আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

জামিনে কারামুক্ত সম্রাট

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট জামিনে মুক্ত হয়েছেন। এসময় তার পাহারায় থাকা কারারক্ষীদের সরিয়ে নেওয়া হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তাকে জামিনে মুক্ত করা হয়।

বুধবার (১১ মে) বিকেলে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের (কেরানীগঞ্জ) জেলার মাহবুবুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে কারা কর্মকর্তা জামিনের কাগজ নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সিসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকা সম্রাটের কাছে নিয়ম-কানুন মেনে তাকে জামিনে মুক্ত করেন।

এর আগে আজই অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।

তার আইনজীবী মাহবুবুল আলম দুলাল গণমাধ্যমকে জানান, সম্রাটের বিরুদ্ধে মোট চারটি মামলা করা হয়। অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচারের মামলায় ইতোমধ্যে জামিন পেয়েছেন তিনি। কারাগারে ছিলেন দুদকের মামলায়।

১৯৫ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে সম্রাটের বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং আইনে একটি মামলা করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি। সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম বিভাগের উপপরিদর্শক রাশেদুর রহমান বাদী হয়ে রাজধানীর রমনা থানায় এই মামলা (মামলা নম্বর ১৪) করেন। সম্রাট তার সহযোগী এনামুল হক আরমানের মাধ্যমে ১৯৫ কোটি টাকা সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ায় পাচার করেছেন বলে মামলায় অভিযোগ আনা হয়েছে। সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার জিসানুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিআইডি কর্মকর্তারা জানান, ২০১১ সালের ২৭ ডিসেম্বর থেকে ২০১৯ সালের ৯ আগস্ট পর্যন্ত সম্রাট সিঙ্গাপুরে ৩৫ বার, মালয়েশিয়ায় তিনবার, দুবাইতে দুবার এবং হংকংয়ে একবার ভ্রমণ করেছেন। এছাড়া তার সহযোগী এনামুল হক আরমান ২০১১ সালের ১২ ডিসেম্বর থেকে ২০১৯ সালের ১৮ মে পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ২৩ বার ভ্রমণ করেছেন। সম্রাট ও আরমান অবৈধ অর্থ দিয়ে যৌথভাবে সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন।

৬ অক্টোবর ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রামে আত্মগোপনে থাকা সম্রাটকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার সঙ্গে আরমানকেও গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ঢাকায় এনে তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদও করে র‌্যাব।

৬ অক্টোবর দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্ব একটি দল কাকরাইলে ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে সম্রাটের কার্যালয়ে অভিযান শুরু করে। এদিন নিজ কার্যালয়ে পশুর চামড়া রাখার দায়ে তার ছয় মাসের জেল দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম। এরপর সম্রাটকে কারাগারে পাঠানো হয়।


আরও খবর



এবার কন্যা সন্তানের বাবা হলেন তাসকিন

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের তারকা পেসার তাসকিন আহমেদ ফের বাবা হয়েছেন।  তাসকিন ও সৈয়দা রাবেয়া নাঈমার ঘর আলো করে এবার এসেছে এক কন্যা সন্তান। শুক্রবার সামাজিক মাধ্যমে কন্যা সন্তানের বাবা হওয়ার খবরটি তাসকিন নিজেই জানিয়েছেন।

এক ফেসবুকে পোস্টে তাসকিন লিখেন, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর অশেষ রহমত ও আপনারদের সবার দোয়ায় আমি সুন্দর কন্যা সন্তানের বাবা হলাম। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।

ইনজুরির কারণে আপাতত জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন তাসকিন। চোট নিয়ে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরেছিলেন। ওয়ানডে সিরিজ জয়ে সিরিজের সেরা খেলোয়াড় হন এই পেসার। এর আগে, ২০১৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পুত্র সন্তানের বাবা হন তাসকিন। তাঁর ছেলের নাম তাসফিন আহমেদ।


আরও খবর



নওগাঁয় বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁর পোরশায় পৃথক স্থানে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন স্থানীয় পশ্চিম দুয়ারপাল ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুস সামাদ (৩৫) ও রঘুনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর নূহ (৫৫)।

শুক্রবার (১৩ মে) সকাল ১০ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে আব্দুস সামাদ ও আব্দুর নূহ ভারতীয় সীমান্ত এলাকায় পুনর্ভবা নদীর ধারে পাশাপাশি জমিতে ধান কাটছিলেন। এসময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি মধ্যে বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তারা। পরে মাঠের অন্যান্য কৃষক ও শ্রমিকরা মৃতদেহ উদ্ধার করে।

পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হামিদ রেজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের সরকারী সহযোগিতা প্রদান করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হবে।


