আজঃ রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে সাহসী শেইলিন

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

এই সময়ের অন্যতম প্রতিশ্রুতিশীল হলিউড অভিনেত্রী মনে করা হয় শেইলিন উডলিকে। এমি ও গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারে মনোনীত শেইলিনকে গত কয়েক বছর দেখা গেছে বিগ লিটল লাইজ, দ্য ফল আউটসহ বেশ কয়েকটি আলোচিত সিরিজে। দারুণ অভিনয় তো আছেই, সঙ্গে পর্দায় ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে শেইলিনের সাবলীল উপস্থিতি দেখা গেছে। এক সাক্ষাৎকারে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন অভিনেত্রী।

২০১৩ সালে মুক্তি পায় শেইলিন উডলির সিনেমা দ্য স্পেক্টাকিউলার নাউ। ছবিতে অভিনয়ের জন্য ব্যাপকভাবে প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হন তিনি। ছবিটিতে প্রথমবারের মতো পর্দায় নগ্ন হন শেইলিন। তার বয়স তখন সবে ২১। এরপর আরও বেশ কয়েকবারই পর্দায় নগ্ন হতে হয়েছে তাকে। এক সাক্ষাৎকারে তিনি কথা বলেছেন, কেন পর্দায় নগ্ন হতে অস্বস্তি বোধ করেন না।

এখন হলিউডে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যগুলোর দেখভাল করেন ইন্টিমেসি কো-অর্ডিনেটর। তবে এই ইন্টিমেসি কো-অর্ডিনেটর বা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের সমন্বয়কের সঙ্গে কাজ করতে শেইলিন পছন্দ করেন না।

তিনি বলেন, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় নিয়ে তার নিজস্ব একটি দৃষ্টিভঙ্গি আছে। শেইলিন জানান, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ের বিষয়টি তিনিই তদারক করেন। শুরুর দৃশ্যটি নিয়ে পরিচালকের সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেন, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের একটি সীমানারেখা ঠিক করেন। যদি দৃশ্যটির জন্য সত্যিই নগ্নতা প্রয়োজন হয়, তবে সেটি এমনভাবে করতে চান, যেন অপ্রয়োজনীয় দেখায়।

তবে সাক্ষাৎকারে শেইলিন স্পষ্টভাবে এটিও বলেন, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শুটিংয়ের সময় যদি বিন্দুমাত্র অস্বস্তি হয়, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে কাজ বন্ধ করে দেন। শেইলিনকে সর্বশেষ গত বছর দেখা গেছে দ্য লাস্ট লেটার ফ্রম ইয়োর লাভার সিনেমায়।

নিউজ ট্যাগ: শেইলিন উডলি

আরও খবর



মারা গেলেন নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেজ গেইঙ্গো মারা গেছেন। আজ রবিবার সকালে রাজধানী উইনহোয়েকের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। ভাইস প্রেসিডেন্ট নাঙ্গোলো বুমবা তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মৃত্যুর সময় তার স্ত্রী মনিকা গেইঙ্গো ও তার সন্তানরা পাশে ছিলেন।

গত মাসেই জানা যায় যে হেজ ক্যানসারে আক্রান্ত। তার দপ্তর জানায়, চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্র নেওয়া হবে তাকে। ২ ফেব্রুয়ারি দেশে ফিরে আসবেন। এর আগে গত বছর এবং ২০১৪ সালে তারা অস্ত্রোপচার হয়েছিল। প্রোস্টেট ক্যানসার থেকে সুস্থও হয়ে যান তিনি।

২০১৫ সালে নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন গেইঙ্গো। এখন দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্বপালন করছিলেন তিনি। আগামী নভেম্বরে পার্লামেন্ট ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল নামিবিয়ায়।


আরও খবর



গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত বেড়ে ২৮ হাজার ছুঁই ছুঁই

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর তাণ্ডব যেন কমছেই না। বরং গাজার এমন কোনো স্থান বাকি নেই যেখানে তারা হামলা চালায়নি। এই উপত্যকার কোথাও এখন নিরাপদ নয়। গত ৭ অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত গাজায় কমপক্ষে ২৭ হাজার ৯৪৭ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও ৬৭ হাজার ৪৫৯ জন।

