আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

ফুটবলাররা টিকা না নেওয়ায় ইন্দোনেশিয়ায় খেলা হচ্ছে না বাংলাদেশের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ইন্দোনেশিয়া থেকে বলা হয়, দলের খেলোয়াড় ও সব কর্মকর্তার দুই ডোজ টিকা সম্পন্ন থাকতে হবে। কিন্তু আমাদের দলের সব খেলোয়াড়ের দুই ডোজ টিকা নেওয়া হয়নি

খেলতে হলে প্রত্যেক ফুটবলারের নেওয়া থাকতে হবে করোনা প্রতিরোধক দুই ডোজ টিকা, ইন্দোনেশিয়ার এমন শর্তে মাথায় হাত পড়ার অবস্থা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে)। শেষ পর্যন্ত দেখা গেল মেলানো যাচ্ছে না শর্ত। তাই ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে খেলার ইচ্ছা বাতিলই করতে হলো বাংলাদেশ ফুটবল দলকে।

জানুয়ারির ফিফা উইন্ডোতে ২৪ ও ২৭ তারিখে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৬৪তম স্থানে থাকা ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে তাদের মাটিতেই দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল জামাল ভূঁইয়াদের৷ কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার দাবি ছিল তাদের মাঠে খেলতে হলে সব ফুটবলার ও কর্মকর্তাকে দুই ডোজ টিকার আওতায় থাকতে হবে। সব ফুটবলারের দুই ডোজ করে করোনা টিকা না নেওয়ায় খেলা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান জাতীয় দল কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ।

এক ভিডিও বার্তায় নাবিল বলেছেন, 'আমরা এ দুই ম্যাচ খেলার জন্য স ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কোচও ১৫ তারিখে চলে আসবেন, স্কোয়াডও চূড়ান্ত করেছিলাম কিন্তু ইন্দোনেশিয়া থেকে বলা হয়, দলের খেলোয়াড় ও সব কর্মকর্তার দুই ডোজ টিকা সম্পন্ন থাকতে হবে। কিন্তু আমাদের দলের সব খেলোয়াড়ের দুই ডোজ টিকা নেওয়া হয়নি। ১৫ ফুটবলার দুই ডোজ নিলেও এক ডোজ নিয়েছেন সাতজন এবং ছয় ফুটবলার এখনো টিকাই গ্রহণ করেননি! এর ফলে আমাদের ইন্দোনেশিয়ায় যাওয়া হচ্ছে না।'

জানুয়ারির উইন্ডোতে কোনো ম্যাচ না খেলতে পারলেও মার্চের উইন্ডোতে ম্যাচ খেলার ব্যাপারে আশাবাদী কাজী নাবিল আহমেদ। মার্চের আগেই জাতীয় দল ও অনূর্ধ্ব-২৩ দল মিলিয়ে প্রায় ৪০ জনের একটা তালিকা করে সবাইকে টিকার আওতায় আনা হবে বলে জানান কাজী নাবিল আহমেদ।

গত সপ্তাহে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব পেয়েছেন স্প্যানিশ হাভিয়ের কাবরেরা। ১৫ জানুয়ারি ঢাকায় আসবেন তিনি। ইন্দোনেশিয়া সফর দিয়েই বাংলাদেশের ডাগআউটে বসার কথা ছিল তাঁর। সফর বাতিল হওয়ায় আপাতত কিছুদিন বেকারই থাকতে হবে কাবরেরাকে।


আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও সংগ্রামে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দানকারী ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। বাংলা, বাঙালির স্বাধিকার অর্জনের লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জন্ম হয়।

সংগঠনটির দীর্ঘ রাজনৈতিক পরিক্রমায় ৫২র ভাষা আন্দোলন, ৫৪র প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়, ৫৮র আইয়ুববিরোধী আন্দোলন, ৬২র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬র ছয় দফার পক্ষে গণঅংশগ্রহণের মাধ্যমে মুক্তির সনদ হিসেবে এই দাবিকে প্রতিষ্ঠা করে।

৬৯র গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আনা, ৭০র নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ জয়লাভ ও ৭১র মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে পরাধীন বাংলায় লাল সবুজের পতাকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পাঁচদিনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-

৪ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ৭টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৮টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের প্রতিনিধি দল টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, সকাল ৯টায় কার্জন হলে কেক কাটা এবং দুপুর ২টায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন ও আনন্দ শোভাযাত্রা।

৫ জানুয়ারি (বুধবার) বেলা সাড়ে ১১টায় কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ সম্প্রচার হবে প্রতিটি জেলা, মহানগর ও উপজেলার দলীয় কার্যালয়ে।

৬ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে পথশিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ, বিকেল ৩টায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হবে।

৭ জানুয়ারি (শুক্রবার) বিকেল ৩টায় দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ। ৮ জানুয়ারি (শনিবার) বেলা ১১টায় ঢাবির অপরাজেয় বাংলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করবে সংগঠনটি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঘোষিত কর্মসূচি যথাযথ মর্যাদায় পালন করতে ইউনিটের (জেলা, মহানগর, বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ) নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।


আরও খবর



সলঙ্গায় কবরস্থান থেকে ১৬ কঙ্কাল চুরি

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় কবরস্থান থেকে ১৬ কঙ্কাল চুরির ঘটনা ঘটেছে।উপজেলার সলঙ্গা ইউনিয়নের নাইমুড়ি গ্রামে রুয়াপাড়া কবরস্থানে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) বিকেলে নাইমুড়ী গ্রামের মৃত বদিউজ্জামান তালুকদারের স্ত্রী মরহুমা হালিমা খাতুনের (৭৬) মরদেহ দাফন করতে গিয়ে বিষয়টি জানা যায়।

