আজঃ মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক


চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের এক শিশু শিক্ষার্থীকে শিক্ষকের নির্মম নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। মায়ের কাছে ছুটে যাওয়ায় মো. ইয়াসিন ফরহাদ (৮) নামে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে অমানবিকভাবে পিটিয়েছেন ওই শিক্ষক। এই ঘটনায় সমালোচনার ঝড় বইছে। এদিকে এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে হাটহাজারী পৌরসভার ফটিকা গ্রামের মারকাজুল কোরআন ইসলামিক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ওই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়াকে আটক করে পুলিশ। তবে ওই শিক্ষার্থীর বাবা-মা অভিযুক্ত ওই মাদ্রাসাশিক্ষককে ক্ষমা করে দিয়েছেন মর্মে একটি লিখিত বক্তব্য দেয়ায় প্রশাসন এ ঘটনায় দোষী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি।

এর আগে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে মায়ের পেছনে ছুটে যাওয়ার কারণে ওই শিক্ষক অমানুষিকভাবে হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে প্রহার করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে দেখতে যায় তার মা পারভিন আক্তার। দেখা শেষে ফিরে আসার সময় ইয়াসিন ফরহাদ তার মায়ের পেছন পেছন ছুটে আসে। এ সময় হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়া তাকে ধরে এনে বেদম প্রহার করে। এদিকে ওই শিক্ষার্থীর ওপর শিক্ষকের অমানুষিকভাবে বেদম প্রহারের একটি ৩৩ সেকেন্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, তাকে নির্মমভাবে প্রহার করা হচ্ছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অনেকেই। তবে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিষয়ে একাডেমিপ্রধানের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



যান্ত্রিক ত্রুটিতে ডিএসইর লেনদেন বন্ধ

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কারিগরি ত্রুটির কারণে স্বাভাবিক লেনদেনে বন্ধ রয়েছে। রবিবার (১৮ জুলাই) বেলা ১১টা ৯ মিনিট থেকে লেনদেন বন্ধ রয়েছে।

এ বিষয়ে ডিএসইর ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মতিন পাটোয়ারী বলেন, আমাদের সফটওয়্যারের ম্যাচিং ইঞ্জিনে সমস্যা দেখা দিয়েছে। সমস্যা চিহ্নিত করতে পেরেছে আমাদের আইটি টিম। বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।  তবে তা সমাধানে কত সময় লাগবে তা নিশ্চিত বলা যাচ্ছে না বলে জানান তিনি।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, বেলা ১১ টার পর থেকে কিছুটা সমস্যা শুরু হয়েছে।  তবে বেলা সাড়ে ১১ টার পর থেকে সফটওয়্যার সিস্টেমটি একেবারে ডাউন হয়ে গেছে।  ফলে ডিএসইতে লেনদেন বন্ধ হয়ে যায়।

এর আগে গত বছর ১৮ আগস্ট বিকেলে ডিএসইর আপডেট ভার্সনের ওয়েবসাইট উদ্বোধনের পরেই বড় সমস্যায় পড়ে বিনিয়োগকারীরা। ওই উদ্বোধনের পরে ১৯ ও ২০ আগস্ট ভোগান্তিতে পড়েন বিনিয়োগকারীরা।  আপডেট সাইটটি খুব ব্যবহারবান্ধব ও রেসপনসিভ হবে বলে জানানো হলেও ওই দুইদিন ভোগান্তিতে পড়েন তারা। ওই ভোগান্তির কারণে গত ২৪ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. মুস্তাফিজুর রহমানকে আহ্বায়ক করে তদন্ত কমিটি করে বিএসইসি।  ওই কমিটি তদন্ত করে প্রতিবেদন কমিশনে জমা দেয়।



আরও খবর



কিউবাকে ‘ধ্বংস’ করার মার্কিন প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে: প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিউবাকে ধ্বংস করার সাম্প্রতিক মার্কিন প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল দিয়াজ-কানেল। শুক্রবার তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে দেয়া এক পোস্টে লিখেছেন, ওয়াশিংটন শত শত কোটি ডলার খরচ করে কিউবাকে ধ্বংস করতে চেয়েও ব্যর্থ হয়েছে। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন কিউবাকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে অভিহিত করার একদিন পর প্রেসিডেন্ট দিয়াজ-কানেল এমন প্রতিক্রিয়া জানালেন।

কিউবার প্রেসিডেন্ট তার টুইটার পোস্টে লিখেছেন, একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র এমন একটি রাষ্ট্র যার প্রতিক্রিয়াশীল সংখ্যালঘুদের খুশি করতে এবং ব্ল্যাকমেইল করার জন্য কিউবার এক কোটি ১০ লাখ জনগণ তথা সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠীর ক্ষতি করার চেষ্টা করা হয়।

কিউবার প্রেসিডেন্ট তার দেশের বিরুদ্ধে ১৯৬২ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞার প্রতি ইঙ্গিত করে যা সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে পুনরায় কার্যকর করা হয়।

বাইডেন বৃহস্পতিবার তার বক্তব্যে নিজের জনগণের ওপর নিপীড়ন চালানোর জন্য হাভানাকে অভিযুক্ত করে বলেন, কিউবায় ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর যে বিধিনিষেধ রয়েছে তা জোর করে তুলে দেয়ার চেষ্টা চালাবে তার প্রশাসন।

