আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম
কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারাল ব্রাজিল স্পেনের কারাগারে ম্যাকাফি অ্যান্টিভাইরাস আবিষ্কারকের ‘আত্মহত্যা’ আগস্টে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে আরও ১৮ জনের মৃত্যু ‘আ.লীগ হীরার টুকরা, যতবার কেটেছে নতুন করে জ্যোতি ছড়িয়েছে’ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নামে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন স্বাক্ষর জালিয়াতি ও তথ্য গোপন করায় ছাত্র ইউনিয়নের দুই শীর্ষ নেতা বহিষ্কার ইতিহাসে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা সমার্থক হয়ে থাকবে: : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পরীমনির মামলায় সেই নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে ৯ দেশে ছড়িয়েছে ডেলটা প্লাস ধরন

হেফাজত নেতাদের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়েছে দুদক

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক আলোচিত-সমালোচিত সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় নেতাদের আর্থিক বিষয়ে অনুসন্ধান করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এজন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএএফইইউ) এর কাছে তথ্য চেয়েছে দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটি।

বুধবার বিকালে দুদকের সচিব মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার জানিয়েছেন এই তথ্য। দুদক প্রধান কার্যালয়ের সামনে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

দুদক সচিব বলেন, আমাদের যে জায়গাগুলোতে তথ্যের জন্য যোগাযোগ করা করা দরকার, সেইসব জায়গায় আমরা ইতিমধ্যে তথ্য চেয়ে চিঠি দিয়েছি। এখনো আমরা সব তথ্য পাইনি। কেন্দ্রীয় আর্থিক গোয়েন্দা বাংলাদেশ ফিন্যানশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এই বিষয়ে কাজ করছে।

হেফাজত নেতাদের বিষয়ে দুদকের তদন্তের অগ্রগতি জানতে চাইলে তিনি বলেন, হেফাজত নেতাদের জমি-জমার হিসাব চাওয়া হয়েছে। তাদের বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে লেনদেনের তথ্য চাওয়ার কথা আপানারা ইতিমধ্যে জেনেছেন। বিএফআইইউ তথ্য সংগ্রহ করছে, সে তথ্যগুলো পেতে একটু দেরি হচ্ছে।

দুর্নীতি দমন কমিশন হেফাজত ইসলাম নেতাদের জিজ্ঞাসাবাদ করবে কি না এমন প্রশ্নে দুদক সচিব বলেন, তদন্তকারী কর্মকর্তাদের এসব বিষয়ে এখতিয়ার দেয়া আছে। তারা যদি প্রয়োজন মনে করেন অবশ্যই জিজ্ঞাসাবাদ করবেন। সেটা তারা তদন্তের স্বার্থেও জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন।

এখন পর্যন্ত দুদক সর্বমোট ৫০ জন হেফাজত নেতার তথ্য চেয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এখনো কোনো তথ্য আসেনি। তদন্ত অনুসন্ধান করতেও আমাদের কিছু তথ্য লাগবে। ডিবির তথ্য যদি আমাদের দেয় তাহলে সেটা আমরা আমলে নেব। তারপর এসব বিষয়ে কাজ করবো।

হেফাজত নেতাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না জানতে চাইলে সচিব বলেন, হেফাজত নেতাদের পাসপোর্টসংক্রান্ত বিষয়ে ইমিগ্রেশনে চিঠি দেয়া হয়েছে। তাদের বিদেশযাত্রা ও পাসপোর্ট সম্পর্কে তথ্য চাওয়া হয়েছে। প্রয়োজন হলে তাদের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দেয়া হবে।

দুদক সচিব বলেন, আজকে বর্তমান কমিশনের তৃতীয় সভা এবং চলতি বছরের চতুর্থ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কমিশনে ৭টা ইস্যু ছিল। মামলা ও প্রশাসনিক ইস্যু ছিল। এর মধ্যে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কমিশনে লোকবলের খুব সংকট। যত লোকবল খালি আছে, সেটা নিয়োগের একটা সিদ্ধান্ত হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব নিয়োগ করা হবে।


আরও খবর



চার নয় ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব, সঙ্গে জরিমানা ৫ লাখ

প্রকাশিত:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চার ম্যাচ নয়, তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন সাকিব আল হাসান। একই সঙ্গে ৫ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে জাতীয় দলের তারকা এ ক্রিকেটারকে।

শুক্রবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়ে অসদাচরণ করায় সাকিবকে এ শাস্তি দেয়া হয়। মোহামেডানের এ অধিনায়ক শাস্তি মেনে নেওয়ায় এ ঘটনায় আর কোনো শুনানির প্রয়োজন নেই।