গ্রামবাসী জানান, নাইমুড়ি গ্রামের মৃত বদিউজ্জামানের স্ত্রী মরহুমা হালিমা খাতুনকে দাফন করতে গিয়ে দেখা যায় ১৬টি কবর খনন করা। সন্দেহ হলে একটা কবর খনন করে দেখা যায় সেখানে কঙ্কাল নেই। এরপর বাকি ১৫ কবর খুঁড়লে কোনোটিতেই কঙ্কাল পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে নাউমুড়ী রুয়াপাড়া সম্মিলিত কবরস্থান কমিটির সভাপতি আব্দুল মান্নান তালুকদার বলেন, বিষয়টি অত্যান্ত দুঃখজনক। পরবর্তীতে এ ধরনের ঘটনা আর যাতে না ঘটে সেজন্য কমিটির পক্ষ থেকে কঠোর নজরদারির ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে সলঙ্গা সলঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাইমুড়ি গ্রামের বাসিন্দা আকমল হোসেন বাদশা বলেন, এমন ঘটনায় আমরা মর্মাহত। বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করেছি। চোর চক্রকে ধরতে কবরস্থানে পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তবে এ ব্যাপারে সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানীকে একাধিকবার ফোন করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

নিউজ ট্যাগ: কঙ্কাল চুরি

আরও খবর



কাশ্মিরে মন্দিরে পদদলিত হয়ে ১২ পুণ্যার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নতুন বছরের শুরুতে ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মিরে মাতা বৈষ্ণ দেবী মন্দিরে পদদলিত হয়ে মারা গেছেন অন্তত ১২ জন পুণ্যার্থী। এ ঘটনায় আহত হন আরও ১৪। গতকাল রাতে প্রচণ্ড ভিড়ের মধ্যে প্রাণ হারান তারা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মন্দির কর্তৃপক্ষ।

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে মন্দিরে প্রণাম জানাতে আসা ভক্তদের বড় একটি দল বৈষ্ণব দেবী ভবনে প্রবেশ করলে পদদলিতের ঘটনাটি ঘটে। কর্তৃপক্ষ বলছে, অনেক লোক অনুমতি ছাড়াই ভেতরে প্রবেশ করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে তারা। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এদের কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।

ভয়াবহ এই দুর্ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই ঘটনা তিনি নিজে পর্যবেক্ষণ করছেন বলেও জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল থেকে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২ লাখ এবং আহতদের ৫০ হাজার রূপি সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন মোদি।


আরও খবর
সৌদি আরবে প্রতি ঘণ্টায় ৭ ডিভোর্স

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




করোনায় আরও একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৭

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৬২ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩৯৭ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৮৪ হাজার ২৩ জন। মৃত একজন নারী। 

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৪৮ হাজার ৪৪ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৫১টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৮ হাজার ৯৪১টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৮ হাজার ৯৩৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ১৪ লাখ ২৯ হাজার ২৩৪টি। 

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২ দশমিক ১০ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭৩ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত একজনের বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে। মৃত একজন ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা এবং তিনি সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন। 

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৫২ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ১০১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৮৯ হাজার ১৯০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ৫৫ হাজার ১৩৭ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৪ হাজার ৫৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে। গত শনিবার (২০ নভেম্বর) প্রথমবারের মতো দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। এদিন করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১৭৮ জনের।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৮২৮

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে তাড়িয়ে দিল স্বামী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিয়ের পর মাত্র এক সপ্তাহ সংসার করতে না করতেই স্বামী ফারুক হোসেন তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। ২ লাখ টাকা দেওয়ার পরও আরও ৩ লাখ টাকা যৌতুক না দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটিয়েছে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের কুলিয়া গ্রামের ফারুক হোসেন। নিরূপায় হয়ে স্ত্রী মামলা করেছেন সাতক্ষীরার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে। তবে ফারুক হোসেন দাবি করেছেন, তাকে জোর করে ধরে নিয়ে গিয়ে বিবাহ রেজিস্ট্রারের সামনে স্বাক্ষর করিয়ে বিয়ে করানো হয়েছে।

এ সময় তাকে মারধর করে দুজনের ছবিও তুলে রাখে তারা। কুলিয়া ইউনিয়নের বালিয়াডাঙা গ্রামের ওই নারী জানান, ফারুক হোসেনের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ৯ ডিসেম্বর সাতক্ষীরার থানাঘাটায় বিবাহ রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে তাদের দুজনের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এ সংক্রান্ত কাবিননামায়ও ৩ লাখ টাকা দেনমোহরে স্বাক্ষরিত হয়। এদিকে বিয়ের পর বাড়ি আসতেই ফারুক হোসেন তার কাছে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। তিনি তাকে ২ লাখ টাকা দেন। কিন্তু আরও ৩ লাখ টাকা না দেওয়ায় মাত্র কয়েকদিনের মাথায় ফারুক তাকে বাড়ি থেকে ১৭ ডিসেম্বর মারধর করে বের করে দেয়।

অভিযোগ করে তিনি বলেন, ফারুক তাকে নানাভাবে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। এমনকি একজন ইউপি সদস্যকে তাদের বাড়িতে এনে তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিষয়টি মিটমাট করে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে। এ প্রসঙ্গে ফারুক হোসেন বলেন, আমি কাউকে বিয়ে করিনি। আমার কাছ থেকে জোর করে স্বাক্ষর করিয়ে বিয়ের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর