আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ইতিহাসে আজকের এই দিনে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৭৩১ - বেইজিংয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়।

১৭৭৬ - ক্যাপ্টেন কুক প্রশান্ত মহাসাগরে তৃতীয় ও শেষ অভিযান শুরু করেন।

১৭৮২ - ইংল্যান্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা স্বীকার করে।

১৮৩৮ - মেক্সিকো ফ্রান্সের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।

১৮৬৩ - উমাচরণ ভট্টাচার্য মুদ্রিত মাসিক পত্রিকা সচিত্র ভারত সংবাদ প্রাকাশিত হয়।

১৮৬৬ - শিকাগোতে প্রথম পানির নিচে হাইওয়ে টানেল তৈরির কাজ শুরু হয়।

১৯৬২ - উথান্ট জাতিসংঘের মহাসচিব নির্বাচিত হন।

১৯৬৬ - বারবাডোজ স্বাধীনতা লাভ করে।

১৯৭৩ - বঙ্গবন্ধু কর্তৃক বাংলাদেশে দালাল আইনে সাজাপ্রাপ্তও বিচারাধীন সকল রাজবন্দীর প্রতি সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করা হয়।

১৯৭৭ - আর্ন্তজাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল-IFAD প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৭৭ - হাঁ-না ভোটে জিয়াউর রহমানের গণআস্থা লাভ করেন।

জন্ম:

১৪৮৫ - ইতালির মহিলা কবি ভোরোনিকা গামবারার জন্ম গ্রহণ করেন।

১৫০৮ - আন্ড্রেয়া পালাডিও, তিনি ছিলেন ইতালীয় স্থপতি।

১৫৫৪ - ফিলিপ সিডনি, তিনি ছিলেন ইংরেজ সৈনিক, সভাসদ ও কবি।

১৬৬৭ - বিখ্যাত আইরিশ লেখক জোনাথন সুইফট আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে জন্মগ্রহণ করেন।

১৭৫৬ - আর্নেস্ট চলাডনি, তিনি ছিলেন জার্মান পদার্থবিজ্ঞানী ও লেখক।

১৮১৭ - থিওডর মম্সেন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান আইনজ্ঞ, ঐতিহাসিক ও পণ্ডিত।

১৮৩৫ - স্যামুয়েল ল্যাঙ্গহোর্ণ ক্লিমেন্স, তিনি ছিলেন একজন মার্কিন রম্য লেখক, সাহিত্যিক ও প্রভাষক। তিনি অবশ্য মার্ক টোয়েইন নামে বেশি পরিচিত।

১৮৫৮ - স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু, তিনি ছিলেন বাংলাদেশের একজন সফল বিজ্ঞানী।

১৮৬৯ - নিল্স গুস্তাফ দালেন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ পদার্থবিজ্ঞানী ও প্রকৌশলী।

১৮৭৪ - উইনস্টন চার্চিল, তিনি ছিলেন ইংরেজ রাজনীতিবিদ ও লেখক।

১৮৮৯ - এডগার ডগলাস আদ্রিয়ান, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ শারীরবিজ্ঞানী ও একাডেমিক।

১৯০৮ - বুদ্ধদেব বসু, তিনি ছিলেন বিশ শতকের বাঙালি কবি।

১৯১৫ - হেনরি টাউব, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী কানাডিয়ান বংশোদ্ভূত আমেরিকান রসায়নবিদ ও একাডেমিক।

১৯৩৭ - রিডলি স্কট, তিনি ইংরেজ পরিচালক, প্রযোজক তিনি উৎপাদন ডিজাইনার।

১৯৪৩ - টেরেন্স মালিক, তিনি আমেরিকান পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।

১৯৪৪ - জর্জ গ্রাহাম, তিনি স্কটিশ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।

