আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম
স্পেনের কারাগারে ম্যাকাফি অ্যান্টিভাইরাস আবিষ্কারকের ‘আত্মহত্যা’ আগস্টে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে আরও ১৮ জনের মৃত্যু ‘আ.লীগ হীরার টুকরা, যতবার কেটেছে নতুন করে জ্যোতি ছড়িয়েছে’ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নামে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন স্বাক্ষর জালিয়াতি ও তথ্য গোপন করায় ছাত্র ইউনিয়নের দুই শীর্ষ নেতা বহিষ্কার ইতিহাসে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা সমার্থক হয়ে থাকবে: : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পরীমনির মামলায় সেই নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে ৯ দেশে ছড়িয়েছে ডেলটা প্লাস ধরন বিধিনিষেধের মধ্যেও শনাক্ত ও মৃত্যু বাড়ছে

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে পড়ে নিহত ১১, আহত ৮

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের মুম্বাইয়ে একটি নির্মাণাধীন ভবনের কাঠামোর একটি দ্বিতল আবাসিক ভবন ধসে পড়ে ১১ জনের মৃত্যু এবং কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছেন। বুধবার (৯ জুন) গভীর রাতে শহরতলির একটি বস্তিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছেন, এখনও অনেকেই ধ্বংসাবশেষের নিচে আটকা পড়ে থাকার আশঙ্কা রয়েছে এবং উদ্ধারকাজ চলছে।

তারা জানিয়েছে, মুম্বাইয়ের নাগরিক সংস্থা বিএমসি আশেপাশের আরও তিন তলা কাঠামো থেকে লোকজনকে উদ্ধার করছে, তারাও জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে বলেই জানা গেছে।

স্থানীয় পুলিশ ও ফায়ার ব্রিগেডের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন। স্থানীয়রাও অনুসন্ধান দলে যোগ দিয়ে আহতদের উদ্ধার করে এবং শহরতলির কান্দিভালি হাসপাতালে নিয়ে যায়।

হাসপাতালের একজন চিকিৎসক বলেন, "১৯ জনকে আহত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়, যার মধ্যে ১১ জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে এবং ৮ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।"

বুধবার (৯ জুন) রাত ১১টা ১০ মিনিটের দিকে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে বলেই বিএমসি বিপর্যয় পরিচালন সেল সূত্রে জানা গেছে। তবে দুর্ঘটনাটি কীভাবে ঘটলো তা এখনও পরিষ্কার নয়।



আরও খবর



গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুর করেছেন পরীমনি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনির বিরুদ্ধে রাজধানীর গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।

৭ জুন গভীর রাতে অভিনেত্রী পরীমনি যে ওই ক্লাবে গিয়েছিলেন, তার একটি সিসিটিভির ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, পরীমনির সঙ্গে আসা ব্যক্তিটি হাফপ্যান্ট ও স্যান্ডেল পরে ক্লাবে এসেছেন। এতে বাধা দেওয়ায় উত্তেজিত হয়ে ভাংচুর করেছেন পরীমনি ও তার সঙ্গে থাকা কয়েকজন। গণমাধ্যমে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পরীমনি।

বুধবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট কে এম আলমগীর ইকবাল।  তিনি বলেন, পরীমনি সেই রাতে ১৫টি গ্লাস, নয়টি স্ট্রে এবং অনেকগুলো হাফপ্লেট ছুড়ে মেরে ভেঙেছেন। ঘটনার দিন পরীমনির সঙ্গে এক ভদ্রলোক ছিল হাফপ্যান্ট পরা, আরেকজন নারীও ছিল। এটা রাত প্রায় সোয়া ১টা বা দেড়টার ঘটনা।

এ বিষয়ে পুলিশের গুলশান বিভাগে উপকমিশনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, ৭ জুন জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর মাধ্যমে ফোন পেয়ে পুলিশ অল কমিউিনিটি ক্লাবে গিয়েছিল। পুলিশ সেখানে যাওয়ার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। পরে পুলিশ থানায় এসে নিয়ম অনুযায়ী ঘটনার বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে।

