আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

কানাডায় স্ত্রীর নামে এমপি শিমুলের বাড়ি : তথ্য জানতে চান হাইকোর্ট

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০১৮ সালের বিবরণীতে দু'জনের সম্পদের মূল্য দেখানো হয় ছয় কোটি ৫৬ লাখ টাকা। মাত্র পাঁচ বছরে সম্পদ বৃদ্ধির এই হার প্রায় ১৩ গুণ!

নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর নামে কানাডায় বাড়ি কেনার বিষয়ে যাবতীয় তথ্য জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) দ্বৈত নাগরিক ও দ্বৈত পাসপোর্টধারীদের নিয়ে এক মামলার শুনানির সময় বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আদেশে এই তথ্য জানতে চান।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। তিনি বলেন, দ্বৈত নাগরিক ও দ্বৈত পাসপোর্টধারীদের তালিকা থেকে নাটোরের এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুল ও তার স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর নাম বাদ পড়ায় তাদের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। এ বিষয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে নাটোরের সানরাইজ সমাজ কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মো. রেজাউল চৌধুরী হাইকোর্টে পক্ষভুক্ত হওয়ার আবেদন করেন।

আজ আদালত আবেদন নিষ্পত্তি করে তার কাছে নাটোরের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রীর নামে কানাডায় বাড়ি কেনার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে তা নিজে হলফনামা করে হাইকোর্ট, দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে জানাতে আদেশ দিয়েছেন।

স্ত্রীর নামে কানাডায় বাড়ি কিনেছেন এমপি শিমুল শিরোনামে প্রকাশিত একটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়, কানাডার টরন্টো থেকে মাত্র ২৫ কিলোমিটার দূরত্বের নিরিবিলি শহর স্কারবোরো। শহরটির হেয়ারউড সড়কের ৭৩ নম্বর বাড়িটির মালিক একজন বাংলাদেশি নাগরিক। নাম শামীমা সুলতানা জান্নাতী। গত বছরের শুরুর দিকে প্রায় দুই মিলিয়ন কানাডিয়ান ডলার খরচ করে ডুপ্লেক্স ওই বাড়িটি কেনেন তিনি। বাংলাদেশি পাসপোর্ট অনুযায়ী তার পেশা 'গৃহবধূ' হলেও শামীমা কোনো সাধারণ নারী নন, নাটোরের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রী তিনি।

প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়- টরন্টোর ল্যান্ড রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল বলছে, ২০২০ সালের ১০ জানুয়ারি পাঁচ রুম, পাঁচ বাথ এবং তিনটি পার্কিংসহ ওই বাড়িটির মালিকানা বদল হয়। সঞ্চিত এবং সুধীর মদন নামের দুই ব্যক্তির কাছ থেকে ১৪ লাখ ৫৬ হাজার কানাডিয়ান ডলারে বাড়িটি কেনেন শামীমা সুলতানা জান্নাতী। ওই দিনই দুই লাখ ৭০ হাজার ডলার ট্যাক্সও পরিশোধ করেন তিনি। সব মিলিয়ে বনেদি বাড়িটি কিনতে তার খরচ হয় প্রায় সাড়ে ১২ কোটি টাকা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়- সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল এবং তার স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর সব সম্পদের বিবরণসহ ঘোষণা আছে দশম এবং একাদশ সংসদ নির্বাচনের হলফনামায়। সেই হলফনামা বিশ্নেষণে দেখা যায়, ২০১৩ সালের নির্বাচনে সংসদ সদস্য শিমুল উল্লেখ করেছেন, নগদ ১১ লাখ টাকাসহ তার এবং গৃহবধূ স্ত্রীর নামে সাকুল্যে ৫১ লাখ ৩৭ হাজার টাকার সম্পদ রয়েছে। আর ২০১৮ সালের বিবরণীতে দু'জনের সম্পদের মূল্য দেখানো হয় ছয় কোটি ৫৬ লাখ টাকা। মাত্র পাঁচ বছরে সম্পদ বৃদ্ধির এই হার প্রায় ১৩ গুণ!

