আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

করোনায় ইসি গঠনে আইন প্রণয়ন সম্ভব নয় : আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আইনমন্ত্রী ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আইন প্রণয়ন করা সম্ভব নয়। আজ রোববার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি য়োজিতমিট ্য রিপোর্টার্সঅনুষ্ঠানে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি কথা বলেন।

আনিসুল হক লেন, নির্বাচন মিশন গঠনের জন্য আইনের প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু ১৫ ফেব্রুয়ারি বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সময়ের মধ্যে নির্বাচন মিশন গঠ করার লক্ষ্যে আইন করা সম্ভব নয়।

আইনমন্ত্রী লেন, এখনও কোভিড পরিস্থিতি বিদ্যমান। কোভিডের কারণে সংসদের সেশনও সংক্ষিপ্ত করা হয়। এত দ্রুত সময়ে সংসদে আলাপ-আলোচনা রে আইন করা অসম্ভব ব্যাপার।

আনিসুল হক বলেন, এবারও সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন মিশন গঠন করা হবে। রাষ্ট্রপতি সব দলের সঙ্গে আলাপ রে সার্চ মিটি গঠন রে থাকেন।

সার্চ মিটি গঠনের প্রেক্ষাপট তুলে রে আইনমন্ত্রী লেন, নির্বাচন মিশন গঠনে এতদিন আইন করা হয়নি। ২০১২ সালে রাষ্ট্রপতি সব রাজনৈতিক লের ঙ্গে আলোচনা রে কিভাবে নির্বাচন করবেন সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন। সিদ্ধান্তটা লো সার্চ মিটি গঠন। দলগুলোর কাছ থেকে নাম নিয়ে সার্চ মিটি গঠন করা হয়। সার্চ মিটির মাধ্যমে ঠিত নির্বাচন মিশনের মাধ্যমে দুটি নির্বাচনও লো।

আনিসুল হক আরও বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতিতে দেশে নির্বাচন য়েছে, কিন্তু সেটা নিয়েও রে বিতর্ক উঠেছে। এখন সার্চ মিটি নিয়ে কথা উঠছে। অথচ বর্তমান নির্বাচন মিশনে তাদের (বিএনপির) প্রস্তাবিত লোক য়েছে।

সার্চ মিটির মাধ্যমে নির্বাচন মিশন লে নির্বাচন সুষ্ঠু বে না বিএনপির এমন অভিযোগের জবাবে আইনমন্ত্রী লেন, আমি তাদের আশ্বস্ত রে বলতে চাই, দেশে নির্বাচন নিরপেক্ষ বে। অতীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকা আমলে জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ সুষ্ঠু য়েছে।

নিউজ ট্যাগ: আনিসুল হক

আরও খবর



মহালয়ার মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজার ক্ষণগণনা শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৬৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ বুধবার (৬ অক্টোবর) ভোরে দেবীর আবাহনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গাপূজার ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। চণ্ডীপাঠের মধ্য দিয়ে দেবী দুর্গার আবাহন করেন অনুসারীরা। শারদীয় দুর্গাপূজার একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ এই মহালয়া। মহালয়ার ছয়দিন পরেই শুরু হবে দেবীর আরাধনা।পঞ্জিকা অনুসারে, দেবী দুর্গা এবার আসবেন ঘোড়ায় চড়ে আর বিদায় নেবেন দোলায় চড়ে।

আগামী ১১ অক্টোবর সোমবার বোধনের মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। ওইদিনই ষষ্ঠী আর পরেরদিন ১২ অক্টোবর সপ্তমী। ১৩ অক্টোবর অষ্টমী, ১৪ অক্টোবর নবমী ও ১৫ অক্টোবর দশমীর দিন বিসর্জনের মধ্য দিয়ে পূজার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে।

শাস্ত্র অনুযায়ী, পিতৃপক্ষের শেষ দিনটিকে মহালয়া বলে। এ দিন পূর্বপুরুষদের উদ্দেশে তর্পণ করা হয়। কৃষ্ণপক্ষের সমাপ্তি ও শুক্লপক্ষ বা দেবীপক্ষের সূচনার আগের অমাবস্যাকে মহালয়া বলা হয়। যদিও এ নিয়ে নানা মত প্রচলিত রয়েছে। মহালয়ার দিনে দেবী দুর্গা মহিষাসুর বধের দায়িত্ব পান।