আলমগীর ইকবাল বলেন, ক্লাবের কিছু নিয়ম-কানুন আছে। কোনো মেইল যদি ক্লাবে আসে তাকে কিছু নিয়ম কানুন মেনে চলতে হয়। কিন্তু পরীমনির সঙ্গে আসা ভদ্রলোক হাফপ্যান্ট ও স্যান্ডেল পরে এসেছেন। তখন ক্লাব থেকে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন আমাদের ফুড অ্যান্ড বেভারেজের ডিরেক্টর ও ক্লাবের এক ম্যানেজার। ওনারা সেটা দেখে বলেছেন, আপনিতো ক্লাব রুলস ভায়োলেট করেছেন। আপনিতো হাফপ্যান্ট পরে এখানে আসতে পারেন না। তখন তারা ক্ষিপ্ত হয়ে যান। তাদের আচার-আচরণ গ্রহণযোগ্য না হওয়ায় ওনারা (ডিরেক্টর ও ম্যানেজার) বলেছেন, রাত অনেক হয়ে গেছে আপনারা চলে যান। কিন্তু তারা চলে যাচ্ছিল না বিধায় আমাদের দুই পরিচালকই ক্লাব থেকে চলে যান।

পরবর্তীতে ঘটনার বর্ণনায় ক্লাব প্রেসিডেন্ট বলেন, তারপর যেই সদস্যের মাধ্যমে ওনারা এসেছিলেন উনিও তাদেরকে চলে যাওয়ার জন্য অনেক অনুরোধ করেন। কিন্তু ওনারা যাচ্ছিলেন না বিধায় ওই সদস্যও চলে যান। এরপর ওনারা (পরীমনি ও সঙ্গীরা) হঠাৎ ক্ষিপ্ত হয়ে চেচামেচি শুরু করেন এবং গ্লাস ও স্ট্রে ছুড়ে মারতে থাকেন। তখন আর কেউ ছিল না ক্লাবে। দুজন ওয়েটার আর এই তিন চারজন মানুষ ছিল। একপর্যায়ে তারা ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশ কল করেন। পুলিশ আসার পর তারা দেখতে পান, এগুলো উনি ছুড়ে মারছেন। তখন পুলিশ তাদেরকে জিজ্ঞেস করে আপনারা কেন এসেছেন, কেন আমাদের কল করেছেন? তখন তারা বলেন, আমাদের হেনস্থা করা হয়েছে। তখন পুলিশ বলেন, কিছুতো দেখছি না। এরপর তারা কিছুটা ঠাণ্ডা হন ও পুলিশের উপস্থিতিতে ঘটনাস্থল থেকে সরে যান। 


আরও খবর



রদ্রিগেসের গোলে উরুগুয়েকে হারাল আর্জেন্টিনা

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোপা আমেরিকার উত্তেজনাকর ম্যাচে গিদো রদ্রিগেসের দারুণ হেডে উরুগুয়েকে হারালো আর্জেন্টিনা।

ব্রাসিলিয়ার মানে গারিঞ্চা স্টেডিয়ামে বি গ্রুপের ম্যাচে ১-০ গোলে জিতে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা তিন ড্রয়ের পর জিতল দলটি।

অভিজ্ঞ ফুটবলারদের উপস্থিতিতে পূর্ণশক্তির দল নিয়ে নামে উরুগুয়ে। চিলির বিপক্ষে ১-১ ড্র করা দলে চারটি পরিবর্তন আনেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। দলে ফেরা খেলোয়াড়দের একজন, রদ্রিগেস গড়ে দেন ব্যবধান।

আক্রমণাত্মক শুরু করা আর্জেন্টিনাই পায় প্রথম ভালো সুযোগ। সপ্তম মিনিটে লিওনেল মেসির বাঁ পায়ের ট্রেডমার্ক শট ফিরিয়ে দেন উরুগুয়ের গোলরক্ষক ফের্নান্দো মুসলেরা। ফিরতি বলে ঠিক মতো শট নিতে পারেননি লাউতারো মার্তিনেস।

দুই মিনিট পর রদ্রিগো দে পলের ক্রসে ক্রিস্তিয়ান রোমোরোর হেড ঠেকিয়ে দেন মুসলেরা। দ্বাদশ মিনিটে আর পারেননি তিনি। মেসির দারুণ ক্রসে রদ্রিগেসের হেড পোস্টের ভেতর দিকে লেগে অতিক্রম করে গোল লাইন। এই মিডফিল্ডারের প্রথম গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা।

২৭তম মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে ব্যবধান দ্বিগুণের সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার সামনে। বল পায়ে অনেকটা এগিয়ে গিয়ে মেসি খুঁজে নেন নাহুয়েল মোলিনাকে। তার বুলেট গতির শট কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন উরুগুয়ে গোলরক্ষক।

আর্জেন্টিনার আক্রমণের ঝাপটা সামলে ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেয় উরুগুয়ে। কিন্তু আক্রমণে সুবিধা করতে পারেনি দলটি। যোগ করা সময়ে সুযোগ আসে তাদের সামনে। কিন্তু ডি বক্স থেকে ঠিক মতো শট নিতে এদিনসন কাভানি।