সরকারি খাতায় ব্যক্তিগত আয়-ব্যয়ের হিসাবে শামীমার সম্পদের এমন ঊর্ধ্বগতির সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যাখ্যা যেমন নেই, তেমনি মোট সম্পদের প্রায় দ্বিগুণ মূল্যে কেনা কানাডার বাড়িটিরও কোনো উল্লেখ কোথাও নেই বলে প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আদালতে হাজির করা হচ্ছে ইভ্যালির রাসেলকে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




শুরা কমিটির বৈঠক চলছে হাটহাজারী মাদরাসায়

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের কওমি মাদরাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের ঘাঁটি বা আঁতুড়ঘর হিসেবে পরিচিত আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার শুরা কমিটির বৈঠক শুরু হয়েছে। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসায় বৈঠকটি শুরু হয়েছে।

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও মাদরাসা শুরা কমিটির সদস্য মাওলানা ইয়াহিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন বৈঠকে শুরা কমিটির ১১ জন সদস্য উপস্থিত আছেন। আজ মাদরাসা পরিচালনার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

জানা গেছে, আজকের শুরা কমিটির বৈঠকে মাদরাসার মহাপরিচালক (মুহতামিম) পদে নতুন মুখ নির্বাচন করা হবে। এছাড়াও সহকারী মহাপরিচালক (নায়েবে মুহতামিম) ও শিক্ষা পরিচালকও (শায়খুল হাদিস) নির্বাচন করা হবে।

প্রায় এক বছর ধরে শূন্য মাদরাসার মহাপরিচালকের পদটি। মাদরাসা পরিচালনার দায়িত্বে থাকা তিন পরিচালক থেকে কেউ মহাপরিচালক হচ্ছেন না কি বাইরে থেকে কেউ এ পদে আসছেন সে ব্যাপারে শুরা কমিটির কেউ মুখ খুলছেন না। তারা বলছেন, বুধবারের বৈঠকে সবকিছু চূড়ান্ত হবে।

বিভিন্ন সূত্র বলছে, হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক নির্বাচনে এগিয়ে আছেন মাদরাসা পরিচালনার তিন সদস্য মুফতি আবদুল সালাম চাটগামী, আল্লামা শেখ আহমদ ও মাওলানা ইয়াহিয়া। এছাড়া মুফতি মোহাম্মদ জসিম, হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক আহমদ দিদার কাসেমী ও মাওলানা মোহাম্মদ শোয়েবেরও নাম শোনা যাচ্ছে। আলোচনায় থাকা এ কয়জনের মধ্য থেকে শিক্ষা পরিচালক নিয়োগ করা হতে পারে।

প্রসঙ্গত, হাটহাজারী মাদরাসায় ১৩ জন শুরা সদস্যের মধ্যে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী এবং মাওলানা নোমান ফয়েজী মারা গেছেন। বর্তমানে শুরা সদস্যের সংখ্যা ১১ জন। মাদরাসাটি ১৯০১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।



আরও খবর
পায়রা সেতুর নাম পরিবর্তনের দাবিতে মানববন্ধন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

বিস্কুটের কার্টন থেকে নবজাতক উদ্ধার

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




সব অনলাইন বন্ধ করা সমীচীন নয়: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাত দিনের মধ্যে অনিবন্ধিত সবগুলো অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধ করে দেওয়া সমীচীন হবে না। এ বিষয়ে আদালতকে অবহিত করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ তথ্য জানান।

অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। যারা নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে, তাদের কি হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আদালতকে আমরা জানাবো, সাত দিনের মধ্যে সবগুলো বন্ধ করে দেওয়া সমীচীন হবে না। অনেকগুলো বন্ধ করবো, আদালতকে জানাবো, আসলে কি প্রক্রিয়ায় রেজিস্ট্রেশন দেওয়া হয়েছে।

