আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

মডার্নার ৩০ লাখ টিকা আসছে সন্ধ্যায়

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোভ্যাক্সের আওতায় মডার্নার ৩০ লাখ ডোজ কোভিড-১৯ টিকা সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকায় পৌঁছাবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন। এ নিয়ে কোভ্যাক্সের মাধ্যমে বাংলাদেশকে মডার্নার ৫০ লাখ ডোজ টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এই টিকাগুলো আজ সকালে এসে পৌঁছানোর কথা ছিল।  তবে ফ্লাইটের শিডিউল বদলের কারণে টিকা সন্ধ্যায় আসছে।

২২ জুন হোয়াইট হাউস করোনার টিকার বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার ৮টি দেশের পাশাপাশি এশিয়ার ১৮টি দেশকে নতুন করে ১ কোটি ৬০ লাখ ডোজ টিকা দেওয়ার ঘোষণা করেছে।  এ ছাড়া বিশ্বের আরও ৩০টি দেশ ও জোটকে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি যে ১ কোটি ৪০ লাখ ডোজ টিকা দেবে, সেই তালিকায়ও রয়েছে বাংলাদেশের নাম।

গত ৩ জুন হোয়াইট হাউস আড়াই কোটি টিকা বণ্টনের ঘোষণা দিয়েছিল।  তাতেও এশিয়ার দেশগুলোর জন্য ৭০ লাখ ডোজ টিকা যেসব দেশে দেওয়া হবে, তার মধ্যে বাংলাদেশকে রাখা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র তার মজুত থেকে যে টিকা সরবরাহ করবে, তা হবে ফাইজার, মডার্না ও জনসন অ্যান্ড জনসনের উৎপাদিত।  তবে জানা গেছে, মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) অনুমোদন পেলে অ্যাস্ট্রাজেনেকার উৎপাদিত করোনাভাইরাসের টিকাও এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




মুন্সীগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টার ভিডিও ভাইরাল, স্বামী আটক

প্রকাশিত:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

মুন্সীগঞ্জ থেকে জিতু রায়ঃ 

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের কাজিরবাগ গ্রামে এক গৃহবধূকে মারধরের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ নির্যাতিতা গৃহবধূর স্বামী মুরাদ শেখকে(৪০) আজ রবিবার ১ আগস্ট বিকাল ৩টার দিকে আটক করেছে।

জানাগেছে, ওই গ্রামের হেলাল শেখের ছেলে মাদকাসক্ত মুরাদ শেখ দির্ঘদিন যাবৎ তার স্ত্রী হালিমা বেগমকে মারধর করে আসছিল।

আজ রবিবার সকালে হালিমা বেগম(২৫) নামের গৃহবধূকে কিল ঘুশি মেরে নির্মমভাবে মারধর করে হত্যার চেষ্টা করে তার পাষণ্ড স্বামী মুরাদ। স্থানীয় মহিলারা বাধা দিলে মুরাদ তাদের চাপাতি নিয়ে তেরে আসে। এ সময় প্রতিবেশি খাদিজা তার মোবাইলে মারধরের দৃশ্য ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিলে তা ভাইরাল হয়ে পরে । পরে স্থানীয় মেম্বার ও লোকজন গিয়ে হালিমাকে উদ্ধার করে ৯৯৯ এ ফোন দেয়।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘ দিন যাবত হালিমাকে মারধর করে আসছে হেলাল শেখের ছেলে মুরাদ। এর আগে বেশ কয়েকবার পানিতে চুবিয়ে মারার চেষ্টা করেছিলো। গত শনিবার এ নিয়ে স্থানীয় মেম্বার বিচার করেছে কিন্তু মুরাদ থামেনি।

ভিডিও ধারণ কারি খাদিজা জানান, মুরাদ হাতে চাপাতি নিয়ে মারধর করে এবং কেও ধরতে আসলে তাকেও চাপাতি নিয়ে তেরে আসে।

মালখানগর ইউ পি সদস্য মো. আবু সাঈদ জানান, আমি ঘটনা শুনতে পেরে ঘটনাস্থালে যাই। গিয়ে দেখি মুরাদ হালিমার পেটে, পিঠে, মুখে কিল ঘুষি মারছে। আমি তাকে উদ্ধার করি এবং মুরাদকে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেই।

