আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

হিমেল হাওয়া আর ঘন কুয়াশায় কাঁপছে লালমনিরহাট

প্রকাশিত:সোমবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৩২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হিমেল হাওয়া আর ঘন কুয়াশায় কাঁপছে উত্তরের জেলা লালমনিরহাটের মানুষ। গত কয়েকদিনের শৈত্যপ্রবাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। গত ৫ দিন এই জেলায় সূর্যের দেখা মিলেনি। শীতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ। শীতে লালমনিরহাটে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে রয়েছে ১৩টি নদ-নদী তীরবর্তী ৬৮টি চরের প্রায় লক্ষাধিক মানুষসহ নিম্ন আয়ের শ্রমজীবীরা। গবাদিপশুও রেহাই পাচ্ছে না শীতের প্রকোপ থেকে।

শিশু, বয়স্ক ও অ্যাজমা রোগীরা পড়েছেন দুর্ভোগে। পাশাপাশি গবাদিপশুও শীতে কষ্ট পাচ্ছে। সড়কে গাড়িগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। তিস্তাপারের বেশির ভাগ মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। হঠাৎ করেই শীতের তীব্রতা বাড়ায় গরম কাপড়ের দোকানে ভিড় করছেন শীতার্তরা। তারা বেশি ভিড় করছেন ফুটপাতের পুরোনো কাপড়ের দোকানগুলোতে।

গত ৫ দিন থাকি যে শীত বাহে ঘরত (ঘর) থাকি বেরের পাংনা (পারি না)। হামার তিস্তা পারত খুব ঠাণ্ডা। গত ৫ দিন থাকি কাজ কাম নাই বাহে ছোয়াপোয়া (ছেলে-মেয়ে) নিয়া কষ্টোত আচুং।

পৌষের মাঝামাঝি সময়ে উত্তরের জেলা লালমনিরহাটে জেঁকে বসেছে শীত। ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়ায় কাঁপছে তিস্তা-ধরলাসহ গোটা জেলার মানুষ। গত ৫ দিনে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। ঘন কুয়াশার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বইছে হিমেল হাওয়া। বৃষ্টির মতো শিশির ঝড়ছে। এতে তিস্তার চরাঞ্চলের লোকজন কাজে বের হতে না পেরে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে।

শিশু, বয়স্ক ও অ্যাজমা রোগীরা পড়েছেন দুর্ভোগে। পাশাপাশি গবাদিপশুও শীতে কষ্ট পাচ্ছে। সড়কে গাড়িগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। তিস্তাপারের বেশির ভাগ মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। হঠাৎ করেই শীতের তীব্রতা বাড়ায় গরম কাপড়ের দোকানে ভিড় করছেন শীতার্তরা। তারা বেশি ভিড় করছেন ফুটপাতের পুরোনো কাপড়ের দোকানে। নিজেদের সাধ্যমতো শীতের কাপড় কিনছেন শীতার্তরা।

Share

আরও খবর



সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্র নিয়ে অসত্য তথ্য প্রচারে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

প্রকাশিত:বুধবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফেসবুকসহ যেকোনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অসত্য তথ্য প্রচারে জড়িত বাংলাদেশি নাগরিকদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার প্রস্তাব করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। দেশে ও দেশের বাইরে অবস্থানকারী যারাই এ কাজে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এ প্রস্তাব করা হয়েছে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় কমিটির সদস্যরা বলেন, অপপ্রচারের সঙ্গে জড়িতদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া যাবে না। তাদের আইনের আওতায় এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

কমিটির সভাপতি মো. শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, মো. আফছারুল আমীন, মো. হাবিবুর রহমান, সামছুল আলম দুদু, পীর ফজলুর রহমান, নূর মোহাম্মদ, সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ ও বেগম রুমানা আলী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে চলমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতি ও দেশের সমসাময়িক পরিস্থিতিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন জননিরাপত্তা, সুরক্ষা ও সেবা বিভাগ এবং অন্য সংস্থাগুলোর সার্বিক কার্যক্রমের প্রতিবেদন উপস্থাপন ও আলোচনা করা হয়। এছাড়া ১৯৭১ সালে সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের তদন্তকাজ পরিচালনায় গঠিত তদন্ত সংস্থা, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সার্বিক কার্যক্রমের বিষয়েও প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়।

