আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

ফেসবুকে প্রোটেক্ট চালু না করলে লক হবে অ্যাকাউন্ট

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সম্প্রতি নতুন একটি নোটিফিকেশন পেয়েছেন অনেক ব্যবহারকারী। ওই নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে, ২৮ অক্টোবরের মধ্যে ফেসবুক প্রোটেক্ট নামে একটি ফিচার টার্ন অন বা চালু করতে হবে। তা না হলে ফেসবুকের অ্যাকাউন্ট লক হয়ে যাবে। বিবিসি বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ব্যবহারকারীদের মধ্যে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, ফেসবুক প্রোটেক্ট কী এবং কীভাবে কজ করে। এ ব্যাপারে ফেসবুকের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে যে, বেশ কিছু অ্যাকাউন্টকে বাড়তি নিরাপত্তা দিতে তারা একটি নতুন ফিচার তৈরি করেছে। ওই ফিচারের নাম দেওয়া হয়েছে ফেসবুক প্রোটেক্ট।

এটি একটি ভলানটারি (ঐচ্ছিক) প্রোগ্রাম যা নির্বাচনী প্রার্থী, তাদের প্রচারণা এবং নির্বাচিত প্রতিনিধিদের অ্যাকাউন্টকে বাড়তি সুরক্ষা দেবে।

প্রাথমিক ভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির নির্বাচনের সময় সেখানকার প্রার্থীদের ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের সুরক্ষায় এই প্রোগ্রামটি তৈরি করা হয়েছিল। পরে এটি কানাডাতেও চালু করা হয়।

তবে ২০২১ সালে এটি বিশ্বের অন্যান্য দেশের জন্য সরবরাহ করা হবে বলেও জানানো হয়। এ বিষয়ক আপডেটও ফেসবুকের মাধ্যমেই জানানো হবে বলে ফেসবুক জানায়।

ফেসবুকে নতুন এই ফিচারটি অ্যাড করার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে ফেসবুক।ফিচারটি চালু করতে গেলে এসব ব্যাখ্যার কথা জানানো হয়েছে ফেসবুকের পক্ষ থেকে।

এ ব্যাপারে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের বার্তা দিচ্ছে যে, আপনার অ্যাকাউন্টটি অনেক মানুষের কাছে পৌঁছানোর সম্ভাবনা রয়েছে। যার জন্য আপনার শক্তিশালী নিরাপত্তা দরকার। আপনার অ্যাকাউন্টের মতো সব অ্যাকাউন্টের রক্ষায় এই নিরাপত্তা প্রোগ্রাম তৈরি করেছে ফেসবুক।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা এরই মধ্যে লগ ইনের ক্ষেত্রে উন্নত নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করেছে।

পরবর্তীতে প্রোগ্রাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানানোর মাধ্যমে ফেসবুক প্রোটেক্ট পুরোপুরি চালু করা হবে।

ফেসবুক প্রোটেক্ট চালু করার সময় এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে লার্ন মোর অপশনে গেলে সেখানে ফেসবুক প্রোটেক্ট কেন জরুরি সে বিষয়ে বলা হয়।

এতে বলা হয়, হ্যাকাররা সব সময় সেই অ্যাকাউন্টগুলোর প্রতিই আগ্রহী হয়, যেগুলোতে অনেক বেশি ফলোয়ার থাকে, যেগুলো গুরুত্বপূর্ণ পেইজ পরিচালনা করে কিংবা যার কমিউনিটি সিগনিফিক্যান্স বা গুরুত্ব রয়েছে।এ ধরণের টার্গেটেড অ্যাটাক বা উদ্দেশ্যপূর্ণ হামলা রোধ করতেই ইন্নত নিরাপত্তার এই প্রোগ্রামটি চালু করার অনুরোধ করেছে ফেসবুক।

ফেসবুকের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, যারা এই ফিচারটি চালু করতে পারবেন তারা ফেসবুকের মাধ্যমেই তা জানতে পারবেন। যারা এর আওতায় পড়বেন তারা ফেসবুকের সেটিংসে গিয়ে সিকিউরিটি অ্যান্ড লগ-ইন অপশনে গেলে ফেসবুক প্রোটেক্ট নামে অপশন পাবেন। সেখান থেকে ফেসবুক প্রোটেক্ট অপশন অন করা যাবে।

ফেসবুক প্রোটেক্টের ব্যাপারে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ সুমন আহমেদ সাবির বলেন, ফেসবুকের এই ফিচারটি অ্যাকাউন্টের মৌলিক নিরাপত্তার বিষয়গুলো যেমন ইউজার নেম, পাসওয়ার্ড বা টু-ফ্যাক্টর অথেনটিফিকেশনের পাশাপাশি আরো কিছু বাড়তি নিরাপত্তা দেবে।

তিনি বলেন, এর পরবর্তীতে অ্যাকাউন্টধারীর পেইজে কোনো পোস্ট আসার আগে ফারদার (আরও) অথেনটিফিকেশন (যাচাই) হয়ে আসবে। যাতে ওই অ্যাকাউন্টটিকে আর কেউ অ্যাবিউজ করতে না পারে, থ্রেট (হুমকি) থেকে রক্ষা করতে এই উদ্যোগ।

