আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

নাশকতার মামলায় টুকু-জুয়েলসহ বিএনপির ২৯ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর শাহজাহানপুর ও গুলশান থানায় করা নাশকতার পৃথক দুই মামলায় যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েলসহ বিএনপির ২৯ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় ৪৫ জনকে খালাসও দিয়েছেন আদালত।

শাহজাহানপুর থানার মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, মো. ভাসানী চাকলাদার, মো. মহসীন, মো. হানিফ হোসেন বাবু, মো. বেলাল উদ্দিন, বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব মো. রফিকুল ইসলাম মজনু, মো. তারিকুল ইসলাম জিকির, মো. বাতেন, কাজী মো. জামাল, ইমরান খান ইমন, মো. সোহাগ ভূঁইয়া, আ. সালাম খান, আরিফুর রহমান সুজন, শেখ শহিদুল্লাহ টিপু, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, মো. আব্দুল্লাহ জামাল চৌধুরী আদিত্য, মো. সেলিম, আহমেদ ও হুমায়ূন কবির নাহিদ।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। আসামিদের দণ্ডবিধির ১৪৮ ও ৩৪ ধারায় দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও দণ্ডবিধির ৪২৭ ও ৩৪ ধারায় এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে দুই ধারার সাজা একসঙ্গে চলবে বলে আসামিদের দুই বছর করে সাজা ভোগ করলেই চলবে বলেও রায়ে বলেছেন আদালত।

অন্যদিকে খালাসপ্রাপ্ত ৪৪ আসার মধ্যে আবুল হোসেন ওরফে লিলু, মো. শফিউল বারী বাবু ও মো. শামসুর রহমান হুমায়ূন মামলা চলাকালীন মৃত্যুবরণ করেছেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, রাজধানীর শাহজাহানপুর এলাকায় ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে নাশকতার অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে মামলাটি করে। পরবর্তীসময়ে পুলিশ তদন্ত শেষে ৬৪ জনের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

এদিকে গুলশান থানার আরেক মামলায় বিএনপির নয় নেতাকর্মীকে পৃথক দুই ধারায় দুই বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিন এ কারাদণ্ড দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন মেহেদী বাপ্পী, মাইনুল হাসান প্রকাশ মিশু, শরিফুল, জাকির হোসেন, মজিবুর রহমান প্রকাশ মজি, মামুন চৌধুরী, রুবেল হোসেন, আতিকুর রহমান, বিল্লাল হোসেন।

আসামিদের ১৮৬০ সালের পেনাল কোড আইনের ১৪৩ ধারায় ছয়মাসের কারাদণ্ড ও পাঁচহাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তাদের একই আইনের ১৪৭ ধারায় দেড় বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচহাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আমিনুল ইসলাম নামে এক আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর গুলশানে বিএনপির নেতাকর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মিছিল করে। এসময় যানবাহন ভাঙচুরের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশের গুলশান থানার এসআই মো. নজরুল ইসলাম। মামলাটি তদন্ত করে ২০১৯ সালের ২২ এপ্রিল আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।


আরও খবর



আজকের রাশিফল: বুধবার ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

আজ নতুন কী ঘটতে চলেছে? আজ কি আপনার জন্য ভাল কিছু অপেক্ষা করে আছে? কেমন থাকবে আপনার আর্থিক অবস্থা? নাকি খারাপ কিছুর অপেক্ষা করে আছে আপনার ভাগ্যে। বিখ্যাত জ্যোতিষীর দ্বারা বিশ্লেষণের পর আজকের দিন নিয়ে ভবিষ্যত গণনা জানুন আপনার আজকের রাশিফলে।

মেষ/ Aries রাশিফল ( March 21 April 20 )

কিছু জিনিস আপনার বিবাহিত জীবনে আজ সত্যিই সুন্দর হবে। আপনার স্ত্রীর জন্য একটি চমৎকার সন্ধ্যার পরিকল্পনা করুন। আপনি মানসিকভাবে এবং শারীরিকভাবে সামান্য নীচু থাকবেন। বিশ্রাম আপনার শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