সামরিক বাহিনীকে রাফাহ থেকে বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নেওয়া এবং হামাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। এদিকে জাতিসংঘে ফিলিস্তিনি দূত প্রশ্ন করেছেন যে, পরিকল্পিত হামলার মধ্যে বেসামরিকদের কোথায় সরিয়ে নেওয়া হবে? কারণ গাজায় এখন আশ্রয় নেওয়ার মতো নিরাপদ কোনো স্থান আর নেই।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস বলেছেন, গাজার ২৩ লাখ জনসংখ্যার অর্ধেকই এখন রাফাহ শহরে ঢুকে পড়েছে। কিন্তু সেথানে কোনো বাড়ি-ঘর নেই, আশ্রয় নেওয়ার মতো কোনো জায়গাও নেই।

খান ইউনিসে ইসরায়েলি স্নাইপাররা নাসের হাসপাতালের বাইরে অন্তত ২১ জনকে হত্যা করেছে। নিহতদের মধ্যে চিকিৎসা কর্মীও রয়েছেন। গাজায় ২৪ ঘন্টায় ১০৭ জন ফিলিস্তিনি নিহত এবং আরও ১৪২ জন আহত হয়েছে।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের সীমান্তে প্রবেশ করে আকস্মিক হামলা চালায় ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এরপরেই গাজায় পাল্টা আক্রমণ শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। চার মাসের বেশি সময় ধরে সেখানে আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল।

এদিকে গাজায় যুদ্ধবিরতির বিষয়ে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস যে প্রস্তাব দিয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেছেন, আর কয়েক মাসের মধ্যেই গাজায় সম্পূর্ণ বিজয় সম্ভব হবে।

গাজায় যুদ্ধ বন্ধে তিন ধাপে ১৩৫ দিনের চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে হামাস। প্রস্তাবে বলা হয়েছে, হামাসের হাতে জিম্মি সব ইসরায়েলিকে ছেড়ে দেওয়া হবে। বিনিময়ে অবরুদ্ধ উপত্যকা থেকে ইসরায়েলকে সব সৈন্য ফিরিয়ে নিতে হবে এবং বন্দি ফিলিস্তিনি নারী-শিশুদের মুক্তি দিতে হবে।

গাজায় যুদ্ধবিরতির বিষয়ে গত সপ্তাহে কাতার ও মিশরের মধ্যস্থতাকারীরা যে প্রস্তাব দিয়েছিল, সেটির জবাবেই এসব শর্ত দিয়েছে হামাস। ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরুর পর গত পাঁচ মাসের মধ্যে সংঘাত বন্ধে এটিই সবচেয়ে বড় কূটনৈতিক প্রচেষ্টা বলে উল্লেখ করা হচ্ছে।


আরও খবর



নারীর জন্য প্রয়োজনীয় পাঁচ ভিটামিন

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

নারীর শরীরের জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত ভিটামিন প্রয়োজন হয়। পুরুষের চেয়ে নারীর শারীরিক বৈশিষ্ট্য বা কার্যকলাপ কিছু ক্ষেত্রে আলাদা। নারী সন্তান জন্ম দেন এবং প্রতি মাসের একটা নির্দিষ্ট সময় পিরিয়ডের মতো শারীরিক অসুস্থতার মোকাবিলা করতে হয়। যে কারণে নারীর শরীরে বিভিন্ন ভিটামিনের ঘাটতি হতে পারে। এসবকিছু সামলে নারীকে সুস্থ থাকতে হলে প্রয়োজনীয় ৫ ভিটামিন নিয়মিত গ্রহণ করতে হবে।

ভিটামিন এ : নারীর জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিনের একটি হলো ভিটামিন এ। এই ভিটামিন দৃষ্টি ফাংশন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং প্রজনন স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই একজন নারীকে ভিটামিন এ যুক্ত খাবার খেতে হবে নিয়মিত। এতে তার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে, চোখ ভালো থাকবে। সেইসঙ্গে উন্নতি ঘটবে প্রজনন স্বাস্থ্যেরও।