দিনটি উপলক্ষে আজ (৬ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টায় রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে মহালয়ার বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি। দেবীর আগমনী উপলক্ষে দিনটি উদযাপন করতে গুলশান বনানী সর্বজনীন পূজা পরিষদের আয়োজনে ভোরে বনানী মাঠে দেবীবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অপরদিকে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জানায়, গত বছর সারাদেশে দুর্গাপূজার মণ্ডপের সংখ্যা ছিল ৩০ হাজার ২১৩টি। এবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২ হাজার ১১৮টিতে। যা গত বছরের চেয়ে এক হাজার ৯০৫টি বেশি। আর ঢাকা মহানগরে পূজা মণ্ডপের সংখ্যা ২৩৮টি; যা গত বছর থেকে চারটি বেশি।


আরও খবর
আজ শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21

আজ শ্রী শ্রী লক্ষ্মীপূজা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




প্রতারণার মামলায় এবি ব্যাংকের ডিএমডি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৫ অক্টোবর ২০২১ | ৫৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রতারণার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় রাজধানীর গুলশানের নিজ বাসা থেকে এবি ব্যাংকের ডিএমডি আব্দুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) গুলশান থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বেলাল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এবি ব্যাংকের ডিএমডি আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে আদালতে এক ব্যক্তি একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করেছিলেন। সম্প্রতি এই মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থানায় এলে আজ সকালে তাকে তার গুলশানের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর হাজির করার উদ্দেশে গুলশান থানা পুলিশের একটি টিম তাকে আদালতে নিয়ে যাচ্ছে। আদালতে হাজির করে তাকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন করবে পুলিশ।

রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান এসআই বেলাল হোসেন।


আরও খবর



বিয়ের আগে বর-কনের যেসব স্বাস্থ্য পরীক্ষা জরুরি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা কিংবা রোগব্যাধির কারণে অনেক সময় বিয়ের পর দুজনের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়।

বিয়ের আগেই যদি কয়েকটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা যায় তাহলে আর দ্বিধা-দন্দ্বের মধ্যে থাকতে হয় না। এ কারণে বিয়ের আগে হবু বর ও কনের কয়েকটি মেডিকেল পরীক্ষা করা জরুরি। জেনে নিন কোন পরীক্ষাগুলো করবেন-

এইচআইভি:

বিয়ের আগে হবু বর ও কনের এইচআইভি পরীক্ষা করা অত্যন্ত জরুরি। এক্ষেত্রে রক্ত, শরীরের সিরাম নিয়ে পরীক্ষা করা হয়। এই পরীক্ষা করলে শরীরের রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা রোধকারী ভাইরাসের উপস্থিতি জানা যায়।

এইচআইভি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। এই ভাইরাস শরীরে থাকলে তার থেকে এইডস পর্যন্ত হতে পারে। অনেকেই আগে থেকে শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি টের পান না।

ফলে ওই ব্যক্তি যৌন সম্পর্ক করলে তা সঙ্গীর শরীরে এমনকি গর্ভের সন্তানেরও হতে পারে এইডস। যদি হবু বর বা কনের কারও এইচআইভি সংক্রমণ থাকলে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আরও কয়েকবার ভাবা উচিত।

নারীর ওভারি পরীক্ষা :

বর্তমানে অনেক নারীই বেশি বয়সে বিয়ে করেন। আবার অনেক নারীদের জীবনযাত্রাতেও এসেছে পরিবর্তন। অনেকেই এখন ধূমপান, মদ্যপান বা অন্যান্য নেশায় আসক্ত। তাই বিয়ের আগে নারীরর ওভারি টেস্ট করানো একান্ত প্রয়োজন।

ওভারিতে সমস্যা থাকলে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিম্বাণু তৈরির পরিমাণ কমতে শুরু থাকে। তাই বিয়ের পর সন্তান ধারণে সমস্যা হতে পারে।

বন্ধ্যাত্ব পরীক্ষা :

ভবিষ্যতে সন্তান হবে কি না তা জানতে হবু বর ও কনে দুজনারই বন্ধ্যাত্ব পরীক্ষা করানো প্রয়োজন। এই পরীক্ষা করলে পুরুষের শুক্রাণুর স্থিতি ও কাউন্ট কতটা আছে তা জানা যায়। সময় থাকতে থাকতে এর চিকিৎসাও করা যায়।

জেনেটিক টেস্ট :

বিয়ের আগে হবু বর ও কনে উভয়েরই জেনেটিক পরীক্ষা করানো প্রয়োজন। এই পরীক্ষা করলে জানা যাবে আপনার হবু সঙ্গীর কোনো জিনঘটিত সমস্যা আছে কি না।

এসটিডি পরীক্ষা :

