আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

জয়পুরহাটে কিডনি বেচাকেনা দালাল চক্রের ৯ সদস্য আটক

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন

Image

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ

জয়পুরহাটে কিডনি বেচাকেনা দালাল চক্রের ৯ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। বুধবার সকালে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব ৫ এর অধিনায়ক লেঃ কর্নেল জিয়াউর রহমান।

আটককৃতরা হলেন- জেলার কালাই উপজেলার ওলিপুর গ্রামের মৃত আবু সাঈদের ছেলে খাজা ময়েন উদ্দিন(৪৪), একই গ্রামের আবুজার রহমানের ছেলে আজাদুল (৩৭) বহুতি গ্রামের বরহান উদ্দিনের ছেলে ফরকান আলী(৪৫), পাইকপাড়া গ্রামের মৃত কছিম উদ্দিনের ছেলে আফসার উদ্দিন (৫৬), মৃত আছির উদ্দিনের ছেলে নুরুল ইসলাম (৫০) পূর্বকৃষ্টপুর গ্রামের মৃত আবু বক্কর ফকিরের ছেলে বাবলু ফকির (৫২), দুধইল নয়াপাড়া গ্রামের  আবাস আলী মন্ডলের ছেলে সোবহান মন্ডল(৫২) মুজাহিদুল মন্ডল(৪০), ও  একই গ্রামের মৃত মোকলেছার রহমানের ছেলে সাজেদুল ফকির(৩৭) ।

র‌্যাব ৫ এর অধিনায়ক লেঃকর্নেল জিয়াউর রহমান সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের জানান, আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে জয়পুরহাটসহ পাশ্ববর্তী বিভিন্ন এলাকার নিরীহ, ঋণগ্রস্ত ও দরিদ্র মানুষদের ফুসলিয়ে তাদের কিডনি বিক্রি করে আসছিলেন।

এমন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতভর অভিযান চালিয়ে কালাই উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। তারা  কিডনি বেচাকেনার সাথে জড়িত রয়েছে বলে র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবদে স্বীকার করেন। কিডনি বেচা কেনা প্রতিরোধে দালাল চক্রের বিরুদ্ধে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব ৫ এর জয়পুরহাট ক্যাম্পের অধিনায়ক লে.কমান্ডার তৌকিরসহ অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহিদসহ র‌্যাবের বিভিন্ন স্থরের সদস্যরা।


আরও খবর



নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর। পাঁচটি ভিন্ন পদে মোট ছয় জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহ ও যোগ্যতা থাকলে আপনিও আবেদন করতে পারেন। নারী ও পুরুষ প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়া হবে।

পদের নাম

সাঁটলিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর, সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর, অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাকাউন্টটেন্ট, রেকর্ড কিপার।

পদসংখ্যা : সর্বমোট ছয় জন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক/ উচ্চমাধ্যমিক পাস প্রার্থীরা বিভিন্ন পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন। কিছু কিছু পদের জন্য প্রার্থীর কম্পিউটারে দক্ষতা থাকতে হবে। প্রার্থীর বয়স ন্যূনতম ১৮ থেকে অনূর্ধ্ব ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

আবেদন ফি : টেলিটক প্রিপেইড নম্বর থেকে ফি বাবদ ১০০ টাকা, সার্ভিস চার্জ বাবদ ১২ টাকাসহ মোট ১১২ টাকা আবেদন ফরম পূরণের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে জমা দিতে হবে।

বেতন : বিভিন্ন পদের জন্য জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী বেতন-ভাতা দেওয়া হবে।

আবেদনের নিয়ম : আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন ( http://dip.teletalk.com.bd/ ) এই ঠিকানায়।

আবেদনের শেষ তারিখ : ৪ জানুয়ারি, ২০২২।


আরও খবর



২০২১ সালে ৫৩৭১ সড়ক দুর্ঘটনা, নিহত ৬২৮৪

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২০২১ সালে ৫ হাজার ৩৭১টি সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ৬ হাজার ২৮৪ জন নিহত ও ৭ হাজার ৪৬৮ জন আহত হয়েছেন।

আজ শনিবার (৮ জানুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে এমনই একটি পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে রোড সেফটি ফাউন্ডেশন। বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এই তালিকা তৈরি করেছেন তারা।

সংস্থাটি জানায়, নিহতদের মধ্যে ৩৫ দশমিক ২৩ শতাংশ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা গেছে। এ ছাড়াও নিহতদের মধ্যে ৩৪ দশমিক ২৪ শতাংশ পথচারী এবং ১২ দশমিক ৬৯ শতাংশ চালক ও হেলপার ছিলেন।

গত বছর ৭৬টি নৌ-দুর্ঘটনায় ১৫৯ জন নিহত, ১৯২ জন আহত এবং ৪৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন। একই সময়ে ১২৩টি ট্রেন দুর্ঘটনায় অন্তত ১৪৭ জন নিহত ও ৩৯ জন আহত হয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর



মুরাদের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে স্ত্রীর জিডি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার স্ত্রী ডা. জাহানারা এহসান।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলী মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলে সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন তার স্ত্রী। তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি ১৯ বছর। বিবাহিত জীবনে আমাদের সংসারে এক মেয়ে রামিসা ফারিহা রাজকন্যা (১৬) এবং এক ছেলে হাসান আবরার মাহির যুবরাজ (১১)। বিবাদী আমার স্বামী। তিনি বর্তমান সরকারের সংসদ সদস্য এবং সাবেক প্রতিমন্ত্রী। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি কারণে-অকারণে আমাকে ও সন্তানদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করাসহ শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছেন। হত্যার হুমকিও দিচ্ছেন। আজ ৬ জানুয়ারি, সময় অনুমান ২টা ৪৫ মিনিটের দিকে আগের মতো আমাকে ও আমার সন্তানদের গালিগালাজ করে এবং মারধর করার জন্য উদ্যত হলে আমি ৯৯৯-এ কল করি। পরে ধানমন্ডি থানা পুলিশ  বাসার ঠিকানায় পৌঁছালে বিবাদী বাসা থেকে বের হয়ে যায়। এমতাবস্থায় আমি নিরাপত্তাহীনতায় আছি। বিবাদী আমাকে এবং আমার সন্তানদের যে কোনো সময় ক্ষতি করতে পারে।

