আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

গোপালগঞ্জে দুই বাসের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২০

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মার্চ ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

গোপালগঞ্জে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নারীসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৪ মার্চ) ভোরে গোপালগঞ্জ-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ভোজরগাতী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এতে ওই সড়কে প্রায় এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে।

গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার শেখ মো. অরিফুল হক জানান, বরিশালের পয়সারহাট থেকে ছেড়ে আসা মেহরাব পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস বেনাপোলের দিকে যাচ্ছিল। এসময় কুয়াশাচ্ছন্ন থাকায় বিপরীতমুখী ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা কোটালীপাড়াগামী দিগন্ত পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। 

এতে বাস দুটির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং দুই বাসের অন্তত ২০ যাত্রী আহত হন। 

পরে খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফাসার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর মধ্যে মারাত্মক আহতাবস্থায় ৯ জনকে হাসপাতালে ভর্তি ও বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

সিনিয়র স্টেশন অফিসার আরও জানান, দুর্ঘটনার পর গোপালগঞ্জ-পয়সারহাট সড়কে প্রায় এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। এতে আটকা পড়ে বেশ কিছু যানবাহন। এখন সড়ক দিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।


আরও খবর
সিলেট নগরী থেকে গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দেশের প্রথম জিরা চাষ হচ্ছে নওগাঁয়

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ফয়সাল আহম্মেদ, নওগাঁ প্রতিনিধি

Image

মসলাজাতীয় ফসল জিরা। দেশের মানুষের চাহিদা পূরণে জিরা বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়। আর এই মূল্যবান ফসল জিরা পরীক্ষামূলকভাবে চাষ করে নওগাঁর রাণীনগরে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন কৃষক জহুরুল ইসলাম। তিনি বাড়ির পাশে ৮ শতক জমিতে জিরা চাষ করেছেন। তার এই জিরা চাষ দেখে স্থানীয় অন্য কৃষকদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে।

রানিনগর উপজেলার একডালা ইউনিয়নের শিয়ালা গ্রামের কৃষক জহুরুল ইসলাম। তিনি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করে থাকেন। বাজারে জিরার দাম বেশি হওয়ায় তিনি জিরা চাষে উদ্বুদ্ধ হন। অনলাইনে জিরা চাষাবাদ প্রদ্ধতি দেখতে শুরু করেন। অনেক চেষ্টা করে অনলাইনের মাধ্যমে ভারত থেকে প্রায় ১২০০ টাকা খরচ করে ৫০০ গ্রাম জিরা বীজ সংগ্রহ করেন।

এর পর বাড়ির পাশে ৮ শতক জমিতে জিরা বীজ রোপণ করেন। বর্তমানে কৃষক জহুরুলের জিরাগাছে ফুল ও জিরা আসতে শুরু করেছে। তিনি পরীক্ষামূলক জিরা চাষ করে অনেকটা সফল হওয়ায় জিরা চাষে আগ্রহ বাড়ছে স্থানীয় কৃষকদের।

জিরা চাষী জহুরুল ইসলাম বলেন, যেভাবে সরিষার চাষ করা হয় একই রকমভাবে জিরা চাষ করেছি। এরই মধ্যে গাছে ফুল ও জিরা ধরতে শুরু করেছে। গাছে যতগুলো ফুল, ততগুলোই জিরা ধরছে। হিসাব করে দেখছি যেভাবে জিরা ধরছে, তাতে ৮ শতক জমি থেকে ১০ থেকে ১৫ কেজি জিরা পাওয়া যাবে। বাজারে জিরার দাম ভালো থাকায় যার বাজারমূল্যে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা। জিরা চাষ একটি লাভজনক ফসল মনে হয়েছে। বীজ বপণের ৩ থেকে সাড়ে তিন মাস সময় লাগে জিরা ঘরে উঠতে।

এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সবাই। বাণিজ্যিকভাবে জিরা চাষ করা হলে আমদানির উপর অনেক নির্ভরতা কমবে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

নিউজ ট্যাগ: নওগাঁ জিরা চাষ

আরও খবর
সিলেট নগরী থেকে গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পাঁচ বছর পর তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার অভিজ্ঞতা পাওয়ার এক দিন পর পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পেলেন পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার বাসিন্দারা। সেখানে গতকাল রোববার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ গতকাল এই উপজেলায় তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে।

গতকাল দেশের আরও কয়েকটি অঞ্চলে মাঝারি থেকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ ছিল। তবে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, আজ সোমবার থেকেই তাপমাত্রা বাড়বে। শীতের প্রকোপ এ সপ্তাহের মধ্যেই কমে যাবে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানায়, তেঁতুলিয়ায় গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত শুক্রবার ছিল ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১৯ সালের ২ জানুয়ারি তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা নেমেছিল ৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারি ৭০ বছরের রেকর্ড ভেঙে তাপমাত্রা ছিল ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে ১৯৬৮ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, দেশে জানুয়ারি সবচেয়ে শীতলতম মাস। গতকাল রংপুর বিভাগের সব জেলাতেই ছিল মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। অর্থাৎ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। রাজশাহী বিভাগের আট জেলাতেই ছিল মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। ঢাকায় এই মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয় গত মঙ্গলবার।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুখ বলেন, হিমালয়ের কাছাকাছি হওয়ায় তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা কম থাকে। আজ সোমবার থেকেই তাপমাত্রা বাড়বে। চলতি সপ্তাহ শেষে সারা দেশেই তাপমাত্রা একটু করে বাড়বে। তিনি বলেন, ৩০ জানুয়ারি থেকে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে শীতের প্রকোপ এখনকার মতো থাকবে না।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিটিএস সদস্যকে বিয়ে করতে ঘরছাড়া ৩ কিশোরী উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যান্ড বিটিএসের টানে ঘর ছাড়া রাজধানীর মেরাদিয়ার তিন কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে ১০টায় তাদেরকে টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। দক্ষিণ কোরিয়ার জনপ্রিয় ব্যান্ডদল বিটিএসের ভক্ত এই তিন কিশোরী। এই ব্যান্ডদলের টানেই ২৯ জানুয়ারি ঘর ছেড়ে পালিয়ে যায় তারা।

কিশোরীরা হলেন ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী রিজওয়ানা রিজু (১৪), জান্নাতুল আক্তার বর্ষা ও রুবিনা আক্তার মিম। ২৯ জানুয়ারি দুপুরে তারা পালিয়ে যাওয়ার পর খিলগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি করে তিন কিশোরীর পরিবার। ওই কিশোরীদের মধ্যে একজন একটি চিঠি লিখে যায়। চিঠিতে সে জানায়, মা-বাবার অবহেলায় বিটিএসের সদস্য জাংকুককে বিয়ে করতে বদ্ধপরিকর সে।

জানা গেছে, কিশোরী তিনজনই বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। রাজধানীর মেরাদিয়ায় থাকতেন তারা। সাধারণ ডায়েরির পর তদন্তে নেমে পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণের পাশাপাশি বিভিন্ন থানায় নিখোঁজের এই তথ্য ছড়িয়ে দেয়।

এদিকে পালিয়ে যাওয়ার পর গাজীপুরের টঙ্গীতে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে থাকছিলেন তারা। বৃহস্পতিবার বিকেলে গাজীপুরের টঙ্গীর এক বাড়িমালিক কিশোরীদের খোঁজ দেন। ওই বাড়ির মালিক বলেন, টিভিতে তাদের নিখোঁজের খবর দেখে পুলিশকে জানান তিনি। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধারের পর বিষয়টি নিশ্চিত হয়।

ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের ডিসি হায়াতুল ইসলাম খান বলেন, টেলিভিশনের একটি কনসার্টের মাধ্যমে তারা বিটিএসের গান দেখে। এরপর থেকেই তারা এই ব্যান্ডদলের প্রতি আকৃষ্ট হয়। এক সময় ওই তিন কিশোরী চিন্তা করতে শুরু করে তারা ব্যান্ডদলের সঙ্গে যোগাযোগ করবে। তারা খুব সরল ও সহজ চিন্তাভাবনা নিয়েই বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, মেরাদিয়া থেকে টঙ্গীর আউচপাড়ায় বাসাভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে তিন কিশোরী। কেনে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। বিটিএসের মতো করে নিজেদের তৈরি করতে তারা ভর্তি হন জিমনেসিয়ামে। এছাড়া গার্মেন্টসে চাকরি করে কোরিয়া যাওয়ার প্রয়োজনীয় টাকা সঞ্চয়ের চিন্তা ছিল তাদের। এছাড়া তাদের কাছ থেকে বিটিএস সাদৃশ্য বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।


