আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

গ্রাম আদালতের জরিমানা করার ক্ষমতা চারগুণ বাড়ছে

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

গ্রাম আদালতের জরিমানা করার ক্ষমতা ৭৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে তিন লাখ টাকা করতে যাচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে গ্রাম আদালত সংশোধন আইনের খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সভা শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন এক ব্রিফিংয়ে বলেন, গত বছর এই আইনের খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। কিন্তু এটি সংসদে উপস্থাপন না হওয়ায় এবং নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হওয়ায় নতুন মন্ত্রিসভা থেকে অনুমোদন নেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। মন্ত্রিসভা এটিকে চূড়ান্ত অনুমোদন করে দিয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, গ্রাম আদালতের আর্থিক ক্ষমতা (জরিমানার করার ক্ষমতা) ৭৫ হাজার থেকে বাড়িয়ে তিন লাখ টাকা করা হচ্ছে।

চেয়ারম্যানসহ পাঁচজনের সমন্বয়ে গ্রাম আদালত হয় জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, কোনো সময় একজন অনুপস্থিত থাকলে আদালতের সদস্য সংখ্যা চারজন হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতি হলে অনুপস্থিত যিনি ছিলেন তাকে উপস্থিত হতে সাতদিন সময় দেওয়া হবে। এর মধ্যে তিনি উপস্থিত না হলে তখন ভোটাভুটি হলে চেয়ারম্যানের ক্ষমতা রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, মামলার এক পক্ষ মারা গেলে মামলার ভবিষ্যৎ নিয়ে জটিলতা দেখা দেয়। এখন বলা হয়েছে, রায়ের আগে কোনো পক্ষের মৃত্যু হলে তার উত্তরাধিকারকে পক্ষ করা যাবে।

নিউজ ট্যাগ: গ্রাম আদালত

আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




এফবিসিসিআই-এর স্ট্যান্ডিং কমিটির কো-চেয়ারম্যান হলেন ড. মো. সাদী-উজ-জামান

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

বাংলাদেশে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই-এর স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল্যান্ড ডেভেলপার্স-এর কো-চেয়ারম্যান (২০২৩-২০২৫) হওয়ার অসামান্য গৌরব অর্জন করলেন নতুনধরা গ্রুপের সম্মানিত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মোঃ সাদী-উজ-জামান।

যিনি বাংলাদেশ ল্যান্ড ডেভেলপার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএলডিএ) হতে মনোনীত হয়ে এফবিসিসিআই- এ আবাসন খাতে প্রতিনিধিত্বকারী শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ীদের একজন! গত সোমবার এফবিসিসিআই এর মহাসচিব মোহাম্মদ আলমগীর এর স্বাক্ষরিত চিঠিতে এই তথ্য জানানো হয়।

কমিটির ডিরেক্টর-ইন-চার্জ হয়েছেন জেসিএক্স ডেভেলপমেন্টস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ইকবাল হোসেন চৌধুরী। দেশের স্বনামধন্য ও শীর্ষস্থানীয় আবাসন ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে গঠিত হয় এফবিসিসিআই এর এই স্থায়ী কমিটি!


আরও খবর



গাজায় লাশের সারি, একদিনে নিহত ১১৩

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

গত একদিনে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের নৃশংস হামলায় ১১৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও দুই শতাধিক। সোমবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) এই তথ্য জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

ইতোমধ্যে অবরুদ্ধ উপত্যকাটিতে ইসরায়েলের নির্বিচার হামলার চার মাস শেষ হয়েছে। এই সময়ে ইসরায়েলি বাহিনীর বর্বর আগ্রাসনে গাজায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে অন্তত ২৭ হাজার ৪৭৮। নিহতদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু। আহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬ হাজার ৮৩৫ জনে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় তেল আবিবের হামলায় নিহত অন্তত ১১৩ জনের লাশ উপত্যকার বিভিন্ন হাসপাতালে আনা হয়েছে। এছাড়া গাজার ধ্বংসস্তূপগুলো থেকে অন্তত ২০৫ জন আহত ব্যক্তি উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে, হামলার শিকার অনেকে এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে অবরুদ্ধ রয়েছেন। ইসরায়েলি বাহিনীর অবরোধের ফলে গাজার বেসামরিক প্রতিরক্ষাকর্মীরা ভুক্তভোগীদের কাছে পৌঁছতে পারছেন না।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দেবেন আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ২১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির হাতে একুশে পদক ২০২৪ তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় সরকারপ্রধান রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক দেবেন।

