আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

কঠোর বিধি-নিষেধের ১২তম দিনে আটক ৩৫৪

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | ৬৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধি-নিষেধের ১২তম দিনে প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া কিংবা বিভিন্ন নির্দেশনা অমান্য করায় ৩৫৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ১২০ জনকে ১ লাখ ৭৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সকাল থেকে দিনভর ডিএমপির বিভিন্ন থানা এলাকায় একযোগে পরিচালিত অভিযানে তাদের আটক ও জরিমানা করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম জানান, কঠোর বিধি-নিষেধের ১২তম দিনে ডিএমপির ৮টি বিভাগে বিভিন্ন থানা পুলিশ একযোগে অভিযান অব্যাহত রাখে। বিধি-নিষেধ অমান্য করার অভিযোগে সারাদিনে ৩৫৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১২০ জনকে ১ লাখ ৭৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে, ১২তম দিনে বিধি-নিষেধ অমান্য করায় ৫৩২ টি যানবাহনকে ১১ লাখ ২৩ হাজার টাকা জরিমানা করে ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ।

এ দফায় শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে শুরু হওয়া কঠোর বিধিনিষেধ চলবে আগামী ৫ আগস্ট দিনগত রাত ১২টা পর্যন্ত। এর মধ্যেই মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) এ বিধি-নিষেধ আরও পাঁচদিন বাড়িয়ে ১০ আগস্ট পর্যন্ত করেছে সরকার।


আরও খবর
ই-অরেঞ্জ গ্রাহকদের পুলিশের লাঠিপেটা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




মৎস্যসম্পদের বহুমুখী ব্যবহারের ক্ষেত্র সৃষ্টি করতে হবে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩১২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করার জন্য মৎস্যসম্পদের বহুমুখী ব্যবহারের ক্ষেত্র সৃষ্টি করতে হবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি। শুক্রবার (০৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।


এ বিষয়ে মন্ত্রী আরো বলেন, মৎস্যসম্পদের বহুমুখী ব্যবহারের ক্ষেত্র সৃষ্টির জন্য আমাদের কাজ করতে হবে। শুধু ভাতের সাথে মাছ খাওয়া নয়, মাছ থেকে কী কী পণ্য তৈরি করা যায় সেটা নিয়ে গবেষণা করতে হবে। পৃথিবীর অনেক দেশে মৎস্য ও মৎস্যজাতীয় জলজ সম্পদ থেকে বিভিন্ন বেকারি পণ্য তৈরি হচ্ছে। মাছ থেকে চিপস, ফিস বল বা অন্যান্য খাবার তৈরি করা যেতে পারে। মাছের বহুবিধ ব্যবহারে মানুষকে আকৃষ্ট করতে হবে। অনেকে স্বাভাবিকভাবে মাছ খায়না কিন্তু রেস্তোরায় মাছ দিয়ে তৈরি খাবার খেতে চায়। পুষ্টি চাহিদা পূরণে এক প্রক্রিয়ায় মাছ না খেলে মানুষকে অন্য প্রক্রিয়ায় খাওয়াতে হবে। আমরা চাই মাছের বহুমুখী পণ্যের বিকাশ হোক।


দেশের বাইরে থেকে আমদানি করা মৎস্য খাদ্য উপকরণ দেশে তৈরির শিল্প স্থাপনে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার জন্য এ সময় আহ্বান জানান মন্ত্রী। কর অব্যাহতি সুযোগসহ রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে যে ধরনের সহযোগিতা লাগবে তা দেওয়া হবে বলেও এসময় আশ্বস্ত করেন তিনি। আমাদের মৎস্যসম্পদ বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় কোন অংশে কম নয় উল্লেখ করে দেশের সমুদ্র অঞ্চল, বদ্ধ জলাশয় ও উন্মুক্ত জলাশয়সহ মৎস্য চাষ উপযোগী সব ক্ষেত্রের সর্বোচ্চ ব্যবহারের জন্য সৃজনশীল কাজ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন মন্ত্রী।