১৯৫৩ - নন্দিত সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী।

১৯৬৫ - আল্ডাইর, তিনি সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার।

১৯৭৮ - গায়েল গার্সিয়া বেরনাল, তিনি মেক্সিক্যান অভিনেতা ও পরিচালক।

১৯৮৪ - নিগেল ডি জং, তিনি ডাচ ফুটবল।

১৯৮৮ - ফিলিপ হিউজ, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার।

১৯৯১ - মোহাম্মাদ নাসির হোসেন, তিনি বাংলাদেশী ক্রিকেটার।

মৃত্যু:

১০১৬ - এডমন্ড আয়রনসিডে, তিনি ছিলেন ইংরেজ রাজা।

১৭১৮ - ফ্রান্সের রাজা দ্বাদশ চার্লস যুদ্ধে নিহত হন।

১৭৫৯ - মোগল সম্রাট দ্বিতীয় আলমগীর নিজ মন্ত্রীর হাতে নিহত হন।

১৯০০ - অস্কার ওয়াইল্ড, তিনি ছিলেন আইরিশ প্রাবন্ধিক, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও কবি।

১৯৩৩ - কবি মোজাম্মেল হক।

১৯৩৫ - ফার্নান্দো পেশোয়া, তিনি ছিলেন পর্তুগিজ কবি, দার্শনিক ও সমালোচক।

১৯৩৮ - ইরানের সংগ্রামী ও স্বাধীনচেতা আলেম আয়াতুল্লাহ সাইয়েদ হাসান মোদাররেস দেশটির তৎকালীন স্বৈরাচারি রাজা রেজা খানের অনুচরদের হাতে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর কাশমারে শাহাদত বরণ করেন।

১৯৫৩ - ফ্রান্সিস পিকাবিয়া, তিনি ছিলেন ফরাসি চিত্রশিল্পী ও কবি।

১৯৭৯ - যেপপো মার্কস, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা ও গায়ক।

১৯৮৪ - অভিনেত্রী ও সঙ্গীতশিল্পী ইন্দুবালা দেবী।

১৯৮৮ - মিশরের প্রখ্যাত ক্বারী আবদুল বাসেত মোহাম্মাদ আবদুস সামাদ।

১৯৮৯ - আহমাদউ আহিদজ, তিনি ছিলেন ক্যামেরুনের রাজনীতিবিদ ও ১ম রাষ্ট্রপতি।

১৯৯৪ - গায় ডেবরড, তিনি ছিলেন ফরাসি তাত্ত্বিক ও লেখক।

১৯৯৮ - আবদুল্লাহ আল মুতী শরফুদ্দিন, তিনি ছিলেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞান লেখক ও বিজ্ঞান কর্মী।

২০১২ - ইন্দ্র কুমার গুজরাল, তিনি ছিলেন ভারতীয় রাজনীতিবিদ ও ১২ তম প্রধানমন্ত্রী।

২০১৭ - একজন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ, টেলিভিশন উপস্থাপক এবং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক।


আরও খবর
ইতিহাসে আজকের এই দিনে

শুক্রবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৪

২৫ জানুয়ারি : ইতিহাসে আজকের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৪




২০২৫ সালের এইচএসসি পরীক্ষাও হবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২৩ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার মত সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে।

গত রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড ২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরীক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্টদের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা জাতীয় শিক্ষক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক প্রণীত ২০২৩ সালের পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

২০২৫ সালের এইচএসসি পরীক্ষা সব বিষয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এইচএসসি ও সমমান পর্যায়ে প্রতিটি বিষয় ও পত্রে ৩ ঘণ্টা সময়ে পূর্ণ নম্বরে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে ২০২৫ সালের এইচএসসির পরীক্ষার বিষয়ে জানানো হয়েছিল, ২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, বাংলাদেশ প্রণীত ২০২৫ সালের পাঠ্যসূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

২০২৫ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা সব বিষয়ে, পূর্ণ সময়ে ও পূর্ণ নম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা হয়নি। ২০২১ সাল থেকে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এ পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।


