আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

মাইগ্রেন বা অসুস্থতা ছাড়াও মাথাব্যথার কারণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১৪৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাথাব্যথা মানেই এই নয় যে মাইগ্রেন বা অন্য কোনো অসুখ। এসব ছাড়াও অন্যসব কারণে মাথা ব্যথা করতে পারে। আমেরিকার মায়ো ক্লিনিক নামের এক চিকিৎসাবিজ্ঞান সংক্রান্ত অনলাইন জার্নালের পক্ষ থেকে মাথাব্যথার উপর সমীক্ষা চালানো হয়েছে। সমীক্ষায় দেখা গেছে, অসুখের কারণে মাথাব্যথা হয় এমন মানুষদের বাদ দিলে বাকিদের বিভিন্ন কারণেই মাথাব্যথা হয়।

এবার তাহলে সমীক্ষাকারী দলের চিকিৎসকদের তৈরি তালিকা থেকে মাথাব্যথার বড় বড় কারণগুলো জেনে নেয়া যাক-

চোখের পাওয়ারে পরিবর্তন বা টানা দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার-ফোনের দিকে তাকিয়ে থাকা।

মদ্যপান বা কালো কফি পান।

বিশেষ কিছু খাবার খাওয়ার পর মাথার যন্ত্রণা।

ঘুমের অভ্যাস বা ঘুমের সময় পরিবর্তন।

ঘুমানোর সময় ঘাড় বা কাঁধ সংলগ্ন পেশিতে চাপের ফলেও মাথাব্যথা হয়ে থাকে।

দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকলে।

মানসিক চাপ।

হঠাৎ করেই অ্যালার্জি হওয়া।

পরোক্ষ ধূমপানের কারণেও মাথাব্যথা করে থাকে।

কোনো কিছুর কড়া সুগন্ধি বা গন্ধ।

কোনো রাসায়নিকের গন্ধ।

এছাড়া যারা নিয়মিত খোঁপা বা ঝুঁটি রাখেন না তারা যদি হঠাৎ করে লম্বা চুল রাখা শুরু করেন, খোঁপা বা ঝুঁটি রাখেন তাহলে তাদের মাথাব্যথা হতে পার।


আরও খবর
যেভাবে রান্না করবেন মেজবানি মাংস

বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১




মহাসড়কে অতিরিক্ত গাড়ির চাপে তীব্র যানজটের সৃষ্টি

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আসন্ন ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে মহাসড়কে পরিবহনের চাপ বেড়েছে। এছাড়া দফায় দফায় বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় বন্ধ ও সিরাজগঞ্জ অংশে পরিবহন চলাচলে বাধার কারণে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজটের। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রী সাধারণ।

রবিবার ভোর থেকে মহাসড়কের রাবনা বাইপাস, বিক্রমহাটি, রসুলপুর, পৌলি ও এলেঙ্গা, সল্লা, জোকারচর ও বঙ্গবন্ধু সেতু এলাকায় তীব্র যানজট দেখা গেছে। তবে মাঝে মাঝে ঢাকামুখী লেনে গাড়ি চললেও উত্তরবঙ্গমুখী লেনে গাড়ি আটকে রয়েছে।

অন্যদিকে ঢাকামুখী গরুবাহী ট্রাকের চাপ বাড়ছে। এতে করে দীর্ঘমেয়াদি যানজটের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। যানজটের ফলে চালক ও ঘরমুখো যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। তবে সকাল থেকে যাত্রীবাহী বাসের থেকে ট্রাকের সংখ্যা বেশি দেখা গেছে।

এছাড়া বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই পাড়ের মহাসড়কে গাড়ির চাপ ও যানজটের কারণে দফায় দফায় সেতুতে টোল আদায় বন্ধ রাখছে সেতু কর্তৃপক্ষ।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাত বলেন, লকডাউন শিথিল ও আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র করে মহাসড়কে পরিবহনের চাপ বেড়েছে। 


আরও খবর



সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডিজিটাল বাংলাদেশের নেপথ্য নায়ক এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিখাতে ঘটে যাওয়া বিপ্লবের স্থপতি সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন মঙ্গলবার। সজীব ওয়াজেদ জয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দেশের পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার পুত্র। তিনি মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের ২৭ জুলাই জন্ম গ্রহণ করেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর তার নাম রাখেন নানা শেখ মুজিবুর রহমান।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা এ দুইজনের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার নেপথ্য কারিগর হিসেবে কাজ করছেন পরিশ্রমী, মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন জীবন-জীবিকার অধিকারী কম্পিউটার বিজ্ঞানী সজীব ওয়াজেদ জয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালে বেতবুনিয়ায় ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় জাতির পিতার দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠান। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার সময় মা ও বাবার সঙ্গে জার্মানিতে ছিলেন জয়। পরে মায়ের সঙ্গে রাজনৈতিক আশ্রয়ে ভারতে চলে যান তিনি। তার শৈশব ও কৈশোর কাটে ভারতে। সেখানকার নৈনিতালের সেন্ট জোসেফ কলেজে লেখাপড়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস অ্যাট আর্লিংটন থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক করেন তিনি। পরে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোকপ্রশাসনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০০২ সালের ২৬ অক্টোবর ক্রিস্টিন ওভারমায়ারকে বিয়ে করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। তাদের একটি মেয়ে আছে।

লেখাপড়া করা অবস্থায় রাজনীতির প্রতি অনুরক্ত থাকলেও জয় সক্রিয় রাজনীতিতে নাম লেখান ২০১০ সালে। ওই বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি পিতৃভূমি রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য পদ দেওয়া হয় তাকে, যার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনীতিতে আসেন তিনি। বর্তমানে মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্বে আছেন। ২০০৭ সালে জয় ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম কর্তৃক গ্লোবাল লিডার অব দ্য ওয়ার্ল্ড হিসেবে নির্বাচিত হন।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার বিষয়টি নিয়ে আসেন। পর্দার অন্তরালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে গোটা দেশে তথ্যপ্রযুক্তির বিপ্লব ঘটান এই তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ। বর্তমানে দলীয় ঘরানা ছাড়াও তথ্যপ্রযুক্তি, রাজনীতি, সামাজিক, অর্থনৈতিক, শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তির বিকাশ, তরুণ উদ্যোক্তা তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন জয়।

বিশেষ করে দেশের তরুণদের দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে আত্মনিয়োগ করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন কর্মসূচি ও পদক্ষেপ নিচ্ছেন তিনি। বর্তমানে বেশিরভাগ সময়েই দেশের বাইরে অবস্থান করতে থাকা সজীব ওয়াজেদ জয় বাংলাদেশের রাজনীতি ও সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে ফেসবুকে মতামত ব্যক্ত করে থাকেন। ইতিমধ্যেই ডিজিটাল বাংলাদেশের স্থপতি হিসেবে তার নামডাক ছড়িয়ে পড়েছে।

দেশের আইসিটি খাত সংশ্লিষ্টদের মতে, শিক্ষাগত যোগ্যতা আর পেশাগত কাজের অভিজ্ঞতা-এই দুয়ের মিশেলেই দেশের আইসিটি খাতের এমন তড়িৎ উন্নতিতে সফল নেতৃত্ব দিতে পেরেছেন সজীব ওয়াজেদ জয়।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের প্রাথমিক ধাপ হিসেবে ইন্টারনেটকে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে  দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। ইউনিয়ন পর্যায়ের পাশাপাশি চর বা পার্বত্য অঞ্চলের মতো প্রত্যন্ত এলাকায় ইন্টারনেট পৌঁছে  দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী যুবলীগ সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলা/মহানগর/উপজেলা/থানা/পৌরসভা/ইউনিয়নে মিলাদ ও দোয়া এবং বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হবে।

এদিকে বিকেলে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সজীব ওয়াজেদ জয়র শুভ জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা ও তাঁর সু-স্বাস্থ্য কামনায় দোয়ার আয়োজন করেছে।



আরও খবর



তালেবান ঠেকাতে আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তালেবান যোদ্ধারা আফগানিস্তানের সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে দেশটির বিভিন্ন এলাকায় লড়ছে। রাজধানী কাবুলসহ গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোর নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে ব্যস্ত আফগান নিরাপত্তা বাহিনী। সুযোগে দেশের অন্যান্য অঞ্চল বিনা বাধাতেই দখল করে নিচ্ছে তালেবান যোদ্ধারা।

কিন্তু এই সংঘাতের শেষ কোথায়। যদিও আফগান সরকার চাচ্ছে তালেবান তাদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি করুক। কিন্তু তাতে রাজি হচ্ছে না তালেবান। পরিস্থিতি ক্রমেই বেগতিক হওয়ায় অবশেষে তালেবান ঠেকাতে আফগানিস্তানে নৈশ কারফিউ ঘোষণা করা হলো। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে এবং তালেবানের যাতায়াত সীমিত করতে দেশের ৩১টি প্রদেশে নৈশকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে। আজ স্থানীয় সময় শনিবার রাত ১০টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত এই কারফিউ চলবে।

এর আগে, এক সাক্ষাৎকারে তালেবানের অন্যতম মুখপাত্র সুহেল শাহীন বলেছিলেন, তালেবান কেবল তখনই অস্ত্র ত্যাগ করবে যখন কাবুলে একটি নতুন সরকার গঠিত হবে। তবে সেই সরকারকে অবশ্যই তালেবানের কাছে এবং আফগানিস্তানের সকল নাগরিকের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে। অন্যথায় আফগানিস্তানে শান্তি ফিরবে না।


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




চার ব্যাটসম্যানের বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সকালে বোলাররা সুবিধা পাবে, আগের দিনই এমনটা আভাস দিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ঠিক তাই হয়েছে হারারেতে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে। টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে খুব একটা সুবিধা করতে পারছেন না বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গেছে বাংলাদেশ। 

এই প্রতিবেদন লেখা পার্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ চার উইকেটে ১১১ রান। তামিম ইকবাল (০), সাকিব আল হাসান (১৯), মোহাম্মদ মিঠুন (১৯), মোসাদ্দেক হোসন সৈকত (৫) দ্রুত সাজঘরে ফিরে গেছেন।

অবশ্য সিরিজের একমাত্র টেস্টে দারুণ সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়েকে বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে মুমিনুল-মুফিকরা।

এই ম্যাচে নেই তারকা পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তিনি চোটে আক্রান্ত। দেশে ফিরে এসেছেন মুশফিকুর রহিম। দলের গুরুত্বপূর্ণ দুই খেলোয়াড়কে না পেলেও সাফল্য পেতে আশাবাদী বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে প্রতিপক্ষকে নিয়ে সতর্ক বাংলাদেশ অধিনায়ক।

গতকাল বৃহস্পতিবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা ১৬ ম্যাচ জিতেছি আমরা, তবে আমাদের লড়াই করতে হয়েছে। এমন না যে গেলাম আর জিতলাম। এমনও পরিস্থিতি ছিল, লড়াই করে সেসব জায়গা থেকে বের হয়ে আসতে হয়েছে। এটা গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাছে মনে হয়, এখানে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ। এর আগে ১৬ ম্যাচ ছিল দেশের মাটিতে।

সতর্ক বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, জিম্বাবুয়েতে বোলাররা সকালে শুরুতে সুবিধা পাবে, বিশেষ করে প্রথম ঘণ্টায়। এটা চ্যালেঞ্জিং হবে যদি আগে ব্যাট করি। আগে ব্যাট করলে সাবধান থাকতে হবে। আগে বোলিং করলে প্রথম এক ঘণ্টা কাজে লাগাতে হবে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম।

নিউজ ট্যাগ: চাপে বাংলাদেশ

আরও খবর



লকডাউন বাড়ানোর সুপারিশ স্বাস্থ্যের

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | ২০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত রয়েছে। একইসঙ্গে মৃত্যুর রেকর্ড বেড়েই চলছে।এমন পরিস্থিতিতে সারাদেশে চলমান সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছিল সরকার। এরপর ধাপে ধাপে বাড়ানো হয়েছে সে বিধিনিষেধ।

করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর হার না কমায় ৫ আগস্টের পরে চলমান লকডাউন বহালের সুপারিশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

প্রথম ধাপে গত ২৮ জুন ২০২১ থেকে শুরু হয়ে ৫ জুলাই পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী লকডাউন দেওয়া হয়। এরপরই ০৭ জুলাই মধ্যরাত হতে ১৪ জুলাই ২০২১ তারিখ রাত ১২টা পর্যন্ত এ বিধিনিষেধর সময়সীমা বাড়ানো হয়। এরপরই ঈদকে সামনে রেখে কঠোর বিধিনিষেধ এক সপ্তাহের জন্য শিথিল করা হয়। তৃতীয় ধাপে ২৩ জুলাই সকাল ৬ টা থেকে শুরু হয়ে আগামী ৫ আগস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত লকডাউন সময়সীমা বাড়ানো হয়।


আরও খবর