আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম
স্পেনের কারাগারে ম্যাকাফি অ্যান্টিভাইরাস আবিষ্কারকের ‘আত্মহত্যা’ আগস্টে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে আরও ১৮ জনের মৃত্যু ‘আ.লীগ হীরার টুকরা, যতবার কেটেছে নতুন করে জ্যোতি ছড়িয়েছে’ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নামে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন স্বাক্ষর জালিয়াতি ও তথ্য গোপন করায় ছাত্র ইউনিয়নের দুই শীর্ষ নেতা বহিষ্কার ইতিহাসে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা সমার্থক হয়ে থাকবে: : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পরীমনির মামলায় সেই নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে ৯ দেশে ছড়িয়েছে ডেলটা প্লাস ধরন বিধিনিষেধের মধ্যেও শনাক্ত ও মৃত্যু বাড়ছে

ফ্রেঞ্চ কিস করলেই হবে করোনা

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | ১৩৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আপাত দৃষ্টিতে ফ্রেঞ্চ কিস থেকে রোগ সংক্রমণের কোনো ভয় নেই। বরং এতে মন ভালো হয়। তবে ভয়ের ব্যাপার হলো, দু’জনের মধ্যে একজন যদি কোনো রোগে সংক্রমিত থাকেন তাহলে একজনের দ্বারা অপরজনের

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না। বিশ্বের বিভিন্ন গবেষক ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ভাইরাসটিকে নির্মূল করার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে প্রতিনিয়ত ভ্যাকসিন প্রদান করা হচ্ছে। তারপরও প্রতিদিন মৃত্যু হচ্ছে অদৃশ্য শক্তিশালী এই ভাইরাসে। তবে এই সময়ের মধ্যে প্রেম থেমে নেই কারো। আর প্রেমে থাকলে তো ভালোবাসার মানুষকে চুমু খাওয়া খুব স্বাভাবিক ব্যাপার।

করোনার এই সময় সঙ্গীকে চুমু খাওয়া কতটুকু নিরাপদ, এ নিয়ে অনেক প্রেমিক যুগলের মনে প্রশ্ন রয়েছে। হালকা চুমু ঠিক আছে। কিন্তু ফ্রেঞ্চ কিস? করোনার এই সময় সচেতন প্রেমিকরা তো এই বিশেষ সময়ও সচেতন। ফ্রেঞ্চ কিস করলে তো জীবাণু প্রবেশ করবে না, করোনা হওয়ার শঙ্কা হবে না- ইত্যাদি ইত্যাদি বিভিন্ন প্রশ্ন জাগে মনে।

সুন্দর এই জিনিসকে অর্থাৎ ফ্রেঞ্চ কিসকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের সেরা চুমু হিসেবেই মানা হয়। এই চুমুর সময় একজন অপরজনের মুখের ভেতর ঠোঁট, জিভ গভীরভাবে প্রবেশ করেন। দীর্ঘক্ষণ এভাবে অবস্থান করেন উভয়ই। আর এই মুহূর্তে শরীরে শিহরণ জেগে উঠার সঙ্গে সঙ্গে আবেগেরও সঞ্চার হতে থাকে। গভীরভাবে চুমু আদান-প্রদানের সময় একে অপরের মুখের লালারসও আদান-প্রদান হয়। এ কারণে রোগের আশঙ্কা করা হয়।

চুমুতে শরীর ভালো থাকবে: আপাত দৃষ্টিতে ফ্রেঞ্চ কিস থেকে রোগ সংক্রমণের কোনো ভয় নেই। বরং এতে মন ভালো হয়। তবে ভয়ের ব্যাপার হলো, দুজনের মধ্যে একজন যদি কোনো রোগে সংক্রমিত থাকেন তাহলে একজনের দ্বারা অপরজনের মধ্যে তা অনায়াসে সংক্রমিত হয়। এমনকি মুখের ইনফেকশন তো হয়ই এবং করোনা ছড়ানোরও সম্ভাবনা থাকে ফ্রেঞ্চ কিসের মাধ্যমে।