বাংলাদেশ মানবাধিকার উন্নয়ন কমিশনের মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখার চেয়ারম্যান এ এন হুমায়ুন কবির সাংবাদিকদের বলেন, আমরা যেখানে মানবধিকার হরণ হয় সেখানে আমরা তাদের পাশে দাড়াই। আমরা হালিমার চিকিৎসার কথা বলেছি। তার ভাই জানিয়েছে তারা চিকিৎসা করবে। যদি তার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হয় আমরা সহায়তা করব।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) বোরহান উদ্দিন বলেন, স্থাণীয় এক মানবধিকার কর্মী আমাকে গৃহবধূকে মারধরের বিষয়টি জানালে আমি পুলিশ পাঠিয়ে ঘাতক স্বামীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি। অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আসামী বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীকে মারধর করতেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।


আরও খবর
মুন্সিগঞ্জে শিশু হত্যার অভিযোগ

মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১




ব্ল্যাক ফাঙ্গাস এবার চট্টগ্রামে

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকরমাইকোসিস (কালো ছত্রাক) আক্রান্ত এক নারী শনাক্ত হয়েছেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবির ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ৫০ বছর বেশি বয়সের এ রোগী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পরে  আজকেই আমরা নিশ্চিত হই তিনি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত।

চমেক পরিচালক বলেন, আমাদের চিকিৎসকদের অধীনে চিকিৎসা চলছে। আগামীকাল পর্যন্ত দেখবো। এরপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে রোগীকে ঢাকায় পাঠানো হবে কি না।

হাসপাতাল সূত্রে রোগীর বাড়ি পটিয়া উপজেলায় বলে জানা গেছে। চলতি মাসের ৩ তারিখ করোনা আক্রন্ত হন পঞ্চাশোর্ধ্ব ওই নারী। তবে ১৫ জুলাই তার করোনা নেগেটিভ আসে। এরপরও তার নানা শারীরিক অসুবিধা দেখা দেয়। পরে চারদিন আগে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর আজকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে তার ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরা পড়লো।

ফাঙ্গাস সংক্রমণের উপসর্গ:

কিছু কিছু ফাঙ্গাস থেকে সংক্রমণের উপসর্গগুলোর সঙ্গে কোভিড-১৯ রোগীর লক্ষণগুলোর মিল রয়েছে। যেমন জ্বর, কাশি এবং নিঃশ্বাস নিতে না পারা।

ক্যানডিডা ফাঙ্গাসের বাড়তি উপসর্গের মধ্যে রয়েছে সাদা রঙের র‍্যাশ বা ক্ষত- যে কারণে একে অনেক সময় বলা হয় সাদা ফাঙ্গাস। নাক, মুখ, ফুসফুস, পাকস্থলি বা নখের গোড়ায় এই ছত্রাকের সংক্রমণ দেখা যেতে পারে, যে র‍্যাশ অনেক সময় সাদা ছানার মতো দেখায়।

এই ফাঙ্গাসের সংক্রমণ শরীরে আরও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে অর্থাৎ তা রক্তে চলে গেলে প্রায়ই রক্ত চাপ কমে যাওয়া, জ্বর, পেটে ব্যথা এবং মূত্রনালীর প্রদাহের মত উপসর্গ দেখা যায়।

আরও খবর



লড়াই করে হারলেন বাংলাদেশের দিয়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ জুলাই ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অলিম্পিক আরচ্যারির নারী রিকার্ভ এককের নক আউট পর্বের শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে বেলারুশের জিওমিনস্কায়া কারিনার কাছে টাইব্রেকারে হারলেন দিয়া সিদ্দিকী। বৃহস্পতিবার এলিমিনেশন রাউন্ডের প্রথম সেটে বেলারুশের জিওমিনসকায়া কারইয়ানার বিপক্ষে প্রথম সেট ২৩-২২ পয়েন্টে জিতে দারুণ শুরু করেছিলেন বাংলাদেশের এই নারী তীরন্দাজ।

