আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

জাকিয়া হত্যা মামলার রায় ২৭ জানুয়ারি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গোপালগঞ্জের বেদগ্রামের চাঞ্চল্যকর জাকিয়া মল্লিক হত্যা মামলার রায় ঘোষণার জন্য ২৭ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো. জাকির হোসেন এ আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন ভুক্তভোগীর স্বামী মোর্শেদায়ান নিশান, এহসান সুজন, আনিচুর রহমান ও হাসান শেখ। তাদের মধ্যে নিশান পলাতক। মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০০৫ সালে ভুক্তভোগী জাকিয়ার সঙ্গে মোর্শেদায়ান নিশানের বিয়ে হয়। বিয়ের পাঁচ বছর পর নিশান যৌতুক দাবি করেন। এ নিয়ে সংসারে অশান্তি শুরু হয়। এর ধারবাহিকতায় ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে জাকিয়াকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় জাকিয়ার বাবা জালাল উদ্দিন মল্লিক বাদী হয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানায় মোর্শেদায়ান নিশানকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন। এছাড়া এহসান সুজন, আনিচুর রহমান, হাসান শেখকে মামলাটিতে আসামি করা হয়। এ মামলার বিচার চলাকালীন বিভিন্ন সময়ে মোট ২০ জন আদালতে সাক্ষী দেন।


আরও খবর



প্রথমবারের মতো ওয়েব সিরিজে ডিপজল

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রথমবারের মতো ওয়েব সিরিজে অভিনয় করতে যাচ্ছেন চলচ্চিত্রের মুভিলর্ড খ্যাত মনোয়ার হোসেন ডিপজল। আগামী ১ জানুয়ারি থেকে জিম্মি নামে ৭ পর্বের ওয়েব সিরিজটির শুটিং শুরু হবে সাভারে ডিপজলের শুটিং হাউসে।

এটি প্রযোজনাও করছেন তিনি। পরিচালনা করবেন মনতাজুর রহমান আকবর।

প্রথমবারের মতো ওয়েব সিরিজে অভিনয় প্রসঙ্গে ডিপজল বলেন, এখন প্রযুক্তির যুগ। হলিউড, বলিউড থেকে শুরু করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নির্মাতারা ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দিচ্ছেন। এতে বিখ্যাত শিল্পীরা অভিনয় করছেন। আমরাও পিছিয়ে থাকতে পারি না।

আমি চলচ্চিত্রের মানুষ। চলচ্চিত্রই আমার ধ্যান-জ্ঞান। এর বাইরে অন্যকিছু ভাবি না। তবে প্রযুক্তিকেও অস্বীকার করা যায় না। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদেরও চলতে হবে। আমরাও যে বিশ্বমানের ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করতে পারি, তা দেখাতে চাই। এটি ওয়েব সিরিজ হলেও, এতে দর্শক সিনেমার পুরো স্বাদ পাবেন।

তিনি আরও বলেন, এটি আমি টেস্ট কেস হিসেবে নিচ্ছি। আশা করছি, দর্শক গ্রহণ করবে। হতাশ হবে না। তবে সিনেমা আমার রক্তের সাথে মিশে আছে। যতদিন বেঁচে আছি, সিনেমা আমি বানাব। ইতোমধ্যে আমার সাত-আটটি সিনেমা রেডি আছে। এগুলো পর্যায়ক্রমে মুক্তি দেয়া হবে। তিনি বলেন, আমার টার্গেট প্রতি মাসে একটি করে সিনেমা নির্মাণ ও মুক্তি দেয়া। এ টার্গেট নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছি। 


আরও খবর



সবসময় সত্য কথা বলা যায় না: শামীম ওসমান

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর বক্তব্য ও মন্তব্যে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে পুরোনো বিভেদ ফের নতুন করে সামনে এলো। মূলত নাসিক নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াত আইভী শামীম ওসমানকে গডফাদার আখ্যায়িত করার পরেই বিভেদ সামনে এসেছে।

এ নিয়ে আজ সোমবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আজকে আমার সংবাদ সম্মেলন করার কথা না। কিন্তু এরপরও আমি সংবাদ সম্মেলন করছি। আমি সত্য কথা বলতে পছন্দ করি। কিন্তু সব সময় সত্য কথা বলা যায় না। এখানেও বলতে পারবো না।