কিছু গণমাধ্যমকে নিবন্ধনের আওতায় আনা হয়েছে। বাকিগুলোর বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে-জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আবেদনের পর যাচাই-বাছাই করার জন্য আমরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠাই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এগুলো তদন্তকারী সংস্থাকে দেয়। সেটি শেষ করে না আসা পর্যন্ত আমরা দিতে পারি না। এ কারণেই সময় লাগছে। 

এর আগে মঙ্গলবার অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। আদালতের আদেশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে বিটিআরসির চেয়ারম্যান ও প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়। এদিন বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট রাশিদা চৌধুরী নিলু ও ব্যারিস্টার জারিন রহমান।


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




স্বামী প্রভুপাদের জন্মবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কৃষ্ণকৃপাশ্রীমূর্তি শ্রীল অভয়চরণারবিন্দ ভক্তিবেদান্ত স্বামী প্রভুপাদর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী আজ। ১৮৯৬ সালের ১ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ছাত্রাবস্থায় ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে যুক্ত এই মহান ব্যক্তি পরবর্তীকালে বিশ্বব্যাপী বাঙালি সংস্কৃতি প্রসারে অন্যতম পথিকৃৎ হিসেবে খ্যাত হন। তিনি ছিলেন একজন গৌড়ীয় বৈষ্ণব ধর্মগুরু এবং ইসকন বা হরেকৃষ্ণ আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা-আচার্য।

হিন্দুধর্মের গৌড়ীয় বৈষ্ণব মতবাদটি সমগ্র বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়াই ছিল তার জীবনের উদ্দেশ্য। তিনি ১৯৬৬ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ইসকন। এছাড়া ১৯৬৯ সালের ১৪ ডিসেম্বরে তিনি শ্রী শ্রী রাধা-লন্ডনেশ্বর শ্রী-বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা করেন। এই সংস্থায় নেতৃত্বদানের মাধ্যমে তিনি ভারতে এবং বিশেষ করে পাশ্চাত্যে গৌড়ীয় বৈষ্ণব তত্ত্ব প্রচার করতে শুরু করেন।

ইসকনের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে তিনি হয়ে ওঠেন পাশ্চাত্য বিকল্প সংস্কৃতির এক অন্যতম প্রধান ব্যক্তিত্ব। সহস্রাধিক আমেরিকান যুবক যুবতীকে তিনি বৈষ্ণবধর্মে দীক্ষিত করেন

তার প্রতিষ্ঠিত ইসকনের মূল ভিত্তি ছিল হিন্দু কৃষ্ণধর্মের একটি বিশেষ রূপ। ভাগবত পুরাণ এই সম্প্রদায়ের কেন্দ্রীয় ধর্মগ্রন্থ। ১৯৭৭ সালে প্রভুপাদের মৃত্যুর পরও ইসকনের প্রসার অব্যাহত থাকে এবং এই সম্প্রদায় ভারতে সম্মান অর্জন করে।

তার পূর্বাশ্রমের নাম ছিল অভয়চরণ দে। তিনি স্কটিশ চার্চ কলেজের ছাত্র ছিলেন। তিনি বিবাহিত ছিলেন এবং তার সন্তানাদিও ছিল। ১৯৫৯ সালে তিনি সন্ন্যাস গ্রহণ করার পর বৈষ্ণব শাস্ত্রের ভাষ্য রচনায় মনোনিবেশ করেন। এরপর ১৯৬০-এর দশকে পরিব্রাজক সন্ন্যাসী হিসাবে আমেরিকায় যাত্রা করে তিনি তার আধ্যাত্মিক মতাদর্শ প্রচার করতে থাকেন। ১৯৬৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর জন্মাষ্টমীর পরের দিন তিনি পাশ্চাত্যে প্রথম দীক্ষা অনুষ্ঠান আয়োজন করেন ও ১১ জনকে দীক্ষা দেন। ১৯৬৭ সালের ৯ জুলাই সানফ্রান্সিসকো শহরের রাজপথে তিনিই পাশ্চাত্যে প্রথম রথযাত্রা পরিচালনা করেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, ভারত ও অন্যান্য জায়গায় ভ্রমণ করে তিনি অসংখ্য শিষ্যসংগ্রহে সফল হন।

