আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

নান্নু আউট, প্রধান নির্বাচক হলেন আশরাফ হোসেন লিপু

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

গত ডিসেম্বরেই জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। আগে থেকেই গুঞ্জন ছিল, প্রধান নির্বাচকের পদে নান্নুর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করবে না বিসিবি। সেটিই সত্যি হলো। তার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করে এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আরেক সাবেক ক্রিকেটার গাজী আশরাফ হোসেন লিপুকে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরের শের-ই-বাংলায় বিসিবির বোর্ড সভা শেষে নান্নুর জায়গায় লিপুর নাম ঘোষণা করেন বিসিবি সভাপতি ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন।

নান্নুর নেতৃত্বে গত নির্বাচক প্যানেলে ছিলেন হাবিবুল বাশার সুমন ও আব্দুর রাজ্জাকও। এর মধ্যে বাদ পড়েছেন সাবেক অধিনায়ক সুমন। তার বদলে জায়গা হয়েছে হান্নান সরকারের। তবে নতুন প্যানেলেও থাকছেন সাবেক স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক।

নতুন নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু এর আগেও বিসিবির বিভিন্ন দায়িত্ব সামলেছেন। বিসিবির সাবেক পরিচালক তিনি। এছাড়া ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান এবং বিপিএল গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব সামলেছেন তিনি।


আরও খবর



তুমব্রু সীমান্তে ফের গোলাগুলি, সতর্ক বিজিবি

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্ত এলাকা ও মিয়ানমারের ঢেকিবুনিয়া এলাকা থেকে কয়েক দফায় বিকট শব্দ শোনা গেছে। রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৩টা ৪০ মিনিট থেকে এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত গোলাগুলির শব্দ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এর আগে শনিবার রাত সোয়া ২টা থেকে টানা শত রাউন্ড গুলির আওয়াজ শুনেছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য দিল মোহাম্মদ ভুট্টো।

বাইশফাড়ি সীমান্তের বাসিন্দা মো. এরশাদ বলেন, দু'দিন ধরে মিয়ানমার সীমান্তে ব্যাপক গোলাগুলিতে আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি। সীমান্ত এলাকায় কাজকর্ম করতে ভয় লাগছে।

তবে সীমান্ত এলাকায় বিজিবি সদস্যদের সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে। বন্ধ হয়ে যাওয়া সাতটি স্কুল এখনও খোলেনি। পরিস্থিতি পুরো স্বাভাবিক হলে কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদনের মাধ্যমে বন্ধ স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফরিদুল আলম হুসাইনি।

সূত্রে জানা গেছে, মিয়ানমার জান্তা বাহিনীর হাতছাড়া হওয়া আরকান আর্মি নিয়ন্ত্রিত তুমব্রু রাইট ক্যাম্প থেকে গুলি ছোড়া হলে প্রতিপক্ষ অপর বিদ্রোহীরা তাদের ওপর পাল্টা গুলি চালায়।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন, আবরও গোলাগুলির শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে তার এলাকার হাজারও মানুষ। তবে লোকজন কাজকর্ম স্বাভাবিকভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন।


আরও খবর



গাজীপুরে উচ্ছেদ মহাযজ্ঞ, একদিনে সাড়ে ৩ হাজার স্থাপনা গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুর প্রতিনিধি

Image

প্রশাসন ও সড়ক জনপথ বিভাগ শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল নয়টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত গাজীপুরের শ্রীপুরে জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চালিয়েছে।

মহাসড়কের এমসি, নয়নপুর ও জৈনাবাজর এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় মহাসড়কের পাশে গড়ে ওঠা বাজার, দোকানসহ প্রায় সাড়ের তিন হাজার স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। গুড়িয়ে দেওয়া হয় সকল অবৈধ স্থাপনা। অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইএনও) শামীমা ইয়াসমীন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল মামুন ও সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো.সোহেল মিয়া।

