আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

ইলিশ রক্ষা অভিযান: শিবচরে আরো ৫১ জেলেকে কারাদণ্ড

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৫৬৫জন দেখেছেন
Image

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

সরকার ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকারের অভিযোগে ৫১ জেলেকে আটক করা হয়েছে। সোমবার রাত ২ টা থেকে মঙ্গলবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি, চরজানাজাত, বন্দরখোলা এলাকার পদ্মানদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের নিকট ৫৫ হাজার ৫ শত মিটার কারেন্ট জাল ও ১০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করে ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানের অংশ হিসেবে পদ্মা নদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত ও শিবচর থানা পুলিশের একটি টিম। এসময় পদ্মানদীতে নিষেধ অমান্য করে ইলিশ শিকার করায় ৫৫ জেলেকে নদী থেকে আটক করে পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাদের ৫১ জনকে এক বছর করে সাজা প্রদান ও ৪ জনকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়ায় ৫ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এসময় জব্দকৃত ইলিশ ধরার জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয় ও জব্দকৃত মাছ নিকটস্থ এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন শিবচর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম রাকিবুল হাসান।

তিনি বলেন, যে সকল জেলে সরকারী আদেশ অমান্য করে নদীতে নেমেছেন তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। জেলেদের জেল দেয়া আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমরা চাই সকল জেলে সরকারী আদেশ মেনে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত মাছ ধরা থেকে বিরত থাকুক। মা ইলিশ পদ্মায় নির্ভয়ে বিচরণ করুক। এ জাতীয় সম্পদ রক্ষায় সবার সহযোগিতা কাম্য।

শিবচর উপজেলা জেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা ফেরদৌস ইবনে রহিম বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য জেলেদের ধরা বা জরিমানা করা না। আমাদের উদ্দেশ্য মা ইলিশ সংরক্ষণ করা। তাই সকলকে অনুরোধ করবো তারা যেন মা ইলিশ রক্ষা করেন।


আরও খবর



কিশোর গ্যাং ঠেকাতে বইপড়া ও খেলাধুলা বাড়াতে হবে: র‍্যাব ডিজি

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিশোর গ্যাং ঠেকাতে বইপড়া ও খেলাধুলা বাড়াতে হবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ-আল-মামুন।

শনিবার (২ অক্টোবর) রাজধানীর তেজগাঁওস্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (এফডিসি) অনুষ্ঠিত কিশোর গ্যাং বৃদ্ধির কারণ নিয়ে ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় এ কথা বলেন তিনি। ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, যেখানেই কিশোর গ্যাং কালচার রয়েছে সেখানে কিন্তু আমাদের কিশোররা বিপথে পা বাড়াচ্ছে। সামাজিক আচার-আচরণের বাইরে গিয়ে তারা বিচ্যুত পথে যাচ্ছে। আমরা নিশ্চয় মাথা ব্যথার জন্য মাথা কাটা নয়, মাথাব্যথার ঔষধ দিবো। বিচ্ছিন্নতাবোধ থেকে বের হতে হবে। এজন্য দেশে বই পড়া ও খেলাধুলা আমাদের বাড়াতে আহ্বান জানান তিনি।

জনসচেতনতার ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, যেভাবেই হোক কিশোর গ্যাং কালচারকে নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। এটার জন্য দরকার জনসচেতনতা। তরুণ প্রজন্মকে কোনোভাবে আমরা ব্যর্থ হতে দিতে পারি না।

র‍্যাব মহাপরিচালক বলেন, আমাদের গর্ব পারিবারিক বন্ধন। পারিবারিক বন্ডিং এর কারণে অনেক নেতিবাচক কাজে আমরা জড়াতে পারি না। এরপরও অনেক কিছু ঘটছে। কিশোররা কেন গ্যাং কালচারে জড়াচ্ছে তা খুঁজে বের করতে হবে।