আরও খবর



হামলা চালিয়ে হুথিদের ১০টি ড্রোন ধ্বংস করল যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

হামলা চালিয়ে হুথিদের উৎক্ষেপণের জন্য প্রস্তুত ১০টি ড্রোন ধ্বংস করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ড্রোনগুলো লোহিত সাগরে পণব্যাহী জাহাজকে লক্ষ্যবস্তু করার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছিল বলে দাবি করেছেন বাহরাইনে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা।

তিনি জানান, এফ-১৮ সুপার হরনেট পশ্চিম ইয়েমেনের ১০টি লঞ্চ সাইটে বোমা হামলা চালায়।

ইয়েমেনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, বন্দর নগরী হোদেইদাহর আল-জাব্বানা এলাকার কাছে এসব হামলা হয়েছে।

এর আগে ইরান-সমর্থিত গোষ্ঠীটি অ্যাডেন উপসাগরে মার্কিন বাণিজ্য জাহাজ কেওআই-তে হামলার দাবি করে। হুথি নিয়ন্ত্রিত সংবাদসংস্থা সাবা বলেছে, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো সরাসরি জাহাজে আঘাত করেছে


আরও খবর
সৌদি আরবে এক দিনে সাতজনের শিরশ্ছেদ

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আগামী দুই-তিনদিন বৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পৌষের শেষ ও মাঘের শুরু থেকে সারাদেশে হালকা কুয়াশার সঙ্গে শৈত্যপ্রবাহ বইছে। এ সময় ঘন কুয়াশা ছাড়াও দেখা মেলে বৃষ্টির। ক্রমশ দেশের বিভিন্ন স্থানে কুয়াশা কমেছে। সূর্যের দেখা মিলেছে, বেড়েছে তাপমাত্রা। তবে আগামীকাল থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে এরপর তা বেড়ে দেশের বিভিন্নস্থানে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র বলছে, আজ রাজধানীর আকাশে হালকা মেঘ দেখা গেছে। আগামী দুই-তিনদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় দিনের তাপমাত্রা কমে রাতের তাপমাত্রা বাড়তে পারে। বৃষ্টি শেষ হয়ে গেলে রাতের তাপমাত্রা কমবে দিনের বাড়তে পারে।

আজ সোমবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মৌলভীবাজার, কুমিল্লা, ফেনী, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল এবং ভোলা জেলাসহ ঢাকা, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু জায়গায় প্রশমিত হতে পারে।

সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং দেশের অন্যত্র কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে। ঘন কুয়াশার কারণে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন চলাচল ব্যাহত হতে পারে। সারাদেশের রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। বাতাসের আদ্রতা থাকবে ৮৩ শতাংশ।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, আজ সোমবার রাজধানীর আকাশে হালকা মেঘ দেখা গেছে। আগামী দুই-তিনদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় দিনের তাপমাত্রা কমে রাতের তাপমাত্রা বাড়তে পারে। বৃষ্টি শেষ হয়ে গেলে রাতের তাপমাত্রা কমবে দিনের বাড়তে পারে।

হাফিজুর রহমান আরও বলেন, আগামীকাল থেকে ফরিদপুর অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। বৃষ্টির পর রাতের তাপমাত্রা এক-দুই ডিগ্রি বাড়তে পারে।

মঙ্গলবার ফরিদপুর অঞ্চল, খুলনা, ঢাকা, ময়মনসিংহ এবং সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় রাজশাহী, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে। পরদিন থেকে আবার আবহাওয়া স্বাভাবিক হতে পারে। এরপর আস্তে আস্তে আবহাওয়া স্বাভাবিক হতে পারে।

আজ দেশের সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল দিনাজপুরে। সর্বোচ্চ ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে। আর ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক ৩ ডিগ্রি ও সর্বোচ্চ ২৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দেশের অনেক অঞ্চলের আবহাওয়া মৃদু শৈত্যপ্রবাহের কাছাকাছি রয়েছে। কোনো অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দুই থেকে তিন দিন ১০৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে নেমে এলে সেখানে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। অবশ্য দেশের কোনো অঞ্চলে গতকাল শৈত্যপ্রবাহ ছিল না।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