শনিবার দুপুর দুইটার দিকে ম্যাচ রেফারি মোরশেদুল আলমের পাঠানো শাস্তির নোটিশ হাতে পান সাকিব। চিঠিতে সাকিবের বিরুদ্ধে লেভেল-৩ পর্যায়ের আচরণবিধি ভাঙার অভিযোগ এনে তাকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা ও ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয়।

এর আগে মোহামেডান ক্লাবের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, সাকিবকে চার ম্যাচের জন্য বহিষ্কার করা হতে পারে।

শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর বিপক্ষে ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারের পঞ্চম বলে সাকিবের আউটের আবেদনে আম্পায়ার সাড়া না দিলে মেজাজ হারিয়ে সাকিব নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তের স্টাম্পে লাথি মেরে ভেঙে দেন।

এরপর তুমুল বৃষ্টি নামলে আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান খেলা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। তিনি যখন মাঠকর্মীদের কাভার আনার ইশারা দিচ্ছেন, তখন সাকিব আম্পায়ারের দিকে এগিয়ে গিয়ে তিনটি স্টাম্পই তুলে উইকেটের ওপর ছুড়ে মারেন।

এমনকি বৃষ্টির সময়ে আবাহনীর ড্রেসিংরুমের দিকে তাকিয়ে সাকিব কিছু বললে ক্ষেপে গিয়ে তেড়ে আসেন আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। তখন মোহামেডানের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার সাকিবকে জাপটে ধরে থামান।


আরও খবর
কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারাল ব্রাজিল

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




কলাবাগানে বাসা থেকে নারী চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ১৩১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর কলাবাগানের একটি ফ্ল্যাট থেকে এক নারী চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই চিকিৎসকের নাম ডা. সাবিরা রহমান। সোমবার (৩১ মে) দুপুরের দিকে কলাবাগানের ৫০/১ নম্বর বাড়ির তিন তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রমনা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শাহেন শাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, নারী চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। ঘটনার কারণ সম্পর্কে পরিবারের অন্যদের সঙ্গে কথা বলছি। পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো হবে। আলামত সংগ্রহে ফরেনসিক টিম কাজ করছে।


আরও খবর



‘স্বপ্নের ঠিকানা’য় উঠবে শেরপুরের তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
Image

শেরপুর থেকে শাহরিয়ার শাকির

শেরপুর জেলায় বসবাসকারী তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) জনগোষ্ঠী পেলো সরকারি ঘর। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহায়তায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গড়ে ওঠেছে স্বপ্নের ঠিাকানা নামের একটি গুচ্ছগ্রাম। আজ (৭ জুন) দুপুরে শেরপুর সদরের কামারিয়া ইউনিয়নে দুই একর জায়গায় ৬৯ লাখ ৪ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত আবাসন প্রকল্পে ৪০ জন হিজড়ার হাতে নতুন ঘরের চাবি তুলে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপসচিব) এটিএম জিয়াউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, শেরপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ আল মামুন, শেরপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিহা জামান শাপলা, জনউদ্যোগের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, সদস্য সচিব হাকিম বাবুল, কামারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বারী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা খবির উদ্দিন, সহকারি ভূমি উন্নয়ন কর্মকর্তা হুরমুজ আলীসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বপ্নের ঠিকানায় থাকছে পুকুর, শাক-সবজি, ফসল আবাদের জন্য রাখা হয়েছে খোলা জায়গা, আত্মকর্ম প্রশিক্ষণের জন্য নির্মিত হচ্ছে একটি মাল্টিপারপাস কক্ষ।

এসময় উপকারভোগীদের জন্য খাবার, রান্নার সামগ্রী, বিছানা, বিছানার চাদর, বালিশ ও কম্বল বিতরণ করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: হিজড়া শেরপুর

আরও খবর



খামারিদের ২০ লাখ টাকা প্রণোদনা হাতিয়ে নিয়েছে উপজেলা কর্মকর্তা

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৬ মে ২০২১ | ১৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মতলব উত্তর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। খামারিদের ভুয়া তালিকা তৈরি করে প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের (এলডিডিপি) করোনাকালীন প্রণোদনার প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকা সহযোগীদের মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। এর সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট দপ্তরের মতলব উত্তর উপজেলা অফিসের সুপারভাইজারসহ অন্যান্যরা।

শুধু তাই নয়, নানা কৌশলে ও তালিকা তৈরির নামে কয়েক লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রথম ধাপে ৮শ খামারির নাম অর্ন্তভুক্ত করতে টাকা নেয়া হয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন। পরবর্তীতে ২৯৩জনের কাছ থেকে প্রায ৯ লক্ষ টাকা নেয়া হয়েছে।

এছাড়াও সিজিএসপি কমিটির জন্য ৩১০ জন সদস্যের কাছ থেকে ৩ হাজার টাকা করে নিয়েছেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফারুক হোসেন।

