আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

ফেসবুকের ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য বিক্রি!

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে বেশ জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। অভিযোগ উঠেছে জনপ্রিয় এই মাধ্যমটির ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য বিক্রি হয়ে গেছে। গ্রাহকদের এসব তথ্য কিনেছে একটি হ্যাকার ফোরাম। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রোমানিয়াভিত্তিক সাইবার নিরাপত্তা গবেষণা প্রতিষ্ঠান প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তবে এই তথ্য বিক্রির সঙ্গে সোমবার (৪ অক্টোবর) ফেসবুক বিপর্যয়ের কোনো সম্পর্ক নেই। এ ঘটনা ঘটেছে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে। তবে ফেসবুকের সমস্যার সময় ব্যবহারকারীদের ডাটা চুরির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে জানান ফেসবুকের একজন মুখপাত্র।

তিনি বলেন, ব্যাকবোন রাউটারের কনফিগারেশনে পরিবর্তন আনার সময় কারিগরি ত্রুটির কারণে গত সোমবার রাতে বন্ধ হয়ে যায় ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামের সেবা। ত্রুটি কাটিয়ে প্রায় ছয় ঘণ্টা চেষ্টার পর সেবা চালু করতে সক্ষম হন প্রকৌশলীরা।

এদিকে প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স তাদের প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ওয়েব স্ক্র্যাপারসনামের একটি ওয়েবসাইট থেকে তথ্য চুরিতে নিয়োজিত একটি গ্রুপের মাধ্যমে তারা জানতে পেরেছে, ফেসবুকের প্রায় ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য একটি হ্যাকার ফোরামের কাছে বিক্রি করা হয়েছে। ওয়েব স্ক্র্যাপাররা কিছু প্রমাণ সংযুক্ত করে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে এই তথ্য বিক্রি করেছে। ক্রেতা হ্যাকার ফোরাম প্রতি এক মিলিয়ন বা ১০ লাখ ব্যবহারকারীর তথ্যের জন্য পাঁচ হাজার ডলার মূল্য পরিশোধ করেছে। এতে ফেসবুকের দেড়শ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য কিনতে তাদের গুণতে হয়েছে ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার বা প্রায় ৬৫ কোটি টাকা।

ওয়েব স্ক্র্যাপারস ও হ্যাকারদের ই-মেইল বার্তার কিছু স্ক্রিনশটও প্রকাশ করা হয়েছে প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্সের ওই প্রতিবেদনে। তবে বিপুল পরিমাণ এই তথ্য কোন হ্যাকার গ্রুপ কিনে নিয়েছে, সেটা প্রকাশ করেনি প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স।

সূত্রে জানা গেছে, ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপের মধ্যে একটি কমন সুইচ প্ল্যাটফর্ম তৈরির জন্য রাউটারে নতুন কনফিগারেশনটি চলছিল। মূলত ফেসবুক ও এর অন্তর্ভুক্ত মাধ্যমগুলোর মাঝে সহজে ডাটা আদান-প্রদান করার জন্যই এই প্রক্রিয়াটি চলছিল।


আরও খবর



স্ত্রীকে হত্যার অভিনব উপায়

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্ত্রী হত্যার দায় এড়াতে অভিনব উপায় খুঁজে বের করেছিলেন এই ব্যক্তি। একদম ফিল্মি স্টাইলে প্রথমে স্ত্রীকে রাসেলস ভাইপারের কামড় খাইয়েছিলেন তিনি। ভাগ্যক্রমে সে সময় স্ত্রী বেঁচে যান। পরের দফায় স্ত্রীকে ফেলে দেন কোবরার মুখে। কোবরার কামড়ে স্ত্রীর মৃত্যু হয়। এই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ওই ব্যক্তিকে দুই দফায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বিবিসি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভারতের কেরালার সুরাজ কুমারের স্ত্রী উথরা গত বছর কোবরার কামড়ে মারা যান।

এ ঘটনায় সুরাজের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ দায়ের করে উথরার পরিবার।  সুরাজ তাদের কাছে যৌতুকের দাবি করেছিলেন বলে উথরার পরিবারের অভিযোগ করেছেন।

গত সোমবার সুরাজের বিরুদ্ধে ঘুমন্ত স্ত্রীর বিছানায় কোবরা ছেড়ে দেওয়ার প্রমাণ পায় আদালত।

গত বছরের মে মাসেই উথরাকে বিষাক্ত রাসেলস ভাইপার কাপড় দিয়েছিল। ওই সাপের কামড়ে কোনোমতে প্রাণে বেঁচে যান উথরা। ওই ঘটনার কয়েক সপ্তাহ পরই ফের কোবরার ছোবলে উথরার মৃত্যু হলে তার পরিবারের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন।

