আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | ২১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক


চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের এক শিশু শিক্ষার্থীকে শিক্ষকের নির্মম নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। মায়ের কাছে ছুটে যাওয়ায় মো. ইয়াসিন ফরহাদ (৮) নামে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে অমানবিকভাবে পিটিয়েছেন ওই শিক্ষক। এই ঘটনায় সমালোচনার ঝড় বইছে। এদিকে এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে হাটহাজারী পৌরসভার ফটিকা গ্রামের মারকাজুল কোরআন ইসলামিক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ওই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়াকে আটক করে পুলিশ। তবে ওই শিক্ষার্থীর বাবা-মা অভিযুক্ত ওই মাদ্রাসাশিক্ষককে ক্ষমা করে দিয়েছেন মর্মে একটি লিখিত বক্তব্য দেয়ায় প্রশাসন এ ঘটনায় দোষী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি।

এর আগে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে মায়ের পেছনে ছুটে যাওয়ার কারণে ওই শিক্ষক অমানুষিকভাবে হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে প্রহার করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে দেখতে যায় তার মা পারভিন আক্তার। দেখা শেষে ফিরে আসার সময় ইয়াসিন ফরহাদ তার মায়ের পেছন পেছন ছুটে আসে। এ সময় হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়া তাকে ধরে এনে বেদম প্রহার করে। এদিকে ওই শিক্ষার্থীর ওপর শিক্ষকের অমানুষিকভাবে বেদম প্রহারের একটি ৩৩ সেকেন্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, তাকে নির্মমভাবে প্রহার করা হচ্ছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অনেকেই। তবে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিষয়ে একাডেমিপ্রধানের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



আপত্তিকর পোস্টের জন্য ক্ষমা চাইলেন মিস ইউনিভার্স

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ১২৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পুরুষের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে প্রকাশের ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০ তানজিয়া জামান মিথিলা। ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড আইডি থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষমা চান তিনি। অবশ্য পরে সেই স্ট্যাটাসটি হাইড করে ফেলেন।

মিথিলা গণমাধ্যমকে জানান, আমি যেটাই করেছি ভুল করেছি। আমি মাফ চাইছি। মানুষ ভুল করে এটাই স্বাভাবিক। কেউ ভুল করে যদি মাফ চায় তারপর তো আর প্যাঁচানোর কিছু নাই। মানুষ ছোট থাকতে বা অনেকে না বুঝে ভুল করে ফেলে। মানুষ যদি কারও কাছে মাফ চায় সেখানে আমরা মাফ করে দিতেই পারি।

যে পুরুষের ভিডিওচিত্র ধারণ করা হয়েছিল তাকে কাছের বন্ধু বলে দাবি করেছেন মিথিলা। তিনি বলেন, ও যদি বিষয়টাকে হয়রানি মনে না করে তাহলে মানুষ কেন আমাকে বিচার করবে যে, আমি হয়রানি করেছি তাকে। তারপরও আমি মাফ চেয়েছি।

আগামী ১৬ মে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য মিস ইউনিভার্স ২০২০ প্রতিযোগিতার মূল মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন মিথিলা।


আরও খবর



ভ্রু কেটে নতুন স্টাইলে হাজির হলেন মাহি

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি এবার নতুন স্টাইলে হাজির হলেন। ভ্রু কেটে নিজেকে ভিন্ন লুক দিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) মাহি নিজের নতুন লুকের বেশকিছু ছবি প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে। যেখানে তার ভ্রুর কোণায় স্টাইল করে কাঁটা দেখা যাচ্ছে। নিজেকে এই লুকে কেমন লাগছে, তাও জানতে চান তিনি। তবে এই লুক কোনো নতুন সিনেমার জন্য কিনা, সেটা উল্লেখ করেননি তিনি।

ছবির ক্যাপশনে মাহি লেখেন, আয় হায় করসি কি আমি! কেমন লাগে?