আরও খবর



জ্ঞানবাপী মসজিদে পূজার অনুমতি দিলেন ভারতীয় আদালত

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারতের বারানসির জ্ঞানবাপী মসজিদের হিন্দুদের পূজার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে এক রায়ে আদালত জানান, হিন্দুরা এখন সেখানে পূজা করতে পারবেন। বিশ্বনাথ মন্দিরের পুরোহিতরা সেখানে পূজা কার্যক্রম পরিচালন করবেন। এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ারও আদেশ দেওয়া হয়।

সম্প্রতি জ্ঞানবাপী মসজিদের প্রকাশিত সার্ভে প্রতিবেদন প্রকাশ্যে আনা হয়। হিন্দু ধর্মালম্বীদের দাবি, ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ বিভাগের সার্ভেতে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে এই মসজিদের ভেতরে ছিল হিন্দু মন্দির। বেশ কিছু হিন্দু মূর্তির ভাঙা অংশ, নানা পুজার্চনার চিহ্নের উল্লেখ করা হয়েছে সেই প্রতিবেদনে। প্রকাশ করা হয়েছে সেই চিহ্নগুলির ছবিও। এরপরই মসজিদের এই অংশ হিন্দুদের হাতে তুলে দেওয়ার দাবি জানায় বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। একইসঙ্গে পুজার অনুমতি চেয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন তারা।

বুধবার এলাহাবাদ হাইকোর্ট জানান, মসজিদের ভেতরে সিল করা বেজমেন্টে এবার থেকে পূজা করতে পারবেন হিন্দুরা।

হিন্দু পক্ষের আইনজীবী বিষ্ণু শংকর জৈন বলেন, আগামী সাতদিনের মধ্যে জ্ঞানবাপী মসজিদের বেসমেন্টে পূজা শুরু হবে। সকল হিন্দুরাই সেখানে পূজার অনুমতি পাবেন। হিন্দুরা যেন বিনা কোনও বাধায় এই চত্বরে পূজা করতে পারেন, তার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছেন তিনি।

জ্ঞানবাপীর বেজমেন্টে হিন্দুদের যাওয়ার জন্য একটি রাস্তা তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।


আরও খবর



জাতিসংঘ থেকে ইসরায়েলকে বহিষ্কার করার দাবি জানালেন রায়িসি

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রায়িসি দখলদার ইসরায়েলকে জাতিসংঘ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছেন। রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী তেহরানে ইরানের ইসলামি বিপ্লবের ৪৫তম বার্ষিকীর শোভাযাত্রায় এ দাবি জানান তিনি।

রায়িসি গাজায় ইসরায়েলি গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে বলেন, বর্ণবাদী ইসরায়েল এ পর্যন্ত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার চারশ' ইশতেহার, প্রস্তাব ও ঘোষণা লঙ্ঘন করেছে। তারা জাতিসংঘের প্রস্তাব ও নীতিমালা মানে না। অবৈধ দখলদার ইসরায়েলের সদস্যপদ বাতিলের জন্য তিনি জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিন হচ্ছে মুসলিম বিশ্বের প্রধান ইস্যু। ফিলিস্তিনের প্রতি ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের অকুণ্ঠ সমর্থন আগের মতোই অব্যাহত থাকবে।

রায়িসি বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান বিশ্বের সবচেয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র। প্রাচ্য বা পাশ্চাত্যের তাবেদারি না করে স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অটুট রাখার নীতিতে ইরান অটল রয়েছে।

প্রেসিডেন্ট বলেন, ইরান ইস্যুতে শত্রুদের ভাষায় পরিবর্তন এসেছে। তারা এখন আর ইরানের বিরুদ্ধে সামরিক উপায় অবলম্বনের কথা চিন্তাও করতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, গণতন্ত্র রক্ষার দাবিদারেরা ফিলিস্তিন ও ইয়েমেনের জনগণের রায়কে মূল্য দিচ্ছে না, তাদের ভোটাধিকারের প্রতি সম্মান দেখাচ্ছে না। ইরান প্রজাতান্ত্রিক ব্যবস্থা তথা জনগণের ভোটের ওপর প্রতিষ্ঠিত।