এর আগে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহযোগিতা চান ডা. জাহানারা এহসান। পরে তিনি এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করার জন্য থানায় যান।

এক নারীর সঙ্গে মুরাদ হাসানের আপত্তিকর ও বিতর্কিত কথোপকথনের একটি কল রেকর্ড এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার দেওয়া অসৌজন্যমূলক বক্তব্য মুহূর্তের মধ্যে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি নিয়ে সর্বমহলে সমালোচনা শুরু হয়। অডিও ক্লিপটিতে শোনা যায়, ওই নারীকে তাৎক্ষণিক তার কাছে যেতে বলছেন মুরাদ হাসান। কিন্তু ওই নারী বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন এবং হুমকি দেন তিনি।

এরপর ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন ডা. মুরাদ হাসান। পদত্যাগের পর তিনি কানাডায় ঢোকার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। পরে সেখান থেকে দুবাইগামী একটি ফ্লাইটে তুলে দেওয়া হয় তাকে। দুবাইয়ে ঢুকতে না পেরে অবশেষে দেশে ফিরেন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: ডা. মুরাদ হাসান

আরও খবর



পরিস্থিতি খারাপ হলে লকডাউনের চিন্তা মাথায় আছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মন্ত্রী বলেন, বাস ও অন্যান্য যানবাহনে যাত্রী সংখ্যা অর্ধেক পরিবহনের প্রস্তাব করা হয়েছে। রেস্টুরেন্ট ও হোটেলে মাস্ক পরে যেতে হবে

করোনা পরিস্থিতি খারাপ হলে লকডাউনের চিন্তা মাথায় আছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, করোনাভাইরাস ও ওমিক্রনকে আমাদের রুখতে হবে। সেজন্য কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। যানবাহনে মাস্ক ছাড়া চলাচল করা যাবে না। যদি কেউ বাস, ট্রেন ও লঞ্চে চলাচল করে তাহলে জরিমানার মধ্যে পড়বে। এটার একটা সিদ্ধান্ত মোটামুটি হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বাস ও অন্যান্য যানবাহনে যাত্রী সংখ্যা অর্ধেক পরিবহনের প্রস্তাব করা হয়েছে। রেস্টুরেন্ট ও হোটেলে মাস্ক পরে যেতে হবে। মাস্ক ছাড়া গেলে দোকানদারের জরিমানা হবে, যে যাবে তারও জরিমানা হতে পারে।

দোকান-মার্কেট খোলা রাখার সময়সীমা কমিয়ে আনা হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রাত ১০টার পরিবর্তে রাত ৮ পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখা যাবে। এটাও প্রস্তাব করা হয়েছে।

১৫ দিন পর এসব বিষয় বাস্তবায়নের কথা বলা হয়েছিল জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আজ আমি প্রপোজ (প্রস্তাব) করেছি ১৫ দিন নয়, সাতদিন করার জন্য। সেটা মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে বলা হয়েছে। তিনি এ বিষয়ে একমত পোষণ করেছেন।

এর আগে সোমবার (৩ জানুয়ারি) রাতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন ইস্যুতে ডাকা আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, লকডাউনের পরিস্থিতি এখনো তৈরি হয়নি, সেজন্য সুপারিশও করা হয়নি।


আরও খবর



ভারতীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত ৩ সেনা

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতীয় নৌবাহিনীর একটি যুদ্ধজাহাজে ভইয়াভ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে তিন নৌ সেনার মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১১ জন। মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মুম্বাইয়ের অদূরে নৌসেনার ডকে ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ভারতের সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়, নৌসেনার আইএনএস রণবীর নামে ওই যুদ্ধজাহাজের ভেতরের একটি কমপার্টমেন্টে বিস্ফোরণ ঘটেছে। বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গেই জাহাজের অন্য সেনারা দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে বিস্ফোরণে জাহাজটির খুব বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

এদিকে ঠিক কী কারণে বিস্ফোরণ ঘটল তা খুঁজে বের করতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মুম্বাইয়ে নৌসেনা বন্দরে আইএনএস রণবীরে বিস্ফোরণে তিন সেনার মৃত্যু হয়েছে। তবে এতে জাহাজের ভেতরে কোনো বড় ক্ষতি হয়নি

২০২১ সালের নভেম্বর পর্যন্ত উপকূলে টহলদারির কাজে বহাল ছিল আইএনএস রণবীর। যুদ্ধজাহাজটি সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের তৈরি। ১৯৮৬ সালের ২১ এপ্রিল এটি নৌবাহিনীতে প্রথম কমিশন্ডন লাভ করে। জাহাজটির উপকূলে ফেরার কথা ছিল শিগগিরই।

সামনে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস। তার আগে সারা দেশে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। নিরাপত্তা ইস্যুতে বিভিন্ন গোয়েন্দা রিপোর্ট ঘিরে জারি করা হয়েছে অ্যালার্ট। এই পরিস্থিতিতে প্রজাতন্ত্র দিবসের ঠিক আগে  ভারতের সেনার এই যুদ্ধ জাহাজে বিস্ফোরণের ঘটনা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।


আরও খবর
সৌদি আরবে প্রতি ঘণ্টায় ৭ ডিভোর্স

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২