আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

ইফতারকে বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিল ইউনেসকো

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের সাংস্কৃতিক সংস্থা (ইউনেসকো) ইফতারকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। পবিত্র রমজান মাসে সারা দিন পানাহার থেকে বিরত থেকে রোজা পালন করেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা। সূর্যাস্তের সময় ইফতারের মাধ্যমে সেই রোজা ভাঙেন তারা।

সামাজিক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে ইফতারকে বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিতে ইউনেসকোর কাছে যৌথভাবে আবেদন করেছিল ইরান, তুরস্ক, আজারবাইজান এবং উজবেকিস্তান।

ইফতারকে বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিয়ে ইউনেসকো বলেছে, ইফতার (যা ইফতারি অথবা ইফতর নামেও পরিচিত) পবিত্র রমজান মাসে সকল ধর্মীয় ও আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শেষে সূর্যাস্তের সময় মুসলিমরা করে থাকেন।

সংস্থাটি আরও বলেছে, রমজান মাসে মাগরিবের আজানের পর ইফতার করা হয়। এটি পারিবারিক ও সম্প্রদায়ের বন্ধন দৃঢ় করে। এ ছাড়া এটি দান, সংহতি এবং সামাজিক বিনিময়ে উদ্বুদ্ধ করে।

গত সোমবার থেকে বতসোয়ানায় বিশ্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষার আন্তঃসরকারি কমিটি বৈঠক করছে। সেখানেই ইফতারকে বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

কিছু মুসলিম দেশে চা ও খেজুরের মাধ্যমে ইফতার খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। ইফতারের সময় যে খাবার গ্রহণ বা পরিবেশন করা হয় সেটি দেশ ভেদে ভিন্ন হয়।

জাতিসংঘের এ সংস্থাটি আরও বলেছে, ইফতার পরিবারের মধ্যে আদান-প্রদান হয়ে থাকে। আর তরুণ ও শিশুরা প্রায়ই ইফতারির উপকরণ প্রস্তুতের দায়িত্বে থাকে।

নিউজ ট্যাগ: ইউনেসকো ইফতার

আরও খবর



শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আ. লীগের কর্মসূচি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সোমবার আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই কর্মসূচি জানানো হয়েছে।

ভাষা শহীদদের স্মরণে ও ভাষার প্রতি সম্মান প্রদর্শনে নেওয়া কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ২০ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের পর দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন। ভোর সাড়ে ৬টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় এবং বঙ্গবন্ধু ভবনসহ সারাদেশে সংগঠনের সবগুলো শাখা কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন।

এছাড়া, সকাল ৭টায় কালো ব্যাজ ধারণ, প্রভাতফেরি সহকারে আজিমপুর কবরস্থানে ভাষা শহীদদের কবরে ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন। নিউ মার্কেটের দক্ষিণ গেট থেকে প্রভাতফেরি শুরু হবে।

পরের দিন (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৩টায় ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আলোচনা করবেন দেশের বরেণ্য বুদ্ধিজীবী ও জাতীয় নেতারা।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সবগুলো কর্মসূচি যথাযথভাবে পালনের জন্য আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীসহ সব সহযোগী সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।


আরও খবর



চট্টগ্রামে কর্ণফুলী ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত, চালকসহ আহত ২০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি লাইট ইঞ্জিনকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এ সময় দুই ট্রেনের চালকসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের চালক মোহাম্মদ আলী (৪২), শান্টিং ইঞ্জিনের চালক নজরুল ইসলাম (৫৪) এবং সহকারী চালক মো. সজিব (৩৫)। বাকিদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে মধ্যে নজরুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর। বাকি আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্টগ্রামগামী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সন্ধ্যা ৭টায় ফৌজদারহাট অতিক্রম করে ক্যাডেট কলেজ এলাকায় ক্রসিংয়ের সময় সামনে থাকা একটি শান্টিং ইঞ্জিনে ধাক্কা দেয়। এতে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়।

ফৌজদারহাট রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফারুক হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় চট্টগ্রামমুখী ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে।

সীতাকুণ্ড রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার নিজাম উদ্দিন বলেন, আমি নিজেই কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের যাত্রী ছিলাম। এ ঘটনায় ট্রেনটির প্রায় ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।

রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বলেন, ক্রসিংয়ের সময় কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ইঞ্জিনটিকে পিছন থেকে ধাক্কা দিয়েছে। এতে কিছু যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে পণ্যের দাম বাড়ালে প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হবে: খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

Image

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন অবৈধভাবে খাদ্য পণ্য মজুদ করে খাদ্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে পণ্যের দাম বাড়ালে প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হবে। ভরা মৌসুমেও খাদ্যপণ্যের দাম কেন বৃদ্ধি পেল সেটি খতিয়ে দেখতেই মাঠে মাঠে ঘুরে বেড়াচ্ছি।

আজ রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫ টায় বগুড়ার শেরপুরের শেরুয়া বটতলা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার সময় তিনি এই সব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের কল্যাণে সব সময় কাজ করে যাচ্ছেন। এ দেশের মানুষ যেন সব সময় সঠিক দামে খাদ্যপণ্য পায় সে বিষয়ে তিনি বদ্ধ পরিকর। 