পুলিশ তদন্তে জানতে পারে, উথরার দুইবার সাপের কামড়ের পেছনেই সুরাজের হাত রয়েছে। সুরাজের অপরাধের ধরন বিবেচনা করে তাকে দুই দফায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয় আদালত।

 

নিউজ ট্যাগ: স্ত্রীকে হত্যা

আরও খবর



আত্মবিশ্বাস-আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুক শিশুরা: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
শেখ হাসিনা বলেন, ৭১ ও ৭৫ শিশুদেরও হত্যা করেছে ঘাতকেরা। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছে ২০০১ সালের নির্বাচনে। আবার ২০১৩ সালে বাসে আগুন দিয়ে শিশুসহ মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পুনরাবৃত্তি হয়েছে

শিশুরা নিজেদের প্রতিভা বিকাশের পাশাপাশি আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুকএমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) শেখ রাসেল দিবসের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।

ছোট ভাই রাসেলের স্মৃতিচারণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাসেল ছোটবেলা থেকে বাচ্চাদের নিয়ে প্যারেড করতো। সে বড় ভাই শেখ জামালের মতো সেনা অফিসার হতে চাইতো। বেঁচে থাকলে আজকে হয়তো সেনাবাহিনীর বড় অফিসার হতো।

৭৫-এর হত্যাকাণ্ডের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, সেদিন রাসেল মায়ের কাছে যাবো বলে কান্না করছিল। তাকেও হত্যা করা হলো। আমার একটাই প্রশ্ন এ শিশুটির কী অপরাধ ছিল?

শেখ হাসিনা বলেন, ৭১ ও ৭৫ শিশুদেরও হত্যা করেছে ঘাতকেরা। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছে ২০০১ সালের নির্বাচনে। আবার ২০১৩ সালে বাসে আগুন দিয়ে শিশুসহ মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পুনরাবৃত্তি হয়েছে। আমরা এটা চাই না, শিশুরা অকালে ঝরে যাক। শিশুরা গড়ে উঠুক সুন্দর পরিবেশে। বাংলাদেশকে আমরা সেভাবে গড়ে তুলতে চাই।

তিনি বলেন, শিশুরা আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুক। তাদের প্রতিভা বিকশিত হোক। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করুক। আধুনিক বিজ্ঞান প্রযুক্তি শিক্ষায় নিজেদের উন্নত করে গড়ে তুলুক, সেটাই আমরা চাই।

এসময় শিশু-কিশোরদের উদ্দেশ্য প্রধানমন্ত্রী বলেন, তোমরা মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করবে। শিক্ষা এমন এক সম্পদ কেউ নিতে পারবে না।

শিশু রাসেলের নাম করণের ইতিহাস তুলে ধরে তিনি বলেন, আমাদের পরিবারে পাঠাভ্যাস ভালো ছিল। সবাই বই পড়তো, পড়ে শোনাতো। আব্বা নোবেল লরিয়েট বার্ট্রান্ড রাসেলের ফিলোসোফি মাকে শোনাতেন। তার ফিলোসোফি ব্যাখ্যা করতেন। তিনিও সেটা মনোযোগ দিয়ে শুনতেন। সে থেকে তার নাম রাসেল রাখা হয়।


আরও খবর



নদী পারাপারের অপেক্ষায় ৪ শতাধিক ট্রাক

প্রকাশিত:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনার কাজিরহাট-আরিচা রুটে ফেরি সমস্যার সমাধান হচ্ছেই না। দুটি পুরাতন ছোট ফেরি দিয়ে ধীরগতিতে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। এতে দুই পাড়ে আটকা পড়েছে প্রায় চার শতাধিক যানবাহন।

রবিবার (১০ অক্টোবর) সকালে কাজিরহাট ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শুক্রবার দুপুর থেকে বেগম রোকেয়া ও সুফিয়া কামাল নামে ফেরি দুটি এখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শাহ জালাল, শাহ মাখদুম, কপোতি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছিল। শনিবার সন্ধ্যায় শাহ মাখদুম ফেরিতে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়।

এর আগে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) থেকে রো রো ফেরি বেগম রোকেয়া ও ডাম্প ফেরি কপোতি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ১০ দিনের মতো বন্ধ ছিল। পরে মেরামত করে ঘাট সচল করা হয়। ছোট দুটি ও বড় দুটি চারটি ফেরি দিয়ে যাত্রী ও পণ্যবাহী গাড়ি পারাপার  করা হচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎ করে এখান থেকে বড় দুটি ফেরি নিয়ে যাওয়া হয়েছে শিমুলিয়া ঘাটে।