আমাদের সবারই অনেক দায়িত্ব আছে এবং সবার যথাযথ ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলে, আমরা ২৭২ এর অধিক কিশোর গ্যাং সদস্যকে আটক করেছি। এই কিশোর অপরাধীদের এজন্যই গ্রেফতার করতে হয়েছে, যাতে কিশোর গ্যাং কালচার এবং কিশোর অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

তিনি বলেন, আমাদের তরুণরা যেন গর্বিত নাগরিক হয়, কোন অপরাধে না জড়ায়। তবেই সুন্দর, উন্নত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব। আমরা যা করতে পারিনি আমাদের আগামী প্রজন্ম যেন তা করতে পারে। সেজন্য সকলের ঐকান্তিক চেষ্টায় সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে।

এতে সভাপতিত্ব ও বক্তব্য রাখেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।


আরও খবর



২০ অক্টোবর ঈদে মিলাদুন্নবী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | ৭২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
হিজরি ক্যালেন্ডারের ১২ রবিউল আউয়াল মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের মহানবী হজরত মুহাম্মদের (স.) পৃথিবীতে আগমণ ও তিরোধানের দিন। এ দিনটি মুসলিম বিশ্বে ঈদে মিলাদুন্নবী হিসেবে পালন করা হয়। বাংলাদেশে এ দিনটি সরকারি ছুটি

বাংলাদেশের কোথাও বৃহস্পতিবার নতুন চাঁদের দেখা না মেলায় হিজরি রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হবে শনিবার থেকে, আর ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত হবে আগামী ২০ অক্টোবর।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সভাপতিত্বে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

পরে এক ব্রিফিংয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সকল জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে পাওয়া তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যাচ্ছে যে, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের আকাশে কোথাও রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে শুক্রবার সফর মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং শনিবার থেকে রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হবে। সে হিসাবে ১২ রবিউল আউয়াল হয় ২০ অক্টোবর বুধবার, সেদিন ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত হবে।

হিজরি ক্যালেন্ডারের ১২ রবিউল আউয়াল মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের মহানবী হজরত মুহাম্মদের (স.) পৃথিবীতে আগমণ ও তিরোধানের দিন। এ দিনটি মুসলিম বিশ্বে ঈদে মিলাদুন্নবী হিসেবে পালন করা হয়। বাংলাদেশে এ দিনটি সরকারি ছুটি।

চাঁদ দেখা কমিটির সভায় অন্যদের মধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মু. আউয়াল হাওলাদার (দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব), ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক মো. মুশফিকুর রহমান, বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসক আব্দুল্লাহ সাজ্জাদ, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মুনিম হাসান, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. নজরুল ইসলাম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপ- সচিব মো. ছাইফুল ইসলাম, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. শাহেনূর মিয়া, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (অর্থ) মো. জহিরুল ইসলাম মিয়া, বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠানের পিএসও আবু মোহাম্মদ, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আছাদুর রহমান, মাদ্রাসা-ই-আলিয়ার প্রধান মাওলানা অধ্যক্ষ মো. এ কে এম আবদুল মান্নান, লালবাগ শাহী জামে মসজিদের খতিব মুফতি মুহাম্মদ নেয়ামতুল্লা, চকবাজার শাহী জামে মসজিদের খতিব মুফতি শেখ নাঈম রেজওয়ান, শোলাকিয়া মসজিদের ইমাম মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ এবং বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
আজ শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21

আজ শ্রী শ্রী লক্ষ্মীপূজা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




আবারও বিক্ষোভে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তিনটি পদ থেকে পদত্যাগ করার পরে গতকাল মঙ্গলবার রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে যাদের চুল কেটে দেওয়া হয়েছে তাদেরকে তিনি চেনেন না ও তারা শিক্ষার্থী কি না জানেন না বলায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ক্যাম্পাস আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে।

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকা কর্তৃক কাঁচি দিয়ে ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় অভিযুক্ত ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন তার দায়িত্বে থাকা পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন।

