আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

মিরপুর টেস্টে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সিরিজের প্রথম টেস্টে সিলেটে ঐতিহাসিক জয় পায় টাইগাররা। সেই টেস্টে জয়ের মধ্য দিয়ে ঘরের মাঠে কিউইদের প্রথমবার টেস্টে হারাল বাংলাদেশ।

সিলেটে প্রথম টেস্ট জয়ের মধ্য দিয়ে ১-০তে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। আগামীকাল বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচটি।

মিরপুর টেস্টে জয়ের মধ্য দিয়ে কিউইদের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করতে চায় নাজমুল হোসেন শান্তর নেতৃত্বাধীন দলটি।

আগামীকাল বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৯টায় খেলাটি শুরু হবে। সিলেটের মতো এই টেস্টেও ফেভারিট স্বাগতিক বাংলাদেশ। সিরিজের শেষ টেস্টে জিতে সফর শেষ করতে চায় কিউইরা।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: মাহমুদুল হাসান জয়, জাকির হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, শাহাদাত হোসেন, নুরুল হাসান (উইকেটরক্ষক), মেহেদি হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম ও শরিফুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড: ডেভন কনওয়ে, টম ল্যাথাম, কেন উইলিয়ামসন, রাচিন রবীন্দ্র, ড্যারিল মিচেল, টম ব্লান্ডেল (উইকেটরক্ষক), গ্লেন ফিলিপস, কাইল জেমিসন, ইশ সোধি, টিম সাউদি (সি) ও আজাজ প্যাটেল।


আরও খবর
হাথুরুসিংহেকে ‘শোকজ’ করবেন পাপন!

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ওয়ালটন সার্ভিসেস কুস্তির উভয় বিভাগে চ্যাম্পিয়ন আনসার বাহিনী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসির পৃষ্ঠপোষকতায় ও বাংলাদেশ অ্যামেচার রেসলিং ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত ওয়ালটন উন্মুক্ত ১২তম জাতীয় সার্ভিসেস (পুরুষ ও মহিলা) কুস্তি প্রতিযোগিতা-২০২৪ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) শেষ হয়েছে। শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত তিন দিনব্যাপী ওই প্রতিযোগিতার উভয় বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী।

পুরুষ বিভাগের ১০টি ওজন শ্রেণির পাঁচটিতে স্বর্ণ, ৩টিতে রৌপ্য ও ২টিতে ব্রোঞ্জসহ মোট ১০টি পদক জিতে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। ৩টি স্বর্ণ, ৩টি রৌপ্য ও ৪টি ব্রোঞ্জসহ ১০টি পদক জিতে রানার্স-আপ হয় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। আর ২টি স্বর্ণ, ৪টি রৌপ্য ও ৩টি ব্রোঞ্জসহ মোট ০৯টি পদক জিতে তৃতীয় হয় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

এদিকে নারী বিভাগের ১০টি ওজন শ্রেণি থেকে ৭টি স্বর্ণ, ২টি রৌপ্য ও ১টি ব্রোঞ্জসহ মোট ১০টি পদক জিতে চ্যাম্পিয়ন হয় আনসার। আর রানার্স-আপ হওয়া বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পায় ২টি স্বর্ণ ও ৬টি রৌপ্যসহ মোট ৮টি পদক। তৃতীয় হওয়া বাংলাদেশ পুলিশ পেয়েছে ১টি স্বর্ণ, ১টি রৌপ্য ও ৩টি ব্রোঞ্জসহ মোট ৫টি পদক।

পুরুষ বিভাগে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জুয়েল (৭৪ কেজি ওজন শ্রেণি)। মহিলা বিভাগে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ আনসার দলের রোজিনা (৭৬ কেজি ওজন শ্রেণি)।

টুর্নামেন্টের উভয় বিভাগের চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ ও তৃতীয় হওয়া দলকে ট্রফি দেওয়া হয়। সেরা খেলোয়াড় হওয়া দুজনই পেয়েছেন ৫ হাজার টাকা করে নগদ অর্থ পুরস্কার। এছাড়া প্রতিযোগিতায় পদকপ্রাপ্ত খেলোয়াড়দের ওয়ালটনের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স পুরস্কার প্রদান করা হয়।

