আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

জাবিতে প্রথম বর্ষের ভর্তির আবেদন শুরু মঙ্গলবার

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
করোনা মহামারিতে শিক্ষার্থীরা এমনিতে নানান সমস্যায় আছে। হতাশার মধ্যে আছে। তাই তাড়াতাড়ি এ প্রক্রিয়া শেষ করতে চাই

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তির আবেদন মঙ্গলবার (৮ জুন) থেকে শুরু হচ্ছে। আগামী ২২ জুন পর্যন্ত এ প্রক্রিয়া চলবে। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে আগামী ২৮ জুলাই।

এছাড়া প্রথম বর্ষের প্রফেশনাল কোর্সের অনলাইন আবেদন ফরম বিতরণ চলবে আগামী ২৩ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত। আগামী ১২ আগস্ট থেকে প্রফেশনাল কোর্সের ক্লাস শুরু হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, আমরা পরীক্ষা নিয়ে নয়, ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়ে থাকি। তাই যথাসময়ে ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ করার চেষ্টা করা হবে। করোনার কারণে এমনিতেই এই প্রক্রিয়া ৭-৮ মাস পিছিয়েছে। এখন যদি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নেওয়ার পর আমরা নেই তাহলে আরও পিছিয়ে যাবে। করোনা মহামারিতে শিক্ষার্থীরা এমনিতে নানান সমস্যায় আছে। হতাশার মধ্যে আছে। তাই তাড়াতাড়ি এ প্রক্রিয়া শেষ করতে চাই।

প্রসঙ্গত, দেশে বর্তমান করোনা সংক্রমণ এবং সরকারি বিধি-নিষেধের মধ্যে যথাসময়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ করা নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।


আরও খবর



সিগারেট ধরানোর কথা বলে ঘরে ঢুকে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় সিগারেটে আগুন ধরানোর কথা বলে ঘরে ঢুকে ৭ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে তাঁরা মিয়া (৫৫) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাতে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে পলাশ থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। এর আগে সকালে গজারিয়া ইউনিয়নের সরকারচর গ্রামে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত তাঁরা মিয়া উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের সরকারচর গ্রামের মৃত হরজু মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় মুদি ব্যবসায়ী।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, সকালে তাঁরা মিয়া সিগারেটে আগুন ধরানোর কথা বলে ওই শিশু কন্যার ঘরে ঢুকে। এসময় ৭ বছরের শিশু কন্যাকে ঘরে একা পেয়ে তার হাত-মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে শিশু কন্যার মা চলে আসলে তাঁরা মিয়া পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশ থানার ওসি শেখ মো. নাসির উদ্দিন জানান, এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত তাঁরা মিয়া পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি।

নিউজ ট্যাগ: শিশুকে ধর্ষণ

আরও খবর



ত্ব-হার সন্ধান চেয়ে গায়ক আসিফ আকবরের আবেগঘন স্ট্যাটাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৃহস্পতিবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তিনি লেখেন ত্ব-হার নাম না শোনা তার অজ্ঞতা। স্বাধীন দেশে ত্ব-হাদের নিখোঁজ হয়ে থাকা মেনে নেওয়া যায় না বলেও মন্তব্য করেন আসিফ।

ত্ব-হাকে নিয়ে আফিস আকবরের ফেসবুক স্ট্যাটাস পাঠকদের উদ্দেশে তুলে ধরা হলো

'আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান সাহেবকে আমি চিনি না। কখনও উনার নামও শুনিনি, এটি হয়তো আমার অজ্ঞতা। নিউজে দেখলাম তিনি একজন মেধাবী তরুণ ক্রিকেটার ছিলেন। আগে গিটারও বাজাতেন টুকটাক। একসময় ইসলামের পথে নিজেকে উজাড় করে দিয়ে একজন তরুণ ইসলামি বক্তা হয়ে ওঠেন। গত আট দিন ধরে তিনি নিখোঁজ। মিডিয়ায় আদনান সাহেবের স্ত্রীর বক্তব্য শুনে মনটা খুব খারাপ হয়ে গেল। একজন স্ত্রী হিসেবে ভদ্রমহিলা শুধু তার স্বামীর সন্ধান চান। আদনান সাহেব রাষ্ট্রবিরোধী কোনো কাজ করে থাকলে সেটিরও বিচার চান। প্রয়োজনে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার কথাও বলেছেন।'

