আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

জাতীয় পরিচয় পত্রে বাবার চেয়ে ১২ বছরের বড় ছেলে

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৫৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে জাতীয় পরিচয় পত্রে বাবার বয়স ৪৮ বছর ও ছেলের বয়স ৬১ বছর দেখানো হয়েছে।

জানা যায়, দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের মৌলারপাড় গ্রামের বাসিন্দা মো. আব্দুল মালেক ও  তার বড় ছেলে আবু তাহেরের জাতীয় পরিচয়পত্রে এমন অসংগতি ধরা পড়েছে। বাবা মো. আব্দুল মালেকের বয়স ৪৮ বছর ৫ মাস ১৭ দিন। ছেলে আবু তাহেরের  বয়স ৬১ বছর ৫ দিন। সে হিসেবে বাবার চেয়ে ১২ বছর ৬ মাস ১৯ দিনের বড় ছেলে।

ছেলে আবু তাহের জানান, ভোটার তালিকার তথ্য সংগ্রহ করার সময় সংগ্রহকারীর ভুলে এমন অবস্থা হয়েছে। এখন তিনি ভুল সংশোধন করতে চান।

বয়সের এমন আজব পার্থক্য সংশোধন করতে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন তারা। নানা কাগজপত্র জমা দেয়ার বেড়াজালে বয়সটাই সংশোধন হয়নি। এ কারণে বিভিন্ন নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা। 

দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে আসলে আমরা বুঝতে পারবো কোথায় কিভাবে ভুল হয়েছে। সংশোধনের জন্য আবেদন করলে ভুল সংশোধন করে দেয়া যাবে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুরাদ উদ্দিন হাওলাদার বলেন, ভোটার লিস্ট তৈরি করার এমন ভুল হতে পারে আবেদন করলে সংশোধন করা যাবে।

Share

আরও খবর



বাংলাদেশে সঙ্গে সম্পর্ক গভীর করতে চান বাইডেন

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ৮৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সুগভীর করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. সহিদুল ইসলামের পরিচয়পত্র আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণকালে বাইডেন এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাস আজ শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন গত ১৭ ফেব্রুয়ারি স্বাক্ষরিত আনুষ্ঠানিক গ্রহণপত্রে নতুন রাষ্ট্রদূতকে যুক্তরাষ্ট্রে স্বাগত জানান এবং দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও সুগভীর করতে একযোগে কাজ করার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিদ্যমান কোভিড-১৯ মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার নতুন রাষ্ট্রদূত কর্তৃক প্রেসিডেন্ট বরাবর সরাসরি পরিচয়পত্র প্রদানের প্রথাগত আনুষ্ঠানিক আয়োজন হতে বিরত থাকছে। প্রেসিডেন্ট কর্তৃক পরিচয়পত্র গ্রহণের বিষয়টি পেপার-বেইজড প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়।

Share

আরও খবর



এটিএম শামসুজ্জামানকে নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর অনুরোধ পরিবারের

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | ৫৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিংবদন্তি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান না ফেরার দেশে চলে গেছেন গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে। ওই দিন বাদ আসর জুরাইন কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে তাকে। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে শোবিজ অঙ্গনে। গুণী এ অভিনেতার মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না অনেকেই।

মৃত্যুর এক মাস আগে এটিএম শামসুজ্জামান তার বিভিন্ন পদক, সনদ, সম্মাননা, ক্রেস্টসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র বস্তাবন্দি করে ফেলতে বলেছিলেন তার ভাই রতন জামানের বরাত দিয়ে এমন তথ্য প্রকাশ করেছে দেশের একটি জাতীয় গণমাধ্যম। এ বিষয়ে এটিএম শামসুজ্জামানের দুই মেয়ে এবং স্ত্রীর কাছে জানতে চাইলে তীব্র প্রতিবাদ করেন তারা।

মোবাইল ফোনে তার মেয়ে কোয়েল আহমেদ  বলেন, এগুলো উনার অর্জন। এগুলো কেনো ফেলে দিতে বলবে? আপনারা দয়া করে আমার কথা ছাড়া এ ধরনের কোনো নিউজ করবেন না। এগুলো সব উনার অর্জন। প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে নেওয়া অর্জন, উনি প্রধানমন্ত্রীকে অনেক ভালোবাসতেন। উনি এগুলো বলবে আপনার মনে হয়?

