আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

খেলতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার ৮ বছরের শিশুঃ ধর্ষক আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাঙামাটি থেকে শহিদুল ইসলাম হৃদয়

রাঙামাটি জেলাধীন কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা ইউনিয়নের তালুকদার পাড়ায় দ্বিতীয় শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে উপজাতীয় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত ধর্ষক উক্ত ভিকটিমের চাচা বলে জানাগেছে।

অমল তালুকদার (২২) নামের এই যুবক ওয়াগ্গা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের তালুকদার পাড়া(দ্যোলন্যারমুখ) এলাকার জনৈক শান্তি তালুকদারের সন্তান। রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ছূফি উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

থানা সূত্রে জানাগেছে, রবিবার(৪ এপ্রিল) সকালে নিজ বাড়ির উঠানে খেলা করার সময় বিস্কুট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে নিজ ঘরে নিয়ে যায়। এ সময় আসামি তার নিজ ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং চিৎকার করলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় শিশুটিকে। ধর্ষিতা বাড়িতে এসে খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে সোমবার ০৫ এপ্রিল-২০২১ তারিখ বিকেল তিন টার সময় ধর্ষিতার মা ধর্ষিতাকে বার বার জিজ্ঞাস করলে আসামী অমল তালুকদার তাকে তার নিজ ঘরে ধর্ষণ করেছে বলে শিশুটি তার মাকে জানায়। সাথে সাথেই অসুস্থ ভিকটিমকে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে শিশুটি।

এই ঘটনায় শিশুটির পিতা বাদী হয়ে সোমবার রাতেই তার শিশু মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে তারই চাচাতো ভাই অমল তালুকদারকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলা নং-০২, তারিখঃ ০৫ এপ্রিল-২০২১)ধারাঃ ৯(১), ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী-২০০৩।

রাঙামাটি পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ) মোঃ ছূফি উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, অভিযোগ পাওয়ার পরপরই অভিযান পরিচালনা করে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে কাপ্তাই থানা পুলিশ। এই ঘটনায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ধর্ষণ রাঙামাটি

আরও খবর



নাইজেরিয়ায় কারাগার থেকে পালাল প্রায় ২০০০ বন্দি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নাইজেরিয়ার একটি কারাগারে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের আক্রমণের পর সেখান থেকে প্রায় দুই হাজার বন্দি পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

দেশটির দক্ষিণ-পূর্ব দিকের ওয়েরির ওই জেলে ঢোকার জন্য আক্রমণকারীরা কারাগারের প্রশাসনিক ভবনে বিস্ফোরণ ঘটায় বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে।

দুহাজারের মতো বন্দি পালিয়ে গেলেও ৬ জন ফিরে আসে এবং ৩৫ বন্দি পালাতে অস্বীকৃতি জানায়।

নিষিদ্ধ বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী বিয়াফ্রার আদিবাসী জনগণকে এই হামলার জন্য দায়ী করেছে পুলিশ। যদিও তারা এতে জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছে।

নাইজেরিয়ার জেল বিভাগ ইমো রাজ্যের কারাগার থেকে ১৮৪৪ জন বন্দি পালানোর খবর নিশ্চিত করেছে। তারা আরও জানায়, স্থানীয় সময় সোমবার সকাল সকাল ভারী অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ট্রাক ও বাসে করে কারাগার এলাকায় জড়ো হয়ে হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা।

পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, হামলাকারীরা রকেট চালিত গ্রেনেড, মেশিনগান, বোমা এবং রাইফেল নিয়ে হামলা চালায়।

দেশটির রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ বুহারি সশস্ত্র এই হামলা নৈরাজ্যবাদী দ্বারা পরিচালিত সন্ত্রাসবাদ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি হামলাকারীসহ পালিয়ে যাওয়া বন্দিদের অতিদ্রুত ধরার জন্য নিরাপত্তা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন।


আরও খবর



জামায়াত শিবিরের রাজনীতির প্রতি আনুগত্য আছে কদরুদ্দিন শিশিরের

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের ফেসবুকের ফ্যাক্ট চেকার কদরুদ্দিন শিশির বুম বিডি নামক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যার নিয়োগ হয়েছে। Boom BD এর প্রধান কর্মকর্তা কদরুদ্দিন শিশির।