অবশ্য পরের দুই সেটে সমান স্কোর হয়। চতুর্থ সেট হেরে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার স্বপ্ন অনিশ্চিত হলেও শেষ রাউন্ড জিতে আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফিরে আসেন দিয়ার। নির্ধারিত প্রথম ৫ সেট শেষ হয় ৫-৫ সেট পয়েন্টে। শেষ পর্যন্ত শ্যুট অফে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে দিয়াকে।

শ্যুট অফে ৬-৫ সেট পয়েন্টে হেরে যান বাংলাদেশের এই আরচার।


আরও খবর



করোনা: খুলনায় মৃত্যু ৪৩, শনাক্ত ১ হাজার ৩৯৪ জন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় মৃত্যু কমেছে খুলনা বিভাগে সংখ্যা। তবে বেড়েছে শনাক্তের সংখ্যা। সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৩৯৪ জনের।

এর আগে সোমবার (১৯ জুলাই) বিভাগে ৫২ জনের মৃত্যু এবং ১ হাজার ১৬৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা যায়, ৪৩ জনের মধ্যে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে কুষ্টিয়ায়। ওই জেলায় মারা গেছেন ১০ জন। এছাড়া খুলনায় ৯, যশোরে ৮, নড়াইল, চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে ৪ জন করে, ঝিনাইদহ ২, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা ও মাগুরায় একজন করে মারা গেছেন।

এ বিভাগের ১০ জেলায় এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছে ৮৩ হাজার ৯৮০ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৯৯০ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৬ হাজার ৩৫৪ জন।

খুলনা বিভাগের মধ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চুয়াডাঙ্গায় গত বছরের ১৯ মার্চ।


আরও খবর



শতাধিক ভিআইপির নাম রয়েছে দুদকের তালিকায়

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | ১৯২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দীর্ঘদিনেও অনুসন্ধান, তদন্ত নিষ্পত্তি হয়নি এমন শতাধিক ভিআইপির নামে নতুন তালিকা করেছে দুদক। অবৈধ সম্পদ, ঋণ জালিয়াতি ও অর্থ পাচারে জড়িতদের এ তালিকায় আনা হয়েছে।

সংস্থাটি এদের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগের ফাইলগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির পর নতুন নথি চালু করতে চায়। এছাড়া আগের তালিকাভুক্তদের নথিও দ্রুত নিষ্পত্তি করতে চাচ্ছে দুদক। এজন্য সংস্থাটির বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত শাখার মহাপরিচালক, পরিচালক ও তদন্ত কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

দুদক সূত্র জানায়, গত মার্চে বর্তমান কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান ও একজন কমিশনার নিয়োগ পান। এরপর তিন কমিশনারের নেতৃত্বে গঠিত কমিশন দফায় দফায় বৈঠকে বসেন। কমিশন সভা ছাড়া মহাপরিচালক থেকে উপপরিচালক পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে পৃথক বৈঠক হয়। এতে ভিআইপিদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান ও তদন্ত ছাড়াও অন্যদের যেসব ফাইল চলমান তা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশনা দেওয়া হয়। দুদকের প্রধান কার্যালয় ছাড়াও বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালকদের কাছেও একই বার্তা দেওয়া হয়েছে ।

নতুন তালিকায় রাজনীতিবিদদের মধ্যে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাঈদ খোকন, বিএনপি নেতা শিমুল বিশ্বাস, ঢাকা উত্তরের সিটি করপোরেশনের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল, সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ও গোল্ডেন মনিরসহ এক ডজন নেতার নাম আছে। এদের নাম অগ্রাধিকার তালিকায় রাখা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং দেশের বাইরে অর্থ পাচারের অভিযোগে অনুসন্ধান শেষ করে পরবর্তী ব্যবস্থা নিতে চায় দুদক।