জানা যায়, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্নস্থানে হাজার হাজার অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল নয়টা থেকে উপজেলার এমসি বাজার এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে উপজেলা প্রশাসন। পরে দুপুর আড়াইটায় জৈনাবাজার এলাকায় এসে শেষ হয় এই অভিযান। উচ্ছেদের খবর পেয়ে কেউ স্বেচ্ছায় তাদের মালামাল সরিয়ে নেয়। অনেকে দোকান বন্ধ করে পালিয়ে যায়। বন্ধ থাকা স্থাপনাগুলো গুড়িয়ে দেওয়া হয়। কিছু স্থায়ী স্থাপনাও ভেঙে দেওয়া হয়েছে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. সোহেল মিয়া বলেন, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়কের শ্রীপুর অংশের ৩টি স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সব স্থানের অবৈধ বাজার উচ্ছেদ করা হয়। মহাসড়কের সকল অংশে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম ইয়ামিন বলেন, সকাল থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য উপজেলা প্রশাসনের কর্মচারীদের নিয়ে জয়দেবপুর- ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে সড়কের পাশে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা প্রায় সাড়ে তিন হাজার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। পরে যাতে মহাসড়কে পাশে কোনো ধরনের অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করতে না পারে সে জন্য প্রশাসন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।


আরও খবর



দলীয় সভায় আ.লীগ থেকে পদত্যাগ করেছেন স্বামী-স্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন এক দম্পতি। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পাটিকাপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মজিবুল আলম সাদাত ও তার স্ত্রী পাটিকাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহানা ফেরদৌসী সীমা মাসিক সভায় পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

সেখানে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। মজিবুল আলম নিজেই গণমাধ্যমের সামনে পদত্যাগের বিষয়টি জানান। তবে কী কারণে পদত্যাগ করছেন তা জানাননি।

এই দম্পতির দলীয় পদ থেকে পদত্যাগের বিষয়টি জানা নেই বলে দাবি করেছেন হাতিবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লিয়াকত হোসেন।

সূত্র জানাচ্ছে, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য গণসংযোগ করছেন দল থেকে পদত্যাগ করা সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুল হক। অন্যদিকে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লিয়াকত হোসেন। এই দুজন আবার সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা। এই কারণে পদত্যাগের ঘটনা ঘটে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


আরও খবর



বিশ্ব ইজতেমায় চলছে দ্বিতীয় দিনের বয়ান

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

টঙ্গীর তুরাগ নদীরতীরে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের দ্বিতীয় দিনের বয়ান চলছে। আজ শনিবার ফজরের নামাজের পর দেশ-বিদেশের লাখো মুসল্লির উদ্দেশ্যে পবিত্র কোরআন-হাদিসের আলোকে শুরু হয় এই বয়ান।

টঙ্গীর ইজতেমা ময়দান এর মধ্যে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে। আগামীকাল রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে এবারের ইজতেমা।

দুদিন ধরে সার্বক্ষণিক ইবাদত-বন্দেগিতে নিয়োজিত রয়েছেন মুসল্লিরা। প্রতিদিন ফজর থেকে এশা পর্যন্ত ঈমান, আমল, আখলাক ও দ্বীনের পথে মেহনতের ওপর আমবয়ান অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

শনিবার ফজরের পর বয়ান করেন ভারতের মাওলানা সাঈদ বিন সাদ, বাংলা তরজমা করেন মুফতি ওসামা ইসলাম। সকাল সাড়ে ১০টায় তালিমে হালকা মোয়াল্লেমদের সঙ্গে কথা বলবেন ভারতের মাওলানা আব্দুল আজিম। জোহরের নামাজের পর বয়ান করবেন ভারতের মাওলানা শরিফ। বাংলা তরজমা করবেন মাওলানা মাহমুদুল্লাহ।

আসরের নামাজের পর বয়ান করবেন পাকিস্তানের মাওলানা ওসমান। বাংলা তরজমা করবেন মাওলানা আজিম উদ্দিন। বয়ানের পর যৌতুকবিহীন বিবাহ পড়ানো হবে।

মাগরিবের নামাজের পর বয়ান করবেন ভারতের মুফতি ইয়াকুব। বাংলা তরজমা করবেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ।

এছাড়া আগামীকাল রবিবার ফজরের পর বয়ান করবেন ভারতের মুফতি মাকসুদ। বাংলা তরজমা করবেন মাওলানা আব্দুল্লাহ। বয়ানের পরই হেদায়েতের কথা ও দোয়া পরিচালনা করবেন ভারতের মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ। বয়ান বাংলায় তরজমা করবেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ।

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের মিডিয়া সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সায়েম বলেন, আগামীকাল সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হতে পারে।