বৈঠকে মাদকাসক্ত আসামিদের বিশেষ অপরাধী হিসেবে আখ্যা দিয়ে তারা যাতে সহজে জামিন না পেতে পারে সে লক্ষ্যে প্রয়োজনে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। এছাড়া আগ্নেয়াস্ত্র বরাদ্দের ক্ষেত্রে সংসদ সদস্যদের অগ্রাধিকার দিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রত্যেক জেলা প্রশাসককে পত্র দেয়ারও সুপারিশ করা হয়েছে।

Share

আরও খবর



বিশ্ব কনডম দিবস আজ

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ২২৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ বিশ্ব কনডম দিবস। কনডম ব্যবহার করে নিরাপদ শারীরিক সম্পর্কের মাধ্যমে গর্ভধারণ ও এইডসসহ বিভিন্ন যৌন রোগ প্রতিরোধের বার্তা মানুষকে পৌঁছে দিতে এইডস হেলথকেয়ার ফাউন্ডেশন (এএইচএফ) বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের আগের দিন এ দিবসটির প্রচলন করে।

এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য হলো যৌনতা হোক নিরাপদ (সেফার ইজ সেক্স)। দিবসটির প্রচারণা উপলক্ষে বিভিন্ন দেশে এইডস হেলথকেয়ার ফাউন্ডেশন এক মিলিয়ন কনডম প্রদান করেছে। এছাড়া সংগঠনটি একটি প্যারোডি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছে এ উপলক্ষে।

সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট মাইকেল উইন্সটেইন জানান, শুধুমাত্র নিরাপদ শারীরিক সম্পর্কই নয়, যৌনতা হোক আরো আবেদনময়ী। ভালোবাসাই হলো সেরা নিরাপত্তা। দিবসটিতে মানুষের দ্বারে দ্বারে এই বার্তাগুলো আমরা পৌঁছে দিতে পারি।

এছাড়া, যুক্তরাষ্ট্রের একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ইমপালস গ্রুপ ডিসি গত শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) কনডম দিবসের সচেতনতার বার্তা ছড়িয়ে দিতে একটি ভার্চুয়াল নাচের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আফ্রিকায় নিরাপদ যৌনতা ও এইডস প্রতিরোধে কাজ করা কিং অব কনডম খেতাবপ্রাপ্ত স্ট্যানলি এনগারা কনডম দিবসের প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি উল্লেখ করে জানান, দিনটি আমার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আফ্রিকায় মানুষ আগে কনডম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতো না। এমনকি এর ব্যবহার নিয়েও নানা কুসংস্কার ছিল। অযাচিত গর্ভধারণ কমানো ও এইডসসহ ভয়াবহ যৌন রোগ ঠেকাতে অনেক দিন ধরেই কাজ করে যাচ্ছি। এ দিবস উপলক্ষে অনেকেই এখন ক্যাম্পেইনে যোগ দিচ্ছে। আমাদের উচিত কনডমের ব্যবহার বাড়ানো। অনেকেই মনে করে কনডম শুধু যৌনকর্মীদের জন্য, যা সঠিক নয়। নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই এটি তৈরি, যা ব্যবহার করতে কারও লজ্জা পাওয়া উচিত না। ভালোবাসা দিবসের বাজেটে প্রত্যেকেরই উচিত ফুল ও অন্যান্য উপহারের সঙ্গে কনডম যোগ করা।

Share

আরও খবর
যে পাখি অর্ধেক পুরুষ আর অর্ধেক নারী!

রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১

আজ ভালোবাসায় ভর করে এসেছে বসন্ত

রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১




২২ ফেব্রুয়ারি আসছে টিকার দ্বিতীয় চালান

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এবার করোনা টিকার ২০-৩০ লাখ ডোজ আসবে। টিকা আনাটা চাহিদার ওপর ভিত্তি করে নির্ভর করছে। তবে চুক্তি লঙ্ঘন হওয়ার কোনো বিষয় নেই। টিকা নিয়ে সংকট হওয়ার কোনো সুযোগ নেই

দেশে করোনা টিকার দ্বিতীয় চালান আসবে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বলে জানিয়েছেন বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে টিকা গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এবার করোনা টিকার ২০-৩০ লাখ ডোজ আসবে। টিকা আনাটা চাহিদার ওপর ভিত্তি করে নির্ভর করছে। তবে চুক্তি লঙ্ঘন হওয়ার কোনো বিষয় নেই। টিকা নিয়ে সংকট হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ক্রিকেটারদের কাউকে টিকা নিতে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে না। যে খুশি সে নিতে পারে।

