আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

ফাইনালের হাতছানি নিয়ে মাঠে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ বনাম নেপালের ম্যাচটি অলিখিত ফাইনালে রূপ নিয়েছে। তবে দুই দলের সামনে ভিন্ন দুই সমীকরণ। ২০০৫ সালের পর এই টুর্নামেন্টে আবার ফাইনাল খেলতে গেলে যেখানে জিততেই হবে বাংলাদেশ দলকে, সেখানে জামাল ভূঁইয়াদের জয় আটকে কোনোরকম ড্র করে ১ পয়েন্ট পেলেই ফাইনালে যাবে নেপাল। ১৬ বছর পর ফাইনালে উঠার এই লড়াইয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ দল।

২০১৮ সালে ঢাকা সাফে সেমিফাইনালে খেলার জন্য এমন সমীকরণ দাঁড়িয়েছিল। তখন নেপালের প্রয়োজন ছিল জয় আর বাংলাদেশের ড্র। বাংলাদেশ সেই কাঙ্ক্ষিত ড্র আদায় করতে পারেনি। উল্টো হেরে টুর্নামেন্ট থেকে টানা চতুর্থবারের মতো গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়। এবার সেই ক্ষততে প্রলেপ দেওয়ার সুযোগ বাংলাদেশ দলের সামনে। মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে ম্যাচটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায়।

নেপালের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচে ফাইনাল নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ দলের কোচ অস্কার ব্রুজন আগের ম্যাচের একাদশ থেকে চারজন পরিবর্তন করেছেন।

বাংলাদেশ নেপালের সর্বশেষ লড়াইয়ে নেপাল ২-১ গোলে জিতেছিল নিজেদের মাঠে। আর সাফের সর্বশেষ তিন ম্যাচে (২০১১, ২০১৩ ও ২০১৮) বাংলাদেশ নেপালের বিপক্ষে হেরেছে। এবার নেপাল ড্র করলে প্রথমবারের মতো ফাইনাল খেলবে আর বাংলাদেশ জিতলে চতুর্থবারের মতো শিরোপার মঞ্চে থাকবে।

নেপালের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের একাদশ: আনিসুর রহমান জিকো (গোলরক্ষক), তপু বর্মণ, তারিক কাজী, বিশ্বনাথ ঘোষ, টুটল হোসেন বাদশা, জামাল ভূঁইয়া (অধিনায়ক), ইব্রাহীম, বিপলু, সাদ উদ্দিন, রাকিব হোসেন ও সুমন রেজা।

 


আরও খবর



২৪ বিদেশি চ্যানেল প্রচারে বাধা নেই : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্লিনফিড দেওয়া বিদেশি ২৪ চ্যানেল চালাতে কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, দেশের স্বার্থে গ্রহণ করা সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য আমাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন আপনারা, সেজন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই। বাংলাদেশের আকাশ উন্মুক্ত, সরকারের পক্ষ থেকে কোনো চ্যানেল বন্ধ করতে বলা হয়নি। আমরা শুধু বলেছিলাম যে, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী যা পৃথিবীর সব দেশেই আছে। যে আইন ইউরোপ, আমেরিকাসহ বহু দেশেই বলবৎ। এমনকি নেপালের মতো দেশেও সেই আইন বলবৎ। সেটি হচ্ছে বিদেশি চ্যানেলকে অবশ্যই বিজ্ঞাপনমুক্ত সম্প্রচার করতে হবে এবং সেটি ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, আমেরিকাসহ সব জায়গায়ই মানা হয়। কিন্তু আমাদের দেশে মানা হচ্ছিল না।