২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ৪ ফেব্রুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হয়। মাঝে ৪ দিন বিরতি দিয়ে ৯ ফেব্রুয়ারি দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাযের অনুসারী (মাওলানা সাদপন্থি) মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে অংশ নিচ্ছেন। ১১ ফেব্রুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে এবারের বিশ্ব ইজতেমার পরিসমাপ্তি ঘটবে।


আরও খবর



শেরপুরে বিদ্যালয়ের জমি দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মো. নাজমুল হোসাইন, শেরপুর

Image

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ফুলহারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমিতে স্কুল কর্তৃপক্ষকে ম্যানেজ করে ব্যক্তিগত ভাবে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে জমি দাতা মৃত ঈশ্বর চন্দ্র চৌকিদারের নাতি মুক্তার কোচ বাদী হয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বাদীর লিখিত অভিযোগ ও সরেজমিনে তথ্য সূত্রে জানা গেছে, ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের ফুলহারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের সময় তৎকালীণ সময়ে ফুলহারি মৌজার বিআরএস দাগ নং- ১৯৫, জমির পরিমাণ ৫৭ শতাংশ এবং একি মৌজার দাগ নং-১৯৫/৬৬১বাট্টা, জমির পরিমাণ ৩ শতাংশ, উভয় খতিয়ান নং-৭৫ সহ মোট ৬০ শতাংশ জমি দান করেন ঈশ্বর চন্দ্র চৌকিদার যা বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে শিক্ষা বিভাগের নামে রেকর্ডভুক্ত।

অপরদিকে ওই বিদ্যালয়ের মাঠের পূর্বাংশে ১৪৫নং খতিয়ানভুক্ত ১৯৬নং দাগের রেকডিও ৭ শতাংশ জমির মালিক স্বর্বেশ্বর চন্দ্র কোচ। কিন্তু উক্ত বিদ্যালয়ের জমির সীমানা নির্ধারণ না করেই বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের জমির মালিক মৃত সুরুজ্জামানের দুই ছেলে জহুরুল ইসলাম ও মোশারফ হোসেন বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষকে ম্যানেজ করে বিদ্যালয়ের জমির মধ্যে বহুতল ভবন নির্মাণ করছে।

এ বিষয়ে অভিযোগকারী মুক্তার কোচ জানান, ‘‘আমি তাদেরকে বিদ্যালয়ের জমিতে ভবন নির্মাণের নিষেধ করলেও তারা আমার নিষেধ অমান্য করে অন্যের নামে রেকডিও ৭শতাংশ এবং সরকারি রাস্তার জমি দিয়ে বিদ্যালয়ের জমি বুঝ দিচ্ছে। শুধু তাই নয়, দাতা পক্ষের উত্তরাধিকার থাকা সত্বেও আমাদেরকে ব্যবস্থাপনা কমিটিতে কোন স্থান দেয়া হয়নি’’। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

বিদ্যালয়ের জমিতে ব্যক্তিগত ঘর নির্মাণের বিষয়ে ঘর উত্তোলনকারী জহুরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ জায়গার পরিবর্তে সর্বেশ্বর চন্দ্র কোচের নামে থাকা ৭শতাংশ জমি ক্রয় করে বিদ্যালয়কে দেয়া হবে বলে জানান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজা বেগম জানান, আমি বিদ্যালয়ের জমির বিষয়টা তেমন জানতাম না। জানার পর ঘর উত্তোলনকারীদের বিরোধ নিষ্পত্তির আগে কাজ করতে নিষেধ করে দিয়েছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) নুরুন নবী লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সরকারি সার্ভেয়ার চেয়ে ইউএনও স্যারের বরাবর আবেদন জানিয়েছি। অনুমোদন পেলে ওই বিদ্যালয় ও সরকারি রাস্তার জমি পরিমাপ করা হবে। সরকারি জমিতে ব্যক্তিমালিকানা ঘর উত্তোলণ করে থাকলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ভুইয়া একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বর্তমানে কাজ চালু রাখতে নিষেধ করেছি। উভয় পক্ষের কাগজপত্রাদি দেখে সরেজমিন তদন্তপূর্বক বিদ্যালয়ের সরকারি রাস্তা উদ্ধারসহ বিদ্যালয়ের সীমানা নির্ধারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এতে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা বলেও জানান তিনি।

এলাকাবাসীসহ অভিযোগকারী দ্রুত তদন্তপূর্বক বিদ্যালয়ের জমি উদ্ধারসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উধর্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।


আরও খবর