এর আগে ২৫ জানুয়ারি দেশে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে কেনা অক্সফোর্ডের ৫০ লাখ করোনার টিকার চালান আসে। তার আগে ২০ লাখ ডোজ টিকা ঢাকায় এলেও সেটি ছিল বাংলাদেশকে দেওয়া ভারত সরকারের উপহার। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে কেনা ৩ কোটি ডোজের দ্বিতীয় চালান এটি। প্রতিবারে ৫০ লাখ করে ৬ দফায় ঢাকায় আসবে অক্সফোর্ডের এ টিকা।

গত ২৭ জানুয়ারি এই টিকা প্রথম ৩০ জনকে দেওয়া হয়। সর্বপ্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা। এরপর পর্যায়ক্রমে চিকিৎসক হিসেবে প্রথম টিকা নেন মেডিসিন কনসালট্যান্ট ডা. আহমেদ লুৎফর মবিন, তারপর স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, ট্রাফিক পুলিশের সদস্য দিদারুল ইসলাম এবং সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে জানানো হয় দেশের দেশের ৬৪ জেলায় ১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে করোনার টিকা পৌঁছে দেওয়া হবে। এবং ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে করোনাভাইরাসের গণটিকার কার্যক্রম শুরু হয়।

Share

আরও খবর



বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে টেলিভশন অভিনেত্রীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতীয় এক টেলিভশন অভিনেত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন ধরে ধর্ষণ করা হয়েছে। শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই অভিনেত্রী। বিষয়টি নিয়ে সরগরম অবস্থা বিরাজ করছে।

ভারতীয় অভিনেত্রীর খবর, দক্ষিণ মুম্বাইয়ের ওশিওয়াড়া থানায় ওই অভিনেত্রী এফআইআর দায়ের করেছেন। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ (২), ৪০৬, ৪২০,৫০৪,৫০৬ এবং ৩২৩ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয় অভিযুক্তর বিরুদ্ধে। তিনি এফআইআরের পরপরই পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গেছে, সাম্প্রতিক সময়ে একটি ম্যাট্রিমনিয়াল পোর্টালের মাধ্যমে ধর্ষণে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির সঙ্গে অভিনেত্রীর পরিচয় হয়। সেখান থেকেই দুজনের বন্ধুত্ব। আর সেই বন্ধুত্ব ক্রমশ সম্পর্কে পরিণত হলে, ওই অভিনেত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করা হয় বলে অভিযোগ।

তবে অভিযুক্তকে এখনও গ্রেপ্তার করা যায়নি। তদন্তে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানায় পুলিশ।

Share

আরও খবর



একই ঘরে বিষ পানে করে ২ বোনের আত্মহত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাগেরহাটে একই ঘরে বিষ পানে করে আত্মহত্যা করেছে আপন দুই চাচাতো বোন। তারা প্রত্যেকে এক সন্তানের জননী।

মঙ্গলবার রাতে তারা বিষপান করেন। পরে তাদের গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে হাসপাতালে নিলে বুধবার ভোরে তারা মারা যান।

পুলিশ জানায়, চিতলমারী উপজেলায় আড়ুয়া বর্ণি গ্রামের শামীমের স্ত্রী বৃষ্টি বেগম (১৯) ও যশোর সদর উপজেলার দেলোয়ার খানের স্ত্রী প্রীতি বেগম (১৮) চিতলমারী উপজেলার কাননচক গ্রামে তাদের বাবার বাড়ি বেড়াতে আসে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে তারা দুজন প্রীতি বেগমের বাবা আ. খানের ঘরের মধ্যে বিষপান করেন। পরিবারের লোক টের পেয়ে ওই রাতেই তাদেরকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বুধবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান।

চিতলমারী থানার ওসি মীর শরিফুল হক জানান, তারা দুজন আপন চাচাতো বোন হলেও বান্ধবীর মতো চলা ফেরা করতেন। তবে কি জন্য বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন তার সঠিক কারণ জানা যায়নি।

Share

আরও খবর
করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রচারাভিযান

বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১