জানা গেছে, করোনাকালীন এলডিডিপির পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রকৃত খামারিদের মাঝে প্রণোদনা হিসাবে তিনটি ক্যাটাগরিতে তালিকা তৈরি করে পাঠানো হয়।

এ তালিকা তৈরি করেন ওই প্রকল্পের সুপারভাইজারসহ সংশ্লিষ্টরা। খামারিদের জন্য এ-ক্যাটাগরিতে ১০টি গবাদিপশুর ঊর্ধ্বে ২২ হাজার টাকা, বি-ক্যাটাগরিতে ছয় থেকে নয়টি গবাদিপশুর ক্ষেত্রে ১৫ হাজার টাকা এবং সি-ক্যাটাগরিতে দুই থেকে পাঁচটি গবাদিপশুর জন্য ১০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এজন্য উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভাসহ ১৪টি ইউনিয়ন থেকে তালিকা প্রস্তুত করে ঢাকায় পাঠানো হয়।

পরে তালিকাভুক্তদের মোবাইল সিম অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো শুরু হলে দেখা দেয় অনিয়ম-দুর্নীতি। দেখা যায়, ওই তালিকার যে সংখ্যায় খামারির নাম তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

এদিকে তালিকা তৈরির শুরুতেই উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফারুক হোসেন উৎকোচ নিয়ে খামারি নয়, এমন লোকদের তালিকা তৈরি করেন। এমনকি যাদের একটিও গবাদিপশু ও ঘর নেই, তারাও ঠাঁই পান তালিকায়।

সম্প্রতি প্রণোদনার এসব অর্থ খামারি নন এমন লোকজনকে দেওয়া হলে এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। খামারিদের মাঝে বিষয়টি জানাজানি হলে ওই দুর্নীতির ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়।

এদিকে একটি সূত্রে জানা গেছে, খামারি সোহেল বলেন, প্রকৃত খামারিদের চেনেই না প্রাণিসম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তারা। তারা লুটপাটে ব্যস্ত। ভেঙে পড়েছে এ দপ্তরের কার্যক্রম।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. ফারুক হোসেন নিজের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে বলেন, মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা কিছুটা অনিয়ম করতে পারে। আমি কোন প্রকার টাকা গ্রহণ করিনি। যদি কেউ অনিয়ম করে থাকে আমার জানা নেই।

চাঁদপুর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. বখতিয়ার উদ্দিন বলেন, মতলব উত্তরে প্রণোদনার তালিকা করতে অনিয়ম হয়েছে, আমি মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



মুম্বাই ছাড়ছেন শাহরুখ খান!

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ১১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলে উঠছে ভারত। ধীর গতিতে স্বাভাবিক হওয়া শুরু করছে দেশটি। কয়েক রাজ্যে শিথিল হয়েছে করোনাবিধি। এ সুযোগ লুফে নিতে চাইছেন একাধিক পরিচালক-প্রযোজক। সে তালিকায় শীর্ষে আছেন শাহরুখ খান।

শাহরুখ খান আপাতত ব্যস্ত তার পরবর্তী সিনেমা পাঠান নিয়ে। এরই মধ্যে সিনেমার শুটিং শুরু হয়েছিল। কিন্তু করোনার কারণে মাঝপথে বন্ধ হয়ে যায় এ সিনেমার কাজ। এবার দেশের বাইরে সিনেমার কিছু অংশের চিত্রায়ণ সাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন নির্মাতারা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় সূত্রে জানা গেছে, ইউরোপের বিভিন্ন অঞ্চলে সিনেমাটির লোকেশন নির্ধারণ করা হয়েছে। তাই আপাতত মুম্বাইকে বিদায় জানাচ্ছেন শাহরুখ খান। এ সিনেমায় একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করবেন সালমান খান। প্রয়োজন হলে তাকেও নেওয়া হবে ইউরোপে।

এদিকে শুধু সিনেমাই নয়, বিকল্প পথে বেশ কিছু টেলিভিশন শোয়ের শুটিং করার কথা ভাবছেন সংশ্লিষ্টরা। মুম্বাইয়ে এই মুহূর্তে বড় রিয়েলিটি শোগুলোর কাজ করা বিপজ্জনক বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তাই বিকল্প হিসেবে বিদেশের কথা ভাবছেন অনেকে।

ইন্ডিয়ান আইডল এবারের আসরের চিত্রায়ণ চলছে দামানে। অন্যদিকে, দ্য কপিল শর্মা শো এর চিত্রায়ণ বিদেশে করার কথা ভাবছেন কপিল শর্মা।


নিউজ ট্যাগ: শাহরুখ খান

আরও খবর