পাশাপাশি কদর উদ্দিন শিশির বিডি ফ্যাক্ট চেক নামক আরেকটি ফ্যাক্ট চেকারের সহ-প্রতিষ্ঠাতাও। দীর্ঘদিন যাবত সরকার সমর্থিত বা স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির অনলাইন আ্যকটিভিস্টদের অভিযোগ ছিল ফেসবুকের Fact-checking এর পক্ষপাত মূলক আচরনের বিরুদ্ধে। দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে কদরুদ্দিন শিশিরের অতীত এবং রাজনৈতিক মতাদর্শ সম্পর্কে চমকপ্রদ তথ্য উঠে এসেছে।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, একসময় যমুনা টেলিভিশনে সাংবাদিকতা করা এ ব্যক্তি জামায়াত শিবিরের রাজনীতির প্রতি আনুগত্য আছে। নানা সময়ে সরকার বিরোধি অনেক লেখালেখি করেছেন এই শিশির। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবীতে সারাদেশে গণজাগরণ তৈরী হলেও কাদের উদ্দিন শিশির ছিলেন স্বাধীনতা বিরোধীদের পক্ষের একজন। যুদ্ধাপরাধী সাঈদীকে নিয়ে তার ফেসবুক পোষ্ট আমাদের সংরক্ষনে আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে বিদ্রুপপূর্ন পোষ্ট করতেও দেখা গেছে। তার লেখালেখি বাঁশেরকেল্লা সহ জামায়াত শিবিরের অনেক পেইজ ও গ্রুপে কার্টেসি দিয়ে প্রকাশ হতো। এছাড়াও জামায়াত শিবিরের অনেক আইডি থেকে সরকার বিরোধী পোষ্টসমূহের ট্যাগ তার সাথে দেখা গেছে।

এমনকি তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধেও আছে জামায়াত শিবিরের সাথে সম্পৃক্ততা। তার ভাই আ.আ.ছ ইসমাঈল জবিহুল্লাহ (Zabihullah) সরাসরি শিবিরের রাজনীতিতে জড়িত থাকার প্রমান আছে। সিলেট মহানগর ছাত্রশিবিরের সাবেক সেক্রেটারি পরে সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকের সাথে তার ছবি আমরা খুঁজে পেয়েছি।

https://m.facebook.com/photo.php?fbid=1442705565979503&set=a.1378378459078881&type=3

কদরুদ্দিন শিশির নিয়ে বিস্তারিত

এমন কিছু তথ্য প্রমান, ফেসবুক লিংক, স্ক্রিনশর্ট এখানে তুলে ধরছি। উল্লেখ্য কদরুদ্দিন শিশিরের ফেসবুক আইডির অতীতের লেখা ও পোষ্ট সমূহ only Friends করা।

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=526461697364354&set=a.135851459758715&type=3

২/ ২০১২ সালের ডিসেম্বরে কাদের শিশির সরকারের এক নারী মন্ত্রীকে নিয়ে ব্যাঙ্গতক কবিতা ফেসবুক পোষ্ট করেন। এখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ব্যঙ্গভাবে উপস্থাপন করে।

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=400365836640608&set=a.135851459758715&type=3

৩/ ২০১১ সালের ১৬ এপ্রিল ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তৎকালিন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের ছবি ব্যাঙ্গত্বক কাটুন আঁকারে প্রকাশ করে কাদের উদ্দিন শিশির। ছবির উপরে ক্যাপশনে সে লিখে India-bd friendship

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=216612325015961&set=a.135851459758715&type=3

৪/ ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে এক ফেসবুকে স্টাটাসে সরাসরি দিগন্ত টিভি, ইসলামিক টিভিসহ  জামায়াত নিয়ন্ত্রিত অনলাইন পোর্টাল শীর্ষ নিউজ, সোনারবাংলা বন্ধের বিরুদ্ধে নিজের অবস্থানের বিষয়টি ফেসবুকে লিখেন কাদের উদ্দিন শিশির।

https://www.facebook.com/qshishir/posts/1392703044073544

৫/ ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিরোধিতা করে একটি গুজব সংক্রান্ত প্রপাগান্ডা পোষ্ট করে শিশির।

https://tinyurl.com/y7bjbubv

কদরুদ্দিন শিশিরের ফেসবুক আইডিতে ডুকতেই Featured এ দুইটি ছবি চোখে চোখে পড়বে। একটি হচ্ছে নির্দলীয় সরকার ব্যবস্থা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুরানো একটি খবর। অন্যটি কাজী নজরুল ইসলামের ভাস্কর্যের কাঁধে হাত দিয়ে ব্যঙত্বক ভঙ্গিতে ছবি। ছবি দুইটি ২০১৭ সালে এড করা হয়েছে।