আসিফ আরও লিখেছেন 'জন্ম থেকে এসব দেখেই যাচ্ছি শুধু। আমার আর বাংলাদেশের বয়স সমান। মানুষ হারিয়ে যাওয়া অনেক কষ্টের। একটা স্বাধীন দেশে এ ধরনের অনিয়ম মানা খুবই কষ্টকর। মাঝেমধ্যে নিজেও ভাবি কখন যে উধাও হয়ে যাই। একটা সাধারণ গৃহপালিত প্রাণী হারিয়ে গেলেও অনেক এলোমেলো হয়ে যায় মন। সেখানে জ্বলজ্যান্ত মানুষ হারিয়ে গেলে পরিবারের যন্ত্রণা কী হতে পারে, সেটি সহজেই অনুমেয়। আধুনিক প্রযুক্তির যুগে এ ধরনের নিখোঁজ হওয়া ভিকটিমদের ব্যাপারে দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যথেষ্ট স্মার্ট। আশা করি প্রশাসন আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের সন্ধান পাবেন এবং তিনিও তার পরিবারের কাছে ফিরে যেতে পারবেন।'

ত্ব-হার ফিরে আসার প্রার্থনায় এ সংগীতশিল্পী লেখেন একজন খেলোয়াড় ও সংগীতপ্রেমী সব জাগতিক খায়েস ছেড়ে ইসলামের খেদমতে নিজের জীবন উৎস্বর্গ করেছেন। সংস্কৃতিমনা মানুষ যত কিছুই করুক না কেন, কখনও নৃশংস হতে পারে না, মানুষ খুন করতে পারে না। শুধু আদনান সাহেব নয়, এই ধরনের ঘটনা যেন কখনই না ঘটে, সে বিষয়ে সামাজিক, রাজনৈতিক এবং রাষ্ট্রীয় সচেতনতা খুব প্রয়োজন। আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান এবং তার নিখোঁজ সঙ্গীরা সহিসালামত আমাদের মাঝে ফিরে আসুন, এই দোয়া করি, রাষ্ট্রের কাছেও দারি রইল। মহান আল্লাহ তাদের পরিবারকে ধৈর্য ধরার শক্তি দিন।


আরও খবর



বিশ্বের বৃহত্তম মাংস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানে সাইবার হামলা

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ৫৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বের সবচেয়ে বড় মাংস প্রক্রিয়াজাত ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান জেবিএস-এর কম্পিউটার সিস্টেমে সাইবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ কথা জানিয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে কম্পিউটার নেটওয়ার্ক হ্যাক হয়েছে বলে জানায় জেবিএস। ফলে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও কানাডায় সাময়িকভাবে জেবিএসের কার্যক্রম স্থগিত হয়ে যায়। কয়েক হাজার শ্রমিক এতে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

হামলাকারীরা বড় ধরনের অর্থের বিনিময়ে সব তথ্য দিয়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

১৯৫৩ সালে ব্রাজিলে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিটি বর্তমানে পৃথিবীর ১৫টি দেশে কাজ করে। বিশ্বব্যাপী দেড়শটিরও বেশি প্রক্রিয়াজাত কেন্দ্রে দেড় লাখের বেশি মানুষ কাজ করে। ম্যাকডোনাল্ডস-এর মতো ফাস্টফুড চেইনশপ এবং বড় বড় সুপারমার্কেটে মাংস সরবরাহ করে জেবিএস। শুধু গোটা যুক্তরাষ্ট্রের পুরো গোমাংসের চাহিদার প্রায় এক-চতুর্থাংশ এবং পুরো শূকরের মাংসের এক-পঞ্চমাংশের যোগান দেয় জেবিএস।

সাইবার হামলা হয়েছে এমন খবরে যাতে করে খাদ্যের দাম বেড়ে না যায় এ লক্ষ্যে কাজ করছে বলে হোয়াইট হাউসকে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

হোয়াইট হাউসের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, কোম্পানিটির ধারণা, সম্ভবত রাশিয়াভিত্তিক কোনো অপরাধী চক্র এই সাইবার হামলা চালিয়েছে।

এ ঘটনা তদন্তে এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই কাজ শুরু করেছে বলেও জানায় হোয়াইট হাউস।