ফ্রেঞ্চ কিসের মাধ্যমে এইচপিভি (Human Papillomavirus) সংক্রমণও ছড়াতে পারে। তা থেকে এইচআইভি বা হেপাটাইটিস বি-র মতো রোগ সংক্রমণের কিছুটা সম্ভাবনা থাকে। কাউকে চুমু খাওয়ার সময় দাঁতের কামড়ে ঠোঁট কেটে গেলে সামান্য হলেও সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

যাদের ওসিডি (Obsessive Compulsive Disorder) সমস্যা রয়েছে তারা ফ্রেঞ্চ কিসের পর অনেক উদ্বেগে ভোগেন। এছাড়া দুজনের একজনের যদি এই ফ্রেঞ্চ কিসে অনীহা থাকে তাহলে সম্পর্কে কুপ্রভাব পড়ে। কেননা, একজন আরেকজন সঙ্গীর চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হলে সেই সম্পর্ক দীর্ঘায়িত হয় না।

রোগ সংক্রমণের কোনো সম্ভাবনা বা আশঙ্কা না থাকলেও ফ্রেঞ্চ কিসের সময় বেশ কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত। এবার তাহলে সেই সকল বিষয়গুলো জেনে নেয়া যাক-

চুমু খাওয়ার আগে মুখের ভেতরের পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সতর্ক থাকুন।

চুমু খাওয়ার সময় মুখ থেকে দুর্গন্ধ বের হলে সম্পর্কের ইতি হতে পারে।

মুখে ইনফেকশন থাকলে চিকিৎসা করান। রোগ সাড়িয়ে তারপরই সঙ্গীকে চুমু দিন।

ফ্রেঞ্চ কিসের আগে এমন কিছু খাবেন না যা থেকে মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।

চুমু খাওয়ার আগে সুগন্ধি দিয়ে মুখশুদ্ধি করে নিন। সমীক্ষা বলছে চুমুর সময় স্বাভাবিক মুখ থাকলে সঙ্গী স্বস্তি পান।

চুমুর পর কখনোই সঙ্গীর সামনে মুখ ধুবেন না। এতে সে ভাববে আপনি তার প্রতি অস্বস্তি বোধ করছেন।


আরও খবর
বাবার জন্য ভালোবাসা

রবিবার ২০ জুন ২০21




করোনায় ৩১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৫৮ জনের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩১ জন, যা কিনা তার আগের ২৪ ঘণ্টায় ছিল ২২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৫৮ জন, তার আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছিলেন এক হাজার ২৯২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩১ জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় সরকারি হিসেবে মারা গেলেন ১২ হাজার ৫১১ জন এবং নতুন শনাক্ত হওয়া এক হাজার ৩৫৮ জনকে নিয়ে শনাক্ত হলেন সাত লাখ ৯৬ হাজার ৩৪৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৬৪ জন এবং এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন সাত লাখ ৩৬ হাজার ২২১ জন।

শুক্রবার (২৮ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৫ হাজার ৩৮৮টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৪ হাজার ৬০৬টি। দেশে এখন পর্যন্ত করেোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৯ লাখ এক হাজার ৮৭৪টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৩ লাখ ১১ হাজার ৪২২টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ লাখ ৯০ হাজার ৪৫২টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী শনাক্তের হার নয় দশমিক ৩০ শতাংশ, আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৪৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যু হার এক দশমিক ৫৭ শতাংশ।

দেশে বর্তমানে ৪৯৭টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এর মধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ১২৯টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৪২টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৩২৬টি পরীক্ষগারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩১ জনের মধ্যে পুরুষ ১৮ জন, আর নারী ১৩ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত পুরুষ মারা গেলেন ৯ হাজার ৩৭ জন এবং নারী মারা গেলেন তিন হাজার ৪৭৪ জন।

বয়স বিবেচনায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ১৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে পাঁচ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে চার জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে আছেন একজন।