যাদের চুল কেটে দিয়েছি তাদের চিনি না টিভিতে ওই শিক্ষিকার এমন মন্তব্যে আজ সকাল থেকেই বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এর রাতে সেই শিক্ষিকার কুশপুত্তলিকাও পুড়িয়েছে বিক্ষুদ্ধরা। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি দুজন শিক্ষকও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রবীন্দ্র অধ্যায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌস হিমেল। তিনি বলেন, মঙ্গলবার রাতে অভিযক্ত তার দায়িত্বে থাকা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান, সহকারী প্রক্টর ও প্রক্টরিয়াল বোর্ডের সদস্য পদ থেকেই স্থায়ীভাবে পদত্যাগ করেন।

তিনি আরও বলেন, পরে শিক্ষার্থীরা এতে শান্তও হয়ে যায়। কিন্তু রাতে তিনি একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে বলেন, আমি যাদের চুল কেটে দিয়েছি তাদের আমি চিনি না। তারা আমার শিক্ষার্থী কি না তাও বলতে পারব না। বিষয়টি জানাজানি হলে তারা আবারও ক্ষুব্ধ হয়ে আন্দোলন শুরু করে।

রাতে তারা সেই শিক্ষিকার কুশপুত্তলিকাও পুড়িয়ে প্রতিবাদ জানায়। এছাড়াও পদত্যাগের পরে রাতে তার এমন বক্তব্যে শিক্ষার্থীরা ছাড়াও একাধিক শিক্ষক পর্যন্ত নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান তিনি।

তবে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য বরীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

 


আরও খবর



১৩ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০২০ - বাংলাদেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করে "নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) অধ্যাদেশ" জারি করা হয়

১৩ অক্টোবর গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৮৬তম (অধিবর্ষে ২৮৭তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ৭৯ দিন বাকি রয়েছে।  একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি

    খ্রিষ্টপূর্ব ৫৩৯ - ইরানে হাখামানেশিয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা সাইরাস ইরাকের ঐতিহাসিক বাবেল শহর দখল করে।

    ৬৩৫ - খালিদ বিন ওয়ালিদ সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক জয় করেন।

    ১৫৫৬ - মোগল সম্রাট আকবরের রাজত্বকালের সূচনা হয়।

    ১৭৭০ - তামার পয়সার বদলে আনির প্রচলন শুরু হয়।

    ১৭৯২ - মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হোয়াইট হাউসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হয়।

    ১৮১২ - কুইন্সটন হাইডমের যুদ্ধ শুরু হয়।

    ১৮১৫ - সিসিলির রাজা জোযামিন মোরাটের মুত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

    ১৮৮৪ - ওয়াশিংটন সম্মেলনে গ্রিনউইচ সার্বজনীন মেরুমধ্যরেখা হিসেবে গৃহীত হয়।

    ১৯২৩ - আঙ্কারাকে তুরস্কের নতুন রাজধানী ঘোষণা করা হয়।

    ১৯৩৭ - চীনের জাতীয় বিপ্লবী বাহিনীর নতুন চতুর্থ আর্মী প্রতিষ্ঠিত হয়।

    ১৯৪৩ - ইতালি জার্মানির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।

    ১৯৪৪ - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে যুগোশ্লাভিয়ার বিখ্যাত নেতা মার্শাল টিটো সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সেনা বাহিনীর সহায়তায় জার্মানীর দখলে থাকা যুগোশ্লাভিয়ার রাজধানী বেলগ্রেড মুক্ত করতে সক্ষম হন।

    ১৯৪৬ - মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও লর্ড ওয়াডেল এর ফলপ্রসূ আলোচনার পর নিখিল ভারত মুসলিম লীগ ওয়ার্কিং কমিটি কর্তৃক অন্তবর্তীকালীন কেন্দ্রীয় সরকারের অর্থমন্ত্রীর পদে যোগদানের প্রস্তাব গ্রহণ করেন।

    ১৯৬২ - যুক্তরাষ্ট্রের অধীনে পানামা খাল অঞ্চল নতুন পানামা খালের সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার জন্যে একটি উদযাপনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