প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ওয়ালটনের মার্কেটিং এন্ড কমিউনিকেশন বিভাগের সিনিয়র ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রবিউল ইসলাম মিলটন ও সিনিয়র ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মেহরাব হোসেন আসিফ।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশনের সহ-সভাপতি এমএ কুদ্দুস খান, সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান পালোয়ান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান বাচ্চু ও মেসবাহ উদ্দিন আজাদ প্রমুখ।

এবারের এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ পুলিশ, বাংলাদেশ আনসার, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও তিতাস গ্যাসের পক্ষে ১৫০ জন মহিলা ও পুরুষ কুস্তিগীর অংশ নেন। পুরুষ ও মহিলা উভয় বিভাগে ১০টি করে মোট ২০টি ওজন শ্রেণিতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। পুরুষ বিভাগের ওজন শ্রেণিগুলো ছিল- ৫৭ কেজি, ৬১ কেজি, ৬৫ কেজি, ৭০ কেজি, ৭৪ কেজি, ৭৯ কেজি, ৮৬ কেজি, ৯২ কেজি, ৯৭ কেজি ও ১২৫ কেজি। মহিলাদের ওজন শ্রেণিগুলো ছিল- ৫০ কেজি, ৫৩ কেজি, ৫৫ কেজি, ৫৭ কেজি, ৫৯ কেজি, ৬২ কেজি, ৬৫ কেজি, ৬৮ কেজি, ৭২ কেজি ও ৭৬ কেজি।

অনুষ্ঠানে ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, দীর্ঘদিন যাবত খেলাধুলাসহ সব ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে উৎসাহিত ও সহযোগিতা করে আসছে ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। খেলাধুলার এসব প্রতিযোগিতায় ওয়ালটনের অংশগ্রহণ থাকবে সবসময়।

ওয়ালটনের মার্কেটিং এন্ড কমিউনিকেশন বিভাগের সিনিয়র ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রবিউল ইসলাম মিলটন বলেন, যেকোনো প্রতিযোগিতায় প্রতিভাবান মুখগুলো সামনে উঠে আসে। এই কুস্তি প্রতিযোগিতাও এর ব্যতিক্রম কিছু নয়। প্রতিযোগিতামুখর এই ইভেন্ট অত্যন্ত সুন্দর ও সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই প্রতিযোগিতায় ওয়ালটনের উপস্থিতি ওয়ালটনকে সম্মানিত করেছে।

উল্লেখ্য, কুস্তি প্রতিযোগিতা-২০২৪ এর ইভেন্ট পার্টনার ছিল দেশের জনপ্রিয় ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড মার্সেল। আর মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলো অনলাইনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রাইজিংবিডি.কম।


আরও খবর



সন্তান নিলেই মিলবে ৮২ লাখ টাকা

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

একটি সন্তান নিলেই মিলবে ৭৫ হাজার ডলার বা ৮২ লাখ ১২ হাজার টাকার বেশি। এমন আকর্ষণীয় সুযোগ দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি কোম্পানি। মূলত দেশটির জন্মহার অস্বাভাবিকভাবে কমে যাওয়ায় দম্পতিদের বাচ্চা নিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটি।

সিউলভিত্তিক এই কনস্ট্রাকশন কোম্পানিটির নাম বুইয়ং গ্রুপ। গত সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তাদের কোনো কর্মীর একটি বাচ্চা হলেই তাকে ১০ কোটি কোরিয়ান ওয়ন বা ৭৫ হাজার ডলার দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে তারা।

প্রতিষ্ঠানটির একজন মুখপাত্র মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে জানিয়েছে, পুরুষ ও নারী সব কর্মীর জন্যই এই সুবিধা প্রযোজ্য হবে।

স্ট্যাটিসটিকস কোরিয়া সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালে ফারটিলিটি বা উর্বরতার হারের দিক থেকে দক্ষিণ কোরিয়ায় বিশ্বের সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে, এটি ০.৭৮। এ অনুপাতে একজন নারী তাঁর জীবদ্দশায় গড়ে কতটি সন্তান ধারণ করবেন তা নির্দেশ করে। এটি ২০২৫ সাল নাগাদ ০.৬৫ এ নেমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বুইয়ং গ্রুপ ১৯৮৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং কোম্পানির ওয়েবসাইট অনুসারে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৭০ হাজারের বেশি বাড়ি তৈরি করেছে।