এ সময় মন্ত্রী বলেন, মৎস্য খাতের যে কোন সমস্যা সমাধানে সরকারের পক্ষ থেকে যা কিছু করণীয় সেটা করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চান তাঁর সরকার আমলে মৎস্য খাত বিকশিত হোক। সেজন্য তিনি এ খাতে সকল সহযোগিতার দ্বার উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। মৎস্যজীবী নয় এমন মানুষের কার্ড বাতিল করে প্রকৃত মৎস্যজীবীদের কার্ড দেয়া এবং তাদের কাছে যথাযথভাবে সরকারি সহযোগিতা পৌঁছে দেওয়ার ব্যাপারে পূর্বের চেয়ে বেশি গুরুত্বারোপ করে আমরা কাজ করছি।


এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, বিদেশে মৎস্য রপ্তানির ক্ষেত্রে দেশের স্বার্থে রপ্তানির সাথে সংশ্লিষ্টদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। যাতে কোন রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান জাল সনদ অথবা রাসায়নিক মিশ্রিত মৎস্য রপ্তানি না করে। মৎস্য খাতে কিছু অসাধু ব্যক্তির কারণে ভালো কাজ করা ব্যক্তিরা ক্ষতিগ্রস্ত হন। তাদের বিরুদ্ধে তথ্য দিলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ খাতে ভালো কাজ করা ব্যক্তিদের আমরা সহযোগিতা করতে চাই।


এ সময় তিনি বলেন, মৎস্য খাত সংশ্লিষ্টদের উদ্বুদ্ধ করা, উচ্ছ্বসিত করা ও কাজে সম্পৃক্ত করা, এ খাতের প্রতি জনগণকে আগ্রহী করে তোলা এবং এ খাতের সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানের মাধ্যমে খাতটিকে গতিশীল করার জন্য প্রতি বছর মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন করা হয়। পাশাপাশি এ খাতে উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করাও মৎস্য সপ্তাহের অন্যতম লক্ষ্য। করোনায় সৃষ্ট বেকারত্ব দূর করতে মৎস্য খাত গুরুত্বপূর্ণ একটা ক্ষেত্র হতে পারে। এ কারণে এ বছর মৎস্য সপ্তাহে বিষয়টিকে প্রতিপাদ্য হিসেবে রাখা হয়েছে।


মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য ও জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২১ উদযাপনের সাথে সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের বাস্তবায়িত কার্যক্রম তুলে ধরেন মৎস্য অধিদপ্তরের পরিচালক (অভ্যন্তরীণ মৎস্য) আজিজুল হক। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনিস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ, মৎস্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগের উপপরিচালক মোঃ আনিছুর রহমান তালুকদার, যশোর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আনিছুর রহমান, ফিড ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ এর সদস্য সচিব মোঃ আহসানুজ্জমান, বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আমানউল্লাহ, বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি সাইদুর রহমান অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ২০৪১ সালের মধ্যে মাছের উৎপাদন দ্বিগুণ করার প্রত্যয়ের কথা জানান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ। 


মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও মোঃ তৌফিকুল আরিফসহ মন্ত্রণালয় ও মৎস্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকতাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া মাঠ পর্যায়ের মৎস্য কর্মকর্তাগণ ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে সংযুক্ত ছিলেন।



আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




সড়কে প্রাণ গেল এসআইয়ের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | ৭৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নেত্রকোনায় ইঞ্জিনচালিত ভ্যানগাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষে মো. হাবিবুর রহমান (৪০) নামের পুলিশের এক এসআই নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে নেত্রকোনা-বারহাট্টা সড়কের সদর উপজেলার সতরশ্রী প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

হাবিবুর রহমান বারহাট্টা থানায় কর্মরত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার বেতগাছিয়া এলাকায়। তিনি ২০০০ সালের ১৯ মে কনস্টেবল হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন।

