আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

ফ্লাইওভার থেকে পোস্টার অপসারণের নির্দেশনা চেয়ে রিট

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর সব ফ্লাইওভারে থাকা দেয়াল লিখন ও পোস্টার অপসারণের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে এ রিট আবেদন করা হয়।

আবেদনে ফ্লাইওভারের দেয়ালে পোস্টারিং ও দেয়াল লিখন বন্ধে তদারকি কমিটি গঠনের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি দেয়াল লিখন ও পোস্টার লাগানো (নিয়ন্ত্রণ) আইন বাস্তবায়নের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি) আইনজীবী মনজিল মোরসেদ জানান, বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদনটির ওপর শুনানি হতে পারে।

স্থানীয় সরকার সচিব, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী, রাজউকের চেয়ারম্যান, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারসহ সংশ্লিষ্টদের রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

দেয়াল লিখন ও পোস্টার লাগানো (নিয়ন্ত্রণ) আইন অনুযায়ী নির্ধারিত স্থান ব্যতীত অন্য কোনো স্থানে দেয়াল লিখন বা পোস্টার লাগানো যাবে না।

আইনে বলা হয়েছে, কোনো স্থানীয় কর্তৃপক্ষ দেয়াল লিখন বা পোস্টার লাগানোর জন্য প্রশাসনিক আদেশ দ্বারা স্থান নির্ধারণ করে দিতে পারবে এবং উক্ত রূপে নির্ধারিত স্থানে দেয়াল লিখন বা পোস্টার লাগানো যাবে। তবে শর্ত থাকে যে, স্থানীয় কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে, উল্লেখিত নির্ধারিত স্থান ব্যতীত অন্য কোনো স্থানে বিধি দ্বারা নির্ধারিত শর্ত ও পদ্ধতিতে এবং নির্দিষ্ট ফি দেওয়া সাপেক্ষে দেয়াল লিখন বা পোস্টার লাগানো যাবে। কোনো ব্যক্তি এ বিধান লঙ্ঘন করলে তা এ আইনের অধীন অপরাধ।


আরও খবর
জজ কোর্ট চত্বরে ককটেল বিস্ফোরণ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা আজ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ধর্ম ও জীবন

Image

বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা আজ বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)। হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম এই ধর্মীয় উৎসবে পঞ্চমী তিথিতে বিদ্যা ও জ্ঞানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সরস্বতীর চরণে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবেন অগণিত ভক্ত। অজ্ঞতার অন্ধকার দূর করতে কল্যাণময়ী দেবীর চরণে প্রণতি জানাবেন তারা।

সনাতন ধর্মালম্বীদের মতে, দেবী সরস্বতী সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানালোকের প্রতীক। তিনি বিদ্যা, বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী। সরস্বতী মহাভাগে বিদ্যে কমললোচনে, বিশ্বরূপে বিশালাক্ষী বিদ্যংদেহী নমোহস্তুতে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা এই মন্ত্র উচ্চারণ করে বিদ্যা ও জ্ঞান অর্জনের জন্য দেবী সরস্বতীর অর্চনা করবেন।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায় বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা আজ বাণী অর্চনাসহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে। রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশের মন্দির, বাসাবাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পূজা ছাড়াও অন্যান্য অনুষ্ঠানমালায় রয়েছে, পুষ্পাঞ্জলি প্রদান, প্রসাদ বিতরণ, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা আরতি ও আলোকসজ্জা।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যবাহী জগন্নাথ হলে মহাসাড়ম্বরে বিদ্যা ও জ্ঞানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সরস্বতীর পূজার আয়োজন করা হয়েছে।


আরও খবর
শবে বরাত সম্পর্কে হাদিসে যা বলা হয়েছে

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বাংলাদেশে ৯ আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সৌদির সম্মতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশে নয়টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে সৌদি সরকার। এক্ষেত্রে অর্থায়ন করবে দেশটি। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা ইউসেফ ঈসা আল দুহাইলান এ সম্মতির কথা জানান। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়েছে।

ধর্মমন্ত্রী বাংলাদেশে সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আন্তরিক আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আইকনিক মসজিদ নির্মাণে সৌদি সরকারের আগ্রহের বিষয়টি খুবই ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন এবং তিনি সৌদি সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী ৮টি বিভাগে ৮টি আইকনিক মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানী ঢাকাতে একটি সুবৃহৎ মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে ঢাকার পূর্বাচলে প্রয়োজনীয় জায়গা বরাদ্দের জন্য আদেশ দিয়েছেন বলে ধর্মমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর এ আকাঙ্ক্ষার কথা জেনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশে ৯টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সম্মতি দেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