এটিএম শামসুজ্জামানকে নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে তার ছোট মেয়ে কেতোকি আহমেদ বলেন, এটি আমার আব্বার জন্য অনেক দুঃখজনক একটা ব্যাপার হবে। উনি অনেক কষ্ট পাবেন, এটা তো হতেই পারে না। আমার আব্বা শিল্পকে অনেক ভালোবাসতেন। এ ধরনের কোনো কিছু আমরা কখনোই নিতে পারব না। আব্বা সারাজীবন শিল্পকে ভালোবেসে কাজ করেছেন, টাকা জন্য করেননি। উনার মৃত্যুর পর এ ধরনের কথা আমরা মেনে নিতে পারব না।

গুণী এ অভিনেতার স্ত্রী রুনি জামান  ২১ ফেব্রুয়ারি বলেন, এ ধরনের কোনো কথা বলেননি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের জন্য যা করেছেন তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। এত দিনের সম্মান, তার এত পুরস্কার, জাতীয় পুরস্কার, একুশে পদক এগুলো আমি আলমারি করে রেখে দিব।

এটিএম শামসুজ্জামানকে নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর অনুরোধ বারবার করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। গণমাধ্যমের কাছে অভিনেতার স্ত্রীর অনুরোধ করে বলেন, আমি, আমার মেয়ে-ছেলেদের সঙ্গে কথা না বলে আপনারা কোনো নিউজ করবেন না। যা জানতে চান আমার কাছে জানবেন, মানুষের কাছ থেকে নয়। যে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে সে রকম কোনো কথা উনি বলেননি। দয়া করে আর কোনো বিভ্রান্তি ছড়াবেন না।

Share

আরও খবর



মালয়েশিয়ায় ফের লকডাউন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার ৪র্থ ঢেউ মোকাবিলা করতে মালয়েশিয়ায় ফের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) ১৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধিতে তা বাড়িয়ে ৪ মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছে।

চলমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিল ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি বিন ইয়াকুব ।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়া দেশটির সেলাঙ্গর, কুয়ালালামপুর, জহুর, পিনেং রাজ্যে মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) আগামী ৪ মার্চ পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

বাকি রাজ্যগুলোতে কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও) এবং রিকভারী মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) যথাযথ বহাল থাকবে।

পাশাপাশি দেশটির আন্তঃরাজ্য ভ্রমণের ওপর চলমান নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

চলমান মুভমেন্ট কন্ট্রোল ওয়ার্ডারের নির্দেশনাবলী অমান্য করলে এক হাজার রিঙ্গিত জরিমানা অথবা অমান্যকারীদের গ্রেফতারও করা হচ্ছে।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৬৯ হাজার ১৬৫ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৯৮৩ জন।

মঙ্গলবার দেশটিতে ৫ হাজার ৭১৮ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

Share

আরও খবর



যৌবনে পা রাখার সাথেই বিয়ে করার উপকারিতা

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিয়ে করার সঠিক বয়স নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। কারো মতে একটু বেশি বয়সে বিয়ে করা ভালো। কেননা বিয়ের সঙ্গে অর্থনীতির বিষয় জড়িত। কারো কারো মতে আবার পড়াশোনা শেষ হওয়ার পরই বিয়ে করা ভালো। তবে যে যাই মনে করুক না কেন, দ্রুত বিয়ে করাই বুদ্ধিমানের মতো কাজ। যৌবনে পা রাখার পর বিয়ে করার ফলে জীবন অনেক সহজ হয়ে যায়। এতে করে ছোটখাটো বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আগের থেকে দায়িত্বশীল হয়ে উঠা যায়। এবার তাহলে কম বয়সে বিয়ে করার উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