তিনি বলেন, আইনটি মানার জন্য দুই বছর ধরে তাগাদা দেওয়া হচ্ছিল। সব পক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করা হয়েছে। এক মাসের বেশি সময় আগে বৈঠক করে আমাদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত ছিল, ১ অক্টোবর থেকে আমরা আইনটি কার্যকর করবো। বৈঠকে টেলিভিশন ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, সম্প্রচার জার্নালিস্ট ফোরাম, ক্যাবল অপারেটর, ডিস্ট্রিবিউটররা ছিলেন। সেই সভায় সিদ্ধান্ত ছিল ১ অক্টোবর থেকে আইনটি কার্যকর করা হবে। সবার সঙ্গে আলোচনা করেই আমরা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।

মন্ত্রী বলেন, ক্লিনফিড নিয়ে একটি মহল থেকে বিভ্রান্ত ছড়ানোর চেষ্টা করা হয়েছে। আমি আশা করবো তারা বিভ্রান্তি ছড়ানো থেকে বিরত থাকবে। সরকার আইন বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর। জনগণের স্বার্থে, মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রির স্বার্থে, শিল্পী-কলাকুশলী, সাংবাদিক সবার স্বার্থে এ আইন কার্যকর করেছি। সুতরাং সবার স্বার্থের বিরুদ্ধে গিয়ে কেউ অবস্থান নেবে সেটি কাম্য নয়। সর্বোপরি দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে সেটি কাম্য নয়।

হাছান মাহমুদ বলেন, আমি জানতে পেরেছি বিদেশি যে সব চ্যানেল ক্লিনফিড দিচ্ছে, আমি গতকাল ১৭টি চ্যানেলের কথা বলেছিলাম। আসলে ১৭টি নয়, ২৪টির বেশি চ্যানেল। ২৪টির বেশি চ্যানেল বাংলাদেশে ক্লিনফিড দেয়, সুতরাং এগুলো চালানোর ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। আকাশ ডিটিএইচ এগুলো চালাচ্ছে। অন্যদেরও এগুলো চালানোর ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। এ বিষয়ে কোনো পত্রের প্রয়োজন হলে আমরা তা ক্যাবল অপারেটরদের কাছে পাঠাবো। যদি এরপরও কেউ এগুলো না চালায় তাহলে লাইসেন্সের শর্তভঙ্গ হবে। সুতরাং শর্তভঙ্গের কাজ কেউ করবেন না।

এর আগে অ্যাটকোর সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী, সহ-সভাপতি মোজাম্মেল বাবু, ইকবাল সোবহান চৌধুরী ক্লিনফিড বাস্তবায়নের জন্য তথ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।


আরও খবর



মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে আনবে করোনার ট্যাবলেট

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | ৭০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুখে খাওয়ার করোনা ওষুধ তৈরি করে আলোড়ন তৈরি করেছে বহুজাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি মার্ক অ্যন্ড কোর। গবেষকরা বলছেন, মুখে খাওয়া এ ওষুধ হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে আনবে। খবর সিএনএনের

শুক্রবার প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমন তথ্য জানানো হয়। অংশীদার রিজেবাকের সঙ্গে নিয়ে মার্ক অ্যন্ড কোর যুক্তরাষ্ট্রে এ ওষুধের জরুরি ব্যবহারের অনুমতি চাইবে।

শিগগিরই ওষুধটি বাজারে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে বহুজাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলো।

অন্য দেশগুলোর কর্তৃপক্ষের কাছেও অনুমোদন চাওয়া হবে জানিয়ে মার্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রব ডেভিস বলেন, ট্রায়ালে ভালো ফল পেয়েছি। হাসপাতালে বা অন্য কোথাও যেতে হবে না। বাড়িতে বসে এই ট্যাবলেট খাওয়া যাবে।

আগামী নভেম্বরে ক্লিনিকাল ট্রায়াল শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করে ডেভিস জানান, ট্রায়ালে আগস্টের শুরু থেকে ৭৭৫ জন রোগীর ওপর এ গবেষণাটি চালানো হচ্ছে। এটি অধিকতর গবেষণার জন্য আরও ১৫৫০ জনকে অন্তর্ভূক্ত করতে চায় এবং এরই মধ্যে ৯০ শতাংশ রাজি হয়েছেন।