গত এক বছর আগে এসআই হিসেবে বারহাট্টা থানায় যোগদান করেন হাবিবুর। এর আগে আটপাড়ায় কর্মরত ছিলেন। তার এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। গত বছরের ৩০ এপ্রিল তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হাবিবুর বৃহস্পতিবার রাতে দাপ্তরিক কাজ সেরে নেত্রকোনা থেকে মোটরসাইকেলে করে বারহাট্টা থানায় আসছিলেন। পথে রাত আটটার দিকে নেত্রকোনা-বারহাট্টা সড়কের সতরশ্রী প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকায় এলে বিপরীত দিক থেকে আসা ইঞ্জিনচালিত একটি ভ্যানগাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে তিনি মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে সড়কে পড়ে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে রাত পৌনে ১০টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বারহাট্টা থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান শুক্রবার সকালে জানান, এসআই হাবিবুর রহমানের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে তার কর্মস্থল বারহাট্টা থানা প্রাঙ্গণে এনে রাখা হয়েছে। পুলিশ লাইন্সে জানাজা শেষে তার গ্রামের বাড়ি ধোবাউড়ার বেতগাছিয়ায় পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হবে।



আরও খবর
বিস্কুটের কার্টন থেকে নবজাতক উদ্ধার

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

বগুড়ায় ধানক্ষেতে মিলল নারী ইউপি সদস্যের লাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধুর নামে বেঞ্চ উৎসর্গ-বৃক্ষরোপণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর 20২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর সম্মানে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের উত্তরের লনের বাগানে সোমবার সকালে একটি বেঞ্চ উৎসর্গ এবং একটি পর্ণমোচী বৃক্ষরোপণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর ১৭ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশকে জাতিসংঘ স্বীকৃতি দিয়েছে। স্বীকৃতি পাওয়ার পরপরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ২৫ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে আসেন এবং বাংলায় ভাষণ দেন।

শেখ হাসিনা বলেন, কাজেই সেপ্টেম্বর মাসেই আজ সদর দপ্তরের সুন্দর একটি জায়গায় বৃক্ষরোপণ করা হলো এবং একটি বেঞ্চ তাঁর নামে উৎসর্গ করা হলো। গাছটি শতবর্ষেরও বেশি টিকে থাকবে এবং শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিতে থাকবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলম এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এর আগে জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে রোববার বিকেলে নিউইয়র্কে পৌঁছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সাধারণ বিতর্কের উদ্বোধনী অধিবেশনে যোগ দেবেন। ২৪ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) প্রধানমন্ত্রী সকালে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে বক্তব্য দেবেন।

২৫ সেপ্টেম্বর (শনিবার) হাসিনা সকাল ৮টায় বিমানের একটি ফ্লাইটে ওয়াশিংটন ডিসির উদ্দেশে নিউইয়র্ক ত্যাগ করবেন। তিনি ২৫ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থান করবেন।

শেখ হাসিনা ৩০ সেপ্টেম্বর ওয়াশিংটন থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন এবং ফিনল্যান্ডে যাত্রাবিরতির পর ১ অক্টোবর দেশে ফিরবেন।


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




দুই বছরের চুক্তিতে ম্যানইউতে ফিরছেন রোনালদো!

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে কেনার দৌড় থেকে সরে গেল ম্যানচেস্টার সিটি। ইংলিশ জয়ান্টরা ইতিমধ্যে সে কথা জানিয়ে দিয়েছে। তারা বলেছে, রোনালদো সিটিতে আসছেন না। এক্ষেত্রে ক্লাবের অবস্থান স্পষ্ট।

স্কাই স্পোর্টসের সাংবাদিক ও ফুটবলারদের ট্রান্সফার বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ফেবরিজোও রোমানো সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে এক টুইট বার্তায় তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। ফুটবল বিষয়ক গণমাধ্যমগুলোতেও একই খবর।

ফেবরিজোও রোমানো জানান, ব্যক্তিগত চুক্তির বিষয়ে উভয় পক্ষ (রোনালদো ও ম্যানচেস্টার সিটি) কখনো রাজি হয়নি। একই কথা জুভেন্টাসের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। এমনকি তারা সিটির কাছ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব পাননি।

অপর এক টুইট বার্তায় তিনি জানান, রোনালদোর কাছে চুক্তিপত্রসহ আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব পাঠাতে প্রস্তুতি নিচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। শিগগিরই সেটি গ্রহণ করবেন পর্তুগিজ অধিনায়কের ম্যানেজার হোর্হে মেন্ডেস। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ফুটবলারকে পেতে ম্যানইউ কর্তৃপক্ষ আত্মবিশ্বাসী।