পরে ধর্মমন্ত্রী সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত অ্যারাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের বিষয়টি রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, ঢাকার বসিলায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিগ্রহণকৃত জায়গায় এরাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের জন্য স্থান নির্বাচন করা হয়েছে এবং এরই মধ্যে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে নকশা তৈরি করা হয়েছে। তিনি রাষ্ট্রদূতকে নকশাটি দেখার অনুরোধ জানান। সৌদি রাষ্ট্রদূত মনোযোগ সহকারে নকশাটি দেখেন এবং তার পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন। তিনি এখানে খেলাধুলার জন্য স্পোর্টস সেন্টার রাখার ব্যাপারে গুরুত্ব আরোপ করেন।

এ বছর হজ প্রক্রিয়াকরণের বিষয়ে সৌদি রাষ্ট্রদূত সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, পূর্বে হজ এজেন্সিগুলো নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে সমস্যা ছিল। এছাড়া, মধ্যস্বত্বভোগীরা হজযাত্রীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করত। কিন্তু হজ প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজড করার ফলে আমরা পুরো প্রক্রিয়াটিকেই খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছি। এর ফলে হজযাত্রীদের কষ্ট অনেকাংশে কমেছে।

সভায় ধর্ম সচিব মু. আ. হামিদ জমাদ্দার ও অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মু. আ. আউয়াল হাওলাদারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



জম্মু-কাশ্মীরে ভয়াবহ তুষারধস, রুশ পর্যটক নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পর্যটকদের কাছে মনোরম দৃশ্যের জন্য লোভনীয় জম্মু-কাশ্মীর। তবে আকর্ষণীয় এ পর্যটন অঞ্চলের ভয়াবহ তুষারধস দেখা দিয়েছে। এতে একজন রুশ পর্যটক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আরও একজন নিখোঁজ রয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জম্মু-কাশ্মীরের পাবর্ত্য এলাকা গুলমার্গে ভয়ারবহ তুষারধস হয়েছে। জলাবায়ু পরিবর্তনের ধারায় ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে এ ধস দেখা দিয়েছে। এতে রুশ পর্যটক নিহত এবং অপর এক পর্যটক নিখোঁজ রয়েছেন। এ ছাড়া আরও পাঁচ পর্যটককে উদ্ধার করেছে প্রশাসন। তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিদেশি ওই পর্যটকের দল স্থানীয় গাইড ছাড়াই স্কি করতে গিয়েছিলেন। সেখানকার কংডুরি অঞ্চলে তুষারধসে তারা আটকা পড়েন। খবর পেয়ে সেনা ও স্থানীয় প্রশাসন উদ্ধারকাজ শুরু করে। পরে প্রতিকূল পরিবেশের কারণে অভিযানে যোগ দেয় হেলিকপ্টারও।

ভারতের এ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, তুষারধসের কারণে বুধবার শ্রীনগর-লেহ সড়ক বন্ধ হয়ে গেছে। গত তিন দিন ধরে কাশ্মীরে ভারী তুষারপাত চলছে। এর ফলে উপত্যকার পার্বত্য এলাকায় তুষার ধসের ঘটনা বাড়ছে।


আরও খবর



মেট্রোরেলে ভাইরাল হওয়া ছবিটি আসলে কোন জায়গার ?

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সম্প্রতি মেট্রোরেলে আলিঙ্গনরত তরুণ-তরুণীর একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। বলা হচ্ছে, বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে তোলা ছবি এটি। আর বুঝানো হয়েছে, ঘটনাটি ঢাকার মেট্রোরেলে। এরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে আলিঙ্গনরত ওই তরুণ-তরুণীর ছবিটি প্রচার করা হয়। ক্যাপশনে লেখা হয়, এর পরক্ষণেই মেট্রোরেলে ফুল নিয়ে ওঠা নিষিদ্ধ করা হলো। এই হলো ১৪ ফেব্রুয়ারি।

অর্থাৎ বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের আগের দিন (১৩ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেট্রোরেল স্টেশনে ফুল নিয়ে ট্রেনে ভ্রমণ নিষেধ সংক্রান্ত একটি সাদা কাগজে লেখা নোটিশ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। নোটিশটি স্টেশনের সিঁড়ির মুখেই ঝোলানো ছিল। এই ভিডিওতে সেই ফুল নিষিদ্ধের বিষয়টি ইঙ্গিত করা হয়েছে যে, ঘটনাটি ঢাকার মেট্রোরেলের।

এই ভিডিও যে শুধু টিকটকে প্রচার হচ্ছে তা নয়, ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ এবং ব্যক্তিগত আইডি থেকেও অনেকে শেয়ার করে সমালোচনা করছেন। 

কিন্তু আলিঙ্গনরত যে ভিডিও নিয়ে এতো সমালোচনা তা কি ঢাকার? শুরুতেই যদি মেট্রোরেলের মেঝের দিকে তাকান তাহলে দেখবেন, লাল মেঝের উপর তরুণ-তরুণী দাঁড়িয়ে আছে। আর উপরে ভারতের পতাকা সংবলিত লোগো। যেখানে লেখা, আজাদি কা অমৃত মহোৎসব। এটি হলো ভারতের স্বাধীনতার ৭৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে ২০২১ সালে শুরু হওয়া একটি অনুষ্ঠান।