নিচে কিছু লিংক সংযুক্ত করা হয়েছে। প্রত্যেকটি লিংকে প্রবেশ করলে দেখা যাবে- জামায়াত শিবিরের বিভিন্ন আইডি বা পেইজ থেকে সরকার বিরোধী হরতাল সমাবেশ বা প্রপাগান্ডা কদরুদ্দিন শিশিরের আইডিতে ট্যাগ হয়েছে। উল্লেখ্য, এসকল পোষ্টে অন্য যেসকল আইডিতে ট্যাগ হয়েছে তারা প্রত্যেকেই জামায়াত শিবিরের নেতৃবৃন্দ।

https://www.facebook.com/mrdilwer/photos/a.160692204067974/245738975563296/?type=3

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=434582330051054&set=a.144396205736336&type=3

https://www.facebook.com/photo.php?fbid=608383032508724&set=a.211134155566949&type=3

https://www.facebook.com/Desher.Khobor/photos/a.262592573828963/966420686779478/?type=3

নিচে কিছু লিংক সংযুক্ত করা হচ্ছে। জামায়াত শিবিরের ফেসবুক পেইজ ও গ্রুপে কদরউদ্দিন শিশিরের লেখা কার্টেসি দিয়ে প্রকাশ হতো।

https://www.facebook.com/groups/JamaatShibirNetwork/permalink/1785935788132446/

https://www.facebook.com/groups/BICSgroup/permalink/2466227680354814/

কদরউদ্দিন শিশিরের ভাই আ.আ.ছ ইসমাঈল জবিহুল্লাহ (Zabihullah) আপাদমস্তক শিবিরের রাজনীতিতে জড়িত। যা উপরে সিলেট নগর শিবিরের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকের সাথে ছবিতে দেখা গেছে। এখন তার সরকার বিরোধি নানমুখি গুজব, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সেনাবাহিনী সহ সরকার বিরোধী বিভিন্ন পোষ্টের লিংক সংযুক্ত করছি।

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2535698990013483/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2504458666470849/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2503248469925202/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2491638797752836/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2441847749398608/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2252234708359914/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2164869220429797/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2161810177402368/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2156982287885157/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2082037375379649/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/2066601486923238/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/1872973379619384/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/1857687067814682/?d=n

https://www.facebook.com/100007202192520/posts/1857687067814682/?d=n

নিউজ ট্যাগ: কদরুদ্দিন শিশির

আরও খবর



শরীয়তপুরে ১২শ কেজি জাটকাসহ আটক ৩

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় এক হাজার ২০০ কেজি জাটকাসহ তিনজনকে আটক করেছে নৌ-পুলিশ। এসময় তিনটি নছিমন জব্দ করা হয়।

আজ সোমবার (২৯ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে সুরেশ্বর ফাঁড়ির নৌ-পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার পদ্মা নদীর পাড় বাঁশতলা এলাকা থেকে তাদের আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলার গরিবেরচর গ্রামের শাহজালাল হাওলাদারের ছেলে সবুজ হাওলাদার (২৬), আবু ব্যাপারী পাড়া গ্রামের সাহাবুদ্দিন হাওলাদারের ছেলে খবির হাওলাদার (২৫) ও ডামুড্যা উপজেলার দাইমি চরভয়রা গ্রামের মৃত ফজল হক মাঝির ছেলে হাইয়ুম মাঝি (৩০)।

দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটককৃতদের প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করেন নড়িয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোরশেদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, জাটকা ধরা, পরিবহন ও বিক্রি করা সম্পূর্ণ নিষেধ। তবুও কিছু মানুষ সরকারের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এগুলো করতে চেষ্টা করছেন। তাই তাদের আইনের আওতায় এনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জেল-জরিমানা করা হচ্ছে। আজও তিনজনকে আকট করা হয়েছে এবং আটককৃত প্রত্যেককে একমাস করে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। আর জব্দকৃত মাছ স্থানীয় এতিমখানা মাদরাসা ও দুস্থদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