নারী-পুরুষ উভয়েরই এসটিডি বা যৌন রোগের পরীক্ষা করা উচিত। বিয়ের আগে একাধিক সঙ্গীর সঙ্গে অসুরক্ষিত যৌন সম্পর্ক থাকলে এই পরীক্ষার মাধ্যমে তা জানা যায়।

রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা :

হবু বর ও কনের রক্ত পরীক্ষা করানো জরুরি। কারণ স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ একে অপরের সঙ্গে সামঞ্জস্য না থাকলে গর্ভাবস্থায় সমস্যা দেখা দেয়। এ কারণে বিয়ের আগে দুজনেরই আরএইচ ফ্যাক্টর একই হওয়া দরকার।

ব্লাড ডিসঅর্ডার পরীক্ষা :

বিয়ের আগে নারীর ব্লাড ডিসঅর্ডার পরীক্ষা করানো উচিত। এই পরীক্ষা করালে জানা যাবে হবু কনে রক্তাল্পতায় ভুগছেন কি না। কারণ সন্তান ধারণের জন্য শরীরে রক্তের পরিমাণ ঠিক থাকা দরকার।

থ্যালাসেমিয়া পরীক্ষা :

বিয়ের আগে হবু বর ও কনের থ্যালাসেমিয়ার পরীক্ষাও জরুরি। দুজনের মধ্যে একজনের শরীরেও যদি এই রোগ থাকে তাহলে সন্তানও এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা :

একটি সুখী দাম্পত্য জীবন গড়তে দুজনকে মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে হবে। বর্তমানে অনেকেই মানসিক নানা সমস্যায় ভোগেন।

কেউ হয়তো অতিরিক্ত রাগ করেন, আবার কারও সন্দেহপ্রবণতা বেশি, হঠাৎ হতাশ হয়ে পড়া, অবসন্নতা ইত্যাদি সমস্যা মানসিক রোগের কারণ হতে পারে।


আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




দেশে করোনায় মৃত্যু অনেক কমল

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন শনাক্ত, মৃত্যু এবং শনাক্তের হার অনেক কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৭ জন। এর আগে ২৬ মে একদিনে ১৭ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদফতর। সেই হিসাবে চার মাস পর গত ২৪ ঘণ্টায় একদিনে সর্বনিম্ন মৃত্যু হলো। একদিনে মৃত্যু ২০ এর নিচে নেমে এলো।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ১৭৮ জন, যা গতকাল (২৮ সেপ্টেম্বর) ছিল এক হাজার ৩১০ জন। ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার চার দশমিক ১২ শতাংশ, গতকাল শনাক্তের হার ছিল চার দশমিক ৪৯ শতাংশ।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৭ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন ২৭ হাজার ৪৮৭ জন এবং নতুন শনাক্ত হওয়া এক হাজার ১৭৮ জনকে নিয়ে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৫৫ হাজার ৫১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮৬ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ১৪ হাজার ৯৬২ জন।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৮ হাজার ২৬০টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৮ হাজার ৫৯৯টি। দেশে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৯৭ লাখ চার হাজার ৭২২টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৭১ লাখ ৫১ হাজার ৪৭টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৫ লাখ ৫৩ হাজার ৬৭৫টি।

দেশে করোনায় এখন পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ১৬ দশমিক দুই শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৪২ শতাংশ এবং মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৭ জনের মধ্যে পুরুষ ১০ জন আর নারী সাত জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৬৪৫ জন এবং নারী ৯ হাজার ৮৪২ জন।



আরও খবর
২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত‌্যু

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

ডেঙ্গু: আরও ১২৩ জন হাসপাতালে

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১




বিদেশিদের শর্ত মেনে নেবে তালেবান

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানে উচ্চশিক্ষার পীঠস্থান কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের দরজা নারীদের জন্য অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য নিয়োগ পাওয়া ৩৪ বছরের চ্যান্সেলর মোহাম্মদ আশরাফ ঘাইরাত টুইট করে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

তিনি গত ১৫ বছর ধরে তালেবানের সাংস্কৃতিক বিষয়াদির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। টুইটার বার্তায় চ্যান্সেলর মোহাম্মদ আশরাফ লেখেন, কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর হিসাবে আমি আপনাদের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যতদিন না সবার জন্য যথাযথ ইসলামি পরিবেশ নিশ্চিত না করা হবে, ততদিন নারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে পারবেন না।  সবার আগে ইসলাম।

এর আগে শনিবার যখন আফগানিস্তানে অনেক দিন পর সরকারি মাধ্যমিক স্কুল খুলে, শুধু ছেলে শিক্ষার্থীরাই যাওয়ার অনুমতি পেয়েছে। মেয়েরা কবে স্কুলে যেতে পারবে,  তা এখনও অনিশ্চিত।