এর আগে গত ৬ মে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় জ্বালানি পাইপলাইনের ব্যবস্থাপনা নেটওয়ার্কে সাইবার হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ১০০ গিগাবাইটের মতো জরুরি তথ্য ছিনিয়ে নেয় সাইবার হামলাকারীরা। পরে ৪৪ লাখ মার্কিন ডলারের বিনিময়ে কলোনিয়াল পাইপলাইনের নিয়ন্ত্রণ নেয় যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ।


নিউজ ট্যাগ: জেবিএস

আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




স্বরূপকাঠিতে উদ্বোধনের অপেক্ষায় গৃহহীনদের জন্য নির্মিত ঘর

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৮ জুন ২০২১ | ২৫২জন দেখেছেন
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপির প্রচেষ্টায় ভূমিহীন ও গৃহহীন প্রকল্পের আওতায় পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি উপজেলার ১ম পর্যায়ের ১২০ টি ঘর হস্তান্তরের পর ২য় পর্যায়ে বরাদ্ধ ২০৪ টি ঘরের মধ্যে ১৬৫ টি ঘরের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি ৩৯ টি ঘরের নির্মাণ কাজ সুষ্ঠভাবে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। উপজেলা ১০ টি ইউনিয়নে মোট ২০৪ টি ঘর প্রদান করা হবে। এর মধ্যে বলদিয়া ইউনিয়নে ১ টি, সোহাগদল ইউনিয়নে ১৫ টি, স্বরূপকাঠি ইউনিয়নে ৩৩ টি, আটঘর-কুড়িয়ানা ইউনিয়নে ৬০ টি, জলাবাড়ি ইউনিয়নে ১০ টি, দৈহারী ইউনিয়নে ০৯ টি, গুয়ারেখা ইউনিয়নে ০৭ টি, সমুদয়কাঠি ইউনিয়নে ৫০ টি, সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নে ০৯ টি ও সারেংকাঠি ইউনিয়নে ১০ টি ঘর প্রদান করা হবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মানষ দাস বাপ্পি জানান, ইতিমধ্যে ২০৪ টি ঘরের মধ্য থেকে ১৬৫ টি ঘরের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি ৩৯ টি ঘরের নির্মান কাজ অতিদ্রুতই সম্পন্ন করা হবে।

এ ব্যাপারে কুড়িয়ানা ইউনিয়নের বিশিষ্ট সমাজ সেবক মিঠুন হালদার জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ উদ্যোগ বিশেষ বিরল, এই প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বিশেষ একটি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন যেটা জাতি কোনদিনই ভুলতে পারবে না।

নেছারাবাদ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোশারেফ হোসেন জানান, আগামী ২০ জুন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সারাদেশে উদ্বোধনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে জমির দলিল, সনদসহ ঘরগুলো উপকার ভোগীদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে ভূমি এবং গৃহহীন অসহায়, দুস্থ , হত দরিদ্র পরিবারের দীর্ঘদিনের দুঃখ দূর্দশা দূর হবে।


আরও খবর



বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সংক্রমণ কমলেও, বেড়েছে মৃত্যু। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৪৩ লাখ ৭৪ হাজার ৮৭৩ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ৯৩৫ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৫ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার ১৫৬ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে মঙ্গলবার (৮ মে) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪২ লাখ ২৭ হাজার ২২৭ জন আর ৬ লাখ ১২ হাজার ৭০১ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৮৯ লাখ ৯৬ হাজার ৯৪৯ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৫১ হাজার ৩৪৪ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৬৯ লাখ ৮৫ হাজার ৮১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৬১৪ জনের।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৯১৭ জন, রাশিয়ায় ৫১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৬৬ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৫ লাখ ২২ হাজার ৪৭৬ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৩৩ হাজার ৬৯৮ জন, তুরস্কে ৫২ লাখ ৯৩ হাজার ৬২৭ জন, স্পেনে ৩৭ লাখ ৭ হাজার ৫২৩ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ১০ হাজার ৩৪১ জন এবং মেক্সিকোতে ২৪ লাখ ৩৩ হাজার ৬৮১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১০ হাজার ৬২ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ২৪ হাজার ১১৭ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৮৪১ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৬ হাজার ৫৮৮ জন, তুরস্কে ৪৮ হাজার ২৫৫ জন, স্পেনে ৮০ হাজার ২৩৬ জন, জার্মানিতে ৮৯ হাজার ৯৬৫ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ২৮ হাজার ৮০৪ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।



আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১