    ১৯৬৬ - শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ছয় দফা আন্দোলন চলাকালে প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান অস্ত্র প্রয়োগের ভয় দেখালে তিনি এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানান।

    ১৯৮৯ - আধুনিক বিশ্বের বৃহত্তম ব্রোঞ্জ বৌদ্ধ মূর্তি ২৬.৪ মিটার উঁচু থিয়েনথান বৌদ্ধমূর্তির নির্মাণকাজ হংকংয়ের তায়ুএ পাহাড়ে সমাপ্ত হয় ।

    ১৯৯০ - ভিয়েতনামের কমিউনিস্ট পার্টির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও তাত্ত্বিক লে দাক থো মৃত্যুবরণ করেন।

    ১৯৯১ - বাংলার প্রাচীন প্রেক্ষাগৃহ স্টার থিয়েটার আকস্মিক অগ্নিকান্ডে ভস্মীভূত হয়।

    ১৯৯৪ - মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র প্রমাণ করে যে, যুক্তরাষ্ট্রের সারাদেশে কমপক্ষে কয়েক হাজার লোক যুক্তরাষ্ট্রের একটি ব্যক্তিগত আইসক্রিম কোম্পানির উৎপাদিত আইসক্রিম খাওয়ার ফলে বিষক্রিয়ার ঘটনা ঘটে , কিন্তু কেউ মারা যায় নি ।

    ১৯৯৭ - পাঁচ দিনের সফরে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জেমস টি উলফেনসন ঢাকা আগমন করেন।

    ১৯৯৯ - ভারতে হিন্দুত্ববাদী দলের নেতা অটল বিহারী বাজপেয়ী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন।

    ২০০১ - ভারতীয় সংসদ ভবনে আতঙ্কবাদী হামলা - সব আতঙ্কবাদী সমেত মোট ১৫ জনের মৃত্যু

    ২০০২ - বাঙালি মহীয়সী নারী এবং সংগ্রামী কৃষক নেত্রী ইলা মিত্র মৃত্যুবরণ করেন।

    ২০০৪ - ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সিটি কার্ডিয়াক সেন্টারের যাত্রা শুরু হয়।

    ২০০৬ - শান্তিতে ড. মুহাম্মদ ইউনূস ও গ্রামীণ ব্যাংকের নোবেল পুরস্কার লাভ।

    ২০২০ - বাংলাদেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করে "নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) অধ্যাদেশ" জারি করা হয়।

 

জন্ম

    ১৮৬২ - পর্যটক ও লেখক মেরি কিংসলে জন্মগ্রহণ করেন।

    ১৮৯০ - কনরাড রিক্টার, মার্কিন ঔপন্যাসিক।

    ১৯১১ - অশোক কুমার, ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা।

    ১৯২৫ - মার্গারেট থ্যাচার, লৌহমানবী হিসেবে খ্যাত যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

    ১৯৩৮ - হুগো ইয়াং, ইংরেজ সাংবাদিক ও লেখক।

    ১৯৪৮ - নুসরাত ফতেহ আলি খান, পাকিস্তানি কাওয়ালি সঙ্গীত শিল্পী।

    ১৯৭৯ - ওয়েস ব্রাউন, ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড়।

    ১৯৯৪ - লিটন দাস, বাংলাদেশী ক্রিকেটার।

 

মৃত্যু

    ১৮২২ - আন্তেনিও কানোভা, ইতালীয় ভাস্কর।

    ১৮৮২ - জোযেফ আর্থার গোবিনো, ফরাসী দার্শনিক ও লেখক।

    ১৯১১ - ভগিনী নিবেদিতা, (আসল নাম মার্গারেট এলিজাবেথ নোবেল), অ্যাংলো-আইরিশ বংশোদ্ভূত ভারতহিতৈষী সমাজকর্মী, লেখিকা, শিক্ষিকা এবং স্বামী বিবেকানন্দের শিষ্যা।