ছবিগুলোর কমেন্ট বক্সে অসংখ্য ইতিবাচক ও নেতিবাচক দুই ধরনের কমেন্টই পড়েছে। তবে কোনোটিরই রিপ্লাই দেননি এই অভিনেত্রী।

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহির নানা পাগলামী বিভিন্ন সময়েই ভক্তরা সামাজিক মাধ্যমে দেখে থাকেন। কিছুদিন আগে একসঙ্গে একশ বাঁধাকপি কিনে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন মাহি। গাড়ি ভর্তি করে বাঁধাকপি নিয়ে গেছেন নিজের গ্রামের বাড়িতে। পরে অবশ্য এতো বাঁধাকপি তিনি কী করেছিলেন, তা জানা যায়নি।  

নিউজ ট্যাগ: মাহিয়া মাহি

আরও খবর



১০ ওভারে ১৪২ রানের টার্গেট নিয়ে খেলবে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বরাবরের মতো শেষ টি-টোয়েন্টিতেও একের পর এক ক্যাচ মিস করছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের এই সুযোগ ভালোভাবেই কাজে লাগাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানেরা। ঝড়ের বেগে রান তুলছে টিম সাউদির দল।

ব্যক্তিগত ১৯ রানে ফিন অ্যালেনের ক্যাচ ছাড়েন রুবেল। এরপর আরেকটি ক্যাচ ছাড়েন মেহেদি হাসান। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ এক উইকেটে ৮৫ রান।

বৃষ্টির কারণে কমে গেছে ম্যাচে দৈর্ঘ্য। ২০ ওভারের বদলে ম্যাচটি রূপ নিয়েছে টি-টেনে। অর্থাৎ খেলা হবে ১০ ওভারের, এর মধ্যে পাওয়ার প্লে হবে তিন ওভার। ম্যাটিতে টস গড়িয়েছে বাংলাদেশ সময় দুপুর একটা ৫৫ মিনিটে। খেলা শুরুর সময় ২টা ১০ মিনিট।

বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ে মাঠে গড়ায়নি বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার সিরিজে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। মাঝে বৃষ্টি থেমেছিল। তখন মাঠ পরিদর্শনেও নামেন আম্পায়াররা। কিন্তু মাঠ পরিদর্শনের কিছুক্ষণের মাথায় ফের বৃষ্টি হয়। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পর অবশেষে ১০ ওভারের ম্যাচে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। একই দিনে এই মাঠে আজ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড নারী দলের টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে যায়।

ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশড হওয়ার পর টি-টোয়েন্টি সিরিজও এর মধ্যে হেরে বসেছে বাংলাদেশ। কোনো ম্যাচেই তেমন লড়াই জমাতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার সফরের শেষ ম্যাচে কিছু করতে পারে কি না সেটাই দেখার।

তবে ম্যাচটির আগে বড় দুঃসংবাদ পেল বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে চোটের কারণে ছিটকে গেলেন নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। অধিনায়কের বদলে সফরের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন লিটন দাস। বাংলাদেশের সপ্তম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে আজ মাঠে নামবেন ডানহাতি এই ওপেনার।


আরও খবর



পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বাংলাদেশ সফর স্থগিত

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের আসছে বাংলাদেশ সফর অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। যৌথভাবে এমনটি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরি সংবাদিকদের জানান, পরিস্থিতির উন্নতি হলে নতুন সূচিতে সিরিজটি আয়োজন করতে চান তারা।

তিনি বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। যেকোনো একটা সুবিধাজনক সময়ে সিরিজ আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে এবং সেভাবেই কথাবার্তা হচ্ছে। যখনই একটা আন্তর্জাতিক দলকে হোস্ট করার মতো পরিস্থিতি অনুকূলে মনে করব তখনই আমরা করে ফেলব।

এর আগে একটি চার দিনের ম্যাচ ও পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে রোববার বাংলাদেশে আসার কথা ছিল পাকিস্তান যুবাদের। দেশে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে গত সোমবার থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন দেয় বাংলাদেশ সরকার। তাতে পাকিস্তানের দলটির সফর পিছিয়ে যায় ছয় দিন।


আরও খবর



‘বঙ্গবন্ধুকে রক্ষার ব্যর্থতাই দেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থান ঘটিয়েছে’

প্রকাশিত:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুকে রক্ষার ব্যর্থতাই সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থান ঘটিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

শনিবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের বিরোধীতা, রাষ্ট্রদ্রোহিতা তুল্য অপরাধ শীর্ষক ওয়েবিনারে রাজধানীর বেইলী রোডের সরকারি বাসভবন থেকে সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি সাংবাদিক শাহরিয়ার কবিরের সঞ্চালনায় বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের রচয়িতা ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম, নির্মূল কমিটির সহ-সভাপতি বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন, সংসদ সদস্য অ্যারোমা দত্ত, বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী, ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, শহীদজায়া পান্না কায়সার, শহীদসন্তান আসিফ মুনীর, দীপক কুমার, আব্দুল হাই, লক্ষ্মী চ্যাটার্জী প্রমুখ ওয়েবিনারে অংশগ্রহণ করেন।

এসময় শ ম রেজাউল করিম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। সে ঘোষণাটি ১০ এপ্রিল গঠিত স্বাধীন বাংলা সরকার তথা মুজিব নগর সরকার অনুমোদন দেয় এবং এ আলোকে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র প্রণয়ন করা হয়। স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও ন্যায় বিচারের কথা উল্লেখ করা ছিল। স্বাধীন বাংলাদেশের সংবিধান বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে প্রণয়নও অনুমোদনের পূর্ব পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা ও ঘোষণাপত্রই ছিল অন্তর্বর্তীকালীন সংবিধান। তার ভিত্তিতেই পরিচালিত হয়েছিল স্বাধীন বাংলা সরকার। সে সরকারের সঙ্গেই ভারতের মৈত্রী চুক্তি হয়।

তিনি আরো বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ভিত্তি ছিল বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা। এ ঘোষণা এবং স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র আমাদের সংবিধানের অবিচ্ছেদ্য অংশ। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর খুনি মোশতাক ও পরবর্তীতে জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে ক্ষমতায় এলেও বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা নিয়ে তারা কোন বিতর্ক তোলেন নি। কিন্তু জিয়ার মৃত্যুর পরে তার তৈরি বিএনপিতে স্বাধীনতাবিরোধী ও প্রতিক্রিয়াশীলদের সম্পৃক্ত করার পরই বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণাকে বিতর্কিত করার উদ্দেশ্যে জিয়াউর রহমানের কথিত স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠকে স্বাধীনতার ঘোষণা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার অপচেষ্টা চালানো হয়।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের বাইরে ২৬ বছর ক্ষমতায় থাকা সরকারগুলো সুপরিকল্পিতভাবে বঙ্গবন্ধুর কীর্তিকে ছোট করে জিয়াকে বড় বানানোর জঘন্য চেষ্টা অব্যাহত রাখে। সাম্প্রতিক সময়ে স্বাধীনতাবিরোধী ও উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থানের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুকে রক্ষা করতে না পারাই অন্যতম কারণ। স্বাধীনতা পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি নানা মত ও দলে বিভক্ত হলেও স্বাধীনতাবিরোধীরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছে কঠিনভাবে।-যোগ করেন শ ম রেজাউল করিম।

শ ম রেজাউল করিম এ সময় আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি যেভাবে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন ও স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছিল, স্বাধীনতা পরবর্তীতে তাদের কেউ কেউ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সম্মিলিতভাবে রাষ্ট্র পরিচালনা ও পুনর্গঠনে ভূমিকা না রেখে বরং যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করেছিল। সেই সুযোগে স্বাধীনতাবিরোধী দেশি-বিদেশী চক্র বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশকে হত্যা করেছিল। এ জন্য সাম্প্রতিক সময়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থান নতুন করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকলকে একাত্তর সালের মতো ঐক্যবদ্ধ হবার তাগিদ দিচ্ছে।

ওয়েবিনারের প্রধান বক্তা ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম স্বাধীনতার মূল লক্ষ্যকে কোমলমতি শিশু থেকে শুরু করে সর্বস্তরে পৌঁছে দেয়ার আহ্বান জানান।

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন এ সময় প্রদত্ত বক্তব্যে আমলা ও ব্যবসায়ীদের খপ্পরে রাজনীতি আটকে পড়েছে উল্লেখ করে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দাবী করেন।

বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী এ সময় তার বক্তব্যে অবিলম্বে মামুনুল হক ও বাবু নগরীদের গ্রেফতারের দাবী জানান।


আরও খবর