অথচ তাদের ক্ষমতা দখলের পর গত দেড় মাস ধরে তালেবানের ওপর আন্তর্জাতিক মহল থেকে, বিশেষ করে পশ্চিমাদের কাছ থেকে যেসব দাবি-শর্ত দেওয়া হচ্ছে তার অন্যতম নারী শিক্ষা এবং তাদের কাজের অধিকার।

এমনকি যে দেশটির সমর্থন-স্বীকৃতি তালেবানের জন্য এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, সেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও কয়েক দিন আগে আফগানিস্তান এবং তালেবান নিয়ে  একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, নারী শিক্ষা বন্ধ করা অনৈসলামিক কাজ। পাকিস্তানের কাছ থেকে তালেবান সরকারের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি যে শর্তসাপেক্ষ তা তিনি স্পষ্ট করে বলে দেন।

কিন্তু বাইরের এসব কথায় আদৌ যে তালেবান কান দিচ্ছে তার কোনো লক্ষণ নেই। বরং তালেবানের কাছ থেকে জোর ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে যে স্কুল-কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের শিক্ষা নিতে হবে আলাদাভাবে এবং শুধু নারী শিক্ষকরাই তাদের পড়াতে পারবেন। আফগানিস্তান নারী শিক্ষকের সংখ্যা এতই কম যে তাতে এমনিতেই মেয়েদের শিক্ষার সুযোগ কমে যেতে বাধ্য।

এ দফায় বিদেশিদের সঙ্গে সম্পর্কে অনেক আগ্রহ দেখাচ্ছে তালেবান, কিন্তু বিদেশিদের কথাবার্তা তারা শুনছে না। কখনই তারা শুনেনি। আপনি নারী শিক্ষা বলুন, সংগীত বলুন আর আইনশৃঙ্খলা রক্ষার তরিকা বলুন, তারা তাদের পুরনো বিশ্বাস আদর্শ অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছে," বিবিসি বাংলাকে বলেন লন্ডনে আফগান সাংবাদিক এবং আফগান রাজনীতির বিশ্লেষক সৈয়দ আব্দুল্লাহ নিজামী।

তিন দিন আগে হেরাত শহরে চারজন সন্দেহভাজন অপহরণকারীকে মেরে তাদের মরদেহ রাস্তার মোড়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়। তার দুদিন আগে আমেরিকান বার্তা সংস্থা এপির সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তালেবানের এক সিনিয়র নেতা চুরি-ডাকাতির অপরাধে হাত কাটার বিধান চালুর পক্ষে কথা বলেন। অথচ তালেবান জানে দেশ চালানোর জন্য যাদের সাহায্য এবং স্বীকৃতি তাদের জন্য জরুরি, তারা এসব পছন্দ করবে না।

নিজামী বলেন, কাবুল দখলের আগে বা পরে যেসব তালেবান নেতার মুখের কথা শুনে মনে হচ্ছিল গত ২০ বছরের তাদের চিন্তা-চেতনায় হয়তো বেশ পরিবর্তন হয়েছে, তারা কেউ-ই ক্ষমতার কেন্দ্রে আসতে পারেননি। যারা এসেছেন তারা তাদের পুরনো মত-পথ থেকে সরেননি এবং চাপ দিয়ে তাদের নড়ানো কঠিন।

যে দেশটির জিডিপির ৪০ শতাংশই পশ্চিমা সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল, সেই সাহায্য গত দেড় মাস ধরে বন্ধ। আফগানিস্তানের ১০ বিলিয়ন ডলারের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আমেরিকা আটকে দিয়েছে।

বিশ্বব্যাংক এবং আইএমএফ আফগানিস্তানের জন্য তাদের জরুরি ঋণের নির্ধারিত কিস্তি স্থগিত করে দিয়েছে।

আটকে দেওয়া এসব টাকা এখন তালেবানের ওপর প্রভাব খাটানোর জন্য আমেরিকা এবং তার পশ্চিমা মিত্রদের প্রধান অস্ত্র।

 তারা বলছে, নারীদের শিক্ষা এবং কাজের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। নারী এবং আফগান সমাজের বিভিন্ন অংশকে ক্ষমতার ভাগ দিতে হবে।

এমনকি পাকিস্তান, রাশিয়া, ইরানসহ প্রতিবেশী দেশগুলোর কাছ থেকেও স্বীকৃতি এবং সমর্থনের শর্ত হিসাবে সরকারে বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠী, সংখ্যালঘু এবং নারী প্রতিনিধিত্বের দাবি করা হয়েছে।


নিউজ ট্যাগ: তালেবান

আরও খবর