    ১৯৬৪ - প্রেমাঙ্কুর আতর্থী, কথাশিল্পী, সাংবাদিক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা।

    ১৯৬৪ - গোলাম মোস্তফা, বাঙালি কবি।

    ১৯৭১ - আবদুল মোনেম খান, পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর।

    ১৯৮৩ - অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিনেতা, নাট্যকার ও নাট্য পরিচালক।

    ১৯৮৭ - কিশোর কুমার, ভারতীয় বাঙালি অভিনেতা ও গায়ক।

    ১৯৮৭ - অমলেন্দু বিশ্বাস, বাংলাদেশী যাত্রা অভিনেতা ও পরিচালক।

    ২০০২ - ইলা মিত্র, বাঙালি মহীয়সী নারী, তেভাগা আন্দোলনের নেত্রী।

    ২০০৬ - ভারতীয় বাঙালি ঔপন্যাসিক, ছোটোগল্পকার ও প্রাবন্ধিক প্রতিভা বসু।

    ২০০৭ - ওবায়েদ উল হক, সাংবাদিক ও চলচ্চিত্রকার।

    ২০১৩ - জনপ্রিয় বাঙালি সাহিত্যিক চিত্তরঞ্জন মাইতি।

    ২০২০ - রশীদ হায়দার, একুশে পদক ও বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ী বাংলাদেশি লেখক, কথাসাহিত্যিক ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক, নজরুল ইনস্টিটিউটের সাবেক নির্বাহী পরিচালক।

 

ছুটি ও অন্যান্য

    আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস৷


আরও খবর
২১ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১

২০ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন রূপগঞ্জে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের নির্বাচনী জনসভা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৯৫জন দেখেছেন
Image

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের নির্বাচনী জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সনাতন ধর্মাবলম্বী অধ্যূষিত কায়েতপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার নারী পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। শুক্রবার বিকেলে স্থানীয় নাওড়া পূর্বপাড়া হরি ওম শশ্মান মাঠে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশের অন্যতম শিল্পগোষ্ঠী রংধনু গ্রুপ ও কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম। কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল আলমের সভাপতিত্বে ও নারায়ণগঞ্জ জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি বাবু বিধান কৃষ্ণ রায়ের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আগামী কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতিকের মনোনয়ন প্রত্যাশী রংধনু গ্রুপের পরিচালক মোঃ মিজানুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল আউয়াল, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বিষেশ্বর সাহা, সাধারন সম্পাদক প্রবাল সরকার, যুবলীগ নেতা হাজী সফিকুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন ভুইয়া  সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মহিউদ্দিন মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা আশফাকুল ইসলাম তুষার, আশরাফুল আলম ভুইয়া জেমিন, সনাতক ধর্মাম্বলী সম্প্রদায়ের নেতা কাজল চন্দ্র রায়, রিপন সরকার, কর্মেশ্বর মল্লিক, দিক বিজয় মল্লিক, সুরেশ সরকার, সুদির সরকার, রাম গোবিন্দ মন্ডল, আশাপূর্ণ মন্ডল, মহিলালীগ নেত্রী স্বপ্না আক্তার, ইয়াছমীন আক্তার প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আসন্ন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সরে দাড়িয়ে তার ভাই নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও রংধনু গ্রুপের পরিচালক মিজানুর রহমানকে প্রার্থী ঘোষণা করে সনাতন ধর্মাবলম্বী সম্প্রদায়ের মাঝে পরিচয় করিয়ে দেন। এ সময় সনাতন ধর্মাবলম্বী সবাই আগামী নির্বাচনে মিজানুর রহমানের পক্ষে কাজ করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। অনুষ্ঠান শেষে সনাতন ধর্মাবলম্বী সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপুজা উপলক্ষে ২ হাজার নারী পুরুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেন রংধনু চেয়ারম্যান। পরে উক্ত হরিওম মাঠে হরিওম মন্দির ও আধুনিক শশ্মানের উদ্ধোধন করেন তিনি।


আরও খবর