একুশে পদক প্রদান উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। পৃথক বাণীতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী উভয়েই অনুষ্ঠানের সাফল্য কামনা করেন।

১৯৫২ সালের এই দিনে মাতৃভাষার জন্য সর্বোচ্চ আত্মত্যাগকারী ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাতে জাতি ২১ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করবে। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে পুরস্কারপ্রাপ্তদের দেওয়া টাকার পরিমাণ কয়েকগুণ বাড়ানো হয়েছে। সর্বশেষ গত ২০২০ সালে তা বাড়িয়ে চার লাখ টাকা করা হয়েছে।

এর আগে ১৩ ফেব্রুয়ারি সরকার নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য একুশে পদক-২০২৩র জন্য ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিকের নাম ঘোষণা করে। এ বছর ভাষা আন্দোলন ক্যাটাগরিতে দুজন, শিল্পকলায় ১২ জন, সমাজসেবায় দুজন, ভাষা ও সাহিত্যে চারজন এবং শিক্ষায় একজন বিশিষ্ট নাগরিক এ পুরস্কার পাচ্ছেন।

ভাষা আন্দোলন বিভাগে পুরস্কারের জন্য মৌ. আশরাফুদ্দীন আহমদ (মরণোত্তর), বীর মুক্তিযোদ্ধা হাতেম আলী মিয়ার (মরণোত্তর) নাম ঘোষণা করা হয়েছে। শিল্পকলা বিভাগে সংগীত ক্যাটাগরিতে জালাল উদ্দীন খা (মরণোত্তর), বীর মুক্তিযোদ্ধা কল্যানী ঘোষ (মরণোত্তর), বিদিত লাল দাস (মরণোত্তর), এন্ড্রু কিশোর (মরণোত্তর), শুভ্রদেব, নৃত্যকলা ক্যাটাগরিতে শিবলী মোহাম্মদ, অভিনয় ক্যাটাগরিতে ডলি জহুর ও এম এ আলমগীর, আবৃত্তি ক্যাটাগরিতে খান মো. মুস্তাফা ওয়ালিদ (শিমুল মুস্তাফা) ও রূপা চক্রবর্তী, চিত্রকলা ক্যাটাগরিতে শাহজাহান আহমেদ বিকাশ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ ও আর্কাইভিং ক্যাটাগরিতে কাওসার চৌধুরী, সমাজসেবা বিভাগে মো. জিয়াউল হক, রফিক আহামদ, ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে মুহাম্মদ সামাদ, লুৎফর রহমান রিটন, মিনার মনসুর, রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ (মরণোত্তর) এবং শিক্ষা বিভাগে প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু এ পুরস্কার পাচ্ছেন।

১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে একুশে পদক প্রবর্তন করা হয়। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় স্বর্ণপদক, সম্মাননা সনদ ও নগদ অর্থ দিয়ে পুরস্কার প্রদান করে। ২০২৩ সালে ১৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি ও দুই প্রতিষ্ঠানকে মর্যাদাপূর্ণ একুশে পদক দেওয়া হয়।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




বাংলাদেশে ৯ আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সৌদির সম্মতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশে নয়টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে সৌদি সরকার। এক্ষেত্রে অর্থায়ন করবে দেশটি। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা ইউসেফ ঈসা আল দুহাইলান এ সম্মতির কথা জানান। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়েছে।

ধর্মমন্ত্রী বাংলাদেশে সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আন্তরিক আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আইকনিক মসজিদ নির্মাণে সৌদি সরকারের আগ্রহের বিষয়টি খুবই ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন এবং তিনি সৌদি সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী ৮টি বিভাগে ৮টি আইকনিক মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানী ঢাকাতে একটি সুবৃহৎ মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে ঢাকার পূর্বাচলে প্রয়োজনীয় জায়গা বরাদ্দের জন্য আদেশ দিয়েছেন বলে ধর্মমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর এ আকাঙ্ক্ষার কথা জেনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশে ৯টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সম্মতি দেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