আরও খবর



রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন 'গুরুতর অসুস্থ'। তবে পুতিনের ঠিক কি এই অসুস্থতা তা স্পষ্ট নয়। এটি নিরাময়যোগ্য, কিনা নিশ্চিত নই। সাবেক ব্রিটিশ এক গুপ্তচর এই দাবি করেছেন। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর তথ্যপঞ্জি লেখা ও ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনী প্রচারে রাশিয়ান হস্তক্ষেপের অভিযোগ করা ক্রিস্টোফার স্টিল স্কাই নিউজকে বলেন, 'অবশ্যই, আমরা রাশিয়া ও অন্য সূত্র থেকে যা শুনছি, তা হলো পুতিন বেশ গুরুতর অসুস্থ।'

এছাড়া রাশিয়ান নেতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক এমন একজন একজন অলিগার্ক বলেছেন, 'পুতিন ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে অনেক অসুস্থ।' 

মার্কিন ম্যাগাজিন নিউ লাইনসের কাছে থাকা এক রেকর্ডিংয়ে, অজ্ঞাত এক অলিগার্ককে একজন পশ্চিমা ব্যবসায়ীর সঙ্গে পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা করতে শোনা গেছে।

ইউক্রেনের যুদ্ধ শুরুর পর থেকে পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে জল্পনা বাড়তে থাকে। বিশেষ করে গত সপ্তাহে বিজয় দিবসসহ দেশটির বিভিন্ন পাবলিক ইভেন্টে দেশটির নেতাদের 'দূর্বল' উপস্থিতি এই জল্পনায় আরও ঘি ঢালে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও ও ছবিতে পুতিনের পায়ে মোটা সবুজ আবরণ দেখা গেছে। তিনি মস্কোর রেড স্কয়ারে বসে যখন মিলিটারি প্যারেড তখন এই দৃশ্য দেখা গেছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

রেকর্ডিংয়ে ওই অলিগার্ক বলেন, ব্লাড ক্যান্সারের জন্য পুতিনের সার্জারি করা হয়েছে। এটি ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর আগে করা হয়। প্রেসিডেন্ট পাগল হয়ে গেছেন বলে  উল্লেখ করেন এই অলিগার্ক।

এই অলিগার্ক আরও বলেন, 'আমরা আশা করি পুতিন মারা যাবেন। তিনি সত্যি রাশিয়ার, ইউক্রেনেরসহ অনেকের অর্থনীতি ধ্বংস করেছেন। পুতিনের সমস্যা তার মাথায়। একজন পাগল মানুষ পৃথিবীকে উল্টে দিতে পারে।'

এর আগে মার্কিন নিউ ইয়র্ক পোস্টের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, পুতিন সম্ভবত ক্যান্সারের অস্ত্রোপচার করতে যাচ্ছেন। এই সময়ে পুতিন সাময়িকভাবে দেশটির নিরাপত্তা পরিষদের সচিব নিকোলাই প্যাটরুশেভের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে পারেন। 

রাশিয়ার রহস্যময় টেলিগ্রাম চ্যানেল জেনারেল এসভিআরর বরাত দিয়ে নিউ ইয়র্ক পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, পুতিনকে চিকিৎসকেরা বলেছেন তাকে অবশ্যই অস্ত্রোপচার করতে হবে। 

তবে পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে এখন পর্যন্ত রাশিয়ার পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।


আরও খবর



যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন, স্বামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন

Image

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে এক গৃহবধূকে নির্যাতন চালানোর অভিযোগে স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিয়ে রোববার থানায় মামলা করেন নির্যাতিতা গৃহবধূ। পুলিশ অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেপ্তার করে রোববার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করেছে।

উপজেলার এক নম্বর সদর ইউনিয়নের চরশিহারি গ্রামের রিকশা চালক সাইদুল ইসলামের মেয়ে শিউলি আক্তার। গত ৮ মাস আগে শিউলিকে বিয়ে করে নেত্রকোনা সদর উপজেলার ঝগড়াকান্দা গ্রামের মৃত লাল চান মিয়ার ছেলে রাজন মিয়া ওরফে রফিকের (২০) সাথে। রাজন পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি শ্রমিক।

বিয়ে সময় ৪৫ হাজার টাকা যৌতুক দেওয়া হলেও গত রমজানের পূর্ব থেকে যৌতুক চেয়ে শিউলির উপর নির্যাতন শুরু করে তার শশুর বাড়ির লোকজন। ২০ হাজার টাকা, খাট, সুকেস, আলনা, বাসনকোসনও যৌতুক হিসেবে চাইলে দিতে অস্বীকার করে শিউলে। সে কারণে শুরু হয় তার ওপর অমানবিক নির্যাতন। গত শুক্রবার শিউলি শ্বাশুড়ি, ননদ ও জারুমা আক্তার মিলে মারধর করে। বাজার থেকে এসে স্বামী রাজনও মারধরে যুক্ত হয়। হাত-পা বেঁধে মারধর করার পর শিউলির শরীরে ক্ষত স্থানে মরিচের গুঁড়া ঢালা হয়। শরীরে জ্বালাপোড়া শুরু হলে হাতপা বাধা অবস্থায় পুকুরে হামাগুড়ি দিয়ে নেমে যায় শিউলি।

