আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

খুবির এক শিক্ষক বরখাস্ত, দুজনকে অপসারণ

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১১৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে চাকরি থেকে বরখাস্ত এবং দুই শিক্ষককে অপসারণের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে।

আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ পেয়েও ওই তিন শিক্ষক তাদের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা বা দুঃখ প্রকাশ না করায় এবং অবাধ্যতা, গুরুতর অসদাচারণ, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ও প্রশাসন বিরোধী কার্যক্রম ছাড়াও একাধিক অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

বরখাস্ত শিক্ষক হলেন বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী শিক্ষক মো. আবুল ফজল। অপসারণকৃত শিক্ষক দুজন হলেন ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক হৈমন্তী শুক্লা কাবেরী ও বাংলা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক শাকিলা আলম।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ২১২তম সভায় এ সিদ্ধান্তসহ আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ও সভায় স্থান পায়।

এর আগে গত ১৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ২১১তম সভার সিদ্ধান্তে ওই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে উপর্যুক্ত শাস্তির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে নিয়ম অনুযায়ী রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে তাদের স্ব স্ব নামে কেন তাদের বরখাস্ত এবং অপসারণ করা হবে না মর্মে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য চিঠি দেওয়া হয়।

অভিযুক্ত তিনজন নির্ধারিত ২১ জানুয়ারি দুপুরের মধ্যে ওই চিঠির জবাব দেন। তবে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, তারা জবাব দিলেও কোনো রকম দুঃখ প্রকাশ বা ক্ষমা চাননি। নিয়ম অনুযায়ী শনিবার (২৩ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ২১২তম সভায় পূর্ববর্তী ২১১তম সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত এবং তিন শিক্ষককে দেওয়া আত্মপক্ষ সমর্থনে জবাব নিয়ে দীর্ঘ পর্যালোচনা করা হয়। শেষে সিন্ডিকেট তাদের চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত এবং অপসারণের সিদ্ধান্তের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র ও সিন্ডিকেট সচিব ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস জানান, উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, নতুন সদস্য প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-২ ওয়াহিদা আক্তার, প্রফেসর ড. মো. মনিরুল ইসলাম, প্রফেসর এ কে ফজলুল হক, প্রফেসর ড. মো. আব্দুল জব্বার ও ড. নিহার রঞ্জন সিংহকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মুনতাসীর মামুন, প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, প্রফেসর ড. মো. মাহবুবুর রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্যাটাগির অন্যান্য সব সদস্য সভায় উপস্থিত ছিলেন। সিন্ডিকেটের অপর দুই সদস্য খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য বর্তমানে ইউজিসির সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর ও খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. ইসমাইল হোসেন এনডিসি অনলাইনে যুক্ত থেকে এ সভায় অংশ নেন।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রধান ফটক স্থাপনের নকশাও গৃহীত হয়। এছাড়া উপাচার্য ফিতা কেটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে একটি আর্কাইভের উদ্বোধন করেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য, ট্রেজারার, সিন্ডিকেট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Share

আরও খবর



আলো-আঁধারিতে উষ্ণ মিথিলা

প্রকাশিত:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ৩৭২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশীদ মিথিলা প্রায়ই সামাজিক মাধ্যমে নিজের ছবি প্রকাশ করেন। বেশিরভাগ সময়ই দেখা যায়, আলো ও অন্ধকারে নিজের লাবণ্য তুলে ধরার প্রয়াস থাকে এই অভিনেত্রীর।

সম্প্রতি পিঠ খোলা পোশাকে তোলা দুইটি সাদা-কালো ছবি প্রকাশ করেছেন এই অভিনেত্রী। ছবির ক্যাপশনে তিনি হলিউডের কালজয়ী অভিনেত্রী মেরিলিন মনরোর উদ্ধৃতি শেয়ার করেছেন তিনি। 

একটি ছবির সঙ্গে মিথিলা লেখেন, ভয় পাওয়া বোকামি, আর অনুশোচনাও। 

অপর ছবিতে আলোচিত এই তারকা লেখেন, অসম্পূর্ণতা হলো সৌন্দর্য, পাগলামি হলো প্রতিভা এবং একেবারে বিরক্তিকর হওয়ার চেয়ে হাস্যকর হওয়া ভালো।

Share

আরও খবর



মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছেন বিজেপি নেতারা, সামনে নেই শ্রোতা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১১২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছেন বিজেপির এক নেতা। তার পাশে আরও অনেক নেতা। কিন্তু যাদের উদ্দেশে বক্তব্য তারা নেই। চেয়ারগুলো ফাঁকা। গোটা মাঠে একজন মাত্র দর্শক। আরেকজন মঞ্চের নিচে। তিনি মাইক সার্ভিসের লোক। আলোচিত এই ভিডিওটি পশ্চিমবঙ্গে ভাইরাল হয়েছে।

এমনই একটি ছবি শেয়ার করে ট্রোল করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের তারকা সাংসদ নুসরাত জাহান। গেরুয়া শিবিরের দিকে কটাক্ষ ভরা এই মিম ছুঁড়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন নুসরাত। জনপ্রিয় পাওরি মিমের ধাঁচে একটি মিম শেয়ার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর নুসরাতের সৌজন্যে সেই মিম ভাইরাল হয়েছে।