তিনি বলেন, অনেকে আওয়ামী লীগের ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। অন্যদিকে কেউ কেউ দলে থেকে আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে। আবার কেউ বাইরে থেকে করছে। আমি মানসিকভাবে শকড। নির্বাচন এলেই আমাকে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। নির্বাচনের সময় আমি কেনো সাবজেক্ট ম্যাটার (আলোচনার বিষয়) হবো, জানতে চাই। এখন আমার অবস্থা গরীবের ভাবির মতো। ও বলে আমি তার, সে বলে আমি তার।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ নৌকার ঘাঁটি, শেখ হাসিনার ঘাঁটি। এখানে অন্য কোনো খেলা খেলার চেষ্টা করবেন না। কে প্রার্থী who cares? প্রার্থী আম গাছ হোক আর কলাগাছ হোক। সবসময় নৌকার প্রতি সাপোর্ট।

স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের উদ্দেশে শামীম বলেন, আমার মনে হয় না নারায়ণগঞ্জে বিএনপি-জামায়াতের ওই ক্ষমতা আছে যে নৌকাকে ডুবায়ে দেবে। হাতি সাইজে বড় হতে পারে; আমরা হাতি কাঁধে নিয়ে দৌড় দেব, কিন্তু নৌকার ওপর উঠতে দেবো না।


আরও খবর



সর্বশ্রেণীর নাগরিক আমাকে বিজয়ী করবে : তৈমূর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র (হাতি মার্কা) মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, দল, মত নির্বিশেষে এখন সকলেই আমাকে ভোট দিতে পারবে, কেন না এখন আমি দলীয় কোনো প্রার্থী না। যেহেতু নাগরিকদের জন্য আমি এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছি, তাই সর্বশ্রেণীর নাগরিক আমার পাশে আছে, তারা আমাকে বিজয়ী করবে। আমার দলের লোকেরাও আমার পাশে আছে। বিএনপি আমাকে সবার জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নির্বাচনী প্রচারণাকালে গণমাধ্যম কর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

তৈমূর বলেন, বিএনপির লোকজন কারো কথায় কখনো নৌকায় ভোট দিবে না। আগামী ১৬ জানুয়ারি নির্বাচনে আমিই জয়লাভ করবো। ১৭ জানুয়ারি আমার বিজয়ের গেজেট প্রকাশ হবে ইনশাআল্লাহ।

তৈমূর বলেন, সরকারি দলের কিছু নেতার বক্তব্যে নির্বাচন নিয়ে কিছু শঙ্কা দেখা দেয়। যেমন একজন বইলা গেছে- তৈমূরকে মাঠে নামতে দেয়া হবে না। এসব কথা আমি গায়ে মাখি না, তবে এই ধরনের কথাবার্তা উস্কানিমূলক। নির্বাচন কমিশন আমার শো-ডাউনকে বাধাগ্রস্ত করেছে আমি তা মেনে নিয়েছি। কিন্তু সরকার দলের শো-ডাউনকে তো নির্বাচন কমিশন বাধাগ্রস্ত করতে পারে নাই।

তৈমূর বলেন, আমি রাজপথে গুলি খাওয়া লোক, নারায়ণগঞ্জের মানুষের জন্য আমার অনেক অবদান আছে।

তিনি আরো বলেন, ২০১১ সালে আমি বসি নাই, বসছে বিএনপি। এবার তো আমার থেকে সব পদ উঠায় নিছে, এখন তো দল আর কিছু বলতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, জনগণ যেভাবে আমার পক্ষ হয়ে মাঠে নামছে, আর সিটি করপোরেশনের যে ব্যর্থতা, ট্যাক্সের বোঝা তাতে জনগণ এবার হাতি মার্কার প্রতি রায় দিবে। কেন না আমার চিন্তা এবারের সিটি করপোরেশন হবে জনমুখি, মানুষ সিটি করপোরেশনের পিছে ছুটবে না, সিটি করপোরেশন মহল্লায় মহল্লায় যাবে।

এ সময় নানা শ্রেণী পেশার মানুষ, বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দ, বিএনপির নেতাকর্মীসহ অসংখ্য কর্মী-সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



আগামীকাল নাসিক নির্বাচনে ভোটগ্রহণ

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামীকাল রবিবার (১৬ জানুয়ারি) উৎসবমুখর পরিবেশে নারায়নগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হবে।

ইতোমধ্যে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এই নির্বাচনে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। এ জন্য নারায়নগঞ্জে ২ হাজার ৯১২টি ইভিএম মেশিন আনা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে প্রয়োজনের তুলনায় দেড়গুণ ইভিএম রাখা হবে। আজ শনিবার (১৫ জানুয়ারি) সকাল থেকে ভোটকেন্দ্রগুলোতে নির্বাচনী সামগ্রী পৌছানো শুরু হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাত ১২টা থেকে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শেষ হয়েছে। বহিরাগতদের নির্বাচনী এলাকা ত্যাগ করতে কমিশনের পক্ষ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

নির্বাচনে সহিংসতা রোধে ১৪ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পেনাল কোডের অধীনে তারা মামলা নিয়ে সংক্ষিপ্ত বিচার কাজ পরিচালনা করতে পারবেন।