অল্প বয়সে বিয়ে করার ফলে দ্রুত সন্তান নেয়ার চাপ আসবে না। সন্তান জন্মের পর তাদের পড়াশোনা নিয়ে প্রথম থেকেই ভাবতে হবে না। স্বামী-স্ত্রী দুজন প্রেমিক-প্রেমিকা হয়ে ঘুরে বেড়াতে পারবেন।

কথায় আছে একজনের থেকে দুজন ভালো। বিষয়টি সবারই বুঝতে পারার কথা। সব সুখ-দুঃখ একা ভোগ করার থেকে দুজন একসঙ্গে ভোগ করার ফলে আনন্দ আরও বেড়ে যায়। এছাড়াও মন খারাপের কথাগুলো কাছের মানুষের সঙ্গে আলোচনা করার ফলে মনও হালকা হয় অনেক। ফলে মানসিক চাপটাও অনেক কম থাকে।

বেশি বয়সে বিয়ে করলে বিভিন্ন সমস্যা হয়। কোনও কোনও নারী বা পুরুষ সন্তান জন্মদানে জটিলতায় পড়েন। গর্ভধারণে সমস্যা হয়। আবার সন্তান জন্মদানের পর তাকে লালন-পালনে যথেষ্ট সময়ও পাওয়া যায় না।

আজকাল হঠাৎ করেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে হয় অনেক পরিবারে। ফলে ডিভোর্সের সংখ্যাও প্রতিনিয়ত বাড়ছে। বিপরীতে যদি অল্প সময়ে বিয়ে করা হয় তাহলে ডিভোর্স হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। আবার ডিভোর্স হলেও নতুন করে জীবনকে গড়ে তোলার জন্য যথেষ্ট সময় পেয়ে থাকেন তারা।

সন্তান প্রাপ্ত বয়স হওয়ার পরও বিয়ে না করালে সেই সন্তান অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এতে সামাজিক সম্মানহানিও হয়। বিপরীতে সন্তানকে যদি অল্প বয়সে বিয়ে দেয়া হয় তাহলে কিন্তু এই ভয় থাকবে না। সন্তান শৃঙ্খলার মধ্যে থাকবে এবং সে দায়িত্বশীল হয়ে উঠবে।

Share

আরও খবর
আজকের রাশিফল: আজ কেমন যাবে?

রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১




করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রচারাভিযান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সবাই মিলে শপথ করি, করোনাভাইরাস সহনশীল গ্রাম গড়ি এই প্রতিপাদ্য লক্ষ্য রেখে, সুইস এজেন্সি ফর ডেভেলপমেন্ট এন্ড কো-অপারেশন (এসডিসি) ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর সহযোগিতায় বাগেরহাটের ১৬ নং খাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সন্ন্যাসী বাজারে বুধবার খাউলিয়া ইউনিয়নের করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের জন্য প্রচারাভিযান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের সূচনায় ১৬ নং খাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার আবুল খায়ের অনুষ্ঠানের শুরুতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের জন্য প্রায় শতাধিক লোকজন নিয়ে সন্ন্যাসী বাজারে একটি র‌্যালি করেন। র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান এর প্রতিনিধি সি.এইচ.সি.পি,ইউনিয়ন পরিষদের র্নিবাচিত সদস্য ও সুশিল সমাজের ব্যক্তিগন, নারীনেত্রী, ইয়ূথ, উজ্জিবক, কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর ও একটিভ সিটিজেন এর সদস্যগন।

র‌্যালি শেষ করে পথসভায় ১৬ নং খাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার আবুল খায়ের বলেন গুজবে কান দিবেন না, সবাই করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভ্যাকসিন নিবেন ও মাক্স ব্যবহার করবেন। এছাড়াও পথসভায় আলোচনা করেন মোঃ মশিউর রহমান ফকির, শেখ কামাল উদ্দিন, আতিকুল ইসলাম। উক্ত র‌্যালি ও পথসভায় সার্বিক সহযোগিতা করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্টের সকল সহযোগী উইনিট।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস
Share

আরও খবর