তবে সবাইকে নয় বরং ফেসবুক যাদের মনে করছে যে, তারা কোনো ধরণের হুমকির মুখে পড়তে পারে তাদেরকেই এ ধরনের বার্তা পাঠানো হচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

 


আরও খবর



পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৫ অক্টোবর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পেয়েছেন সাইকুরো মানাবে, ক্লাউস হাসেলম্যান এবং জর্জিও পারিসি। মঙ্গলবার নোবেল কমিটি বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটের পর ২০২১-এ বিজয়ী হিসেবে তাদের নাম ঘোষণা করে।

সাইকুরো মানাবে ১৯৩১ সালের ২১ সেপ্টেম্বর জাপানে, ক্লাউস হাসেলম্যান ১৯৩১ সালের ২৫ অক্টোবর জার্মানির হামবুর্গে ও জর্জিও প্যারিস ১৯৪৮ সালের ৪ আগস্ট ইতালি রোমে জন্ম নেন।

পৃথিবীর জলবায়ু পরিস্থিতির ফিজিক্যাল বা ভৌত মডেল তৈরি, পরবর্তনশীলতা পরিমাপ এবং বৈশ্বিক উষ্ণতার বিষয়টি নির্ভরযোগ্যভাবে অনুমানের জন্য পুরষ্কার পেয়েছেন সাইকুরো মানাবে মানাবে এবং ক্লাউস ক্লাউস হাসেলম্যান। তারা দুজনে এ বছরের নোবেল পুরষ্কারের অর্ধেক পেয়েছেন।

নোবেল পুরষ্কারের বাকি অর্ধেক জর্জিও পারিসি পেয়েছেন পারমাণবিক ও গ্রহীয় পরিসরে ভৌত ব্যবস্থা বা ফিজিক্যাল সিস্টেমের বিশৃঙখলা ও ফ্লাকচুয়েশন পরষ্পরের ওপর কী প্রভাব ফেলে তা আবিষ্কারের জন্য।

১৮৯৫ সালে সুইডেনের বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেল যে পাঁচটি ক্ষেত্রে পুরস্কার প্রদানের ব্যাপারে দলিলে উল্লেখ করে গিয়েছিলেন তার মধ্যে এটি অন্যতম। ১৯০১ সাল থেকে নিয়মিত এ পুরস্কারটি দেওয়া হচ্ছে।


আরও খবর



যেসব এলাকায় ৮ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না সোমবার

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর মহাখালী রেলক্রসিং সংলগ্ন গ্যাস পাইপলাইন প্রতিস্থাপনের জন্য সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর বেশ কিছু এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

রোববার (১৭ অক্টোবর) তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাত ১০টা থেকে পরদিন সকাল ৬টা পর্যন্ত (৮ ঘণ্টা) রাজধানীর গুলশান, বনানী, মহাখালী ও তেজগাঁও শিল্প এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এছাড়া এসব এলাকার আশপাশের এলাকায়ও গ্যাসের চাপ কম থাকতে পারে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

নিউজ ট্যাগ: তিতাস গ্যাস

আরও খবর
শাহবাগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১




চৌমুহনীতে মন্দিরে হামলার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ৮০

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ৪৮০জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালী চৌমুহনীতে সনাতন ধর্মালম্বীদের মন্দিরে হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ৮০জনকে গ্রেফতার করেছে।

বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুর পৌনে ৩টার দিকে নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

অপরদিকে, মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের আবদুল মালেকের ছেলে মো. ইলিয়াস, একলাশপুর ইউনিয়নের আবুল বাশার ছেলে মিজানুর রহমান, গনিপুরের নুরনবীকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া পূজা মন্ডপ হামলার ও ভাংচুরের ঘটনায় একলাশপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

নোয়াখালীর এসপি মো.শহিদুল ইসলাম আরো জানান, আমরা বিভিন্ন ভিডিও ফুটেজ দেখে আসামিদেরকে চিহ্নিত করে অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে তাদেরকে গ্রেফতার করি। এ বিষয়ে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ পর্যন্ত পূজা মন্ডপে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় ৪টি মামলায় ৮০ জনকে গ্রেফতার করা হয়।


আরও খবর



আমির খানের কারণেই সংসার ভেঙেছে সামান্থা-চৈতন্যের

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ৪ মাসের গুঞ্জনকে সত্যিতে রূপ দিলেন ভারতের দুই দক্ষিণী তারকা সামান্থা আক্কিনেনি ও নাগা চৈতন্য। শনিবার ডিভোর্সের ঘোষণা দিলেন এ দুই তারকা।

বলা হচ্ছে, নাগা চৈতন্যের বাবা দক্ষিণের সুপারস্টার নাগা-অজুর্নের আপত্তিতে সামান্থা-চৈতন্যের সংসার ভেঙেছে। রূপালি পর্দায় সামান্থার উপস্থিতি খোলামেলা বলে অভিযোগ চৈতন্যের বাবার।