এবার ঢাকার মেট্রোরেলের দিকে তাকালে লাল মেঝেযুক্ত কোন ট্রেনই বাংলাদেশে নেই। এ দেশের কোনো ট্রেনে ভারতের পতাকা সংবলিত লোগোও নেই। ফলে এখানেই অনেকটা নিশ্চিত, মেট্রোরেলে ভাইরাল হওয়া ছবিটি বাংলাদেশের নয়, এটি ভারতের।

এবার আরেকটু নিশ্চিত হতে চোখ রাখতে পারেন কৃ ত্তি কা নামের একটি ফেসবুক পেজে। ১৪ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টা ৫ মিনিটে এই ছবিটি পোস্ট করা হয়। ক্যাপশনে লেখা হয়, মেট্রোটা কেও ছাড়ছে না। সেখানে পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার হরিণঘাটা শহরের ছবি বলে জানানো হয়েছে।

এরপর সেই কৃ ত্তি কা পেজের ক্রেডিট দিয়ে তিলোত্তমা kolokata নামের একটি ফেসবুক পেজেও ওইদিন রাত সাড়ে ১১টায় এই ছবিটি পোস্ট করা হয়। লেখা হয়, মেট্রো টাকে অন্তত রেহাই দে ভাই

ছবিটি নিয়ে কলকাতার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন নেটিজেনরা। 

অর্থাৎ তরুণ-তরুণীর আলিঙ্গনের ভাইরাল ছবিটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মেট্রোরেলের। এটি বাংলাদেশের ঢাকার মেট্রোরেলের কোনো ছবি নয়। 


আরও খবর
বাংলাদেশের অর্ধেক পানিতেই আর্সেনিক : গবেষণা

বৃহস্পতিবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৪




দেশের তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি পর্যন্ত উঠতে পারে

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

তীব্র শীতের পর এখন সারা দেশে মিশ্র আবহাওয়া পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে সামনে আসছে অসহনীয় গরম। আগামী তিন মাসের আবহাওয়া পরিস্থিতি নিয়ে দেওয়া আগাম বার্তায় এমনটাই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, শিলাবৃষ্টি, কালবৈশাখী ঝড়, মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ এবং বঙ্গোপসাগরের লঘুচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কার বার্তা দিয়েছে সংস্থাটি।

আগামী তিন মাসের আবহাওয়া পূর্বাভাসে অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান এ তথ্য জানান।

সংস্থাটি জানায়, গত জানুয়ারি মাসে সার্বিকভাবে সারা দেশে স্বাভাবিক অপেক্ষা কম (১৫.৮%) বৃষ্টিপাত হয়েছে। তবে খুলনা বিভাগে স্বাভাবিক অপেক্ষা বেশি এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট, রংপুর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিক অপেক্ষা কম বৃষ্টিপাত হয়েছে।

পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বায়ুপ্রবাহের সংযোগ ঘটায় ১৭ থেকে ১৯, ২০ থেকে ২৫ ও ৩০ থেকে ৩১ জানুয়ারি ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক স্থানে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এ সময় জানুয়ারি মাসে সাতক্ষীরায় সর্বোচ্চ ৩৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

এছাড়া উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চল পর্যন্ত বিস্তার লাভ করায় ২ থেকে ৫, ১২ থেকে ১৫, ১৭ থেকে ১৮ ও ২০ থেকে ৩০ জানুয়ারি দেশের অনেক স্থানে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্য প্রবাহ বয়ে যায়। এ সময় গত ২৮ জানুয়ারি দেশের সর্বনিম্ন ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয়। এ মাসে মধ্যরাত থেকে দুপুর পর্যন্ত দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল, উত্তরাঞ্চল, মধ্যাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

এ মাসে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিক অপেক্ষা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিক ছিল এবং গড় তাপমাত্রা ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম ছিল। শৈত্য প্রবাহ, কৃষি আবহাওয়া এবং দেশের নদ-নদীর অবস্থা জানুয়ারি মাসের পূর্বাভাসের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ ছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, আগামী তিন মাসে সামগ্রিকভাবে দেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। বঙ্গোপসাগরে ২ থেকে ৩টি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। যার মধ্যে একটি নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। তবে আগামী তিন মাসে দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকতে পারে। এছাড়া আগামী তিন মাসের মধ্যে দেশের পশ্চিম, উত্তর, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল, উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ৪ থেকে ৮ দিন বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ হালকা অথবা মাঝারি ধরনের কালবৈশাখী ঝড় হতে পারে।

এর বাইরেও এই সময়ের মধ্যে দেশে ৩ থেকে ৫টি মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী তিন মাসের মধ্যে মৃদু তাপপ্রবাহ অর্থাৎ দেশের তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস হতে পারে। সেই সঙ্গে মাঝারি ধরনের অর্থাৎ ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে প্রবাহ বয়ে য়েতে পারে বলেও জানায় আবহাওয়া অধিদপ্তর।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