আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের এনক্রিপশন পরিকল্পনা বিলম্বিত

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শিশুদের নিরাপত্তাসংক্রান্ত চলমান বিতর্কের জেরে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড এনক্রিপশন চালু করার পরিকল্পনা বিলম্বিত হবে।

এ ব্যাপারে ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা বলেছে, অ্যাপগুলোতে মেসেজিং এনক্রিপশন সুবিধা ২০২৩ সালে পাওয়া যাবে। অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড এনক্রিপশন প্রক্রিয়ায় শুধু প্রেরক ও প্রাপক পরস্পরের বার্তা পড়তে পারবে। এর মাঝখানে তৃতীয় পক্ষ, যেমন: আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কিংবা মেটা সেসব পড়তে পারবে না।

আর এ জন্য শিশু সুরক্ষা নিয়ে কাজ করে এমন সংস্থা এবং রাজনীতিবিদরা নড়েচড়ে বসেন। তাঁরা সতর্ক করে বলেছেন, এতে শিশু নির্যাতনের তদন্তে পুলিশকে ঝামেলায় পড়তে হবে।

ন্যাশনাল সোসাইটি ফর দ্য প্রিভেনশন অব ক্রুয়েলটি টু চিলড্রেন দাবি করেছে, ব্যক্তিগত মেসেজিং সেবা হচ্ছে—‘শিশু যৌন নির্যাতনের প্রথম ধাপ। ফলে তদন্ত স্বার্থে পুলিশের এটি দেখার ক্ষমতা থাকা উচিত।     


আরও খবর
বিজয়ের মাসেই ফাইভ-জি

বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১




করোনায় মৃত্যুহীন দিন দেখল বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | ৮৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে কারো মৃত্যু হয়নি। ফলে দেশে করোনায় মৃতের মোট সংখ্যা ২৭ হাজার ৯৪৬ অপরিবর্তিত থাকল।

আজ শনিবার (২০ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১




বিশ্বে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ হাজার ৫৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এসময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৫ লাখ ৭৮ হাজার ২০ জন। আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ২ হাজার ৩০০ জন এবং আক্রান্ত বেড়েছে প্রায় দেড় লাখ।

ফলে ভাইরাসটিতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫২ লাখ ৩২ হাজার ৫৭১ জনে। আর মোট আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ২৬ কোটি ৩০ লাখ ১২ হাজার ৯৭৯ জন।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) সকালে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এ সময়ে নতুন করে আক্রান্ত ৯৯ হাজার ৯২৪ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৩৬৫ জন। এ নিয়ে করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত চার কোটি ৯৪ লাখ ২১ হাজার ৭৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন আট লাখ দুই হাজার ৯৬৬ জন।

দৈনিক মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১ হাজার ২২৯ জন মারা গেছেন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২ হাজার ৬৪৮ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত রাশিয়ায় মোট আক্রান্ত ৯৬ লাখ ৩৬ হাজার ৮৮১ জন এবং মোট মারা গেছেন দুই লাখ ৭৫ হাজার ১৯৩ জন।

করোনায় জার্মানিতে নতুন করে ৫৫ হাজার ৮৮০ জন আক্রান্ত এবং ৪৮৫ জন মারা গেছেন। ইউরোপের এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট ৫৮ লাখ ৮১ হাজার ৪২৩ জন আক্রান্ত এবং মৃত্যু হয়েছে এক লাখ দুই হাজার ১৩৭ জনের।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৭১৬ জন এবং মারা গেছেন ১৫৯ জন। এসময়ে ইউক্রেনে আক্রান্ত ১০ হাজার ৫৫৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫৬১ জনের।

করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩২৬ জন এবং সংক্রমিত হয়েছেন নয় হাজার ৭১০ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্ত দুই কোটি ২০ লাখ ৯৪ হাজার ৪৫৯ জন এবং ছয় লাখ ১৪ হাজার ৭৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা এশিয়ার দেশ ভারতে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত তিন কোটি ৪৫ লাখ ৯৫ হাজার ৫৭৩ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৬৯ হাজার ৫৬ জন।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ইরানে ১১৯ জন, তুরস্কে ২০৭ জন, পোল্যান্ডে ৫২৬ জন, হাঙ্গেরিতে ১৯৫ জন, রোমানিয়ায় ১৩০ জন, ভিয়েতনামে ১৯৭ জন ও মেক্সিকোতে মারা গেছেন ৫৩ জন।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রে ক্রিসমাস প্যারেডে গাড়িচাপায় বহু হতাহতের শঙ্কা

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় সময় রোববার রাতে জনাকীর্ণ ক্রিসমাস প্যারোডে গাড়িচাপায় ৫ জন নিহত এবং ৪০ জন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় গুরুতর আহত ২৮ জনকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ১২ জন প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে গেছেন।খবর সিএনএনের।

উইসকনসিনের উয়াওকেশা শহরে জনাকীর্ণ একটি ক্রিসমাস প্যারেডে এ ঘটনা ঘটে।

উয়াওকেশা শহরের পুলিশপ্রধান ড্যান থম্পসন জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলটি উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের আরেক শহর মিলউকি থেকে ৩২ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত। ক্রিসমাস প্যারেডে গাড়িচাপার ঘটনার পর অভিযুক্ত গাড়িকে আটক করা হয়েছে এবং উয়াওকেশা শহর আপাতত নিরাপদ।