উত্তরাঞ্চলের বেশ কয়েকটি জেলার মানুষের দুর্ভোগ লাগবে এই নৌপথে ফেরি চালু করা হয়। কিন্তু বর্তমান অবস্থার জন্য ঘাটের অব্যবস্থাপনাকেই দায়ী করছেন যাত্রী, চালক ও শ্রমিকরা। এক দিন পর পরই ফেরিতে ত্রুটি দেখা দেয়। সেটি মেরামত করতে দীর্ঘ সময় লাগে। যানজট সৃষ্টির এটি একটি বড় কারণ বলে দাবি করছেন চালক-যাত্রীরা।

তাদের মতে, কর্তৃপক্ষ দুটি ফেরি দিয়ে ঘাট সচল রাখার দাবি করলেও কার্যত অচলাবস্থার মধ্যে পড়েছে কাজিরহাট-আরিচা নৌপথ। ঘাটে পণ্যবাহী গাড়ির চাপ দেখেও নতুন বড় ফেরি এখান থেকে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কাজিরহাট ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মাহবুবুর রহমান বলেন, বিকল দুটি ফেরি মেরামত করে চারটি ফেরি দিয়ে ঘাটের যানজট কমানো হয়েছিল। পণ্যবাহী ট্রাকের তেমন চাপ ছিল না। স্বাভাবিক গতিতে পারাপর হচ্ছিল। বেগম রোকেয়া ও বেগম সুফিয়া কামাল নিয়ে যাওয়াতে আমাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এখানে এই দুটি ফেরি চালু রাখা অত্যন্ত জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে। আজ নাকি আমাদের জন্য আরও একটি ফেরি বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। সেটি এখনও ঘাটে পৌঁছায়নি। আরিচা ঘাটে সেটি অবস্থান করছে বলে জানা গেছে। রবিবার সকাল পর্যন্ত দুই পাড়ে চার শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

 


আরও খবর
মুই একন পতের ফকির

সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১




কক্সবাজারে সাড়ে ৭ কোটি টাকার মাদকসহ আটক ১

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৬৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় দেড় কেজি ওজনের ক্রিস্টাল মেথ আইসসহ এক যুবককে আটক করেছেন বিজিবি সদস্যরা।

বুধবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে টেকনাফস্থ ২ বিজিবি ব্যাটলিয়ানে এক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান খান এ সব তথ্য জানান।

আটককৃত যুবক টেকনাফ সদরের মধ্যম গোদারবিল এলাকার হোছেন আলীর ছেলে মো. আব্দুল মুজিব (২০)।

বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান খান জানান, মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) রাতে টেকনাফ-২ বিজিবির একটি বিশেষ টহলদল গোপন খবরের ভিত্তিতে গোদারবিল এলাকার ৩ তলা বিশিষ্ট একটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে আব্দুল মজিদকে আটক করে। এ সময় একটি মোটরসাইকেল ও ২টি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার প্যাকেটের ভেতর থেকে দেড় কেজি ওজনের ক্রিস্টাল মেথ আইস পাওয়া যায়। উদ্ধার ক্রিস্টাল মেথ আইসের আনুমানিক মূল্য সাড়ে ৭ কোটি টাকা।

তিনি আরও জানান, উদ্ধার ক্রিস্টেল মেথ আইসসহ আটককৃত ব্যক্তিকে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা করা হবে।

নিউজ ট্যাগ: মাদকসহ আটক

আরও খবর



বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুতে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া-ব্রাজিল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সারাবিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৮ হাজার ৩৬৮ জনের মৃত্যুর হয়েছে। মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এরপরই রাশিয়া এবং ব্রাজিল।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৯৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃত্যু সংখ্যা ৭ লাখ ১১ হাজার ৭৬৩ জন। এছাড়া মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ কোটি ৪০ লাখ ৭৬ হাজার ২২০ জন।

ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৮১৮ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃত্যু ৫ লাখ ৯৫ হাজার ৫২০ জন। দেশটিতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১৫ হাজার ৩৯৫ জন। এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ১৩ লাখ ৮১ হাজার ৭৯০ জন।

মৃত্যুতে গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে রাশিয়া। দেশটিতে নতুন করে ৮৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২ লাখ ৫ হাজার ৫৩১ জন। এছাড়া দেশটিকে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৪ লাখ ৬৪ লাখ ৭০৮ জন।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সাটইটির সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৭১০ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থের সংখ্যা ২১ কোটি ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৪০৩ জন।

এদিকে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৭৫ জনের। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৫ লাখ ৯৫ হাজার ৫২০ জন। এ ছাড়া মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৩৭ লাখ ১৫ হাজার ৪৯ জন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত‌্যু

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

ডেঙ্গু: আরও ১২৩ জন হাসপাতালে

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১