ভিটামিন বি : কোষের বিকাশ এবং কার্যকারিতাকে সাহায্য করে ভিটামিন B3। এটি DNA এবং ক্ষতিগ্রস্ত মস্তিষ্কের কোষ তৈরি ও মেরামত করতে সাহায্য করে। এই ভিটামিন পুষ্টিকে শক্তিতে রূপান্তরিত করে। ভিটামিন বি৬ নারীর শরীরে রক্তস্বল্পতা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এটি গর্ভবস্থায় বমি বমি ভাব দূর করতেও কাজ করে। ভিটামিন বি৯ গর্ভবতী নারীর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন। এটি ডিএনএ এবং আরএনএ গঠনে সাহায্য করে। ভিটামিন বি১২ মস্তিষ্কের বিকাশ এবং স্নায়ুতন্ত্রের কার্যকারিতার জন্য প্রয়োজন হয়।

ভিটামিন সি : গর্ভবতী এবং বুকের দুধ খাওয়াচ্ছেন এমন মায়েদের সুস্থতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি ভিটামিন হলো ভিটামিন সি। এই ভিটামিন হলো শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি বৃদ্ধি এবং বিকাশে সাহায্য করে। হাড়, দাঁত এবং টিস্যু মেরামতে কাজ করে ভিটামিন সি। সেইসঙ্গে এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও কাজ করে। রক্তনালী, ত্বক এবং লিগামেন্ট সুস্থ রাখতে প্রয়োজন হয় ভিটামিন সি।

ভিটামিন ডি : ভিটামিন ডি গর্ভবতী নারীর জন্য প্রয়োজনীয় একটি ভিটামিন। এটি হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখে। সেইসঙ্গে বাড়ায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও। ভিটামিন ডি নারীর শরীরে হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখে এবং প্রজনন ব্যবস্থাকে কার্যকরভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। তাই নারীকে প্রতিদিন ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার খাওয়ার পাশাপাশি রোদে বসার অভ্যাস করতে হবে।

ভিটামিন ই : আরেকটি প্রয়োজনী ভিটামিন হলো ভিটামিন ই। এটিরোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, চোখের স্বাস্থ্য এবং ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এটি একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা প্রজনন ব্যাধি প্রতিরোধেও কাজ করে। এই ভিটামিন পিরিয়ডের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। সেইসঙ্গে হরমোনের ভারসাম্য বজায় রেখে মাসিক চক্র নিয়মিত রাখে।


আরও খবর



অবশেষে পাকিস্তানে পার্লামেন্ট অধিবেশন বসছে আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

অনিশ্চয়তা কাটিয়ে পাকিস্তানে আজ শুরু হতে যাচ্ছে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদের প্রথম অধিবেশন। স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় অধিবেশন বসবে। এ দিন নবনির্বাচিত পার্লামেন্ট সদস্যরা শপথ নেয়ার পাশাপাশি নতুন স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন করবেন। এছাড়া নির্ধারণ হবে প্রধানমন্ত্রী এবং বিরোধীদলীয় নেতা।

এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী পদে শাহবাজ শরিফ ও স্পিকার পদে সরদার আয়াজ সাদিককে মনোনয়ন দিয়েছে নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন।  সমঝোতা অনুযায়ী ডেপুটি স্পিকার পদে থাকবেন পিপিপির প্রার্থী। 

আরও পড়ুন>> সৌদি আরবে এক দিনে সাতজনের শিরশ্ছেদ

এর আগে সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিলকে সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ না দেয়ায় অধিবেশন ডাকতে অস্বীকৃতি জানান প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। পরে বুধবার এসআইসির সংরক্ষিত আসন বরাদ্দের দিন ধার্য করে নির্বাচন কমিশন।

এদিকে কেন্দ্র সরকার গঠনের জন্য পিএমএল-এন ও পিপিপির নেতৃত্বে ছয়দলীয় জোটের আলোচনা চলছে। ২ মার্চের মধ্যেই নতুন সরকার গঠন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


আরও খবর



সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি। রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। আর দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ অবস্থান করছে। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সে. হ্রাস পেতে পারে। এই সময়ে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এ ছাড়া মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। তাছাড়া দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।


আরও খবর