আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

মামুনুল হককে নিয়ে যা বললেন কথিত সেই স্ত্রী’র ছেলে (ভিডিও)

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ১১১৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

যখনই সে সুযোগ পেয়েছে তখনই আমার বাবা-মায়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরী করেছে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতেই পারে কিন্তু মামুনুল হক সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভাঙন

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের কথিত সেই স্ত্রীর প্রথম ঘরের বড় ছেলে আব্দুর রহমান সম্প্রতি সোস্যাল মিডিয়ায় একটি বিবৃতি দিয়েছেন। ওই ভিডিও বক্তব্যে বলেছেন, আমার বাবা হাফেজ শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদুল্লাহ মামুনুল হককে নিজের প্রাণের চেয়েও ভালোবাসতো আর এই ভালোবাসার সুযোগ নিয়ে তিনি (মামুনুল হক) বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। কতবড় গাদ্দার হলে মামুনুল হক এটা করতে পাবে।

 

আমার বাবা-মায়ের মধ্যে যখন ডিভোর্স হয়নি তখন আমার বাবার অনুপস্থিতিতে মামুনুল হক একবার আমাদের বাসায় আসে, তখন আমার মা ছোট ভাইকে বুকের দুধ পান করাচ্ছিল। এই দৃশ্য দেখে মামুনুল হক আমার মাকে কু-প্রস্তাব দেয়। তখন আমার মা তাকে বাধা দেয় পরে মামুনুল হক ফিরে আসে কিন্তু তার মধ্যে তখন থেকেই কাম ভাব জেগে ওঠে, সে লোভ সামলাতে পারছিলনা, সে সুযোগের অপেক্ষায় ছিল।

 

কিন্তু সেই সুযোগ এত তারাতারি হয়ে যাবে তা মামুনুল হক বুঝতে পারে নি। যখনই সে সুযোগ পেয়েছে তখনই আমার বাবা-মায়ের মধ্যে দূরত্ব তৈরী করেছে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হতেই পারে কিন্তু মামুনুল হক সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভাঙন সৃষ্টি করেছে। এই ভাবে করে সে একটা পরিবারের খুশি-ভালোবাসা-আনন্দ-মিলমিশ পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে। একই ভাবে মামুনুল হক যে কত পরিবারের-মানুষের সম্পর্ক ধ্বংস করেছে তার ঠিক নেই।

 

আমি বাংলাদেশের মানুষের কাছে আশা করবো এর যেন সঠিক বিচার হয়। আপনারা কারোর অন্ধ ভক্ত হয়েন না, কাউকে অন্ধ ভাবে বিশ্বাস করবেন না। কেননা সবারই মুখোশের আড়ালে একটা চেহারা থাকে। এই লোকটা আলেম নামধারী একটা মুখোশধারী জানোয়ার। এর মধ্যে কোন মনুষ্যত্ব নেই। সবসময় সুযোগের অপেক্ষায় থাকে কাকে কখন কিভাবে দূর্বল করা যাবে। 

 

প্রসঙ্গত, শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় রয়াল রিসোর্টের ৫ম তালার ৫০১ নম্বর কক্ষে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারীসহ অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।



আরও খবর



রামজান উপলক্ষে দুই হাজার কার্টন খেজুর দিলো সৌদি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুই হাজার কার্টন খেজুর দিয়েছে সৌদি আরব সরকার। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) দুপুরে সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সচিব মো. মোহসীনের কাছে সৌদি সরকারের প্রতিনিধি বাংলাদেশস্থ সৌদি আরব রাষ্ট্রদূতের পক্ষে ইসলামিক এফেয়াসের দায়িত্বশীল প্রধান আহমেদ বিন হাসান হামাদি এই খেজুর হস্তান্তর করেন।

সচিব মো. মোহসীন বলেন, রমজানে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে ইফতার সামগ্রীর অংশ হিসেবে বিতরণের জন্য সৌদি সরকার বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে দুই হাজার কার্টন খেজুর (৪০ মেট্রিকটন) দিয়েছে। এই খেজুর সৌদির কিং সালমান মেরিটরিয়ার কিং রিলিজ সেন্টার থেকে আমাদের জন্য আনা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ইফতারের সময় যারা খেজুর কিনতে পারে না তাদের কাছে পৌঁছানোর জন্য। আমরা জেলা প্রশাসনের কাছে খেজুর পাঠাবো। আমি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সৌদি সরকারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

নিউজ ট্যাগ: খেজুর

আরও খবর



হরতাল বাড়ানোর খবর ‘গুজব’ : হেফাজত

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | ১০৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ধর্মভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের হরতাল বাড়ানোর যে খবর ছড়িয়েছে, তা সত্য নয় বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহ-প্রচার সম্পাদক মাওলানা মো. ফয়সাল।

রবিবার (২৮ মার্চ) বিকেলে গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন, হরতাল বাড়ানোর খবরটি গুজব এবং সম্পূর্ণ ভুয়া

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের বিরুদ্ধে হেফাজতকর্মীদের গত শুক্রবারের (২৬ মার্চ) বিক্ষোভে পুলিশ ও সরকারদলীয় লোকজনের হামলার অভিযোগ তুলে এর প্রতিবাদে রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করছে হেফাজত।

কিন্তু এ হরতালের সময় শেষ হতে না হতেই দুপুরে খবর ছড়িয়ে পড়ে, হেফাজতের হরতাল আরও ২৪ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে।

খবরটিকে সত্য নয় উল্লেখ করে মাওলানা মো. ফয়সাল বলেন, রবিবার হেফাজতের ডাকা হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে পালন করা হচ্ছে। আগামীকাল যেহেতু পবিত্র শবে বরাত, সেহেতু আপাতত হরতালের সময়সীমা বাড়ানো হয়নি। এমনকি বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনাও নেই আমাদের।


আরও খবর



হেফাজতের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন নায়েবে আমির

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ডের পর তার বিরুদ্ধে ওঠা বিভিন্ন অভিযোগসহ আরও নানা কারণ দেখিয়ে মাওলানা আব্দুল্লাহ হেফাজত ইসলামের নায়েবে আমিরের পদ থেকে ইস্তফা

সারা দেশের বেশ কিছু স্থানে হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবের প্রতিবাদে পদত্যাগ করেছেন সংগঠনটির এক নায়েবে আমির। তিনি হলেন- বাংলাদেশ ফরায়েজী আন্দোলনের সভাপতি মাওলানা আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ হাসান। আজ মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে পদত্যাগের এ ঘোষণা দেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ডের পর তার বিরুদ্ধে ওঠা বিভিন্ন অভিযোগসহ আরও নানা কারণ দেখিয়ে মাওলানা আব্দুল্লাহ হেফাজত ইসলামের নায়েবে আমিরের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন বলে জানান।

এর আগে হেফাজত কর্মীদের তাণ্ডবের প্রতিক্রিয়ায় সংগঠন ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন আরেক নায়েবে আমির আবদুল আউয়াল। পরে অবশ্য দলটির নেতাদের সঙ্গে আলোচনার পর স্বপদে ফিরে আসেন তিনি।

সম্প্রতি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের সরকার প্রধান নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর ঘিরে মার্চের শেষ দুই সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ ও হরতালের নামে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক তাণ্ডব চালায় হেফাজত।


আরও খবর



পূর্ণ অধিকার দিতে না পারার শর্তে দ্বিতীয়-তৃতীয় বিয়ে করেন মামুনুল

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১১২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গোয়েন্দা পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, প্রথম স্ত্রীকে তিনি শরীয়ত সম্মত ও প্রচলিত আইন মেনে বিয়ে করেছেন। কিন্তু বাকি দুই নারীকে বিয়ের দাবি করলেও কাবিননামা নেই বলে জানান তিনি। এই দুই নারীকে তিনি কন্ট্রাক্ট ম্যারেজ করেছিলেন বলে দাবি করেন মামুনুল হক।

জান্নাত আরা ঝর্ণার বিচ্ছেদ হওয়ার পর তিনি তার অভিভাবকত্ব নেন। এসময় তিনি জান্নাতকে পূর্ণ স্ত্রীর মর্যাদা দিতে পারবেন না এমন মৌখিক শর্তে বিয়ে করেন বলে দাবি করেন। মামুনুল হকের দাবি, তার শর্ত জান্নাত আরা মেনে নিয়েছিল। দুই বছর ধরে তিনি জান্নাত আরার ভরণ-পোষণ ছাড়াও ব্যবসা করার জন্য মূলধন দিয়েছেন এবং কারিগরি শিক্ষার ব্যবস্থা করেছিলেন।

স্ত্রীর মর্যাদা না দিলে কেন বিয়ে করেছিলেন এমন প্রশ্নের জবাবে মামুনুল হক বলেন, স্ত্রীর মর্যাদা না দেওয়ার শর্ত দিয়েই তিনি বিয়ে করেছিলেন। ইসলামে এটা জায়েজ রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। প্রথম স্ত্রীর কাছে দ্বিতীয় স্ত্রীকে শহীদুল ভাইয়ের ওয়াইফবলার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে মামুনুল হক জানান, বিষয়টি জানার পর তার প্রথম স্ত্রী যদি স্ট্রোক বা খারাপ কিছু একটা করে ফেলে সেই আতঙ্ক থেকে মিথ্যা বলেছিলেন তিনি।

তৃতীয় স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস লিপিকে বিয়ে করা নিয়েও একই বক্তব্য ছিল মামুনুল হকের। তৃতীয় স্ত্রী দাবি করা জান্নাতুল ফেরদৌস সম্পর্কে মামুনুল বলেন, এশিয়ান ইউনিভার্সিট অব বাংলাদেশে একসঙ্গে অনার্স ও মাস্টার্স করার সময় তার সঙ্গে সখ্যতা গড়ে ওঠে। এরপর জান্নাতুলের বিয়ে হয়ে যায়। কিন্তু প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তাকেও স্ত্রীর অধিকার না দেয়ার মৌখিক শর্তে তাকে বিয়ে করেন তিনি।


আরও খবর
৭ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক

সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১




আধিপত্য বিস্তারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার কোমরভোগ গ্রামে আধিপত্য বিস্তারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় প্রায় ১০ নারী-পুরুষ ও শিশু আহত হয়েছে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুর ও রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ মামলায় আমিরুল ইসলাম (৪০), শাহজাহান আলী (৪৫)। এদের শাহজাহান আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছেন। অন্যদের নাম জানা যায়নি। জানা গেছে, বুধবার (৭ এপ্রিল) রাতে কোমরভোগ গ্রামের স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা ও ইউপি সদস্য জাবেদ আলী ও নয়নের সহযোগীদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে একপক্ষ প্রতিপক্ষের লোকদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় প্রায় ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে শাহজাহানের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসমানপুর ইউপি মেম্বার জাবেদ আলী বলেন, মঙ্গলবার রাতে দুই পক্ষের লোকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় প্রতিপক্ষের নেতা লিটন মাস্টার হামলা চালানোর ঘোষণা দেন। বুধবার দুপুরে প্রতিপক্ষের লোকজন জাবেদ আলীর বাড়িতে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। একই রাতে জাবেদ আলীর লোকজন পাল্টা প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালায়।

এই ঘটনার বিষয়ে খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।


আরও খবর