আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

জাফলংয়ে পর্যটকদের উপর হামলার ঘটনায় আটক ২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেটের গোয়াইনঘাট পর্যটন এলাকা জাফলংয়ে পর্যটকদের উপর হামলা চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের নিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবকরা। এতে নারী শিশুসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, গোয়াইনঘাটের পন্নগ্রামের মৃত রাখালচন্দ্রের পুত্র লক্ষ্মণচন্দ্র দাস (২১) ও ইসলামপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার পুত্র মো. সেলিম আহমেদ (২১)। আটক অন্য তিনজনের ক্ষেত্রে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কিনা যাচাই করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে জাফলং পর্যটন কেন্দ্রে টিকিট কেনাকে কেন্দ্র করে পর্যটকদের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবকদের বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে স্বেচ্ছাসেবকরা পর্যটকদের ওপর চড়াও হলে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, টিকিট কেনার সময় পর্যটকদের সঙ্গে টিকিট কাউন্টারে কর্তব্যরতদের বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে কাউন্টারে থাকা স্বেচ্ছাসেবকরা লাঠি দিয়ে পর্যটকদের পেটাতে শুরু করে। তখন সেখানে থাকা একজন তরুণী ও শিশু হামলার শিকার হন। এ ঘটনায় ৫ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পেলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিওতে দেখা যায়, স্বেচ্ছাসেবক লেখা নীল ইউনিফর্ম পরা ৩ জন হাতে লাঠি নিয়ে একদল পর্যটককে বেধড়ক পেটাচ্ছেন। এ সময় কয়েকজন নারী পর্যটক তাদের থামাতে গিয়ে লাঞ্ছিত হন।

জানা যায়, ২০২১ সাল থেকে পর্যটন কেন্দ্রে সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জাফলংয়ে প্রবেশের ক্ষেত্রে পর্যটকদের ১০ টাকা প্রবেশ ফি নির্ধারণ করে দেয় প্রশাসন। এর আগে পর্যটকদের সেখানে টিকিট কেটে প্রবেশ করতে হতো না। যে কারণে পর্যটকরা জাফলং বেড়াতে এসে টিকিট কাটতে হবে শুনে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন।

গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তাহমিলুর রহমান বলেন, টিকিট কাউন্টারের দায়িত্বে থাকা স্বেচ্ছাসেবকদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি থেকে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার সূত্রপাত। যেহেতু হামলাকারীরা আমাদের নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবক, তাই আমি দায় নিচ্ছি।

ট্যুরিস্ট পুলিশের জাফলং-এর ইনচার্জ মো. রতন শেখ বলেন, জাফলং-এ পানিতে পড়ে একজন পর্যটক নিখোঁজ হয়েছেন, এমন সংবাদে আমরা অন্যদিকে ব্যস্ত ছিলাম। এই সুযোগে পর্যটকদের উপর হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনা যাই হোক আমরা ব্যবস্থা নেব।

সিলেট জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, জাফলং পর্যটনকেন্দ্রে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ডিবি পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ রয়েছে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি। 


আরও খবর



আমাকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে: ইমরান খান

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, দেশের ভেতর ও বাইরের একাধিক চক্র এখনও তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও রেকর্ড করার দাবি করেছেন, যেখানে তিনি সব হুমকিদাতা ও ষড়যন্ত্রকারীর নাম ও প্রমাণ তুলে ধরেছেন।

পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশের শিয়ালকোট শহরে শনিবার তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টি আয়োজিত এক বিশাল জনসমাবেশে দেওয়া ভাষণে এসব কথা বলেন ইমরান খান।

পাকিস্তানের সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি একটি ভিডিও রেকর্ড করে নিরাপদ স্থানে রেখে দিয়েছেন। যদি কখনও তার জীবনের জন্য হুমকি সৃষ্টি হয়; কিংবা তিনি নিহত হন, তখন এ ভিডিও প্রকাশ করা হবে।

ওই ভিডিওতে তিনি তার সরকার উৎখাত ও তাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্রে জড়িত ব্যক্তিদের নাম প্রমাণসহ তুলে ধরেছেন।

পাকিস্তানের বিচারের বিভাগের কড়া সমালোচনা করে ইমরান খান বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এবং তার ছেলে ও পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীসহ এ সরকারের সব মন্ত্রী দুর্নীতিতে জড়িত।

ইমরান খান নিজের সরকারকে দুর্নীতিমুক্ত হিসেবে দাবি করে বলেন, তিনি দেশকে চুরি ও লুটপাটমুক্ত করতে চেয়েছিলেন; কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীরা তা সহ্য করেনি।