বায়তুল মোকাররমে তাণ্ডব: অজ্ঞাত আসামি ৭০০

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বিক্ষোভকারী বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেটে ও মসজিদের ভেতরে সরকারবিরোধী উসকানিমূলক-অবমাননাকর স্লোগান দিতে থাকে। তখন বায়তুল মোকাররমের ভেতরে দু’গ্রুপের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীবিরোধী বিক্ষোভের জেরে বায়তুল মোকাররম এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনায় অজ্ঞাত ৫০০-৭০০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৭ মার্চ) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম হোসেন বাদী হয়ে পল্টন থানায় মামলাটি দায়ের করেন। রবিবার (২৮ মার্চ) দুপুরে মামলার বাদী উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মামলার এজাহার অনুযায়ী, ঘটনার দিন আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ প্রায় ১৩০০ রাউন্ড গুলি ছুড়েছে। সংঘর্ষের সময় কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাত ৫০০-৭০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। তবে মামলায় কারো নাম বা রাজনৈতিক পরিচয় উল্লেখ করেনি পুলিশ।

ঘটনার বর্ণনায় মামলার বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন, বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে বিভিন্ন বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধানদের বাংলাদেশে আগমনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদস্বরূপ কতিপয় বিক্ষোভকারী বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেটে ও মসজিদের ভেতরে সরকারবিরোধী উসকানিমূলক-অবমাননাকর স্লোগান দিতে থাকে। তখন বায়তুল মোকাররমের ভেতরে দুগ্রুপের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়।

এক পর্যায়ে এক গ্রুপ মসজিদের উত্তর গেট দিয়ে বের হলে ভেতরে থাকা অন্য গ্রুপ তাদের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে মসজিদের ভেতরে থাকা বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন প্রকার উসকানিমূলক ও সরকারবিরোধী স্লোগান দিতে দিতে বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে যান। ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার অনুরোধ করলে তারা পুলিশের প্রতি চরম ক্ষিপ্ত হয়ে মারমুখী ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। তখন পুলিশ গুলি ছোড়ে।

গত শুক্রবার (২৬ মার্চ) দুপুরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় বায়তুল মোকাররম এলাকা।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে জুমার নামাজ শেষে ইসলামি দলগুলো বিক্ষোভ মিছিল বের করার চেষ্টা করায় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অর্ধশতাধিক আহত হয়। এরপর দেশের বিভিন্ন জেলায় ব্যাপক সংঘর্ষ, ভাঙচুর ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।


আরও খবর



আতশবাজির আগুনে ৪টি ঘর পুড়ে ছাই

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেট নগরের দক্ষিণ সুরমায় ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কায়েস্থরাইল এলাকার আকিল শাহ (রহ.) মাজার রোডে আতশবাজির আগুনে ৪টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। সোমবার (২৯ মার্চ) রাতে ওই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, কায়েস্থরাইল এলাকার লন্ডন প্রবাসী মাহবুবুর রহমানের বাসার ৪টি টিনশেড ঘরে দুই পরিবার ভাড়ায় বসবাস করতেন। সোমবার (২৯ মার্চ) শবে বরাতের রাতে ফুলঝরি ও আতশবাজি দিয়ে শিশুরা খেলা করছিল। হঠাৎ করে ওই বাসায় আগুন লেগে যায়। স্থানীয়রা আগুন দেখে ফায়ার সার্ভিসে সংবাদ দেন।

পরে সংবাদ পেয়ে দক্ষিণ সুরমা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে এর আগেই ওই বাসার ৪টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

এই ঘটনার বিষয়ে ফায়ার সার্ভিস সিলেটের উপপরিচালক কোবাদ আলী সরকার বলেন, ধারণা করা হচ্ছে শবে বরাতের আতশবাজি থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটতে পারে। আগুনে ৪টি বসতঘর পুড়ে গেছে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি।


আরও খবর
সিলেটে শিশুর খন্ডিত দুই পা উদ্ধার

মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১