তিনি বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন দার্শনিক, বিজ্ঞানী ও বরেণ্য ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে বৈদিক দর্শন ও সংস্কৃতি প্রসঙ্গে মতবিনিময় করেন। তৎকালীন জনপ্রিয় ব্যান্ড বিটলসের স্বনামধন্য তারকা জর্জ হ্যারিসন, বিখ্যাত ফোর্ড কোম্পানির উত্তরাধিকারী আলফ্রেড ফোর্ডসহ বহু বরেণ্য ব্যক্তি তাঁর আদর্শের অনুসারী হন।

শ্রীল প্রভুপাদের প্রতি কৃতজ্ঞতাবশত জর্জ হ্যারিসন যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অবস্থিত নিজের বাড়িটি আধ্যাত্মিক অনুশীলনের জন্য দান করেন। প্রভুপাদের নামানুসারে এর নামকরণ করা হয় ভক্তিবেদান্ত মেনর। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সাহায্যার্থে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাডিসন গার্ডেন স্কয়ারে আয়োজিত কনসার্ট ফর বাংলাদেশে জর্জ হ্যারিসনের অংশগ্রহণেও শ্রীল প্রভুপাদের অনুপ্রেরণা ছিল।

১৯৬৫ সালে ৭০ বছর বয়সে পাশ্চাত্যবাসীর মধ্যে নৈতিক ও আধ্যাত্মিক শিক্ষা প্রচারের লক্ষ্যে আমেরিকায় পাড়ি জমান ভক্তিবেদান্ত স্বামী প্রভুপাদ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ-পরবর্তী আমেরিকায় তখন হিপ্পি আন্দোলন শুরু হয়েছে। এলএসডির নেশায় দিশাহীন যুবক-যুবতীরা যথেচ্ছাচারে রত।

সে সময় স্বামী প্রভুপাদ নিউইয়র্কের টমকিনস স্কয়ার পার্কে প্রথম প্রচারকার্য শুরু করেন। সেখানকার লক্ষ্যভ্রষ্ট যুবক-যুবতীরা মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে তাঁর অমৃতময় কথা শ্রবণ করতে থাকেন। ধীরে ধীরে তাঁরা তাঁদের বদভ্যাসগুলো থেকে সরে আসতে শুরু করে। স্বামী প্রভুপাদ তাঁদের নিয়ে সাপ্তাহিক অধিবেশন শুরু করেন। ধীরে ধীরে আমেরিকানরা বাঙালি সংস্কৃতির প্রতি আকৃষ্ট হতে থাকেন। বাংলা সাহিত্যের অনন্য গ্রন্থ শ্রীল কৃষ্ণদাস কবিরাজ গোস্বামী বিরচিত শ্রীচৈতন্য চরিতামৃতর ইংরেজি ভাষা রচনার মাধ্যমে তিনি পাশ্চাত্যবাসীদের বাংলা ভাষা শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ করেন। তাঁর অনুপ্রেরণায় আজ পৃথিবীজুড়ে বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষ বাংলা ভাষা শিখতে প্রয়াসী হচ্ছেন। শ্রীল প্রভুপাদের অনবদ্য অবদান তাঁর গ্রন্থাবলি। তিনি ৭০টির বেশি গ্রন্থ রচনা করেন।

১৯৭৭ সালের ১৪ নভেম্বর বৃন্দাবনে অভয়চরণারবিন্দ ভক্তিবেদান্ত স্বামী প্রভুপাদ দেহত্যাগ করেন। তাঁর স্মৃতিতে মায়াপুর, বৃন্দাবন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কিছু সমাধিসৌধ নির্মিত হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: স্বামী প্রভুপাদ

