আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৫১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে সিপাহী পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। মহিলা ও পুরুষ   প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। অনলাইনের মাধ্যমে সহজেই আবেদন করা যাবে।

পদের নাম: সিপাহী।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা: এইচএসসি অথবা সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। এসএসসি বা সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ এবং এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫০ পেতে হবে।

শারীরিক যোগ্যতা: পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি, ওজন ৪৯.৮৯ কেজি বা ১১০ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি থেকে এবং স্ফীত অবস্থায় ৩৪ ইঞ্চি হতে হবে। মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি, ওজন ৪৭.১৭৩ কেজি বা ১০৪ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ২৮ ইঞ্চি এবং স্ফীত অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি হতে হবে।

উপজাতীয় প্রার্থীদের শারীরিক যোগ্যতা : উপজাতীয় পুরুষ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, ওজন ৪৭.১৭৩ কেজি বা ১০৪ পাউন্ড, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি এবং স্ফীত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি থাকতে হবে। উপজাতীয় মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা ৫ ফুট, ওজন ৪৩.৫৪৪ কেজি বা ৯৬ পাউন্ড হতে হবে।

বয়স ও অন্যান্য: ২২ আগস্ট, ২০২১ তারিখে প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ২৩ বছরের মধ্যে। দৃষ্টিশক্তি ৬/৬ থাকতে হবে। প্রার্থীকে অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে।

বেতন: জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী ৯০০০-২১৮০০/-টাকা

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএসের (sms) মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা: এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া ও ফি প্রদান শুরু হয়েছে ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০ টায় এবং শেষ হবে ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২টায়।

Share

আরও খবর



বিদেশি মদ বিক্রির অভিযোগে সুনামগঞ্জে দুই এসআই প্রত্যাহার

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিদেশি মদ বিক্রির অভিযোগে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার থানার দুই এসআইকে প্রত্যাহার করে তাদেরকে পুলিশ লাইনসে পাঠানো হয়েছে। তারা হলেন- এসআই অপূর্ব সাহা ও এসআই নোবেল সরকার।

রোববার (৭ মার্চ) রাতে বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমকে নিশ্চিত করে পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, শুধু প্রত্যাহারই শেষ কথা নয়, তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত চলছে। এরপর তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থাও নেয়া হবে।

জেলা পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, সীমান্তবর্তী দোয়ারাবাজার থানা এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চলাকালে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাবাজার ইউনিয়নের দুজন মাদক কারবারিকে ৪ কার্টুন বিদেশি মদসহ আটক করেন এসআই অপূর্ব ও নোবেলসহ তাদের সাথে থাকা ফোর্স। এক কার্টুন মদ জব্দ দেখিয়ে মামলা দায়েরের পর কৌশলে অবশিষ্ট ৩ কার্টুন মদ বাংলাবাজার এলাকার পূর্ব পরিচিত তানিয়েল নামের অপর এক মাদক কারবারির কাছে বিক্রি করে দেন দোয়ারাবাজার থানা ওই দুজন এসআই।

এরপর সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অপর একটি টিম দোয়ারাবাজারের বাংলাবাজারে আবার ২ মার্চ মাদকবিরোধী অভিযানে গিয়ে বাজারে থাকা তানিয়েলের সহোদর তানভিরের দোকান থেকে ৩ কার্টুন বিদেশি মদ জব্দ করে। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদে তানভির জানান, থানার দুজন এসআই অপূর্ব কুমার সাহা ও নোবেল সরকার এসব মদ তার ভাইয়ের কাছে বিক্রি করেছেন।

এ ঘটনার বিষয়টি গোয়েন্দা পুলিশের টিম তাৎক্ষণিকভাবে জেলা পুলিশ সুপারকে জানান। তারপর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান প্রাথমিকভাবে দুজন এসআইয়ের মদ বিক্রির সত্যতা নিশ্চিত হন।

এ বিষয়ে দোয়ারাবাজার থানার ওসি মো. নাজিম উদ্দিন জানান, পুলিশ সুপারের নির্দেশে বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) অভিযুক্ত থানার দুজন এসআইকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে পাঠানো হয়েছে।

Share

আরও খবর



পাহাড়ের মধ্যেই রয়েছে সোনার উপাদান

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোনার কেল্লা নয়, এ যেন আস্ত এক সোনার পাহাড় সম্প্রতি সে পাহাড়ের খোঁজ পাওয়া গেছে সুদূর কঙ্গোয়। সে দেশের এক পাহাড়ের মধ্যেই নাকি রয়েছে সোনার উপাদান। তাই ওই পাহাড় খুঁড়ে সোনা বের করায় মেতেছে ৮ থেকে ৮০ বছর বয়সী কঙ্গোবাসী।

সত্যিই কি কঙ্গোর ওই পাহাড়ে সোনা রয়েছে? আসলে ওই পাহাড়ের পাথুরে মাটিতে নাকি প্রায় ৬০ থেকে ৯০ শতাংশই আকরিকই সোনা। এমনটাই দাবি উঠেছে কঙ্গোর এক পাহাড় ঘিরে।

মধ্য আফ্রিকার দেশে কঙ্গোর দক্ষিণ কিভু প্রদেশে রয়েছে সে পাহাড়। লুহিহির পাহাড়ের কথা শোনামাত্রই ওই এলাকায় ছুটে গেছেন হাজার হাজার মানুষ। পাহাড় খুঁড়ে সোনা খুঁজতে লেগেছেন সকলেই।