নিউজ ট্যাগ: দক্ষিণ কোরিয়া

আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




এবার সুন্নতে খৎনা করাতে গিয়ে আইডিয়াল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শিশু আয়ানের মৃত্যুর রেশ না কাটতেই এবার মালিবাগের জেএস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থীর নাম আহনাফ তাহমিন আয়হাম (১০)। স্বজনদের অভিযোগ, লোকাল অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার কথা থাকলেও তারা ফুল অ্যানেস্থেসিয়া দিয়েছে। যে কারণে আহনাফের আর জ্ঞান ফেরেনি। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টায় আহনাফকে সুন্নাতে খৎনা করাতে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। এর ঘণ্টাখানেক পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মালিবাগের জেএস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে অর্থোপেডিক ও ট্রমা সার্জন ডা. এস এম মুক্তাদিরের তত্ত্বাবধানে মঙ্গলবার রাতে সন্তানকে সুন্নাতে খৎনা করাতে আসেন শিশু আয়হামের বাবা ফখরুল আলম ও মা খায়কুন নাহার চুমকি। রাত আটটার দিকে খৎনা করানোর জন্য অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার পর আর ঘুম ভাঙেনি আহনাফের। এর ঘণ্টাখানেক পর হাসপাতালটির পক্ষ থেকে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

স্বজনদের অভিযোগ, লোকাল অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার কথা থাকলেও ফুল অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়া হয় আহনাফকে। যে কারণে তার জ্ঞান ফেরেনি।

আহনাফের বাবা ফখরুল আলম বলেন, আমরা চিকিৎসককে বলেছিলাম যেন ফুল অ্যানেস্থেসিয়া না দেওয়া হয়। তারপরও আমার ছেলের শরীরে সেটি পুশ করেন ডাক্তার মুক্তাদির। আমি বারবার তাদের পায়ে ধরেছি। আমার ছেলেকে যেন ফুল অ্যানেস্থেসিয়া না দেওয়া হয়। 

আরও পড়ুন>> সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ মুলোৎপাটনই আজকের দিনের অঙ্গীকার: ওবায়দুল কাদের

তিনি বলেন, আমার সন্তানকে অ্যানেস্থেসিয়া দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এই মৃত্যুর দায় মুক্তাদিরসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সবারই। আমি তাদের কঠোর শাস্তি চাই।

এদিকে ঘটনার পরই ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে উধাও হয়ে যান অভিযুক্ত চিকিৎসক ডা. মুক্তাদির। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অর্থোপেডিক বিভাগের জয়েন্ট ব্যথা, বাতব্যথা, প্যারালাইসিস বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচয় দিয়ে চিকিৎসা দিতেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে জেএস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কাউকে পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জানুয়ারি রাজধানীর সাতারকুল বাড্ডার ইউনাইটেড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সুন্নাতে খৎনা করাতে গিয়ে লাইফ সাপোর্টে থাকা শিশু আয়ান মারা যায়। টানা সাত দিন লাইফ সাপোর্টে ছিল আয়ান।


আরও খবর
ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ছেলের সঙ্গে ক্যান্টিনে বসে খাওয়ার অপরাধে স্কুল থেকেই গ্রেফতার অভিভাবক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

নিয়ম মেনে স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সঙ্গে পড়ুয়াদের অভিভাবকদের আলোচনা হয় মাঝেমধ্যেই। সেই উদ্দেশ্যেই ছেলের স্কুলে গিয়েছিলেন এক অভিভাবক। আর শেখানেই ঘটে বিপত্তি, খিদে পেলে ছেলের সঙ্গে বসে স্কুলের ক্যান্টিনে খেতে যান তিনি। তার পরেই গ্রেফতার হতে হয় তাকে। বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) এই ঘটনাটি আমেরিকার পিট্সবার্গ এলাকার কাছে ওয়াশিংটন কাউন্টির একটি স্কুলে ঘটেছে।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা যায়, বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় ১০টা ৪৫ মিনিটে স্কুলের ক্যান্টিন থেকে গ্রেফতার করা হয় অভিভাবককে। স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি, স্কুলের ক্যান্টিনে বসে তার ছেলের সঙ্গে খাওয়াদাওয়া করছিলেন ওই অভিভাবক। স্কুল চত্বরের ভিতর অনধিকার প্রবেশ নিষেধ বলে জানান কর্তৃপক্ষ। স্কুলের নিয়ম ভেঙে ক্যান্টিনে প্রবেশ করেছিলেন বলে গ্রেফতার করা হয়েছে অভিভাবককে। স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি, এই ঘটনার ফলে স্কুলের নিরাপত্তা ব্যবস্থা লঙ্ঘন করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, ক্যান্টিনের ভিতর থেকে অভিভাবককে হাতকড়া পরিয়ে বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যদিও পুলিশ এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি। তবে ঘটনাটি নিয়ে নেটমাধ্যমে আলোচনা শুরু হলে স্কুল কর্তৃপক্ষের নিন্দা করেন নেট ব্যবহারকারীরা। কেউ বলেন, পড়ুয়াদের অভিভাবকেরা অচেনা নন। তাঁরা ক্যান্টিনে প্রবেশ করলে কী-ই বা ক্ষতি হবে?