থম্পসন সাংবাদিকদের জানান, লাল রঙের একটি এসইউভি গাড়ি রোববার সন্ধ্যায় ক্রিসমাস প্যারেডের ভিড়ের ওপরে উঠে যায়। এ ঘটনায় ২৮ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। শহরের পাশ থেকে পরে আমরা গাড়িটিকে আটক করেছি।

 


আরও খবর



বিচারক কামরুন্নাহারকে এজলাসে না বসার নির্দেশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৬৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণ মামলার রায় দেওয়া ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক বেগম মোছা: কামরুন্নাহারকে আজ রবিবার সাড়ে ৯টা থেকে এজলাসে না বসার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। বিচারক কামরুন্নাহারের ফৌজদারি বিচারিক ক্ষমতা সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে।

বিচারক কামরুন্নাহারকে আদালত থেকে প্রত্যাহার করে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগে সংযুক্ত করতে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ বিচারকদের সঙ্গে আলোচনা করে প্রধান বিচারপতি এ নির্দেশ দিয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ও স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

গত ১১ নভেম্বর দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের মামলার রায় ঘোষণা করেন বিচারক বেগম মোছা: কামরুন্নাহার। রায়ে সব আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। খালাস পাওয়া পাঁচ আসামি হলেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার হোসেনের ছেলে শাফাত আহমেদ, শাফাত আহমেদের বন্ধু সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ, শাফাতের দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন।

রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারক বলেন, মামলার দুই ভিকটিম আগে থেকেই সেক্সুয়াল কাজে অভ্যস্ত। তারা স্বেচ্ছায় হোটেলে গিয়েছেন। সেখানে গিয়ে সুইমিং করেছেন। ঘটনার ৩৮ দিন পর তারা বললেন, আমরা ধর্ষণের শিকার হয়েছি। অহেতুক তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রভাবিত হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছেন। এতে আদালতের ৯৪ কার্যদিবস নষ্ট হয়েছে। এরপর থেকে পুলিশকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছি। এ ছাড়া এরপর থেকে ধর্ষণের ৭২ ঘণ্টা পর যদি কেউ মামলা করতে যায়- তা না নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছি।

বিচারকের পর্যবেক্ষণের প্রতিক্রিয়ায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আমি রায়ের বিষয়বস্তু নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না। অবজারভেশনে (৭২ ঘণ্টা পরে পুলিশ যেন কোনো ধর্ষণ মামলার এজাহার না নেয়) বিচারক যে বক্তব্য দিয়েছেন এ সম্পর্কে আমি বলতে পারি, এটা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং অসাংবিধানিক।


আরও খবর
আবরার হত্যায় ২০ আসামির মৃত্যুদণ্ড

বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১




নিজ নেতাদের অশোভন আচরণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় না বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সরকারি দলের কেউ এমন আচরণ করলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এটাই স্বাভাবিক। প্রমাণও পেয়েছেন সবাই

ডা. মুরাদের কর্মকাণ্ড সরকার ও দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করায় সরকার এর ব্যবস্থা নিয়েছে। কিন্তু বিএনপির নেতারা যখন এ রকম কর্মকাণ্ড করেন, তখন তাঁরা কোনো ব্যবস্থাই নেন না। বিএনপির নেতারা যখন অশোভন আচরণ, অশ্লীল কথাবার্তা বলে বেড়ান, তখন দেশের নারী নেত্রীবৃন্দ এত সোচ্চার হন না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

হাছান মাহমুদ অভিযোগ করেন, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী সদস্য ইশরাক হোসেন ও যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেকের অশোভন, কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য শোনার পরেও বিএনপি তাঁদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এখনো এগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আছে। তখন বিএনপির কাউকে কোনো বিবৃতি দিতে দেখি নাই। সরকারি দলের কেউ এমন আচরণ করলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এটাই স্বাভাবিক। প্রমাণও পেয়েছেন সবাই। কিন্তু তাঁদের ক্ষেত্রে সবাই কেন নিশ্চুপ ছিলেন এটাই আমার প্রশ্ন।

তারেক রহমানের পৃষ্ঠপোষকতায় বিএনপি এই অনাচার করছে বলে অভিযোগ করেন হাছান মাহমুদ। প্রশ্ন তোলেন, এম এ মালেক ইউকেতে বসে যেই ভাষায় কথা বলেছে, এর পরেও কি তার সদস্যপদ থাকা উচিত ছিল? কারণ এ ধরনের কথাবার্তা যারা বলে, বিএনপি তাদের পৃষ্ঠপোষকতা করে।

মির্জা ফখরুলকে আয়নায় নিজের চেহারা দেখার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, সারা গায়ে দুর্গন্ধ মেখে অন্যের গায়ে দুর্গন্ধ খুঁজে বেড়ানো সমীচীন নয়।


আরও খবর