আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন যেভাবে হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | ১০৫৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হলে আগের পরীক্ষার সাবজেক্ট ম্যাপিং ও অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে ফলাফল দেওয়া হবে। 

যেভাবে হবে মূল্যায়ন:

এসএসসিতে ২৪টি ও এইচএসসিতে নৈর্বচনিক বিষয়ে মোট ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে শিক্ষার্থীদের। বাংলা, ইংরেজি, গণিত এমন আবশ্যিক বিষয় ও চতুর্থ বিষয়গুলোর ওপর পরীক্ষার্থীদের কোনো অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে না।

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ১২ সপ্তাহে ২৪টি অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হবে। তারা প্রতি সপ্তাহে দুটি করে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেবে। এইচএসসির পরীক্ষার্থীদের জন্য ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হবে। প্রতিটি পত্রে ৫টি করে অ্যাসাইনমেন্ট দেবে। সপ্তাহে এসব শিক্ষার্থীরা দুটি অ্যাসাইনমেন্ট করবেন। এরফলে আগে যে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস দেওয়া হয়েছিলো এর মাধ্যমে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম শেষ করা হবে। তবে অতিরিক্ত বিষয়ে কোনো অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হবে না।

মন্ত্রী বলেন, এবারও গতবছরের মত সাবজেক্ট ম্যাপিং করা হবে। যেসব শিক্ষার্থীর পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান ও উচ্চতর গণিত আছে তাদেরকে এসব বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে। যারা এসএসসি পরীক্ষা দেবে তাদের সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের ক্ষেত্রে জেএসসি বিজ্ঞান বিষয়গুলোর সঙ্গে এসএসসির অন্যান বিষয়ভিত্তিক বিজ্ঞান বিষয়গুলো বিবেচনায় রাখা হবে। বাণিজ‌্য ও মানবিকের বিষয়গুলোও কীভাবে মূল্যায়ন হবে সেটার বিস্তারিত স্কুলগুলোতে নির্দেশনা পাঠানো হবে।

অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মতোই তাদেরকে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে। এক্ষেত্রে দৈবচয়ন পদ্ধতিতে তাদেরকে মূল্যায়ন করা হবে।


আরও খবর



গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ১৮৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট প্রাণহানীর সংখ্যা ১৭ হাজার ৪৬৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১২ হাজার ১৪৮ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৮৩ হাজার ৯২২ জনে।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। গতকাল দেশে মৃত্যু হয়েছিল ২২৬ জনের এবং শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১২ হাজার ২৩৬ জন।

চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১১২ জনের। সে পর্যন্ত এটি ছিল দেশের সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। গত ২৫ জুন ২৪ ঘণ্টায় ১০৮ জনের মৃত্যু হয়ে দ্বিতীয় মৃত্যুর রেকর্ড হয়। ২৭ জুন ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয় ১১৯ জনের, ২৮ জুন ১০৪ জন, ২৯ জুন ১১২ জন, ৩০ জুন ১১৫ জন, ১ জুলাই ১৪৩ জন, ২ জুলাই ১৩২ জন, ৩ জুলাই ১৩৪ জন, ৪ জুলাই ১৫৩ জন, ৫ জুলাই ১৬৪ জন, ৬ জুলাই ১৬৩ জন, ৭ জুলাই ২০১ জন, ৮ জুলাই ১৯৯ জন, ০৯ জুলাই ২১২, ১০ জুলাই ১৮৫ জন, ১১ জুলাই ২৩০ জন, ১২ জুলাই ২২০ জন এবং ১৩ জুলাই ২০৩ জন এবং ১৪ জুলাই ২১০ জনের মৃত্যুর তথ্য জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।



আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ায় করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে সাত জনের করোনা পজিটিভ এবং চার জনের করোনার উপসর্গ ছিল বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. মেজবাউল আলম।

মো. মেজবাউল আলম জানান, বর্তমানে হাসপাতালে ২১৮ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী এবং ৬৭ জন উপসর্গ নিয়ে মোট ২৮৫ জন ভর্তি রয়েছে।

এদিকে, পিসিআর ল্যাব ও জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ২৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৪২ শতাংশ।


আরও খবর



ভূমধ্যসাগর থেকে বাংলাদেশিসহ ৩৯৪ অভিবাসী উদ্ধার

প্রকাশিত:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভূমধ্যসাগর থেকে বাংলাদেশিসহ ৩৯৪ জন অভিবাসীপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার রাতে প্রায় ছয় ঘণ্টার অভিযানে কাঠের নৌকা থেকে জার্মানি এবং ফ্রান্সের দুটি দাতব্য উদ্ধারকারী জাহাজ তাদের উদ্ধার করে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, উদ্ধারকৃতদের অধিকাংশই বাংলাদেশ, মরক্কো, মিসর এবং সিরিয়ার নাগরিক। তবে কাঠের ওই নৌকায় ঠিক কতজন ছিলো তা জানা যায়নি।

জার্মানি এবং ফ্রান্সের বেসরকারি সংস্থা সি-ওয়াচ ৩ এবং ওসান ভাইকিংয়ের উদ্ধারকারী জাহাজ উত্তর আফ্রিকার উপকূল থেকে ৬৮ কিলোমিটার দূরে তিউনিশিয়ার জলসীমার ভেতরে তেল স্থাপনা এবং অন্যান্য জাহাজের কাছ থেকে সাগরে ভাসতে থাকা অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার করেছে।