সোনা খোঁজার ভিডিও নেটমাধ্যমে শেয়ার করেছেন সাংবাদিক আহমেদ আলগোবারি। ২ মার্চ আহমেদের সেই ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। রোববার পর্যন্ত সাড়ে ২৭ হাজারেরও বেশি নেটিজেনরা সেই ভিডিও দেখে ফেলেছেন।

ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই পাহাড় ঘিরে ভিড়ে ভিড়াক্কার। গাঁইতি-শাবল-বেলচা দিয়ে লুহিহির পাহাড়ের পাথুরে মাটি খুঁড়ে সোনা খুঁজছেন গ্রামবাসীরা।

অনেকে তো খালি হাতেই পাহাড়ের মাটি সংগ্রহ করতে লেগেছেন। এরপর সেই মাটি তুলে নিয়ে গিয়ে তাতে সোনা খুঁজছেন। ভিডিওর একজনকে দেখা গেছে, নিজের টি-শার্ট উল্টে তাতে মাটি ভরে নিয়ে যাচ্ছেন।

সোনার খোঁজে সবাই পাহাড়ের মাটি তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। অবস্থা এমনই যে ওই পাহাড়ের গায়ে আস্ত একটা খাদের সমান গর্তই হয়ে গেছে।

রাষ্ট্রপুঞ্জের পক্ষ থেকে গত বছর একটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, কঙ্গোতে সোনাসহ অন্যান্য মূল্যবান ধাতব পদার্থের যত পরিমাণ খনন হয়, তার বেশির ভাগই নথিবদ্ধ করা হয় না।

তবে কোথায় যায় ওই মূল্যবান পদার্থ? রাষ্ট্রপূঞ্জের দাবি, কঙ্গোর পূর্বপ্রান্তের দেশগুলোর মধ্যে দিয়ে সে সবই পাচার করা হয়।

Share

আরও খবর



অ্যাম্বুলেন্সে করে ২৬ কেজি গাঁজা পাচার, আটক ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | ৯৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার করে ২৬ কেজি গাঁজা পাচার করতে গিয়ে দুজনকে আটক করেছে র‌্যাব-৩। ঢাকা যাত্রাবাড়ী এলাকা থেকে ২৬ কেজি গাঁজা জব্দ করে র‌্যাব। মঙ্গলবার (০২ মার্চ) র‌্যাব-৩ এর বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার (০১ মার্চ) রাতে যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তা পদ্মা আবাসিক হোটেলের সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পর চেকপোস্ট বসিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে থাকা গাঁজা উদ্ধার করা হয়। গাড়িতে অবস্থান করা এ সময় মো. জাহাঙ্গীর ও মো. জালালকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সহকারী পুলিশ সুপার ফারজানা হক বলেন, কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী অ্যাম্বুলেন্স যোগে রোগী সেজে অভিনব কায়দায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গাঁজা বহন করছে। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এ বিষয় জানা যায়। দাউদকান্দি থেকে যাত্রাবাড়ী হয়ে মতিঝিল অভিমুখে গাঁজা বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল। এরপরই চেকপোস্ট বসানো হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে মাদক এনে রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে সরবারহ করতো।

নিউজ ট্যাগ: গাঁজা পাচার
Share

আরও খবর



হাজী সেলিমের মামলার রায় মঙ্গলবার

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | ২৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে সংসদ সদস্য হাজী সেলিমকে দেওয়া ১৩ বছর কারাদণ্ডের মামলায় হাইকোর্টের রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল মঙ্গলবার। বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের ডিভিশন বেঞ্চ এ রায় দেবেন বলে সোমবার আদালত সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় মামলা করে দুদক। মামলায় ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল তাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেয় নিম্ন আদালত।

২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে হাজী সেলিমের সাজা বাতিল করে তাকে খালাস দেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করে দুদক। আপিল বিভাগ ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি এক আদেশে হাইকোর্টের রায় বাতিল করেন এবং পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেন।

নিউজ ট্যাগ: হাজী সেলিম
Share

আরও খবর



নাজিরপুরে মুক্তিযোদ্ধা নজির হাজরাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৪৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পিরোজপুরের নাজিরপুরে মুক্তিযোদ্ধা মো. নজির হাজরাকে (৮৫) কে রাষ্ট্রীয় মর্যদায় দাফন করা হয়েছে। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছেন পিরোজপুর-১ আসনের এমপি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারী) সকালে তাঁকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বুইচাকাঠী গ্রামে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুর রহমান , থানা পুলিশ ও মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিতে শ্রদ্ধা প্রদান করা হয়। পরে জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়। তার নামাজে জানাযায় উপস্থিত ছিলেন নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান

মো. মোস্তাফিজুর রহমান(রঞ্জু), উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ আঃ লতিফসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও মুক্তিযোদ্ধাসহ সর্বস্তরের মানুষ।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে তিনি উপজেলার বুইচাকাঠীর গ্রামের বাড়িতে বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন।

মৃত্যুকালে তিনি চার পুত্র, দুই কন্যা ও স্ত্রী রেখে গেছেন।

Share

আরও খবর