গত ৩০ নভেম্বর এই সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে কমিশন। নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, এরা হলেন- বাংলদেশ আওয়ামী লীগের সেলিনা হায়াত আইভী (নৌকা), খেলাফত মজলিসের এবিএম সিরাজুল মামুন (দেয়ালঘড়ি), স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপির বহিস্কৃত নেতা তৈমূর আলম খন্দকার (হাতি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা মো. মাছুম বিল্লাহ (হাতপাখা), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন (বটগাছ), বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস (হাতঘড়ি) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল ইসলাম (ঘোড়া)

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯২টি কেন্দ্রের ১ হাজার ৩৩৩ ভোটকক্ষে ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন। ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ৩৪ জন প্রার্থী।

নাসিক নির্বাচনকে ঘিরে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ নির্বাচনে ১৯২টি ভোট কেন্দ্রে ও কেন্দ্রের বাইরে নিরাপত্তা নিশ্চিতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৫ হাজারের বেশি সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। প্রতি কেন্দ্রে থাকবেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ২৬ সদস্য।

সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার জানান, নারায়ণগঞ্জে আলাদাভাবে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নেই, সবগুলো কেন্দ্রকেই বিশেষ বিবেচনায় রেখে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। ১৯২টি ভোট কেন্দ্রের প্রতিটিতে একজন এসআইয়ের নেতৃতে থাকবেন পাঁচজন করে পুলিশ সদস্য। এছাড়াও আটজন পুরুষ ও চারজন নারী আনসার সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন।

তিনি বলেন, নাসিক নির্বাচনে পুলিশের ২৭টি ইউনিট স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকবে। এছাড়াও পুলিশের মোবাইল টিম থাকবে ৬৪টি, প্রতি টিমে সদস্য থাকবেন পাঁচজন। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ১৪ প্লাটুন সদস্য থাকবে। আরও অতিরিক্ত ৬ প্লাটুনের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক চাহিদা পাঠিয়েছেন বলেও জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা।

নাসিক নির্বাচনে র‌্যাবের স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে ৩টি, চেকপোস্ট থাকবে ৬টি, টহল টিম থাকবে ৭টি ও স্ট্যাটিক টিম থাকবে ২টি, জানান তিনি।

এদিকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে ৯টি সংস্থার ৪২ পর্যবেক্ষককে অনুমতি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সংস্থাগুলো হলো- জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদ (জানিপপ), সার্ক মানবাধিক ফাউন্ডেশন, আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন, সমাজ উন্নয়ন প্রয়াস, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থা, তালতলা যুব উন্নয়ন সংগঠন, রিহাফ ফাউন্ডেশন, বিবি আছিয়া ফাউন্ডেশন এবং মানবাধিকার ও সমাজ উন্নয়ন সংস্থা-মওসুস। তবে, পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করতে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ নীতিমালা মানার পাশাপাশি এসব সংস্থাকে ভোট শেষ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের শর্ত দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।


আরও খবর



১৫ লাখ টন জ্বালানি কিনবে সরকার

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) মাধ্যমে জি-টু-জি ভিত্তিতে ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান থেকে ১৫ লাখ ৮০ হাজার টন পরিশোধিত জ্বালানি তেল কিনবে সরকার। এ লক্ষ্যে দুটি পৃথক প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানগুলো ভারত, চীন, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, আরব আমিরাত ও থাইল্যান্ডের। এতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৮ হাজার ৯২৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় এ প্রস্তাবগুলোর অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত সাংবাদিকদের তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে অতিরিক্ত সচিব মো. সামসুল আরেফিন।

অতিরিক্ত সচিব মো. সামসুল আরেফিন জানান, আজ অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ১টি এবং ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ১৩টি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে। ক্রয় প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ৭টি, বিদ্যুৎ বিভাগের ৩টি, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের ২টি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ১টি প্রস্তাবনা ছিল। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ১৩টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১০ হাজার ৭৯৪ কোটি ৮৪ লাখ ৮৩ হাজার ২৯৮ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি হতে ব্যয় হবে ৯ হাজার ৫৮৯ কোটি ৬৬ লাখ ২৬ হাজার ৭৭ টাকা এবং ভারত হতে ঋণ ১,২০৫ কোটি ১৮ লাখ ৫৭ হাজার ২২১ টাকা।

এছাড়া ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান নুমালীগড় রিফাইনারী লিমিটেডের (এনআরএল) কাছ থেকে ৯০ হাজার মেট্রিক টন ডিজেল (০.০০৫% সালফার) ৫১২ কোটি ৪৮ লাখ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: অর্থমন্ত্রী

আরও খবর
অর্ধেক জনবলে চলবে ব্যাংক

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২

শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২