কিন্তু আলোচিত-সমালোচিত বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের মতে, সুপারস্টার আমির খানের কারণেই নাকি সামান্থা-চৈতন্যের সংসার ভেঙেছে।

অবশ্য মি. পারফেক্টশনিস্টকে মোটেই পছন্দ করেন না কঙ্গনা। যে কোনো বিষয়ে আমিরকে জড়িয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করতে ছাড়েন না তিনি। আমিরকে বলিউডের ডিভোর্স এক্সপার্ট বলে আখ্যা দেন তিনি।

আমির খানের লাল সিং চাড্ডা সিনেমা দিয়ে বলিউডে অভিষেক ঘটতে চলেছে নাগা চৈতন্যের। যে কারণে আমিরের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে নাগার।

সে বিষয়টিকে ইঙ্গিত করে নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সামান্থা-চৈতন্যের বিচ্ছেদের কারণ জানিয়েছেন কঙ্গনা। তিনি জানিয়েছেন, আমির খানের সঙ্গে মিশেই সামান্থাকে ডিভোর্স দিয়েছেন নাগা চৈতন্য।

লিখেছেন, দক্ষিণের এই অভিনেতা যে নিজের ৪ বছরের বিবাহিত জীবন ভাঙতে চলেছে এবং সম্প্রতি বলিউডের এক সুপারস্টার ডিভোর্স এক্সাপার্টের সংস্পর্শে এসেছে, যে অনেক মহিলা ও বাচ্চাদের জীবন নষ্ট করেছে অন্ধ না হলে আমরা সহজেই বুঝে নিতে পারব কার কথা বলা হচ্ছে।

ডিভোর্সে সব সময় পুরুষদের দোষ দেওয়া হয় জানিয়ে কঙ্গনার বক্তব্য, হাজারের মধ্যে একজন নারী ভুল হতে পারে।

তিনি লেখেন, ওই সমস্ত স্পয়েল ব্র্যাটদের লজ্জা হওয়া উচিত যারা মিডিয়া আর অনুরাগীদের থেকে উৎসাহ পেয়ে ডিভোর্স দেয় যতদিন যাচ্ছে ডিভোর্স কালচার বাড়ছে।


আরও খবর



পুজোর সাজে এ বার অন্য রূপে সন্দীপ্তা

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুর্গা পুজো মানেই বাঙালির সাজের উৎসব। নতুন পোশাকের মধ্যে মেয়েদের প্রিয় লাল-পাড় সাদা শাড়ি। সেই তালিকায় রয়েছেন অভিনেত্রী সন্দীপ্তা সেনও।

কিন্তু লাল-পাড় সাদা শাড়িরও সময়ের সঙ্গে রূপ বদলায়। তাই সনাতনী গরদের শাড়ির বাইরে মেয়েরা এখন পছন্দ করেন অন্য ধরনের শাড়ি। সন্দীপ্তাও সেই রীতি মেনে এ বারের পুজোয় বেছে নিয়েছেন সাদা লেসের পাড় দেওয়া লাল অর্গ্যানজা শাড়ি।

শাড়ির মতোই নজরকাড়া সঙ্গে ব্লাউজটাও। দুর্গাপুজোর মণ্ডপ ধরা পড়েছে ব্লাউজের কারুকাজে। একচালা প্রতিমার শোলার সাজের ছোঁয়া রয়েছে সন্দীপ্তার শাড়ি ও ব্লাউজে।

লাল রং দারুণ প্রিয় সন্দীপ্তার। তাই পুজো-পার্বণের দিনে লাল রঙের পোশাকের প্রতিই ঝোঁক বেশি তাঁর।

তবে লাল পাড় সাদা মানেই শাড়ি নয়। আধুনিক নারীর কাছে এই পোশাকই ফিরে এসেছে নানা রূপে। পশ্চিমি পোশাকেও কী করে সনাতনী সাজের ছোঁয়া রাখা যায়,তা দেখিয়ে দিলেন সন্দীপ্তা।

ব্যস্ত মেয়েদের হয়তো শাড়ি পরার সময় সব সময় থাকে না। তাই লাল-সাদা রঙের প্যান্টস্যুট হতে পারে দারুণ বিকল্প। সঙ্গে সাজও হবে ছিমছাম।

তবে পুজোর দিনে পশ্চিমি পোশাক পরলেও উৎসবের ছোঁয়া তো রাখতেই হবে সাজে। তাই ভারী কুন্দনের গয়না পরেছেন সন্দীপ্তা।

সঙ্গে মেকআপ এবং কেশসজ্জাও চাই মানানসই। হাল্কা মেকআপ এবং টানটান করে চুল আঁচড়ে একটি পনিটেল বেঁধে নেওয়ায় দারুণ ঝকঝকে দেখতে লাগছে সন্দীপ্তাকে।

নিউজ ট্যাগ: সন্দীপ্তা

আরও খবর