গত মাসে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে এক অনাস্থাভোটে হেরে গিয়ে ক্ষমতাচ্যুত হন ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিতে প্রবেশকারী ইমরান খান। তার চীন ও রাশিয়াঘেঁষা নীতিতে নাখোশ হয়ে আমেরিকাই নেপথ্যে থেকে এই সরকার পরিবর্তন প্রক্রিয়া ঘটিয়েছে বলে এর আগে অভিযোগ করেছেন ইমরান খান।

তার ক্ষমতাচ্যুতির পর পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নাওয়াজ) নেতা শাহবাজ শরিফ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। শিয়ালকোটের সমাবেশে পাকিস্তানে অনতিবিলম্বে মধ্যবর্তী নির্বাচন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন ইমরান খান।

তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, সরকার নির্বাচনের দাবি মেনে না নিলে ইসলামাবাদ অভিমুখে লাখো মানুষের লংমার্চ করা হবে।


আরও খবর



করোনা: একদিনে শনাক্ত ৪ লাখ

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আরও কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা নেমে এসেছে প্রায় ৪ লাখে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে রাশিয়া। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে ইতালি, জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া ও থাইল্যান্ড। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫১ কোটি ৬৯ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬২ লাখ ৭৫ হাজার।

রোববার (৮ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৮ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে প্রায় সাড়ে নয়শো। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬২ লাখ ৭৫ হাজার ৬৪৯ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৬ হাজার ৪৭৪ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে ৯১ হাজারের বেশি। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ কোটি ৬৯ লাখ ৫ হাজার ৩৭৬ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ হাজার ৪০৬ জন এবং মারা গেছেন ১০২ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৫৩ লাখ ৩৭ হাজার ৯৯৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৬ হাজার ৯১৪ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩২ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৫ হাজার ৫০০ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮২ লাখ ২২ হাজার ২১৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৬ হাজার ৮২৮ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ১৪৩ জন এবং মারা গেছেন ৮৭ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৩৫ লাখ ৬৭ হাজার ৭০৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২৪ হাজার ৫২৫ জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৯৫৮ জন এবং মারা গেছেন ৬২ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৮৯ লাখ ২৮ হাজার ৯৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭০ জন মারা গেছেন। গত একদিনে অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১৬৮ জন এবং মারা গেছেন ১৪ জন।

ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ৫২২ জন এবং মারা গেছেন ১১৩ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৬৭ লাখ ৬৭ হাজার ৭৭৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৬৪ হাজার ৪১৭ জন মারা গেছেন। একইসময়ে জাপানে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ হাজার ৬১৫ জন এবং মারা গেছেন ৩৫ জন।

দক্ষিণ কোরিয়ায় গত একদিনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৫৫২ জন এবং মারা গেছেন ৮৩ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৭৫ লাখ ৪ হাজার ৩৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২৩ হাজার ২৮৯ জন মারা গেছেন। একইসময়ে থাইল্যান্ডে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৪৫০ জন এবং মারা গেছেন ৫৮ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩৬ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৪ হাজার ৬২২ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৫৩০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ১৭৯ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৬৫ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩১ লাখ ২ হাজার ৫০৮ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ২৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪ হাজার ৯৫৩ জন এবং মারা গেছেন ৪১ জন। একই সময়ে কানাডায় নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ১৬৪ জন এবং মারা গেছেন ২৪ জন। গ্রিসে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৬৯৮ জন এবং মারা গেছেন ২০ জন।

এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় পোল্যান্ডে ১৪ জন, ইরানে ৮ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ১১ জন, নিউজিল্যান্ডে ১১ জন, চিলিতে ১৫ জন, গুয়েতেমালায় ১৫ জন এবং ইন্দোনেশিয়ায় ১৪ জন মারা গেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



ঈদের নামাজের নিয়ত ও নিয়ম

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ মে 2০২2 | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ। মুমিন মুসলমান প্রতি বছরে দুটি ঈদ উদযাপন করে থাকেন। যে কারণে অনেকেই ঈদের নামাজের নিয়ত, নিয়ম এবং তাকবির ভুলে যান। কেননা তাকবির হলো ঈদের দিনের প্রথম কাজ। মুসলিম উম্মাহর জন্য ঈদের নামাজ পড়া ওয়াজিব। ঈদের দিন যথাযথভাবে ঈদের নামাজ পড়ার জন্য নিয়ত, নিয়ম এবং তাকবির তুলে ধরা হলো-

