আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

গাজায় ৫০ দিনে অন্তত ৬৭ সাংবাদিক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে গত ৫০ দিনে অন্তত ৬৭ জন সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মী নিহত হয়েছেন। শনিবার গাজার গণমাধ্যমবিষয়ক সরকারি কার্যালয় হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে সাংবাদিকদের প্রাণহানির এই তথ্য জানিয়েছে।

টেলিগ্রামে নিজেদের চ্যানেলে দেওয়া এক পোস্টে গাজার গণমাধ্যমবিষয়ক সরকারি কার্যালয় নিহত সাংবাদিকদের নাম ও ছবি প্রকাশ করেছে। এতে নিহত সাংবাদিকদের ‘‘সত্যের শহীদ’’ বলে অভিহিত করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে অন্তত সাতজন নারী সাংবাদিক রয়েছেন।

এদিকে, সাংবাদিকদের অধিকার রক্ষায় সোচ্চার বৈশ্বিক সংগঠন কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস (সিপিজে) শনিবার (২৫ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে বলেছে, গত ৭ অক্টোবর হামাসের সাথে ইসরায়েলের যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত (২৫ নভেম্বর) ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ৫৩ সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মী নিহত হয়েছেন। নিহত সাংবাদিকদের বেশিরভাগই ফিলিস্তিনি। এছাড়া ইসরায়েল ও লেবাননিজ সাংবাদিকও চলমান এই যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছেন।

১৯৯২ সাল থেকে সংঘাতে দায়িত্বপালনের সময় হতাহত সাংবাদিকদের তথ্য সংগ্রহ ও পরিসংখ্যান প্রকাশ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কভিত্তিক এই সংগঠন। তারা বলেছে, সংঘাতে হতাহত সাংবাদিকদের পরিসংখ্যান প্রকাশের সময় থেকে এখন পর্যন্ত যেকোনো সংঘাতের প্রথম এক মাসে সর্বোচ্চসংখ্যক সাংবাদিকের প্রাণহানির রেকর্ড হয়েছে হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে। 

আরও পড়ুন>> কিয়েভে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় ড্রোন হামলা

সিপিজে বলেছে, চলমান যুদ্ধে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচ সাংবাদিকের প্রাণহানি ঘটেছে গত ১৮ নভেম্বর। এর আগে গত ৭ অক্টোবর যুদ্ধ শুরুর দিনেই সর্বোচ্চ ৬ সাংবাদিকের প্রাণহানির রেকর্ড করা হয়েছে। শনিবার পর্যন্ত হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে যে সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মীরা নিহত হয়েছেন তাদের মধ্যে ৪৬ জন ফিলিস্তিনি, ৪ জন ইসরায়েলি এবং তিনজন লেবাননিজ। এছাড়া এই যুদ্ধে আহত হয়েছেন আরও ১১ সাংবাদিক। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ৩ জন এবং গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১৮ জনকে।

গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠী হামাসের আন্তঃসীমান্ত আক্রমণের পর থেকে হাসপাতাল, বাসস্থান এবং উপাসনালয়সহ গাজা উপত্যকার বিভিন্ন স্থাপনায় টানা বিমান ও স্থল হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। ইসরায়েলের নির্বিচার হামলায় উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের প্রাণহানির সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। তাদের বেশিরভাগই নারী এবং শিশু।

আর হামাসের হামলায় ইসরায়েলিদের প্রাণহানি এক হাজার ২০০ জনে পৌঁছেছে বলে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) জানিয়েছে। যদিও প্রথমে হামাসের হামলায় ১ হাজার ৪০০ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছিল ইসরায়েল।


আরও খবর



চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলেন ইইডির প্রধান প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের (ইইডি) প্রধান প্রকৌশলী মো. দেলোয়ার হোসেন মজুমদারকে দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

সোমবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এ প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, প্রকৌশলী মো. দেলোয়ার হোসেন মজুমদারের অবসর-উত্তর ছুটি ও তৎসংশ্লিষ্ট সুবিধা স্থগিত ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের সঙ্গে কর্ম-সম্পর্ক পরিত্যাগের শর্তে ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ অথবা যোগদানের তারিখ থেকে পরবর্তী ০২ (দুই) বছর মেয়াদে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করা হলো।

এ উপলক্ষে গতকাল তিনি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেন।

এর আগে ২০২২ সালের ১৩ অক্টোবর শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের (ইইডি) প্রধান প্রকৌশলী পদে (চলতি দায়িত্ব) নিয়োগ পান মো. দেলোয়ার হোসেন মজুমদার। এরপর ২০২৩ সালের ৪ ডিসেম্বর প্রধান প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি পান তিনি।

নিয়োগের প্রতিক্রিয়ায় দেলোয়ার হোসেন মজুমদার বলেন, সরকারের কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন ও লক্ষ্য অর্জনে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার থেকে আগামী দুই বছরের জন্য যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তা আমি নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করব।


আরও খবর



ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সকাল ১০টার মধ্যে

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ধর্ম ও জীবন

Image

গাজীপুরের টঙ্গীতে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে বাদ ফজর হেদায়েতি বয়ান শুরু হবে। বয়ান করবেন পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক। এরপর কিছুসময় নসিহতমূলক কথা বলবেন ভারতের মাওলানা ইব্রাহিম দেওলা।

আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা জুবায়ের আহমদ।

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের মিডিয়া সমন্বয়কারী হাবিবুল্লাহ রায়হান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: বিশ্ব ইজতেমা

আরও খবর
শবে বরাত সম্পর্কে হাদিসে যা বলা হয়েছে

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নরসিংদীতে পৃথক ঘটনায় ২ জন নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নরসিংদী প্রতিনিধি