বিবৃতিতে ডেভিস আরও দাবি করেন, করোনার নতুন এ ওষুধটি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রেও কার্যকর।

গবেষণা শেষে স্বাধীন কমিটির অনুমোদনের পর এবং এফডিএর সঙ্গে সমন্বয় করে এটি বাজারে আনার কথাও জানান তিনি।

অপরদিকে মার্কের প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানি রোশ ও ফাইজারও কোভিডের মুখে খাওয়ার ওষুধ তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।


আরও খবর



ডেঙ্গুতে আক্রান্ত আরও ১৫০ জন হাসপাতালে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৫০ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৩৭ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৩ জন

আজ শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরও ১৫০ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৩৭ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৩ জন।

এদিকে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৮৬ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছে ৭২৯ জন এবং অন্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছে ১৫৭ জন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৯ হাজার ৬৯৪ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ১৮ হাজার ৭৩৫ জন রোগী। ডেঙ্গুতে এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছে ৭৩ জন।


আরও খবর
২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত‌্যু

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

ডেঙ্গু: আরও ১২৩ জন হাসপাতালে

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১




আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ অনুষ্ঠিত হবে ২০২০-২১ সেশনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কলা অনুষদভুক্ত ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা। শনিবার সকাল ১১টা থেকে ১২.৩০ পর্যন্ত চলবে এই ভর্তিযুদ্ধ। প্রথমবারের মতো ঢাকা ও ঢাকার বাইরে সাতটি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই পরীক্ষা। কঠোর নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে হবে অনুষ্ঠিত হবে এবারের পরীক্ষা।

ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ৩৭৮টি।আর এতে আবেদনকারীর সংখ্যা ৪৭ হাজার ৬৩২ জন। সেক্ষেত্রে এ ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ২০ দশমিক ০৩ জন।

এর মধ্যে ইউনিটে ঢাবিতে ১৮ হাজার ৮৫০ জন, চবিতে ২ হাজার ৮৫২ জন, রাবিতে ৬ হাজার ৩৭৭ জন, খুবিতে ৫ হাজার ২০৪ জন, শাবিপ্রবিতে ৯২১ জন, বেরোবিতে ৬ হাজার ৬১৫ জন, ববিতে ১ হাজার ৭৪১ জন ও বাকৃবিতে ৫ হাজার ৭২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দেবেন।

এর আগে শুক্রবার (১ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাতটি বিভাগীয় পর্যায়ের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

ইউনিটে মোট আবেদনকারীর সংখ্যা ছিলো এক লাখ ১৭ হাজার ৯৫৭ জন। আর মোট আসন সংখ্যা ১৮১৫টি। সেক্ষেত্রে ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়েছেন ৬৪ দশমিক ৯৯ জন।


আরও খবর



ভোলায় ৫০ লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জের মেঘনা নদী ও ভোলার ইলিশা ফেরিঘাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০ লাখ মিটার নতুন কারেন্ট জাল জব্দ করেছে কোস্টগার্ড।

মঙ্গলবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. এসএম তাহসিন রহমান।

এর আগে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনের অধীনস্থ ভোলা বেইস ও কালীগঞ্জ স্টেশনে পৃথক দুটি অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে ভোলা সদর উপজেলাধীন ইলিশা ফেরিঘাটে এমভি কনকচাঁপা ফেরিতে অভিযান চালিয়ে সেখানে থাকা একটি মাইক্রোবাস থেকে বস্তাবোঝাই ২০ লাখ মিটার এবং বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলাসংলগ্ন মেঘনা নদীতে একটি ইঞ্জিনচালিত স্টিলবডি বোট থেকে ৩০ লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়।

উদ্ধারকৃত এসব জালের আনুমানিক বাজারমূল্য ১৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা। পরে সেসব জাল মৎস্য কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

 


আরও খবর