ঈদের নামাজের নিয়ত

'নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহি তাআলা রাকাআতাইন সালাতিল ইদিল ফিতরি মাআ সিত্তাতিত তাকবিরাতি ওয়াঝিবুল্লাহি তাআলা ইকতাদাইতু বিহাজাল ইমামি মুতাওয়াঝঝিহান ইলা ঝিহাতিল কাবাতিশ শারিফাতি 'আল্লাহু আকবার'।'

অর্থ : আমি ঈদুল ফিতরের দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ অতিরিক্ত ৬ তাকবিরের সঙ্গে এই ইমামের পেছনে কেবলামুখী হয়ে আল্লাহর জন্য আদায় করছি- 'আল্লাহু আকবার'।

ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম

১. ঈমামের সঙ্গে তাকবিরে তাহরিমা আল্লাহু আকবার বলে উভয় হাত বাঁধা।

২. তাকবিরে তাহরিমার পর ছানা পড়া-

'সুবহানাকা আল্লাহুম্মা ওয়া বিহামদিকা ওয়া তাবারাকাসমুকা ওয়াতাআলা যাদ্দুকা ওয়া লা ইলাহা গাইরুকা।

৩. এরপর অতিরিক্ত ৩ তাকবির দেওয়া।

৪. এক তাকবির থেকে আরেক তাকবিরের মধ্যে তিন তাসবিহ পরিমাণ সময় বিরত থাকা।

৫. প্রথম ও দ্বিতীয় তাকবিরে উভয় হাত উঠিয়ে তা ছেড়ে দেওয়া।

৬. তৃতীয় তাকবির দিয়ে উভয় হাত তাকবিরে তাহরিমার মতো বেঁধে নিতে হয়।

৭. আউজুবিল্লাহ-বিসমিল্লাহ পড়া

৮. সুরা ফাতেহা পড়া

৯. সুরা মিলানো। এরপর নিয়মিত নামাজের মতো রুকু ও সেজদার মাধ্যমে প্রথম রাকাত শেষ করা।

দ্বিতীয় রাকাত

১. বিসমিল্লাহ পড়া

২. সুরা ফাতেহা পড়া

৩. সুরা মিলানো।

৪. সুরা মিলানোর পর অতিরিক্ত ৩ তাকবির দেওয়া।

৫. প্রথম ও দ্বিতীয় তাকবিরে উভয় হাত উঠিয়ে তা ছেড়ে দেওয়া।

৬. তৃতীয় তাকবির দিয়ে উভয় হাত তাকবিরে তাহরিমার মতো বেঁধে নিতে হয়।

৭. এরপর রুকুর তাকবির দিয়ে রুকুতে যাওয়া।

৮. সেজদা আদায় করে

৯. বৈঠকে বসা; তাশাহহুদ, দরূদ, দোয়া মাসুরা পড়ে সালাম ফেরানোর মাধ্যমে নামাজ সম্পন্ন করা।

১০. নামাজের সালাম ফেরানোর পর তাকবির পড়া-

উচ্চারণ : আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবার, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার আল্লাহু আকবর ওয়া লিল্লাহিল হামদ।

১১. নামাজের পর ইমাম সাহেবের দুইটি খুতবা দেওয়া।

ঈদের নামাজ পড়ার পর ইমাম খুতবা দেবে আর মুসল্লিরা খুতবা মনোযোগের সঙ্গে শুনবে। অবশ্য অনেকেই খুতবা না দেওয়ার ব্যাপারে শিথিলতার কথা বলেছেন। খুতবা না দিলেও ঈদের নামাজ আদায় হয়ে যাবে বলে মত দিয়েছেন।

অতিরিক্ত তাকবির

অতিরিক্ত তাকবিরের ক্ষেত্রে অন্যান্য মাজহাবসহ অনেকেই প্রথম রাকাতে তাকবিরে তাহরিমাসহ ৭ তাকবির আর দ্বিতীয় রাকাআতে ৫ তাকবিরে দিয়ে থাকেন। যদি কেউ অতিরিক্ত ৬ তাকবির দেয় কিংবা অতিরিক্ত এগারো তাকবির দেয় তাতে নামাজের অসুবিধা হবে না বরং নামাজ হয়ে যাবে।

ঈদের নামাজের তাকবির পড়া

ঈদের চাঁদ দেখার পর থেকে অর্থাৎ ৩০ রমজান ইফতারের পর প্রথম কাজই হচ্ছে তাকবির তথা আল্লাহর কৃতজ্ঞতাজ্ঞাপন করা। আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে তাকবির পড়া। এটিই ঈদের প্রথম কাজ। আল্লাহ তাআলা কোরআনুল কারিমেও তাকবির পড়ার নির্দেশ দিয়েছেন এভাবে-