অন্য এক নেট ব্যবহারকারীর মন্তব্য, এমন অদ্ভুত নিয়ম কিসের? উনি তো ছেলের সঙ্গে বসে খাচ্ছিলেন। গ্রেফতার করার খুব প্রয়োজন ছিল কি?


আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ইরানে ৯ পাকিস্তানিকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ইরানের সারাভান শহরে ৯ পাকিস্তানিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও তিনজন আহত হয়েছে। তেহরানে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ডন।

ইরানের মেহের নিউজ জানায়, শনিবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশের সারাভান শহরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, কয়েকজন অজ্ঞাত সশস্ত্র ব্যক্তি শহরের সিরকান এলাকায় একটি বাড়িতে ৯ পাকিস্তানিকে গুলি করে হত্যা করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠী এই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেনি বলেও জানিয়েছে ইরানি সংবাদমাধ্যমটি।

হালভাশ নামে বেলুচিস্তানের একটি মানবাধিকার সংস্থা বলেছে, হত্যাকাণ্ডের শিকার ব্যক্তিরা পাকিস্তানি শ্রমিক। তারা একটি গাড়ি মেরামতের দোকানে কাজ করতেন এবং সেখানেই থাকতেন।

 ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় তেহরানে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মুদাসসির টিপু বলেছেন, সারাভানে ৯ পাকিস্তানিকে হত্যার ঘটনায় গভীরভাবে মর্মাহত। দূতাবাস হত্যার শিকার ব্যক্তিদের পরিবারগুলোকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।

সহযোগিতার হাত বাড়াতে ইরান সরকারের প্রতিও আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূত মুদাসসির। দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি। বলেন, যেখানে আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সেই হাসপাতালও পরিদর্শন করবেন ওই কর্মকর্তা।

ইরান ও পাকিস্তান দক্ষিণ এশিয়ার দুই প্রতিবেশী দেশ। দেশ দুটির মধ্যে গত কয়েক দশক ধরে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। তবে সীমান্ত দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি সরাসরি সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে দেশ দুটি।

চলতি মাসের মাঝামাঝি অনেকটা আকস্মিকভাবেই একে অপরের ভূখণ্ডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান ও পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। এতে সীমান্তের উভয় পাশেই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

সীমান্তে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর অবস্থান লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করে উভয় পক্ষই। যার জেরে তেহরান ও ইসলামাবাদের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়।

তবে হামলা পাল্টা হামলার কয়েকদিন পরই সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে একমত হয় দেশ দুটির কর্মকর্তারা। তারই অংশ হিসেবে পাকিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জলিল আব্বাসের আমন্ত্রণে রোববার (২৮ জানুয়ারি) ইসলামাবাদ সফরে আসছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হুসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান।

কিন্তু ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরের একদিন আগেই তার দেশে ৯ পাকিস্তানি নাগরিকের হত্যার ঘটনা ঘটলো। ইরানের সংবাদ সংস্থা আইআরএনএ জানিয়েছে, সারাভান শহরের একটি গ্রাম লক্ষ্য করে চালানো হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছে।

আইআরএনএর প্রতিবেদন মতে, ইরান এই হামলার নিন্দা জানিয়েছে। পাকিস্তানি কোনো গোষ্ঠী এই হামলা চালিয়েছে বলে মনে করছে তেহরান। হামলার প্রতিবাদ ও পাকিস্তান সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়ার জন্য পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে।


আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