বাংলায় যে বিজেপির কোনও জায়গা নেই, এটাই দেখানো হয়েছে মিমে। ফাঁকা মাঠে বিজেপির সভা হচ্ছে- এমন একটি ছবির নিচে ক্যাপশন, ইয়ে বিজেপি ফর বেঙ্গল হ্যায়। ইয়ে উনকি জনসভা হ্যায়। ঔর ইঁহা ইনকি পাওরি হো রহি হ্যায়।

হিন্দিতে ক্যাপশন লেখার কারণ হলো- অধিকাংশ বিজেপিই হিন্দি ভাষার লোক। কিছু দিন আগে পাকিস্তানি মডেল দানানীর একটি ভিডিওতে একদম বিদেশি উচ্চারণে পার্টিকে পাওরি উচ্চারণ করে বলেছিলেন, এই আমি। এটা আমার গাড়ি। আর এখানে পার্টি চলছে।

রাতারাতি ভাইরাল সেই ভিডিওতে ইউটিউবার যশরাজ মুখাটে ফান এলিমেন্ট যোগ করতেই রমরমিয়ে চলছে পাওরি ভার্সান। যুব সম্প্রদায়ের নজর টানতে তাই শাসকদলের হাতিয়ার নয়া পাওরি ভার্সান। ঠিক যেভাবে বাম দল ২৮ ফেব্রুয়ারির বিগ্রেড মিটিংয়ের প্রচারে দ্বারস্থ হয়েছে টুম্পা সোনার।

Share

আরও খবর



নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে মামলা তদন্তের নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১১৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও বিমানবালা তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে করা মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আগামী ৩০ মার্চের মধ্যে তদন্ত করে পিবিআইকে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীমের আদালতে তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব হাসান বাদী হয়ে এ মামলা করেন। এরপর আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে এ আদেশ দেন।

জানা গেছে, দণ্ডবিধির ৪৯৪, ৪৯৭/৪৯৮/৫০০/৩৪ ধারায় মামলা করা হয়েছে। মামলায় নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার আবেদন করা হয়েছে।

এ ছাড়া বাদী এজাহারে ব্যাভিচার, কোনো বিবাহিতা নারীকে অপরাধমূলক উদ্দেশ্যে প্রলুব্ধ করা বা অপহরণ করা বা আটক করা, স্বামী বা স্ত্রীর জীবদ্দশায় পুনরায় বিয়ে করা এবং মানহানির অপরাধের কথা উল্লেখ করেছেন।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে তামিমাকে বিয়ে করেন নাসির। বিয়ের সপ্তাহ না গড়াতেই ১৮ ফেব্রুয়ারি তামিমার প্রথম স্বামী রাকিব হাসান উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এবার নিলেন আইনি ব্যবস্থা।

Share

আরও খবর



ভৈরবে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ১৫

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | ৯১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের ১৫ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১০-১৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করেছে।

রবিবার দুপুর দেড়টার দিকে পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জগন্নাথপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফ আলী ও ফজুলর রহমানের সমর্থদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন ভৈরব থানার ওসি মো. শাহিন।

তিনি বলেন, সংঘর্ষে ১২-১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি করেছে। বর্তমানে পরিবেশ শান্ত রয়েছে বলে জানান ওসি।

নিউজ ট্যাগ: কিশোরগঞ্জ
Share

আরও খবর
তাড়াইলে একই রশিতে ঝুল‌ছিল মা-মে‌য়ের লাশ

মঙ্গলবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১




ইরাকে শান্তির জন্য মুসলিম-খ্রিস্টানদের এক হতে বললেন পোপ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ৫৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস শান্তির জন্য ইরাকের মুসলিম ও খ্রিস্টান ধর্মীয় নেতাদের বৈরিতা দূরে রেখে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। দক্ষিণ ইরাকে হজরত ইব্রাহিম (আঃ) এর ঐতিহাসিক জন্মভূমি ধ্বংসপ্রাপ্ত উর শহরে আন্তঃধর্মীয় নেতাদের মধ্যেকার এক বৈঠকে শনিবার (৬ মার্চ) তিনি এ আহ্বান জানান।

ধর্মীয় ও জাতিগত বিভেদ প্রভাবিত ইরাকে আন্তঃধর্মীয় সহিষ্ণুতা ও ভ্রাতৃত্বের বার্তাকে আরও জোরদার করতে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ ইরাকের ধ্বংসপ্রাপ্ত উর শহর ভ্রমণ করেন পোপ ফ্রান্সিস।

এসময় ধর্মীয় নেতাদের উদ্দেশে পোপ ফ্রান্সিস বলেন, স্রষ্টার ইবাদত করা এবং প্রতিবেশীদের ভালোবাসাই হলো প্রকৃত ধর্ম। মুসলিম, খ্রিস্টান, ইহুদী সবার নবী ইব্রাহিমের সন্তান হিসেবে শান্তির জন্য প্রার্থণা করতে, আমাদের উৎসে ফিরে যেতে, স্রষ্টার সৃষ্টির উৎসে, আমাদের ধর্মের জন্মের দিকে ফিরে যেতে উর শহরে একত্রিত হওয়া উপযুক্ত ছিল। শত্রুতা, উগ্রবাদ ও সহিংসতা ধর্মের হৃদয় থেকে জন্ম নেয় না, এগুলো ধর্মের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা।

নিউজ ট্যাগ: পোপ
Share

আরও খবর