Image

নরসিংদীতে পৃথক ঘটনায় দুজন নিহত হওয়ায় খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সদর উপজেলার সংগীতা এলাকায় দুর্বৃত্তের হামলা নিহত হয় সুমন মিয়া (৩২) নামে এক যুবক।

তাছাড়া শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে পলাশ উপজেলায় জিনারদীতে রেললাইনের পাশে একটি ঝোপ থেকে একই নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার বাড়ি সদর উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার মো. ইকতিয়ার উদ্দিন।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিক নরসিংদী শহরের সংগীতা এলাকায় সুমন মিয়াকে কুপিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা। পরে নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নেওয়া হলে সেখানে মারা যান তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তানভির আহমেদ।

তিনি বলেন, হামলার খবর পেয়ে ওই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নিহত সুমন মিয়ার স্বজন জানান, রাতে বাসায় ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা সুমনকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে সে মারা যায়। নিহত সুমন পৌরসভার সংগীতা এলাকার সোবহান মিয়ার ছেলে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বেলা ১১টা) নিহত সুমনের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে বলে জানান তারা।

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কে এম শহিদুল ইসলাম সোহাগ বলেন, পৃথক ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা তৎপর রয়েছি। দুটি ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

তবে ঝোপ থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহটি রেল দুর্ঘটনা নাকি হত্যা করা হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



তিন দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে এগিয়ে ইমরান খানের দল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে ২৬৫ আসনের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৭০ আসনে বেসরকারি ফলাফল জানা গেছে। প্রাপ্ত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন), সাবেক প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারির দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) মধ্যে।

কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরার তথ্য অনুযায়ী ২৪ আসনে জয় পেয়েছেন ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। ১৮টি আসনে জয় পেয়েছেন নওয়াজ শরীফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজে (পিএমএল-এন)। আর পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) প্রার্থীরা জিতেছেন ২৪টি আসনে। অন্যদিকে অন্যান্য দল পেয়েছে চারটি আসন।

ডন পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে একই সময় পর্যন্ত ৩৯টি আসনে ফল ঘোষণার তথ্য পাওয়া গেছে। এতে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯ আসনে, পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজে (পিএমএল-এন) ১৩টিতে এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) ১৫টি আসনে জয়লাভ করেছে। দুটি আসনে জিতেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।

পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদে ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। নির্বাচনের আগে দুর্বৃত্তের গুলিতে এক প্রার্থী নিহত হওয়ায় একটি আসনে ভোট স্থগিত করা হয়েছিল আগেই। তাই গতকাল বৃহস্পতিবার ভোট হয়েছে ২৬৫ আসনে।

পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়েছে, কোনো দল এককভাবে সরকার গঠন করতে চাইলে এবার ১৩৪টি আসনে জিততে হবে। তবে বিশ্লেষকেরা বলছেন, পাকিস্তানে এবার কোনো দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নাও পেতে পারে।


আরও খবর



কারো সঙ্গে আমরা যুদ্ধে জড়াতে চাই না : কাদের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের কোনো বিরোধ নেই। রোহিঙ্গা ইস্যুতে যে সমস্যা সেটা আন্তর্জাতিকভাবে সমাধানের চেষ্টা চলছে। তাদের সঙ্গে যুদ্ধের কোনো কারণ নেই। মিয়ানমার নয় শুধু, কারো সঙ্গে আমরা যুদ্ধে জড়াতে চাই না।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। এর আগে তিনি সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রির বুথ পরিদর্শন করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা একে অন্যের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত না। তাদের ইন্টারনাল কনফ্লিক্ট এসে সীমান্তে গড়াচ্ছে। ছিটকে এসে পড়ছে আমাদের সীমান্তে। একজন নারী ও পুরুষ মারা গেছে। এসব ব্যাপারে আমাদের ফরেন মিনিস্ট্রি মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকেছে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, মিয়ানমারের সংঘাতের সঙ্গে সেন্টমার্টিন বা বঙ্গোপসাগরের ভূরাজনৈতিক কোনো সম্পর্ক আছে, সেটা আমি মনে করছি না। এই সংঘাত তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তাদের ৫৪টির মতো এথনিক কমিউনিটি আছে। এই এথনিক কমিউনিটিগুলো ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গা দখলে নিয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনীর সঙ্গে তাদের অভ্যন্তরীণ সংঘাত। আমাদের সঙ্গে তাদের কোনো বিরোধ নেই।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, আগামী শনিবার আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেবেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি আরো বলেন, জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের আমাদের দলের প্রার্থী বাছাই একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে হয়। এখন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ চলছে। সময় তিনদিন। কেউ চাইলে ফরমটি পূরণ করে সঙ্গে সঙ্গে জমা দিতে পারবেন। আমরা আশা করছি নির্বাচন কমিশন এর ভেতরেই দিন ঘোষণা করবে। তারপর আমরা আমাদের মনোনয়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে প্রার্থিতা চূড়ান্ত করব।

উপজেলা নির্বাচনে নৌকার প্রতীক থাকবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সামনে উপজেলা ও সিটি করপোরেশন নির্বাচন রয়েছে। পৌরসভা নির্বাচনও আছে। এসব নির্বাচনে প্রতীক থাকছে কি থাকছে না এই ব্যাপারে আমাদের ওয়ার্কিং কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে। আমাদের বর্ধিত সভায় যারা থাকবে তাদের মতামতও গ্রহণ করা হবে। এটা মৌলিক একটি সিদ্ধান্ত। তাই এই ব্যাপারে সবার মতামত নিয়ে আমাদের নেত্রী চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চান।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