আরও খবর
আজ শুভ জন্মাষ্টমী

সোমবার ৩০ আগস্ট ২০২১

আজ পবিত্র আশুরা

শুক্রবার ২০ আগস্ট ২০21




বিশ্বে করোনায় একদিনে আরও ৯ হাজারের বেশি মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯ হাজার ৮৪৩ জন। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৫ লাখ ৩৩ হাজার ৬০৯ জনে। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) মৃত্যুর সংখ্যা ছিলো ৪৫ লাখ ২৩ হাজার ৭৬৬ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে নতুন শনাক্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩৯ হাজার ২২৮ জন। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১ কোটি ৮৫ লাখ ৪০ হাজার ৯৯৪ জন। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) শনাক্তের সংখ্যা ছিলো ৭৯ লাখ ১ হাজার ৭৬৬ জনে। বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনায় সুস্থ হয়েছেন ১৯ কোটি ৫৩ লাখ ৬৫ হাজার ১২৬ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৪ কোটি ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৯ জন আর মারা গেছেন ৬ লাখ ৩৩ হাজার ১১৬ জন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ২৮ লাখ ১০ হাজার ৮৯২ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৫৪ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ২ কোটি ৭ লাখ ৭৭ হাজার ৮৬৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৬৩ হাজার ৪৭০ জনের।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
বিশ্বজুড়ে বেড়েছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




মধ্য আফ্রিকায় বিদ্রোহী হামলায় ১৫ সেনা নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর 20২১ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্যামেরুনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অ্যাংলোফোন এলাকার বুইয়া'র কাছে লিসোকায় টহলরত পুলিশ। ২০১৮ সালের ছবি

মধ্য আফ্রিকার দেশ ক্যামেরুনে বিদ্রোহীদের হামলায় দেশটির ১৫ সরকারি সেনা নিহত হয়েছেন। এছাড়া পৃথক আরেকটি হামলায় নিহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন বেসামরিক মানুষও। দেশটির ইংরেজিভাষী পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকায় এই হামলা ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

সোমবার এক বিবৃতিতে ক্যামেরুনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ভারী অস্ত্র-শস্ত্রে সজ্জিত সন্ত্রাসীরা গত ১৬ সেপ্টেম্বর দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ব্যামেসিং শহরে এলিট র‌্যাপিড ইন্টারভেনশন ফোর্সের কনভয়ে হামলা করে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বিদ্রোহীরা আইইডি এবং অ্যান্টি-ট্যাংক রকেট লঞ্চার ব্যবহার করে সেনা কনভয়ের গাড়িগুলো ধ্বংস করে দেয় এবং এরপরই প্রবল গুলিবর্ষণ শুরু করে। এতেই সেনা নিহতের ওই ঘটনা ঘটে। এছাড়া গত ১২ সেপ্টেম্বর ওই একই অঞ্চলের কুমবো এলাকায় অবস্থিত সামরিক ঘাঁটিতেও আইইডি দিয়ে হামলা করা হয়।

ক্যামেরুনে চার বছরেরও বেশি সময় ধরে অস্থিরতা চলছে। দেশটির আইনজীবী ও শিক্ষকদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সরকার প্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহার করে দমন-পীড়ন চালানোর পর থেকেই এই সংকটের সূচনা হয়।

মূলত সরকারের সেই পদক্ষেপের পর থেকেই দেশটির বিচ্ছিন্নতাবাদী বিভিন্ন গ্রুপ এক হয়ে সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করে। তারা ক্যামেরুন থেকে আলাদা হয়ে অ্যাম্বাজোনিয়া নামে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র গঠন করতে চায়।

জাতিসংঘের তথ্য জনুযায়ী, সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত প্রায় চার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে প্রাণ বাঁচাতে বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়ে গেছেন ৭ লাখেরও বেশি মানুষ।

নিউজ ট্যাগ: বিদ্রোহী হামলা

আরও খবর
বিশ্বজুড়ে বেড়েছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১