আজঃ শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

ঘোড়াশাল সার কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১২৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সকালে ঘোড়াশাল সার কারখানা অভ্যন্তরে প্রতিষ্ঠানটির নবনির্মিতব্য অ্যামুনিয়া ফ্যাক্টরি ভবনের পাইলিংয়ের কাজ করছিলেন শ্রমিকরা। বেলা ১২টার দিকে পাইলিং

নরসিংদীর ঘোড়াশাল ইউরিয়া সার কারখানার নির্মাণাধীন অ্যামুনিয়া ফ্যাক্টরি ভবনের পাইলিংয়ের সময় তিতাস গ্যাসের পাইপলাইন ফুটো হয়ে ভয়াবহ আগুনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে এ আগুনের ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে ঘোড়াশাল, পলাশ ও নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে ৫ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এ ঘটনায় কোনও হতাহত নেই।

নরসিংদীর ফায়ার সার্ভিস ইউনিটের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম জানান, সকালে ঘোড়াশাল সার কারখানা অভ্যন্তরে প্রতিষ্ঠানটির নবনির্মিতব্য অ্যামুনিয়া ফ্যাক্টরি ভবনের পাইলিংয়ের কাজ করছিলেন শ্রমিকরা। বেলা ১২টার দিকে পাইলিং তিতাস গ্যাসের পাইপলাইনে পৌছালে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। এসময় আশরাফ ট্রেড প্রতিষ্ঠানের একটি পাইলিং মেশিন পুড়ে যাওয়া ছাড়া অন্য কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। বিকেলে ৫টায় তিতাস গ্যাস কোম্পানির লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছেছে বাল্ব স্টেশন থেকে সংযোগ বন্ধ করে এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

Share

আরও খবর



বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৬

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | ১২৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বগুড়ার শেরপুরে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও ১০ জন।

আজ রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৫টার দিকে বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে শেরপুর পৌর শহরে কলেজ রোড এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বানিউল আনাম বলেন, দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আনা হলে পুনরায় যানবাহন চলাচল শুরু হয়।

Share

আরও খবর
বগুড়ায় বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৪

শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১




কাবুলে বোমা বিস্ফোরণে হতাহত ৭

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | ৬০জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে তিনটি পৃথক বিস্ফোরণে কমপক্ষে পাঁচ জন নিহত এবং দুজন আহত হয়েছেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে সহিংসতা বৃদ্ধির মধ্যেই এই বিস্ফোরণগুলো ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কাবুল পুলিশের মুখপাত্র ফেরদাউস ফারামার্জ জানিয়েছেন, প্রথম দুটি বিস্ফোরণ ১৫ মিনিটের ব্যবধানে এবং তৃতীয়টি ঘণ্টা দুয়েক পরে একটি পুলিশ গাড়ি লক্ষ্য করে ঘটে। কী কারণে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি এবং এখনও পর্যন্ত কোনও গ্রুপ এর দায় স্বীকার করেনি বলেও জানান তিনি।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির রাজধানীতে বেশিরভাগ আক্রমণ হয়েছে স্টিকি বোমা বা ​​চৌম্বকযুক্ত বিস্ফোরক ডিভাইসের মাধ্যমে, যা যানবাহনের সাথে সংযুক্ত থাকে এবং রিমোট কন্ট্রোল বা টাইমার দ্বারা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

এসব ঘটনার তদন্ত চলছে উল্লেখ করে কাবুল পুলিশ জানিয়েছে, প্রথম বিস্ফোরণটির লক্ষ্যবস্তু হয়েছিল একটি বেসামরিক গাড়ি এবং যাতে এর অভ্যন্তরে থাকা দুই যাত্রী আহত হন। দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি ঘটে কাবুলের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত একটি গ্রামে দেশটির জাতীয় সেনাসদস্যদের বহনকারী একটি গাড়িকে লক্ষ্য করে। যাতে একজন বেসামরিক যাত্রীসহ দুই সেনা নিহত হন।

আর তৃতীয় বিস্ফোরণে পশ্চিম কাবুলে পুলিশের একটি গাড়ি ধ্বংস হয়ে যায়। এতে দুজন পুলিশ কর্মকর্তা প্রাণ হারান।

কাতারে তালেবান ও আফগান সরকারের মধ্যে শান্তি আলোচনা স্থগিত হওয়ায় দেশব্যাপী যুদ্ধক্ষেত্রের মতো যত্রতত্র বোমা হামলা, টার্গেট কিলিং ও সহিংসতায় ছেয়ে গেছে।

আইএসআইএল গোষ্ঠীর স্থানীয় অধিদফতর কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করলেও এসবের জন্য সরকারকে দায়বদ্ধ না করে অনেকে তালেবানদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। যদিও সশস্ত্র এই গোষ্ঠীটি বেশিরভাগ হামলার দায় অস্বীকার করেছে।

নিউজ ট্যাগ: কাবুল
Share

আরও খবর
নেপালি পুলিশের গুলিতে যুবক নিহত

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১

কুয়েতে মাসজুড়ে কারফিউ ঘোষণা

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১




করোনাভাইরাস : মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ৬৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে করোনাভাইরাসে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৮ হাজার ৩৪২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত দেশে মোট ৫ লাখ ৪৩ হাজার ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ১৪৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৪২৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৪ লাখ ৯০ হাজার ৮৯২ জন হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দেশে ৪০৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান ৮ জন।