মৃত্যুবরণকারী ৩১ জনের মধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগে আছেন ১০ জন করে, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে আছেন দুই জন করে, খুলনা বিভাগে আছেন ছয় জন এবং সিলেট বিভাগে আছেন একজন।

তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ২৬ জন, বেসরকারি হাসপাতালে চার জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন একজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া এক হাজার ৬৪ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ২৫০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৩৭৪ জন, রংপুর বিভাগের ৪৯ জন, খুলনা বিভাগের ১০৫ জন, বরিশাল বিভাগের ২১ জন, রাজশাহী বিভাগের ৮৩ জন, সিলেট বিভাগের ১০০ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ৮২ জন।


আরও খবর



রাত ১২ টার মধ্যে কাদের মির্জাকে গ্রেফতারে দাবি মঞ্জুর

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৪ জুন ২০২১ | ১১৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে সোমবার (১৪ জুন) রাত ১২টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশিদ মঞ্জু। সকাল সাড়ে ১০ টায় নিজ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এক লাইভে তিনি এ দাবি জানান। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাদের মির্জা গ্রেফতার না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, আমরা কাদের মির্জার গ্রেফতার দাবি করে ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ দিয়েছিলাম। কিন্তু আমরা প্রশাসনের কোনও পদক্ষেপ দেখতে পাইনি। আজ রাত ১২টার মধ্যে তাকে গ্রেফতারের জোর দাবি জানাচ্ছি।

নির্ধারিত সময়ে গ্রেফতার না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বলবো যার যা কিছু আছে, তা নিয়ে প্রস্তুত থাকুন। বঙ্গবন্ধু আন্দোলন করে এই দেশ স্বাধীন করেছেন। প্রশাসন যদি রাত ১২টার মধ্যে কোনও ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে কঠিন আন্দোলন করা হবে। তখন আর কেউ আমাদের থামিয়ে রাখতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন, প্রশাসন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে। আপনারা কী করেন, আমাদের কাছে তথ্য আছে। আপনারা সঠিকভাবে আইন প্রয়োগ করুন। আমরা গ্রেফতার হলেও, এই আন্দোলন থেকে পিছিয়ে যাবো না। যদি ১০০ লাশও পড়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী পিছপা হবে না। আমরা তীব্র থেকে তীব্রতর আন্দোলন চালিয়ে যাবো।



আরও খবর



পাহাড় ধসের আশঙ্কায়

সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাট-বায়েজিদ সংযোগ সড়ক বন্ধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বর্ষণে পাহাড় ধসের ঝুঁকি তৈরি হওয়ায় চট্টগ্রামের দৃষ্টিনন্দন ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ বায়েজিদ-ফৌজদারহাট লিংক রোড বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় মঙ্গলবার (৮ জুন) থেকে সড়কটিতে ২ থেকে ৩ মাসের জন্য সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী হাসান বিন শামস এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, চট্টগ্রামের বায়েজিদ থেকে আরেফিন নগর হয়ে সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাট পর্যন্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে লিংকরোডটি তৈরি করা হয় পুরোপুরি পাহাড় কেটে। বিশেষ করে আরেফিন নগর এলাকা থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার পর্যন্ত সড়ক দুই পাশে খাড়াভাবে পাহাড় কেটে দৃষ্টিনন্দনভাবে সড়কটি নির্মিত হয়েছে। গত এক বছর ধরে এই সড়কে যানবাহন চলাচল শুরু হয় এবং অনেকের কাছে সড়কটি দর্শনীয় স্থান হিসেবেও পরিচিতি লাভ করে।