এছাড়া আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মাফিয়া শাহেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. ইকবালসহ তিন পরিচালক ও অপর ৭০ কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শেষ পর্যায়ে রয়েছে। নারী নেত্রী পাপিয়া ও শাহেদের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান ও তদন্ত রিপোর্ট তৈরির কাজ চলছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের পরিচালক আশরাফুল আলম, কার্গো বিভাগের জিএম আরিফ উল্লাহ, সাবেক জিএম আলী আহসান, শামসুল করিমসহ শীর্ষ পর্যায়ে ১০ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিমানের কার্গো শাখা থেকে ১১৮ কোটি টাকা লোপাটের একটি অনুসন্ধান শেষ পর্যায়ে রয়েছে। বিমানের সাবেক এমডি আবদুল মুনীম মুসাদ্দিক আহমেদের বিরুদ্ধেও ক্ষমতার অপব্যবহার, বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি ও অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান চলছে। তার বিদেশ গমনের ওপরও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এদিকে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ছাড়াও সিভিল এভিয়েশন, রাজউক, সড়ক ও জনপথ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন বিভাগের ৩৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির সুনির্দিষ্ট তথ্য নিয়ে দুদকের গোয়েন্দা বিভাগ থেকে গোপন অনুসন্ধান শুরু হয়েছে।

এছাড়া পিকে হালদারের নেতৃত্বে ৪০ সিন্ডিকেটের মধ্যে পিপলস লিজিংয়ের সাবেক চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেনসহ বেশ কয়েকজনের অর্থ আত্মসাতের দায়ের ২০টি মামলা হচ্ছে। পাসপোর্ট অফিসের ১৫০০ কোটি টাকার কেনাকাটায় নিুমানের মালামাল সরবরাহের অভিযোগে সংস্থার শীর্ষ কয়েকজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চলমান অনুসন্ধান শেষ করার ওপর জোর দিয়েছে কমিশন। সারা দেশে ই-পোস্ট অফিস নির্মাণের নামে ১০০০ কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগে ডাক অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক সুধাংশ শেখর ভদ্রসহ ১০ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শিগগিরই অনুসন্ধান প্রতিবেদন দেওয়া হচ্ছে।

ব্যাংকিং সেক্টরের মধ্যে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের সাবেক এমডি ও এনসিসি ব্যাংকের সাবেক এমডি মোসলমের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ ও এবি ব্যাংকে সাবেক চেয়ারম্যান এম. মোর্শেদ খান ও তার ছেলে ফয়সাল মোর্শেদ খানের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারসহ মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগের অনুসন্ধান প্রতিবেদন তৈরি হচ্ছে। অনুসন্ধান চলমান। এবি ব্যাংকের ঋণ গ্রহীতা এরশাদ ট্রেডার্সের বিরুদ্ধে ৩০০ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে অনুসন্ধান শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

অপরদিকে, হেফাজতের আমির বাবুনগরী ও মুফতি মামুনুল হকসহ ৪০ জন হেফাজত নেতার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত, দুর্নীতি ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধান অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শেষ করতে চায় দুদক।

সূত্র জানায়, ক্যাসিনোকাণ্ডে জড়িত চারজন এমপির বিরুদ্ধে দেশের বাইরে অর্থ পাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানে রয়েছে। এ ছাড়া আরও দুজন এমপির বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের অনুসন্ধানও শেষ পর্যায়ে। কমিশন তাক লাগানোর মতো কিছু মামলা করতে চায় বলে জানান একজন এমপির বিরুদ্ধে দুর্নীতির তথ্য সংগ্রহকারী অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা।

অনুসন্ধানে পাপুল পরিবারের মোট ব্যাংক হিসাব পাওয়া গেছে ৬১৭টি। এসব ব্যাংক হিসাব বর্তমানে আদালতের নির্দেশে জব্দ করে রেখেছে দুদক। তদন্ত কর্মকর্তারা শিগগিরই এ দুজনের বিষয়ে কমিশনে প্রতিবেদন দাখিল করবেন বলে জানা গেছে। ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।

কয়েকজন আমলার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ ও অর্থ পাচারের অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুদক। এই তালিকায় ১৮ জনের নাম রয়েছে বলে জানা গেছে। তাদের বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিংয়ের তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের কাছে তথ্য চেয়েছে দুদক।


আরও খবর
পরীর বাসায় মিলল আইস, এলএসডি

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১