প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনা গোলের জন্য পাঁচটি শট নেয়, সবকটি ছিল লক্ষ্যে। উরুগুয়ের শট নিতে পারে কেবল একটি, সেটিও ছিল না লক্ষ্যে।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের গতি একটু বাড়ায় উরুগুয়ে। রক্ষণে নিজেদের কিছুটা গুটিয়ে নেয় আর্জেন্টিনা।

৬৯তম মিনিটে দারুণ একটি সুযোগ পায় উরুগুয়ে। কাছের পোস্টে দারুণ একটি ক্রসে একটুর জন্য মাথা ছোঁয়াতে পারেননি কাভানি। দূরের পোস্টে পা ছোঁয়াতে পারেননি লুইস সুয়ারেস।   

নিউজ ট্যাগ: আর্জেন্টিনা

আরও খবর



পাহাড়ি রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে নিহত ২৭

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাহাড়ি রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি গভীর খাদে পড়ে গেলে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পেরুতে খনি শ্রমিকদের বহনকারী একটি বাস উল্টে এক হাজার ৩০০ ফুট খাদে পড়ে গেলে ২৭ যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৩ জন।

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের একটি খনি থেকে অর্ধশত শ্রমিককে নিয়ে ফেরার পথে ওই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানায় মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

দেশটির কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে বলেছে, বাসটি পেল্লানকাটা এলাকার ওই খনি থেকে শ্রমিকদের নিয়ে আরেকিপা শহরের দিকে যাচ্ছিল। পাহাড়ি রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি গভীর খাদে পড়ে গেলে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে উদ্ধারকর্মীরা দুর্ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ১৩ জনকে নাজকা নামে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরও খবর



কুষ্টিয়ায় দেড় মাসের শিশু করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৩ জুন ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে দেড় মাসের শিশুর দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। প্রিন্স লাল নামের ওই শিশুটিকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

করোনায় আক্রান্ত শিশু প্রিন্স লাল কুষ্টিয়া শহরের বড় স্টেশন এলাকার সুইপার কলোনির বাসিন্দা আকাশ লালের ছেলে।

আকাশ লাল জানান, দেড় মাসের ছেলে প্রিন্স গত কয়েকদিন ধরে জ্বরে আক্রান্ত ছিল। গত সোমবার বিকেল ৪টায় তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এরপর সেখানে তার নমুনা নেওয়া হয়। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপরই শিশুটিকে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

করোনা ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক ইফতেখার হাসান জানান, দেড় মাসের শিশুর করোনা সংক্রমণের ঘটনা কুষ্টিয়ায় এই প্রথম। শিশুটির জ্বর ও সর্দি আছে। এর বাইরে কোনো জটিল উপসর্গ নেই।


আরও খবর



‘স্বপ্নের ঠিকানা’য় উঠবে শেরপুরের তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
Image

শেরপুর থেকে শাহরিয়ার শাকির

শেরপুর জেলায় বসবাসকারী তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) জনগোষ্ঠী পেলো সরকারি ঘর। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহায়তায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গড়ে ওঠেছে স্বপ্নের ঠিাকানা নামের একটি গুচ্ছগ্রাম। আজ (৭ জুন) দুপুরে শেরপুর সদরের কামারিয়া ইউনিয়নে দুই একর জায়গায় ৬৯ লাখ ৪ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত আবাসন প্রকল্পে ৪০ জন হিজড়ার হাতে নতুন ঘরের চাবি তুলে দিয়েছেন জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপসচিব) এটিএম জিয়াউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, শেরপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ আল মামুন, শেরপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিহা জামান শাপলা, জনউদ্যোগের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, সদস্য সচিব হাকিম বাবুল, কামারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বারী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা খবির উদ্দিন, সহকারি ভূমি উন্নয়ন কর্মকর্তা হুরমুজ আলীসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বপ্নের ঠিকানায় থাকছে পুকুর, শাক-সবজি, ফসল আবাদের জন্য রাখা হয়েছে খোলা জায়গা, আত্মকর্ম প্রশিক্ষণের জন্য নির্মিত হচ্ছে একটি মাল্টিপারপাস কক্ষ।

এসময় উপকারভোগীদের জন্য খাবার, রান্নার সামগ্রী, বিছানা, বিছানার চাদর, বালিশ ও কম্বল বিতরণ করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: হিজড়া শেরপুর

আরও খবর