সম্প্রতি চট্টগ্রামে ভারি বর্ষণ শুরু হওয়ার পর এই সড়কের পাশ্ববর্তী বিভিন্ন পাহাড় ধসের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে কয়েকটি স্থানে ছোট ছোট পাহাড় ভেঙে পড়তেও দেখা গেছে। এই অবস্থায় বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে কর্তৃপক্ষ এই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সাময়িক সময়ের জন্য।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী হাসান বিন শামস জানান, বায়েজিদ-ফৌজদারহাট লিংক রোডের কয়েকটি স্থানে পাহাড় ধসের ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে।  এই অবস্থায় এই সড়কে ২ থেকে ৩ মাসের জন্য সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এই সময়ে মধ্যে সড়কটি পাহাড় ধসের ঝুঁকিমুক্ত করতে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ ও অন্যান্য নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সংক্রমণ কমলেও, বেড়েছে মৃত্যু। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৪৩ লাখ ৭৪ হাজার ৮৭৩ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ৯৩৫ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৫ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার ১৫৬ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে মঙ্গলবার (৮ মে) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪২ লাখ ২৭ হাজার ২২৭ জন আর ৬ লাখ ১২ হাজার ৭০১ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৮৯ লাখ ৯৬ হাজার ৯৪৯ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৫১ হাজার ৩৪৪ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৬৯ লাখ ৮৫ হাজার ৮১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৬১৪ জনের।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৯১৭ জন, রাশিয়ায় ৫১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৬৬ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৫ লাখ ২২ হাজার ৪৭৬ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৩৩ হাজার ৬৯৮ জন, তুরস্কে ৫২ লাখ ৯৩ হাজার ৬২৭ জন, স্পেনে ৩৭ লাখ ৭ হাজার ৫২৩ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ১০ হাজার ৩৪১ জন এবং মেক্সিকোতে ২৪ লাখ ৩৩ হাজার ৬৮১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১০ হাজার ৬২ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ২৪ হাজার ১১৭ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৮৪১ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৬ হাজার ৫৮৮ জন, তুরস্কে ৪৮ হাজার ২৫৫ জন, স্পেনে ৮০ হাজার ২৩৬ জন, জার্মানিতে ৮৯ হাজার ৯৬৫ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ২৮ হাজার ৮০৪ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।



আরও খবর



চার নয় ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব, সঙ্গে জরিমানা ৫ লাখ

প্রকাশিত:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চার ম্যাচ নয়, তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন সাকিব আল হাসান। একই সঙ্গে ৫ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে জাতীয় দলের তারকা এ ক্রিকেটারকে।

শুক্রবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়ে অসদাচরণ করায় সাকিবকে এ শাস্তি দেয়া হয়। মোহামেডানের এ অধিনায়ক শাস্তি মেনে নেওয়ায় এ ঘটনায় আর কোনো শুনানির প্রয়োজন নেই।

শনিবার দুপুর দুইটার দিকে ম্যাচ রেফারি মোরশেদুল আলমের পাঠানো শাস্তির নোটিশ হাতে পান সাকিব। চিঠিতে সাকিবের বিরুদ্ধে লেভেল-৩ পর্যায়ের আচরণবিধি ভাঙার অভিযোগ এনে তাকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা ও ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয়।

এর আগে মোহামেডান ক্লাবের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, সাকিবকে চার ম্যাচের জন্য বহিষ্কার করা হতে পারে।

শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর বিপক্ষে ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারের পঞ্চম বলে সাকিবের আউটের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলে মেজাজ হারিয়ে সাকিব নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তের স্টাম্পে লাথি মেরে ভেঙে দেন।

এরপর তুমুল বৃষ্টি নামলে আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান খেলা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। তিনি যখন মাঠকর্মীদের কাভার আনার ইশারা দিচ্ছেন, তখন সাকিব আম্পায়ারের দিকে এগিয়ে গিয়ে তিনটি স্টাম্পই তুলে উইকেটের ওপর ছুড়ে মারেন।

এমনকি বৃষ্টির সময়ে আবাহনীর ড্রেসিংরুমের দিকে তাকিয়ে সাকিব কিছু বললে ক্ষেপে গিয়ে তেড়ে আসেন আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। তখন মোহামেডানের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার সাকিবকে জাপটে ধরে থামান।


আরও খবর