ভাষণে তিনি বিপ্লব পরবর্তী ইরানের নানা ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও অগ্রগতির কথাও তুলে ধরেছেন।


আরও খবর



সিলেটে শিশুদের বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিলেন ফুটবলার

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

সিলেট সদর উপজেলার শামাউরাকান্দিতে বালুবাহী ট্রাক চাপায় মো. তারেক আহমদ মোহন নামের এক ফুটবল খেলোয়াড়ের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে হাটখোলা ইউনিয়নের শামাউরাকান্দি এলাকায় বালুবাহী ট্রাক চাপায় তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত যুবক মোহনের বাড়ি সিলেট সদর উপজেলার নলকট এলাকায়।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, প্রায় দুই মাস আগে সৌদি আরব থেকে দেশে আসে মোহন। দেশে থাকাকালীন খুব ভালো ফুটবল খেলতো সে। প্রবাস থেকে এসেও সে ফুটবল খেলা ছাড়তে পারেনি। গতকালও একটি টুর্নাম্যান্টে অংশ নিয়েছিল সে। খেলাধুলার পাশাপাশি মাঝে মাঝে সে নিজের সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালাতে বের হত। আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি তার বিয়েরও তারিখ ছিলো।

দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ সকালে সে অটোরিকশা নিয়ে বের হয়ে শামাউরাকান্দি এলাকায় যায়। সেখানে একদিকে দ্রুতগতিতে চলছে বালুবাহী ট্রাক, অপরদিকে স্কুলের শিশুরা রাস্তা পার হচ্ছে। ঘটনার সময় একটি দ্রুতগামী বালুবাহি ট্রাক দেখে সে এগিয়ে গিয়ে শিশুদের রাস্তা পার করে দিতে যায়। আগে থেকে সিগন্যাল দিলেও একটি দ্রুতগতির ট্রাক তাঁকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার পর ঘাতক ট্রাক ও ট্রাকের চালককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ইয়াসির আরাফাতের বাড়ি গুঁড়িয়ে দিল ইসরাইলি বাহিনী

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ফিলিস্তিনি মুক্তি সংগ্রামের অবিসংবাদিত নেতা ও ফিলিস্তিন মুক্তি সংস্থার (পিএলও) সাবেক প্রধান ইয়াসির আরাফাতের স্মৃতিবিজড়িত গাজা উপত্যকার বাড়িটি গুঁড়িয়ে দিয়েছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী। ফিলিস্তিনের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ওই বাড়ি ধ্বংসের খবর নিশ্চিত করেছে।

বৃহস্পতিবার ফিলিস্তিনের সংস্কৃতিমন্ত্রী আতিফ আবু সাঈফ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, ইসরায়েলের অব্যাহত আগ্রাসন ও ধ্বংসযজ্ঞের অংশ হিসেবে দখলদার সেনারা প্যালেস্টাইন লিবারেশন অরগানাইজেশন বা পিএলওর প্রতিষ্ঠাতা প্রধান ইয়াসির আরাফাতের বাড়ি ধ্বংস করেছে। ফিলিস্তিনি জনগণের মর্যাদা এবং সংগ্রামের প্রতীক মুছে ফেলার লক্ষ্যেই বাড়িটি ধ্বংস করেছে ইসরায়েল।

ধ্বংস হয়ে যাওয়া বাড়িটিতে আরাফাত ১৯৯৫ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বসবাস করেছেন। সেখানে আরাফাতের ব্যক্তিগত এবং পারিবারিক জিনিসপত্র রয়েছে। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সূচনাকালে গাজায় তার উপস্থিতির সময় এই বাড়ি ফিলিস্তিনি জনগণের ইতিহাসে অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তের সাক্ষী হয়ে আছে।


আরও খবর