পরে ধর্মমন্ত্রী সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত অ্যারাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের বিষয়টি রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, ঢাকার বসিলায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিগ্রহণকৃত জায়গায় এরাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের জন্য স্থান নির্বাচন করা হয়েছে এবং এরই মধ্যে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে নকশা তৈরি করা হয়েছে। তিনি রাষ্ট্রদূতকে নকশাটি দেখার অনুরোধ জানান। সৌদি রাষ্ট্রদূত মনোযোগ সহকারে নকশাটি দেখেন এবং তার পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন। তিনি এখানে খেলাধুলার জন্য স্পোর্টস সেন্টার রাখার ব্যাপারে গুরুত্ব আরোপ করেন।

এ বছর হজ প্রক্রিয়াকরণের বিষয়ে সৌদি রাষ্ট্রদূত সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, পূর্বে হজ এজেন্সিগুলো নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে সমস্যা ছিল। এছাড়া, মধ্যস্বত্বভোগীরা হজযাত্রীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করত। কিন্তু হজ প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজড করার ফলে আমরা পুরো প্রক্রিয়াটিকেই খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছি। এর ফলে হজযাত্রীদের কষ্ট অনেকাংশে কমেছে।

সভায় ধর্ম সচিব মু. আ. হামিদ জমাদ্দার ও অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মু. আ. আউয়াল হাওলাদারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




বরের দেখা নেই, নিজেদের গলায় মালা পরাচ্ছেন কনেরা!

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

বিয়ে নিয়ে শখ বা সামাজিক বিভিন্ন রীতি রয়েছে। সমাজে যৌতুকবিরোধী বিয়ের জন্য নানা আয়োজনের গল্পও শোনা যায়। তবে এবার সামনে এসেছে নতুন গল্প। বিয়েতে বর নেই, তাই এই গণআয়োজনে নিজেদের গলায় মালা পরাচ্ছেন কনেরা। রোববার (০৪ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ভিডিওতে দেখা যায়- সারি দিয়ে দাঁড়িয়েছেন কনেরা। প্রত্যেকের মাথায় ঘোমটা ও পরনে রয়েছে গাঢ় কমলা রঙের শাড়ি। জমকালো আয়োজনের চলছে বিয়ের প্রস্তুতি। তবে বর না থাকায় শেষ পর্যন্ত কনেরা নিজেরা নিজেদের গলায় মালা পরিয়ে দিচ্ছেন। গণবিয়ের ওই আয়োজনে বর ছাড়াই শেষ পর্যন্ত বিয়ে সম্পন্ন হয়।

জানা গেছে, অদ্ভুত এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বালিয়া জেলায়। সমাজ উন্নয়ন দপ্তরের উদ্যোগে মানিয়ার ইন্টারকলেজ চত্বরে গত ২৫ জানুয়ারি এ গণবিবাহের আয়োজন করা হয়েছিল। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যদিও এর সত্যতা যাচাই করতে পারেনি সংবাদমাধ্যমটি। তবে বিষয়টি নিয়ে হৈচৈ শুরু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন>> তুমব্রু সীমান্তের বিজিবি ক্যাম্পে মিয়ানমারের ৬৬ সীমান্তরক্ষী

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, সরকারি টাকা পাওয়ার লোভে এ ভুয়া বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে আসলে কারও বিয়ে হয়নি। নারীরা এ আয়োজনে ঘোমটা দিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন এবং নিজেরা নিজেদের গলায় মালা পরিয়েছেন। সেখানে নারীদের ভিড়ে অনেক পুরুষ ছিলেন বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই গণবিয়ের আয়োজনে ৫৬৮ যুগলের নাম নথিভুক্ত করা হয়েছিল। সরকারের পক্ষ থেকে এ আয়োজনে প্রতি যুগলের জন্য ৫১ হাজার টাকা বরাদ্দ ছিল। বিয়ে করলেই এ টাকা পাওয়া যাবে বলেও জানানো হয়েছিল। যেখানে ৩৫ হাজার টাকা কনের অ্যাকাউন্টে ঢোকার কথা ছিল। এ ছাড়া ১০ হাজার টাকার উপহারও পাবেন বর-কনে মিলে। অভিযোগ রয়েছে, সরকারি টাকা ‍ও উপহারের বরাদ্দ হাত করতেই এমন আয়োজন করা হয়েছিল।

তদন্তের পর এ ঘটনায় আট নারীসহ অ্যাডিশনাল ডেভেলপমেন্ট অফিসার সুনীর কুমার যাদবের বিরুদ্ধে মানিয়ার থানায় এফআইআর করা হয়েছে। সরকারি কর্মকর্তারা এ ঘটনায় জড়িত রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে এখনও তদন্ত চলছে।


আরও খবর