Share

আরও খবর



শ্রীপুরে মাদ্রাসার শিশুকে পেটানোর অভিযোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীপুর (গাজীপুর) থেকে সোহেল রানা:

গাজীপুরের শ্রীপুরে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে নির্মমভাবে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পূর্বখন্ড এলাকার মদিনাতুল উলুম হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক ও মুহতামিম মোহাম্মদ আলীর বিরুদ্ধে ওই অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে মাদ্রাসা শিক্ষকের সাথে শিক্ষার্থীর পরিবারের আপসরফার কারণে আইনী পদক্ষেপ নেননি ওই শিক্ষার্থীর বাবা-মা।

নির্যাতনের শিকার শিশু শিক্ষার্থী ইয়াসিন (৭) ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে। তার বাবা এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।

অভিযুক্ত শিক্ষক মোহাম্মদ আলী মদিনাতুল উলুম হাফেজিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম। তার বাড়িও ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার দাইরগাঁও গ্রামে। ওই মাদ্রাসায় নূরানী, নাজেরা ও হেফজ বিভাগের বিষয় সমূহ পড়ানো হয়।

শিক্ষার্থী ইয়াসিনের স্বজনেরা জানান, শিক্ষার্থীকে প্রায় বছর খানেক আগে ওই মাদ্রাসার আবাসিকে ভর্তি করা হয়। শিক্ষার্থী পড়ালেখার চাপ সামলাতে পারছিল না। ফলে শিক্ষকের পড়া শেষ করতে পারেনি শিক্ষার্থী ইয়াসিন। পড়া দিতে না পারায় বুধবার সকালে শিক্ষক মোহাম্মদ আলী তাকে মারধোর করে। মারধরের কারণে সে কান্নাকাটি করে মাদ্রাসার পাশেই তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে চলে যায়।

শিশুর মা শারমিন আক্তার বলেন, তার ছেলেকে যেভাবে মারধোর করা হয়েছে এভাবে কোনো মানুষ কোনো পশুকেও মারতে পারে না। মাদ্রাসার শিক্ষকের বিচার আল্লাহর কাছেই দিয়েছি।

শিশুর বাবা মফিজুল হক বলেন, স্থানীয় এবং আমার প্রতিবেশীদের মাধ্যমে মাদ্রাসার শিক্ষক আমাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তাই আইনি পদক্ষেপ না নিয়ে ছেলেকে নিয়ে বাড়িতে চলে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মোহাম্মদ আলী বলেন, সে পড়া দিচ্ছিলো না, তাই তাকে কিছুটা মারধোর করা হয়েছে। কিন্তু বিষয়টা এত বড় হয়ে যাবে বুঝতে পারিনি।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমা মোস্তারী বলেন, বুধবার দুপুরে শিশুর বাবা-মা এসেছিল। তাদেরকে থানায় অভিযোগের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, এ বিষয়ে কেউ কোনো অভিযোগ দিতে আসেনি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Share

আরও খবর
লেখক মুশতাকের মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠন

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১




পরিবেশ পদকের জন্য মনোনীত ৬ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
জাতীয় পরিবেশ পদক ২০২০ মনোনয়ন চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত পদক সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়

জাতীয় পরিবেশ পদক-২০২০ প্রদানের জন্য তিন ব্যক্তি ও তিন প্রতিষ্ঠানকে চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন করা হয়েছে। পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি) সাভারের প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালেরি অ্যান টেইলর এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে কনকর্ড রেডিমিক্স অ্যান্ড কনক্রিট প্রোডাক্টস লিমিটেড ও কনকর্ড প্রি-স্ট্রেসড কনক্রিট অ্যান্ড ব্লক প্লান্ট লিমিটেড কনকর্ড সেন্টারকে মনোনীত করা হয়েছে।

এছাড়া, পরিবেশগত শিক্ষা ও প্রচার ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে খ্যাতিমান জলবায়ু পরিবর্তন বিশেষজ্ঞ ড. সালীমুল হক এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনকে (ইএসডিও) পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। পরিবেশ বিষয়ক গবেষণা ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে ড. জহুরুল করিম এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়কে পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ফেব্রুয়ারি) জাতীয় পরিবেশ পদক ২০২০ মনোনয়ন চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত পদক সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার, মন্ত্রণালেয়ের সচিব জিয়াউল হাসান, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ) মো. মনিরুজ্জামান, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এ কে এম রফিক আহাম্মদ, বন অধিদফতরের প্রধান বন সংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরী, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি এবং কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, দেশে অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পরিবেশ ও বৃক্ষের কল্যাণে প্রশংসনীয় কাজ করে চলেছেন। অধিকাংশ মানুষ যেখানে সাময়িক ব্যক্তিস্বার্থে নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন করে চলেছে, সেখানে ওয়াহিদ আলী সরদারের মতো মানুষ গাছের প্রতি দয়া পরবশ হয়ে হাজার হাজার গাছ থেকে পেরেক ওঠানোর কাজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, নীরবে কাজ করে যাওয়া এসব মানুষকে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে ভবিষ্যতে পুরস্কারের পরিমাণ বাড়ানোর বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

উল্লেখ্য, জাতীয় পরিবেশ পদকপ্রাপ্ত প্রতিটি ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানকে ২২ ক্যারেট মানের ২ তোলা ওজনের স্বর্ণের বাজার মূল্য ও অতিরিক্ত আরও পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক, ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হবে।

Share

আরও খবর