'আর তোমাদের আল্লাহ তাআলার মহত্ত্ব বর্ণনা কর, যাতে তোমরা কৃতজ্ঞতা স্বীকার কর।( সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৫)

তাকবির হলো-

উচ্চারণ : আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবার, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার আল্লাহু আকবর ওয়া লিল্লাহিল হামদ।

আল্লাহ তাআলা রোজাদার মুমিন মুসলমানকে ঈদের নামাজ পড়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

নিউজ ট্যাগ: ঈদের নামাজ নিয়ম

আরও খবর



মৌলভীবাজারে শতাধিক পরিবারে ঈদ উদযাপিত

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ মে 2০২2 | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সৌদি আরবসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশের সঙ্গে মিল রেখে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন মৌলভীবাজারের শতাধিক পরিবারের মুসল্লিরা। সোমবার (২ মে) সকাল সাড়ে ৭টায় মৌলভীবাজার শহরের সার্কিট হাউস এলাকার আহমেদ শাবিস্তা নামক একটি বাসায় এ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

নামাজে স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা নারী ও পুরুষরা অংশ নেন। নামাজে ইমামতি করেন আব্দুল মাওফিক চৌধুরী (পীর সাহেব, উজান্ডি)। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির উদ্দেশে মোনাজাত করা হয়। নামাজ শেষে একজন আরেকজনের সঙ্গে কোলাকুলি করে সৌহার্দ্য বিনিময় করেন।

ইমাম আব্দুল মাওফিক চৌধুরী বলেন, আমরা শুধু সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে নয়, বিশ্ব মুসলমানদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করেছি। ইজমার ভিত্তিতে আজ শাওয়াল মাসের এক তারিখ। ঈদ এক তারিখেই করতে হবে।

গোপালগঞ্জ থেকে আসা সাজেদুর রহমান বলেন, আমি ২০১৪ সাল থেকে এভাবে রোজা ও ঈদ উদযাপন করে আসছি। এটা কোরাআনের আইন। এটা আমি বাকি জীবন‌ও পালন করার চেষ্টা করব।

উল্লেখ্য, গত দেড় যুগ ধরে মৌলভীবাজার সার্কিট হাউস এলাকায় সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এ ছাড়া বিচ্ছিন্নভাবে মৌলভীবাজার জেলা কুলাউড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় আগাম ঈদ উদযাপিত হয়।

নিউজ ট্যাগ: মৌলভীবাজার

আরও খবর



তরমুজ নিয়ে বাবার উপর অভিমান, ছেলের আত্মহত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৬১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মোংলায় বাবার উপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন ছেলে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে উপজেলার জয়খাঁ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর রাতেই নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি বুধবার বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

পুলিশ ও স্থানীয় ইউপি মেম্বার মনমতো বৈরাগী জানান, উপজেলার সোনাইলতলা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের জয়খাঁ গ্রামের বাসিন্দা পিযুষ বৈরাগীর ছেলে পথিক বৈরাগী বাবার সঙ্গে বন্ধুদের নিয়ে তরমুজের ক্ষেত করেন। বাবার পাশাপাশি বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে সেই ক্ষেতের পরিচর্যা করেন পথিকও। পথিক খুলনার একটি বেসরকারী ইউনিভার্সিটিতে পড়াশুনার সুবাদে খুলনায় চলে যান। পরে বাড়িতে এসে দেখেন তার বাবা সেই তরমুজ ক্ষেত বিক্রি করে দেন।

ক্ষেত বিক্রির আগে পথিক বাবার কাছে বন্ধুদের জন্য তরমুজ রাখতে বলেন। কিন্তু বাবা বন্ধুদের তরমুজ না দিয়ে ক্ষেত বিক্রি করে দেয়ার ঘটনায় মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে বাবার সঙ্গে কথা-কাটাকাটি ও অভিমান করেন পথিক। বন্ধুদের তরমুজ দিতে না পারায় ও বাবার উপর অভিমান করে বিকালে ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় গামছা পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। পরে খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

ইউপি মেম্বার বলেন, পাঁচ বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে ক্ষেত পরিচর্যা করে তাদের খাওয়ার জন্য একটি করে তরমুজ দিতে না পারায় বাবার সঙ্গে ঝগড়া ও অভিমান করে আত্মহত্যা করেন।

তিনি আরো বলেন, পথিক খুবই বদরাগী ছিলেন। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে পথিক সবার ছোট।

এ ব্যাপারে মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে এনে থানায় রাখা হয়েছে। বুধবার (২০ এপ্রিল) সকালে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

নিউজ ট্যাগ: আত্মহত্যা

আরও খবর