আরও একটি টুইটে তিনি জানান, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তার ম্যানেজারকে বলেছেন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিতে তিনি প্রস্তুত। পুরনো ক্লাবে ফেরার জন্য তিনি মুখিয়ে আছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত ম্যানইউর সঙ্গে চুক্তি করবেন রোনালদো। টুইটে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




‘অদ্ভুত’ আকৃতির শিশুর জন্ম নিয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে

প্রকাশিত:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | ৮৫৫জন দেখেছেন
Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আব্দুল্লাহ আল মামুন:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ছেলেদের পুরুষাঙ্গ ও মেয়েদের যৌনাঙ্গসহ অর্ধেক মাথা নিয়ে জন্ম নিয়েছে এক বিরল শিশু। শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার মহানন্দা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অদ্ভুত এ শিশুটির জন্ম হয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার বালুগ্রাম দক্ষিণটোলা গ্রামের ভ্যানচালক নাসির হোসেনের স্ত্রী জিন্নাতুন খাতুন (২৪) শিশুটির জন্ম দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রসব ব্যথা উঠলে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ওই প্রসূতিকে ক্লিনিকে ভর্তি করে পরিবারের লোকজন। বাচ্চা প্রসবের নির্ধারিত সয়মের বেশি ২ দিন পার হওয়ায়, সিজার করার সিদ্ধান্ত নেয় চিকিৎসক ডা. হাসেম আলী।

সিজারে অংশ নেয়া নার্স (সেবিকা) ফাতেমা খাতুন জানান, অপারেশন থিয়েটারে সিজার করার সময়ই দেখতে পাই শিশুটির পুরুষাঙ্গ ও যৌনাঙ্গ দুটিই আছে। অপরদিকে বাচ্চাটির সম্পূর্ণ মাথা নেই। অসম্পূর্ণ মাথা নিয়েই জন্ম হয়, যা রয়েছে সম্পূর্ণ মাথার অন্তত এক-তৃতীয়াংশ। মাথার ভেতরে থাকার কথা থাকলেও, তা আছে বাইরে আরেকটি থলেতে।

ফাতেমা আরও জানান, আমার জীবনের প্রথম এমনটা দেখলাম। আমি সত্যিই অবাক হয়ে গেছি। এ খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে গেলে হুলস্থুল কাণ্ড দেখা দেয়। মেডিকেলের সামনে উৎসুক জনতার ভীড় জমে যায়।

ওই প্রসূতির দুলাভাই আলামিন জানান, তাদের এটি দ্বিতীয় সন্তান। এর আগে একটি ছেলে সন্তান আছে। গর্ভধারণের ১৫ সপ্তাহ পরে আলট্রাসোনোগ্রামের মাধ্যমে জানতে পারি ভ্রুণটি অদ্ভুত আকৃতির। সদ্য জন্ম নেয়া শিশুটির মাথা নেই বললেই চলে, কপাল থেকেই শেষ হয়েছে। মগজ আলাদাভাবে একটি থলেতে আছে।

মহানন্দা ক্লিনিক এ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শ্রী নন্দন কুমার কর্মকার জানান, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে আমাদের ক্লিনিকে বহু সিজার হয়েছে। কিন্তু নাসির হোসেনের ও জিন্নাতুন খাতুন দম্পতির শিশুটি অদ্ভুত আকৃতি ও অঙ্গ নিয়ে জন্ম নিয়েছে। বর্তমানে মা ও শিশু দুইজনেই সুস্থ রয়েছে।

বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম রাব্বানী জানান, এমন ঘটনা খুবই বিরল। উভয় লিঙ্গ নিয়ে জন্ম নেয়ার ঘটনা চিকিৎসা বিজ্ঞানে একেবারেই অদ্ভুত। মাথার খুলির পরিপক্বতা না পেলে মগজ আলাদা হয়ে থাকতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: চাঁপাইনবাবগঞ্জ

আরও খবর