এর প্রতিক্রিয়ায় প্রেসিডেন্ট দিয়াজ-কানেল বলেন, কিউবার জনগণের জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের যদি বিন্দুমাত্র দরদ থাকতো তাহলে তিনি ট্রাম্পের শাসনামলে আরোপিত ২৪৩টি নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতেন। এসব নিষেধাজ্ঞার মধ্যে অন্তত ৫০টি আরোপ করা হয়েছে করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর।

কিউবায় সম্প্রতি টানা পাঁচদিন ধরে সরকার বিরোধী সহিংসতায় অন্তত একজন নিহত ও বেশ কিছু লোক আহত হয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনী অন্তত ১০০ জনকে আটক করেছে। প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল দিয়াজ-কানেল সরকার এই সহিংসতার জন্য সরাসরি যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে।


আরও খবর



সাতক্ষীরায় করোনা ও উপসর্গে আরও ৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৪৯

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
Image

সাতক্ষীরা থেকে দিলীপ কুমার দেব:

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ২ নারীসহ আরো ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে জেলায় বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৮৫ জন। আর উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৫৩৬ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে ও করোনা আক্রান্তরা  জুলাই মাসের মধ্যে বিভিন্ন সময়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯ জুলাই বিভিন্ন সময়ে তাদের মৃত্যু হয়।

সামেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, ৩০ জুলাই সকাল পর্যন্ত মোট ১৬৫ জন রোগী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ১০ জন করোনা পজেটিভ ও বাকি ১৫৫ জন সাসপেক্টেড। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ২৪ জন ও সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৫১ জন। নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি আছে ৭ জন।

এদিকে সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় ১৬২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ২৫শতাংশ।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ও জেলা করোনা বিষয়ক তথ্য কর্মকর্তা ডাঃ জয়ন্ত কুমার সরকার জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা উপসর্গে ৩ জন ও করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে একজন। জেলার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড এন্টিজেন কীটে ১৬২ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৪৯ জনের করোনা সনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ২৫ শতাংশ।


আরও খবর



করোনা : সাতক্ষীরায় ১০ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১১১

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | ১২৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাতক্ষীরা থেকে দিলীপ কুমার দেব:

গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ১০ জন মারা গেছেন। ৪০৬ টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১১ টি পজেটিভ এসেছে। যার শতকরা হার ২৭ দশমিক ৩৪ শতাংশ।

এদিকে সাতক্ষীরায় ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে ৭ম দিনের চলমান লকডাউন। শহরের হাটবাজার গুলোতে লকডাউন উপেক্ষা করে প্রচুর মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি।

এপর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭৬ জন। উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৩৮৬ জন। করোনা আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৪২ জন। এরমধ্যে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২১ জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ১ হাজার ৯ জন। বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৪১৭জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬৭ জন।


আরও খবর



‘দেশের বাইরে থেকে কোরবানির পশু আসতে দেওয়া হবে না’

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুলাই ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোরবানিকে সামনে রেখে দেশের বাইরে থেকে গবাদিপশু আসতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি।

রবিবার (০৪ জুলাই) ডিএনসিসি ডিজিটাল হাটের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রাজধানীর বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, আসন্ন কোরবানির জন্য প্রায় ১ কোটি ১৯ লাখ গবাদিপশু প্রস্তুত আছে। গত দুটি কোরবানির ঈদে আমরা দেশের বাইরে থেকে পশু আসতে দেইনি। তাতে পশুর সংকট হয়নি। এবছরও দেশে পর্যাপ্ত কোরবানির পশু রয়েছে। সীমান্তেও আমরা যোগাযোগ করছি যাতে চোরাইপথে বা অন্য কোন পথে একটা পশুও দেশের ভিতর প্রবেশ করতে না পারে। কারণ আমাদের খামারিদের কথা মনে রাখতে হবে। তারা অনেক কষ্ট করে খামার তৈরি করেছে, বিনিয়োগ করেছে। তাদের পশু বিক্রি হবে না, বাইরে থেকে আসবে, এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, শেখ হাসিনা সরকারের আমলে বাংলাদেশে প্রাণিসম্পদের অভাবনীয় সাফল্য এসেছে। দেশে এখন ৪১ কোটি ২২ লাখ ৪৪ হাজার গবাদি প্রাণি মজুদ আছে। এটা কেউ কল্পনাও করতে পারেনি। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা এবং সকল প্রকার সহযোগিতার কারণে সরকারি-বেসরকারি খাতে এ অভাবনীয় উন্নয়ন হয়েছে।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, আমরা প্রাণিসম্পদ খাতকে আরো সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। এ জন্য সবাই মিলে একত্রে কাজ করতে হবে। আমাদের দেশটা প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর। আমাদের দেশে মাংস, দুধ ডিমসহ অন্যান্য প্রাণিজাত পণ্য যেভাবে উৎপাদন করা সম্ভব, এটা পৃথিবীর অনেক দেশেই সম্ভব নয়। এসব পণ্য আমরা বিদেশে রফতানি শুরু করেছি।

ঢাকার বাইরে প্রতিটি পৌরসভা এবং গ্রোথ সেন্টারে আধুনিক স্লটার হাউস নির্মাণেল পরিকল্পনার কথাও এসময় জানান মন্ত্রী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, স্লটার হাউসে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে গরু জবাই হবে, যেখানে রক্ত বা বর্জ্যকে প্রক্রিয়াজাত করে ব্যবহার করা হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো সংযুক্ত ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শমী কায়সার, ডেইরি অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন।


আরও খবর