সি-ওয়াচ ৩ ভূমধ্যসাগরে রবিবার রাতের ওই অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছে। জার্মানির এই অলাভজনক সংস্থা মোট ১৪১ জনকে উদ্ধার করেছে। বাকি অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার করেছে ওসান ভাইকিংস। রাতের এই উদ্ধার অভিযানে জার্মানির আরেক এনজিও রেসকিউ শিপের ইয়াট নাদির সহায়তা করেছে।

তবে সাগরে ভাসতে থাকা অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে কারও মৃত্যু অথবা কেউ আহত হয়েছেন কি-না তা এখনও জানা যায়নি। নৌকাটির পাটাতন এবং বাহিরে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ব্যাপক ভিড় ছিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, নৌকাটি সাগরে যাত্রা শুরুর পরপরই এর ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়।

আবহাওয়া পরিস্থিতির উন্নতি ঘটায় সম্প্রতি লিবিয়া এবং তিউনিশিয়া থেকে ইতালি এবং ইউরোপের বিভিন্ন অঞ্চলে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের পাড়ি দেওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এই অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ভূমধ্যসাগরে ছোট ছোট নৌকায় চেপে প্রায়ই ইউরোপের উদ্দেশ্যে তাদের যাত্রা শুরু করেন।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা বলেছে, চলতি বছরে আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্য থেকে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টার সময় ভূমধ্যসাগরে ডুবে মারা গেছেন এক হাজার ১০০ জনের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, রবিবার ভূমধ্যসাগর থেকে যেসব অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হয়েছে, তাদের অনেকেই নৌকা থেকে লাফিয়ে পড়ে সি-ওয়াচ ৩ এর নৌকায় ওঠার চেষ্টা করেছেন।


আরও খবর



প্রবাসীদের টিকার জন্য বিশেষ নিবন্ধন শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | ১৩৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সৌদি আরব ও কুয়েতগামী কর্মীদের করোনা টিকার জন্য বিশেষ নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সোমবার (৫ জুলাই) বিকালে বিদেশগামী কর্মীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা টিকা প্রদান বিষয়ে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ এর উদ্বোধন করেন।

ব্রিফিংয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইমরান আহমদ বলেন, সমস্যা শুরু হয়েছে মে মাসে। আমরা যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আর যৌথ নেতৃত্বের সুবিধা হলো অল্প সময়ের মধ্যে সুরক্ষা অ্যাপে পরিবর্তন করতে পেরেছি। প্রবাসী ভাইদের সমস্যার শেষ নেই। তবে আমাদের মন্ত্রণালয় তাদের সমস্যা সমাধাণের জন্য ২৪ ঘন্টা দাঁড়িয়ে রয়েছে। ভ্যাক্সিন নেওয়ার জন্য বিশেষ রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চালু করতে যাচ্ছি। সৌদি ও কুয়েতগামী কর্মীদের ভ্যাক্সিন নিতে যে জট লেগেছে, তা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই নিরসন করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আইসিটি, প্রবাসী কল্যাণ ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে যৌথভাবে কাজ করছে। কোনো সমস্যা হলে আমরা সমাধান করবো। আপনারা (প্রবাসী কর্মী) শান্তিতে বিদেশ যেতে পারবেন। বিশেষ রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করছি। পর্যায়ক্রমে সব প্রবাসী কর্মীরা ভ্যাক্সিন পাবেন।

বিশেষ অতিথি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ২০ লাখ মানুষের কাছে ৩৩৩ কল সেন্টারের মাধ্যমে খাদ্য পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। করোনাকালীন সময়ে অর্থনীতির চাকা বেগবান রেখেছেন এক কোটির বেশি প্রবাসী ভাই বোনেরা। ২২ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আসছে এই প্রবাসীদের হাত ধরে। আর তাদের বিদেশ যাওয়ার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা সমাধানের চষ্টো করছি। বিদেশগামী কর্মীদের বিশেষ রেজিস্ট্রেশন আজ (সোমবার) থেকেই শুরু হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের সুরক্ষা প্লাটফর্মটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সুনাম অর্জন করেছে। যদি কোনো ত্রুটি থাকে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে আমরা তা সমাধানের চষ্টো করবো। আমাদের সরকারের মূল লক্ষ্য হচ্ছে জনগণের সেবা করা।

আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মনিরুল সালেহীন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমসহ সংশি্লষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিরা ভার্চুয়াল এ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন। ব্রিফিংয়ে সুরক্ষা টিমের মো. হারুন অর রশিদ সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন (পাসপোর্ট)' অপশনে গিয়ে কিভাবে বিদেশগামী কর্মীরা নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন তা দেখান।


আরও খবর



ঈদের জন্য ৮ দিন ‌‘বিধি-নিষেধ’ শিথিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১ | ১৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে ১৪ জুলাই মধ্য রাত থেকে চলমান লকডাউন শিথিল করা হবে। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা পর্যন্ত সকল বিধি নিষেধ শিথিল করা হলো।

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ১ জুলাই থেকে সাতদিনের জন্য সারাদেশে কঠোর বিধি-নিষেধ জারি করে সরকার। এরপর এ বিধি নিষেধ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। এর মধ্যে রবিবার (১১ জুলাই) মুসলমানদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহার চাঁদ দেখা যাওয়ায় লকডাউন শিথিলের বিষয়টি সামনে আসে।

এরপরই সরকার সাধারণ মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে ঈদ পালন করতে পারে সেজন্য লকডাউন শিথিল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। সেই সিদ্ধান্তের আলোকে ১৫ জুলাই থেকে আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত সকল ধরণের যানবাহন চলাচলসহ শপিংমল ও দোকানপাট খুলে দিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর