আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

‘মায়ের চেয়ে বড় কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পৃথিবীতে তৈরি হয়নি’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৫৯৫জন দেখেছেন
মশিউর রাহাত (পিরোজপুর)

Image

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, প্রতিটি জায়গায় দেখবেন নারীর নেতৃত্ব কতটা সফল নেতৃত্ব। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় এগিয়ে চলছে নারী নেতৃত্বে। সেই এগিয়ে যাওয়াকে ধরে রাখতে হলে আপনার মেধার বিকাশ ঘটাতে হবে।

মন্ত্রী আজ মঙ্গলবার পিরোজপুরে জাতীয় মহিলা সংস্থা আয়োজিত কৃতি ছাত্রীদের সনদ বিতরণ ও মহিলা সমাবেশে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, এ দেশের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার, শিক্ষামন্ত্রী, সংসদ উপনেতা, সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, শ্রমমন্ত্রীসহ একধিক সচিব,  ডিসি, এসপিসহ অনেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজ নারী। সেনাবহিনীর উচ্চপদে, পুলিশের উচ্চপদে আজ নারীরা কাজ করছে। আর এই সফল নারী নেতৃত্বের কারণেই দেশ আজ সল্পোন্নত থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে পেরেছে।

এ সময় মন্ত্রী মায়েদের উদ্যেশ্যে বলেন, মায়ের শিক্ষার চেয়ে বড় শিক্ষা কোন প্রতিষ্ঠান পৃথিবীতে তৈরি হয়নি। একজন মাই পারে সন্তানকে আদর্শ শিক্ষা দিয়ে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে। মা যদি বাড়িতে আদর্শ শিক্ষা না দিতে পারে তাহলে সন্তান বিপথে চলে যাবে। সে ক্ষেত্রে মাকেও শিক্ষিত মা হতে হবে। আদর্শিক শিক্ষার কোন বিকল্প নাই উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মেয়ে সন্তান কোন বোঝা নয়। তার লেখা পড়ার খরচ সরকার বহন করছে। শুধু খেয়াল রাখতে হবে আপনার মেয়ে যেন কারও প্রলোভনে না পরে। আর এ সবই লক্ষ রাখতে পারে মা।

পরে পাঁচজন কৃতি প্রশিক্ষণার্থীর মাঝে সনদ ও ক্রেস্ট বিতরণ করেন মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান রাশিদা আকরামের সভাপতিত্বে এবং সংস্থার সদস্য শিরিনা আফরোজের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থান্দার খায়রুল হাসান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বশির আহমেদ, পিরোজপুর প্রেসক্লাবের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা গৌতম চৌধুরী প্রমুখ।


আরও খবর



বড় জয়ে সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | ১০৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বকাপের মূল পর্বে যেতে জয় ছাড়া বিকল্প নেই। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ব্যাটে-বলে দারুণভাবে জ্বলে উঠল বাংলাদেশ। দুই বিভাগের নৈপুণ্যে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনিকে ৮৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

বড় জয়ে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে খেলা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। এ জয়ে এখন বি গ্রুপে শীর্ষে বাংলাদেশ। তবে পরের ম্যাচে ওমানকে হারালে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে স্কটল্যান্ডই।

রানের হিসেবে বাংলাদেশের এটি সবচেয়ে বড় জয়। এর আগে সবচেয়ে বড় জয় ছিল ৭১ রানের। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১২ সালে এই জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ।

আজ বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৮১ রান করে বাংলাদেশ।  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এটি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ। জবাব দিতে নেমে ৯৭ রানে থেমে যায় পাপুয়া নিউগিনির ইনিংস।

অবশ্য নিজেদের ইনিংসের শুরুতেই হোঁচট খায় বাংলাদেশ। প্রথম বলেই ক্যাচ তুলে দেন মোহাম্মদ নাঈম। তবে নাঈমের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে উপরে ওঠা বল জমাতে পারেননি পাপুয়া নিউগিনির উইকেটরক্ষক। দ্বিতীয় বলেও ছক্কার আশায় ক্যাচ তুলে দেন নাঈম। কাবুয়া মোরেয়ার লেগ স্টাম্পের বাইরের বল ডিপ স্কয়ার লেগে পাঠান নাঈম। বেশ উপরে ওঠা বল দৌড়ে গিয়ে মুঠোয় জমান সেসে বাউ। রানের খাতাও খুলতে পারেননি এই তরুণ ওপেনার।

শুরুতে উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। কিন্তু সেই চাপ অল্প সময়ের মধ্যেই কাটিয়ে ওঠে। শুরুর থাক্কা সামলে প্রতিরোধ গড়েন সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস। দুজনে মিলে গড়েন ৫০ রানের জুটি। সাকিবের সঙ্গে ভালো ইনিংস খেলার আশা জাগান রানের খরায় থাকা লিটন। তবে এবারও পারেননি বড় ইনিংস খেলতে। স্লগ সুইপে ছক্কার হাঁকাতে গিয়ে ক্যাচ আউট হয়ে ফিরেন ডানহাতি এই ওপেনার।

অষ্টম ওভারে আসাদ ভালার অফ স্টাম্পের একটু বাইরের বল স্লগ সুইপ করেন লিটন। টাইমিং ঠিক রাখতে পারেননি। দৌড়ে গিয়ে ক্যাচ নিয়ে নেন সেসে বাউ। ২৩ বলে একটি করে ছক্কা ও চারে ২৯ রান করে ফেরেন লিটন।

চারে ব্যাট করতে নেমে মুশফিকও পারলেন না থিতু হতে। ৮ বল খেলে ৫ রানে বিদায় নেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটার। তবে সতীর্থরা ফিরলেও টিকে ছিলেন সাকিব। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে প্রতিরোধ গড়েন তিনি। শেষ রানে সাকিবকে ফিরিয়ে প্রতিরোধ ভাঙেন আসাদ ভালা। বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে লং অনে আমিনির হাতে ক্যাচ তুলে দেন সাকিব। তিন ছক্কায় ৩৭ বলে ৪৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন সাকিব।

এরপর লড়াই করেন মাহমুদউল্লাহ। মাত্র ২৭ বলে  হাফসেঞ্চুরি করেন। এটি তাঁর টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ হাফসেঞ্চুরি। ঝড়ো হাফসেঞ্চুরির পর অবশ্য আর টিকতে পারেননি তিনি। পরের বলেই আউট হন তিনি। ২৮ বলে ৫০ রান করে ফেরেন ড্রেসিং রুমে। মাহমুদউল্লাহ ফিরলে শেষ দিকের ব্যাটারদের ওপর ভর করে ওমানকে বড় কঠিন লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় লাল-সবুজের দল।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় পাপুয়া নিউগিনি। হারায় ওপেনার লেগা সিয়াকাকে। তৃতীয় ওভারে প্রতিপক্ষের ওপেনারকে নিজের শিকার বানিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। দলীয় ১১ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাপুয়া নিউগিনি, সিয়াকা করেন ১০ বলে ৫ রান।

এর পর আসাদ ভালার উইকেট তুলে নেন পেসার তাসকিন আহমেদ। তাসকিনের পর বোলিংয়ে এসে পাপুয়া নিউগিনিকে চেপে ধরেন সাকিব আল হাসান। ব্যাট হাতে ভূমিকা রাখা সাকিব বোলিংয়ে করেন দুর্দান্ত। বোলিংয়ে এসে জোড়া উইকেট তুলে নেন তিনি। এরপর নেন আরেকটি। প্রথমে নেন চার্লস আামিনি ও সেসে বাউর উইকেট। পরে ফেরান সিমন আটাই। এরপর আঘাত হানেন মেহেদী। বাংলাদেশি বোলারদের দাপটে স্কোরবোর্ডে ২৪ রান তুলতেই ছয় উইকেট হারিয়ে ফেলে পাপুয়া নিউগিনি। দ্রুত উইকেট হারানোর চাপ সামলে বেশি দূর যেতে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত ৯৭ রানে থেমে যায় প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে আসা দলটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ : ২০ ওভারে ১৮১/৭ (নাঈম ০, লিটন ২৯, সাকিব ৪৬, মুশফিক ৫, মাহমুদউল্লাহ ৫০, আফিফ ২১, সোহান ০, সাইফউদ্দিন ১৯*, মেহেদী ২*; মরেয়া ৪-০-২৬-২, রাভু ৪-০-৪০-২, সোপের ৪-০-৫৩-০, বাউ ২-০-২০-০, ভালা ৩-০-২৬-২, আমিনি ২-০-৯-০, আটাই ১-০-৬-১)।

পাপুয়া নিউগিনি : ১৯.৩ ওভারে ৯৭/১০ (সিয়েকা ৫, আসাদ ৬, আমিনি ১, সেসে ৭, সিমন ০, হিরি ৮, নরম্যান ০, কিপলিন ৪৬*, চ্যাড ১১, কাবুয়া ৩, ড্যামিয়েন ৫; তাসকিন ৩.৩-১-১২-২, মুস্তাফিজ ৪-০-৩৪-০, সাকিব ৪-০-৯-৪, মেহেদী ৪-০-২০-১, সাইফউদ্দিন ৪-০-২১-২)।

ফল : ৮৪ রানে জয়ী বাংলাদেশ।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : সাকিব আল হাসান।


আরও খবর



ওমানে ঘূর্ণিঝড় শাহিনের তাণ্ডবে ৩ বাংলাদেশি নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | ৮৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ওমানে ঘূর্ণিঝড় শাহিন-এর আঘাতে ৩ বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এই তিন অভিবাসী শ্রমিকের মরদেহ গত মঙ্গল ও বুধবার উদ্ধার করেছে দেশটির প্রশাসন। শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে ওমান এবং ইরানে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ১২ জন। 

ওমানে নিহত তিন বাংলাদেশি হলেন শামসুল ইসলাম (৫৫),আমজাদ হোসেন হৃদয় (২৮) ও জিলাল হোসেন (৪৫)। দেশটির সরকারের সূত্রে জানা গেছে, নিহতরা সবাই লক্ষ্মীপুর জেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নের বাসিন্দা।

এদের মধ্যে রবিবার ঝড়ের তাণ্ডব শুরু হলে হৃদয়ের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। বুধবার তার লাশ পাওয়া যায়। আরেক নিহত বাংলাদেশি আমজাদ হোসেন ওমানের রাজধানী মাস্কাটের উপকূলীয় সাহাম শহরের একটি খেজুর বাগানে কাজ করতেন।

ঘূর্ণিঝড় শাহিন গত রবিবার ওমান এবং ইরানে আঘাত হানে। এতে উপকূলীয় এলাকায় বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়। ভারী বৃষ্টিতে দেখা দেয় আকস্মিক বন্যা। এতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাঘাট তলিয়ে যায়।


আরও খবর



শান্তির এই নোবেল বিশ্বের সব সাংবাদিকের: মারিয়া রেসা

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এ বছর শান্তিতে নোবেলজয়ী ফিলিপাইনের সাংবাদিক মারিয়া রেসা এই পুরস্কার বিশ্বের সব সাংবাদিককে উৎসর্গ করেছেন। শনিবার তিনি বলেছেন, শান্তির এই নোবেল পুরস্কার বিশ্বের সব সাংবাদিকের। সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার লড়াই চালিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এই পুরস্কার বিশ্বের সব সাংবাদিককে উৎসর্গ করেছেন।

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তের কড়া সমালোচক মারিয়া রেসা ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, প্রকৃত অর্থে এই পুরস্কার বিশ্বজুড়ে কাজ করা সব সাংবাদিকের। আমাদের অনেক ফ্রন্ট থেকে সাহায্য দরকার। আজকে সাংবাদিক হওয়া অনেক বেশি কঠিন এবং বিপজ্জনক।

শুক্রবার ফিলিপাইনের সংবাদমাধ্যম র‌্যাপলারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মারিয়া রেসা এবং রাশিয়ার সাংবাদিক দিমিত্রি মুরাতভকে চলতি বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কার দেয়া হয়েছে। নিয়ন্ত্রকদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে গণমাধ্যমে মত প্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষার প্রচেষ্টা জারি রাখায় চলতি বছর শান্তির নোবেল পেয়েছেন ফিলিপাইন ও রাশিয়ার এ দুই সাংবাদিক।

সাংবাদিকদের জন্য বিশ্বে সবচেয়ে বিপজ্জনক স্থান হিসেবে পরিচিত ফিলিপাইনের মতো দেশে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিতে কাজ করে যাওয়া এই সাংবাদিকের নোবেলপ্রাপ্তিকে ‌বিজয় হিসেবে প্রশংসা করেছেন দেশটির বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন ও মানবাধিকার কর্মীরা।

২০১৬ সালে ফিলিপাইনের ক্ষমতায় দুতার্তে আসার পর রেসা এবং তার সংবাদমাধ্যম র‌্যাপলারকে ধারাবাহিক ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ, তদন্তের মুখোমুখি হওয়া ছাড়াও অনলাইনে আক্রমণের শিকার হতে হয়। প্রেসিডেন্ট দুতার্তে বরাবরই র‌্যাপলারকে ভুয়া সংবাদমাধ্যম বলেছেন এবং রেসাকে নিয়ে দেশটিতে অনলাইনে মানহানিকর বার্তা ছড়ানো হয়।

৫৮ বছর বয়সী ফিলিপিনো এই সাংবাদিক বলেছেন, এই পুরস্কার তার নিজের এবং ফিলিপাইনের অন্যান্য সাংবাদিকদের শারীরিক আক্রমণ ও অনলাইন হুমকির বিরুদ্ধে একটি সুরক্ষা হিসেবে কাজ করবে বলে তিনি আশা করছেন। তাদের বিরুদ্ধে আমরা ধারণাটি কখনোই সাংবাদিকদের সৃষ্টি ছিল না। এটি ছিল ক্ষমতায় থাকা মানুষদের সৃষ্টি; যারা সমাজকে বিভক্ত করে এমন এক ধরনের নেতৃত্ব ব্যবহার করতে চেয়েছিলেন। মারিয়া রেসা বলেন, আমি আশা করছি এই পুরস্কার সাংবাদিকদের ভয় ছাড়াই ভালোভাবে কাজ করার প্রেরণা দেবে।


আরও খবর



এক নজরে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
নির্ধারিত দিনে সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট এবং ২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে ১৪ নভেম্বর চলবে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। আর এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে ২ ডিসেম্বর, চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। দুটি পরীক্ষাই অনুষ্ঠিত হবে শুধুমাত্র নৈর্বাচনিক বিষয়ে। অন্যান্য আবশ্যিক বিষয়ে আগের পাবলিক পরীক্ষার সাবজেক্ট ম্যাপিং করে মূল্যায়নের মাধ্যমে নম্বর দেয়া হবে। এছাড়া চতুর্থ বিষয়েরও পরীক্ষা নেওয়া হবে না। নির্ধারিত দিনে সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট এবং ২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

কবে কোন পরীক্ষা (এসএসসি)

১৪ নভেম্বর : পদার্থবিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৫ নভেম্বর: বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং হিসাববিজ্ঞান (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৬ নভেম্বর : রসায়ন (তত্ত্বীয়) (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৮ নভেম্বর : শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া (তত্ত্বীয়) (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২১ নভেম্বর : ভূগোল ও পরিবেশ (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২২ নভেম্বর : উচ্চতর গণিত (তত্ত্বীয়) ও জীব বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২৩ নভেম্বর : পৌরনীতি ও নাগরিকতা, অর্থনীতি (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ব্যবসায় উদ্যোগ (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

কবে কোন পরীক্ষা (এইচএসসি)

২ ডিসেম্বর: পদার্থবিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং সাধারণ বিজ্ঞান এবং খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (রসায়ন), সাধারণ বিজ্ঞান এবং খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (জীববিজ্ঞান), খাদ্য ও পুষ্টি ১ম পত্র , লঘু সংগীত (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৫ ডিসেম্বর: যুক্তি বিদ্যা ১মপত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং হিসাববিজ্ঞান ১মপত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৬ ডিসেম্বর: পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ২য়পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং সাধারণ বিজ্ঞান এবং খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র (খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান), খাদ্য ও পুষ্টি ২য়পত্র, লঘু সংগীত (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৭ ডিসেম্বর: যুক্তিবিদ্যা ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং হিসাববিজ্ঞান ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৮ ডিসেম্বর: রসায়ন (তত্বীয়) ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং শিশু বিকাশ ১ম পত্র, উচ্চাঙ্গ সংগীত (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৯ ডিসেম্বর: ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ১মপত্র, ইতিহাস প্রথম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন ১ম পত্র, ফিন্যান্স ব্যাংকিং ও বীমা ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১২ ডিসেম্বর: রসায়ন (তত্ত্বীয়) ২য়পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং শিশু বিকাশ ২য় পত্র, উচ্চাঙ্গ সংগীত (তত্ত্বীয়) ২য়পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৩ ডিসেম্বর: ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র, ইতিহাস ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং উৎপাদন ব্যবস্থাপনা ও বিপণন ২য় পত্র, ফিন্যান্স ব্যাংকিং ও বীমা ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৫ ডিসেম্বর: জীববিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ১মপত্র, উচ্চতর গণিত ১মপত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং গৃহ ব্যবস্থাপনা ও শিশু বর্ধন এবং পারিবারিক সম্পর্ক (তত্ত্বীয়) ১মপত্র, গৃহ ব্যবস্থাপনা ও পারিবারিক জীবন ১মপত্র, ইসলাম শিক্ষা ১মপত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

১৯ ডিসেম্বর: পৌরনীতি ও সুশাসন ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২০ ডিসেম্বর: জীব বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র, উচ্চতর গণিত ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং গৃহ ব্যবস্থাপনা ও শিশু বর্ধন এবং পারিবারিক সম্পর্ক (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র, গৃহ ব্যবস্থাপনা ও পারিবারিক জীবন ২য় পত্র, ইসলাম শিক্ষা ২য়পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২১ ডিসেম্বর: পৌরনীতি ও সুশাসন ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা ২য়পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২২ ডিসেম্বর: ভূগোল (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং আরবি ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২৩ ডিসেম্বর: ভূগোল (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং আরবি ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২৭ ডিসেম্বর: অর্থনীতি ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ব্যবহারিক শিল্পকলা এবং বস্ত্র ও পোশাক শিল্প (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২৮ ডিসেম্বর: সমাজ বিজ্ঞান ১ম পত্র, সমাজ কর্ম ১ম পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ক্রীড়া (তত্ত্বীয়) ১ম পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

২৯ ডিসেম্বর: অর্থনীতি ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ব্যবহারিক শিল্পকলা এবং বস্ত্র ও পোশাক শিল্প (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

৩০ ডিসেম্বর: সমাজ বিজ্ঞান ২য় পত্র, সমাজ কর্ম ২য় পত্র (সকাল ১০টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত) এবং ক্রীড়া (তত্ত্বীয়) ২য় পত্র (২টা থেকে ৩টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

নিউজ ট্যাগ: এসএসসি এইচএসসি

আরও খবর



ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | ১২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার জামশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মিঠুকে (৫০) ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মিজানুর রহমান মিঠু জামশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। এবার দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তিনি।

গত ৫ সেপ্টেম্বর জামশা ইউনিয়নের এক তরুণী (২১) মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মিঠুর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়, ওই তরুণীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১০০ টাকার জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পের মাধ্যমে কথিত বিয়ের ঘোষণা দিয়ে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে অন্যত্র বাসা নিয়ে বসবাস করেন মিঠু। একপর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই তরুণী। পরে চেয়ারম্যান কৌশলে গর্ভপাত করান। কাবিননামা চাইলে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয় এবং তরুণীকে মারধর করেন মিঠু।

সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, ধর্ষণের মামলায় আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলে মিঠুকে সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাতে গ্রেপ্তার করা হয়। মঙ্গলবার তাকে আদালকে পাঠনো হয়েছে।



আরও খবর