরে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নরসিংদী প্রতিনিধি

Image

নরসিংদীতে প্রকাশ্য দিবালোকে রুবেল আহম্মেদ নামে এক ইউপি সদস্যকে গুলি করার পর গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ২টার দিকে নরসিংদীর আমদিয়া ইউনিয়নের পাকুড়িয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত রুবেল আহম্মেদ ওরফে বডি রুবেল আমদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আজ দুপুরে রুবেল আহম্মেদ পাকুড়িয়া বাজারে আসেন। কাজ শেষে পৌনে ২টার দিকে মোটরসাইকেলে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় প্রাইভেটকারযোগে আসা একদল দুর্বৃত্ত তাকে লক্ষ্য করে পরপর ছয় রাউন্ড গুলি করে। গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর রুবেল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার শরীরের ওপর বসে গলা কেটে মৃত্যু নিশ্চিত করে চলে যায়।

মাধবদী থানা পুলিশের এসআই ফজলে রাব্বি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ইউপি সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে পুলিশ তদন্ত করছে।

নরসিংদীর গোয়েন্দা পুলিশের একটি সূত্রের ধারণা, ইউপি নির্বাচনের সময় তৈরি হওয়া শত্রুতার জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

জানা গেছে, সবশেষ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে রুবেল আহাম্মেদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ইমরুল নামে এক প্রার্থী। ওই সময় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে একাধিকবার হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। ওই নির্বাচনে কেন্দ্রে প্রভাব খাটিয়ে রুবেল বিজয়ী হন। এ নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ইমরুলের সঙ্গে দ্বন্দ্ব আরও ঘনীভূত হয়।


আরও খবর



স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগে গৃহবধূ আটক

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৩ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
পটুয়াখালী প্রতিনিধি

Image

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগে গৃহবধূকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৩ মার্চ) দশমিনা সদর ইউনিয়নের পূজাখোলা এলাকা থেকে ওই গৃহবধূকে আটক করে। এর আগে শুক্রবার গভীর রাতে এ অঙ্গহানির ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই দম্পতি পূজাখোলা এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন। শুক্রবার গভীর রাতে পারিবারিক কলহের জেরে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এসময় ওই গৃহবধূ (৪০) ছুরি দিয়ে তার স্বামীর (৩৫) ডান পায়ের বিভিন্ন স্থান ও পুরুষাঙ্গ কেটে দেন। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা আহত স্বামীকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

দশমিনা থানার ওসি নুরুল ইসলাম মজুমদার জানান, আলামতসহ অভিযুক্ত গৃহবধূকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি।


আরও খবর



গোপন বিয়ে’র গুজব উড়িয়ে চমক দিলেন অদিতি-সিদ্ধার্থ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

অদিতি রাও হায়দরি ও সিদ্ধার্থের বিয়ে নিয়ে গুজব ছড়াতেই ময়দানে নামলেন যুগল। এবার নতুন তথ্য প্রকাশ্যে আনলেন তারা। বুধবার থেকে বলিউড সরগরম। খবর ছড়ায়, অভিনেত্রী অদিতি রাও হায়দরি এবং সিদ্ধার্থ নাকি গোপনে বিয়ে সেরেছেন। তেলঙ্গানার রঙ্গনয়কস্বামী মন্দিরে নাকি বিয়ে সেরেছেন যুগল। বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) অন্য খবর জানালেন এই যুগল। সমাজমাধ্যমে ছবি পোস্ট করে তারা তাদের বাগ্‌দানের খবর প্রকাশ্যে এনেছেন।

বৃহস্পতিবার সমাজমাধ্যমে সিদ্ধার্থের সঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করেন অদিতি। সেই ছবিতে যুগলের আঙুলে বাগ্‌দানের আংটি স্পষ্ট। ছবির সঙ্গে অদিতি লেখেন, ও সম্মতি দিল। আমাদের বাগ্‌দান সম্পন্ন হয়েছে।’ এই ভাবেই বিয়ের গুজব উড়িয়ে দিয়েছেন তারা। ২০২১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত দক্ষিণী ছবি মহা সমুদ্রম’-এর সেটে আলাপ অদিতি ও সিদ্ধার্থের। ছবির সেট থেকেই তাদের বন্ধুত্ব, তারপর প্রেম। সমাজমাধ্যমে আদুরে ছবি ও ভিডিও পোস্ট করলেও নিজেদের সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেননি দু’জনের কেউই।

বাগ্‌দান সম্পন্ন হতেই সিদ্ধার্থ এবং অদিতির বিয়ে নিয়ে কৌতূহল দানা বেঁধেছে। কিন্তু বিয়ের তারিখ নিয়ে এখনও কোনও তথ্য প্রকাশ করেননি এই যুগল।

প্রসঙ্গত, ২০০৩ সালে ছোটবেলার বান্ধবী মেঘনাকে বিয়ে করেছিলেন সিদ্ধার্থ। দীর্ঘস্থায়ী হয়নি সেই বিয়ে। তিন বছরের মধ্যেই ভাঙে সম্পর্কে। ২০০৭ সালে আইনত বিবাহবিচ্ছেদ হয় সিদ্ধার্থের। অদিতির গল্পটাও খানিকটা একই রকমের। মাত্র ২১ বছরেই উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিক সত্যদীপ মিশ্রের সঙ্গে বিয়ে হয় অদিতির। তবে চার বছর পর বিয়ে ভাঙে নায়িকারও। ২০১৩ সালে আলাদা হন দু’জনে। এ বার সিদ্ধার্থ-অদিতির বিয়ের অপেক্ষা।


আরও খবর