এরপর শুক্রবার রাতে শিউলিকে চরশিহারি গ্রামে তার বাবার বাড়ির সামনে রেখে পালানোর চেষ্টা করে স্বামী রাজন। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে আটকে রাখে। পরে গতকাল শনিবার রাতে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

নির্যাতিতা শিউলি আক্তার বলেন, যারা নির্যাতন করেছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাছিনুর রহমান বলেন, বিষয়টি নিয়ে নির্যাতিতা নারী বাদি হয়ে মামলা করেছেন। দু’জনকে আসামী করে মামলাটি হয়েছে। অভিযুক্ত স্বামীকে রোববার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ময়মনসিংহ যৌতুক

আরও খবর



আজ মহান মে দিবস

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ রোববার (১ মে) মহান মে দিবস। বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের দিন। ১৮৮৬ সালের এই দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকরা ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ওইদিন তাদের আত্মদানের মধ্যদিয়ে শ্রমিক শ্রেণির অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য শ্রমিকদের আত্মত্যাগের এই দিনকে তখন থেকেই সারা বিশ্বে মে দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। এবারের মে দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় শ্রমিক-মালিক একতা, উন্নয়নের নিশ্চয়তা।

মহান মে দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল শ্রমজীবী মানুষকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন মেহনতি মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করেছেন। তিনি ছিলেন শ্রমজীবী মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু। স্বাধীনতার পর মে দিবস রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পায় এবং জাতির পিতা মে দিবসে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শ্রমিকদের ন্যায্য অধিকার নিশ্চিত করতে মজুরি কমিশন গঠন করেন এবং তিনি শ্রমিকদের জন্যও নতুন বেতন কাঠামো ঘোষণা করেন। ১৯৭২ সালে জাতির পিতার উদ্যোগ ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আন্তজার্তিক শ্রম সংস্থার সদস্যপদ লাভ করে এবং আইএলওর ছয়টি কোর কনভেনশনসহ ২৯টি কনভেনশন অনুসমর্থন করে। এটি একটি বিরল ঘটনা এবং শ্রমজীবী মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও তাদের অধিকার রক্ষায় এক অনন্য স্বীকৃতি।

এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার দেশের শ্রমজীবী মানুষের জীবন-মান উন্নয়ন ও কল্যাণে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। মালিক-শ্রমিকের মধ্যে সৌহার্দ্য ও সুসম্পর্ক বজায় রাখার মাধ্যমে নিরাপদ কর্মপরিবেশ, সামাজিক নিরাপত্তা ও শ্রমিক কল্যাণ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ শ্রম আইন যুগোপযোগী ও আধুনিকায়ন করে বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন, ২০১৮ প্রণয়ন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন খাতে কর্মরত শ্রমিকদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন গঠন করা হয়েছে। এই তহবিল থেকে প্রাতিষ্ঠানিক-অপ্রাতিষ্ঠানিক যেকোনো খাতে নিয়োজিত কোনো শ্রমিক কর্মরত অবস্থায় দুর্ঘটনাজনিত কারণে স্থায়ীভাবে অক্ষম হলে অথবা মৃত্যুবরণ করলে, জরুরি চিকিৎসা ব্যয় নির্বাহ ও দুরারোগ্য ব্যাধির চিকিৎসার জন্য এবং শ্রমিকদের সন্তানের উচ্চ শিক্ষার জন্যেও আর্থিক সহায়তা পাচ্ছেন। আমরা রফতানিমুখী গার্মেন্টস শিল্পে কর্মরত শ্রমিক-কর্মচারীদের সার্বিক কল্যাণে আর্থিক সহায়তা প্রদানে একটি কেন্দ্রীয় তহবিল গঠন করেছি এবং সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছি। সব সেক্টরে শ্রমিকদের বেতন ভাতা বাড়ানো হয়েছে।

মহান মে দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শ্রমিক সমাবেশ, শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

দিনটি উদযাপন উপলক্ষে দেশের জাতীয় পত্রিকাগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার ও বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলো দিনটি উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান ও টকশো সম্প্রচার করবে। 

নিউজ ট্যাগ: মে দিবস

আরও খবর