এ সময় অবৈধভাবে পণ্য মজুদ ও নিবন্ধন না থাকায় তুষি সেমি অটো রাইস মিল সিলগালা করার নির্দেশ দেন খাদ্যমন্ত্রী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস, প্রশাসন-২ অধিশাখার(অতিরিক্ত দায়িত্ব) যুগ্ম সচিব কে এম মামুনুর রশিদ, খাদ্য অধিদপ্তরের মহা পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত মহা পরিচালক মোহাম্মদ ইমদাদুল হক, বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোছা. আফসানা ইয়াসমিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেরপুর সার্কেল মো. সজিব শাহরিন, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাজী সাইফুদ্দিন, শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সুমন জিহাদী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম রেজাউল করিম, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রেজাউল করিম রেজা, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মামুন এ কাইয়ুম। এছাড়াও ভ্রাম্যমাণ আদালতকে র‌্যাব বগুড়া ও শেরপুর থানা পুলিশের সদস্য সহযোগিতা করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সুমন জিহাদী বলেন, কেউ অবৈধভাবে খাদ্যপণ্য মজুদ করতে পারবে না। নিবন্ধন না থাকলেতো নয়ই। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



মেট্রোরেলের সর্বনিম্ন ভাড়া ১০ টাকা করার দাবি

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মেট্রোরেলে হাফ পাসের দাবি জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে সর্বনিম্ন ভাড়া ১০ টাকা করাসহ স্টুডেন্ট পাসের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা।

আজ রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ফার্মগেট মেট্রোরেল স্টেশনের নিচে পূর্বঘোষণা অনুসারে মানববন্ধন আয়োজন করা হয়। পরে পুলিশি বাধার মুখে বিক্ষোভ মিছিল করে শাহবাগে জাদুঘরের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলে, আমরা তো চাকবিজীবী নই। শিক্ষার্থীদের অর্থনৈতিক অবস্থা, চাহিদা ও সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনায় রেখে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কম্পানি লিমিটেড কর্তৃপক্ষকে।

মেট্রোরেলে হাফ পাস চাই আন্দোলনের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র মুহাম্মদ প্রিন্স বলেন, মেট্রোরেল আইন ২০১৫-এর ১৮(২) ধারায় পরিচালনা ব্যয় ও জনসাধারণের আর্থিক সামর্থ্য বিবেচনায় ভাড়া নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে। ছাড়া বিধিমালার ২২(খ) ধারায় গণপরিবহনের ভাড়া বিবেচনায় নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

অথচ ঢাকা মেট্রোর ২০ কিলোমিটারের ভাড়া ১০০ টাকা করা হয়েছে। ফলে মেট্রো রেল সাধারণ শিক্ষার্থীদের নাগালের বাইরে চলে গেছে।

মেট্রোরেলে হাফ পাস চাই আন্দোলনের যুগ্ম সমন্বয়ক আশরাফুল ইসলাম নির্ঝর বলেন, মেট্রোরেল পুরোপুরি চালু হলেও শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালু করা হয়নি। শিক্ষার্থীদের প্রতি রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে শুধু বাংলাদেশে নয়, প্রতিবেশী ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গণপরিবহনে হাফ পাস পদ্ধতি চালু রয়েছে।


আরও খবর



স্বর্ণের দাম সর্বকালের সর্বোচ্চ ছাড়িয়ে যাওয়ার আভাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

আগামী ১২ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে স্বর্ণের দাম সর্বকালের সর্বোচ্চ ছাড়িয়ে যেতে পারে। এসময়ে প্রতি আউন্সের দর উঠতে পারে ৩০০০ ডলারে। যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিখ্যাত আর্থিক প্রতিষ্ঠান সিটি গ্রুপের বিশ্লেষকরা এ পূর্বাভাস দিয়েছেন। দেশটির প্রভাবশালী বাণিজ্যিক সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, এখন আন্তর্জাতিক বাজারে আউন্সপ্রতি স্বর্ণ বেচাকেনা হচ্ছে ২০১৬ ডলারে। চলতি বছর নিরাপদ আশ্রয় ধাতুটির মূল্য আরও বৃদ্ধি পাবে। ২০২৫ সাল নাগাদ সর্বকালের সর্বোচ্চ দামের রেকর্ড ভেঙে যেতে পারে।

২০২৩ সালের ডিসেম্বরের শুরুতে বিশ্ববাজারে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছিল স্বর্ণের দাম। গত ৩ ডিসেম্বর লেনদেনের এক পর্যায়ে প্রতি আউন্সের দর দাঁড়ায় ২১৫২ ডলারে। সর্বকালে যা ছিল সর্বোচ্চ। মানে এর আগে কখনও মূল্যবান ধাতুটির এত মূল্য দেখেননি বিশ্ববাসী। 

আসছে ১ থেকে দেড় বছরের মধ্যে সেই নজিরও চুরমার হয়ে যেতে পারে। সিটির উত্তর আমেরিকাভিত্তিক পণ্য গবেষণার প্রধান আকাশ দোশি বলেন, এসময়ে স্বর্ণের দাম বাড়বে ৫০ শতাংশ। এক্ষেত্রে সম্ভাব্য তিনটি অনুঘটকের যেকোনো একটি বিদ্যমান থাকলেই হবে।

তিনি বলেন, প্রথমত; বিশ্বজুড়ে বৃহৎ কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো ব্যাপক হারে স্বর্ণ কেনা বাড়াতে পারে। দ্বিতীয়ত, বিশ্বব্যাপী মূল্যস্ফীতি চড়া থাকতে পারে। তৃতীয়ত, বৈশ্বিক মন্দা গভীর হতে পারে। পরবর্তী ১২ থেকে ১৮ মাসে এর মধ্যে যেকোনো একটি বিরাজ করলেই স্বর্ণের দাম সর্বকালের সর্বোচ্চ ছাড়িয়ে যাবে।


আরও খবর
এক মাসে রিজার্ভ বাড়ল ৬৩ কোটি ডলার

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