বৃষ/ Taurus রাশিফল ( April 21 May 21 )

প্রেমের সবসময়ই গভীর ভাবপূর্ণ। আপনি আজ এই অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। আপনি আজ কর্মক্ষেত্রে সত্যিই দারুণ কিছু করতে পারেন। আজকে আপনি আপনার খালি সময়ের সঠিক ব্যবহার করার জন্য ভাবুন।

মিথুন/ Gemini রাশিফল ( May 22 June 21 )

আপনার মনের মধ্যে ইতিবাচক চিন্তা আনুন। আপনার খরচা নিয়ন্ত্রণ করতে চেষ্টা করুন।আজ কেবলমাত্র জরুরী জিনিসই কিনুন। আগে থেকে করা ভ্রমণের পরিকল্পনা পরিবারের স্বাস্হ্য সংক্রান্ত সমস্যার জন্য স্থগিত হয়ে যেতে পারে।

কর্কট/ Cancer রাশিফল ( June 22 July 23 )

সুযোগের সঙ্গে এগিয়ে চলুন যা আপনার দিকে আসছে। আপনার অনুভূতি কী তা সবাইকে জানাতে ব্যস্ত হবেন না। আপনার স্ত্রী আজ শক্তি এবং প্রেমে পূর্ণ থাকবেন।

সিংহ/ Leo রাশিফল ( July 24 August 23 )

আজ, পরিবারের মধ্যে কোনও বিতর্ক বা বিরোধের সম্ভাবনা রয়েছে। নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন। আজ আপনার ভালোবাসার মানুষটির অনুভূতি বুঝুন। আপনার অনেক কিছু অর্জন করার ক্ষমতা আছে।

কন্যা/ Virgo রাশিফল ( August 24 September 23 )

আজ অর্থ হ্রাস হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। লেনদেন করার সময় বা কোনও দস্তাবেজ সই করার সময় আপনার সজাগ থাকা প্রয়োজন। পরিবারের পরিস্থিতি যেমন আপনি ভাবেন তেমন স্বাভাবিক হবে না।

তুলা/ Libra রাশিফল ( Sept 24 Oct 23)

কিছু প্রতিকূলতার সামনা করা সম্ভবপর। মনোক্ষুণ্ণ হবেন না বরং আকাঙ্খিত ফল পেতে কঠোর পরিশ্রম করুন। প্রতিকূলতাগুলিকে সাফল্যর পদক্ষেপে পরিণত হতে দিন। সঙ্কটের মুহুর্তে আত্মীয়রাও সাহায্য করবে।

বৃশ্চিক/ Scorpio রাশিফল ( Oct 24 Nov 22 )

সত্যিই ভাল মনে হবে। নিজের মন কে নিয়ন্ত্রণে রাখতে শিখুন কেননা অনেক বার আপনি আপনার মনের কথা শুনে মূল্যবান সময় নষ্ট করে ফেলেন। আজকেউ আপনি এরকম কিছু করতে পারেন। ভালবাসা এবং ভাল খাবার বিবাহিত জীবনের বুনিয়াদি হয়।

ধনু/ Sagitarious রাশিফল ( Nov 23 Dec 22 )

স্নেহশীল মেজাজ-আপনার মিশুকে স্বভাব আপনার চারপাশে যারা আছেন তাদেরকে আনন্দ এবং খুশি এনে দেবে। আপনার ভালবাসার জীবন আজ সত্যি সত্যিই আপনার জন্যে অসাধারণ কিছু বয়ে আনবে। আজ, আপনি সত্য জানতে পারবেন যে কেন আপনার বস সবসময় আপনার সাথে অভদ্র ব্যবহার করে।

মকর/ Capricorn রাশিফল ( Dec 23 Jan 20 )

পরিবারের সাথে সময় কাটাতে পারেন। আপনি এবং আপনার স্ত্রী আজ একটি বিস্ময়কর খবর পেতে পারেন। ভয় আপনার খুশিকে বিঘ্নিত করতে পারে। আপনাকে বুঝতে হবে যে এটি আপনার নিজস্ব ভাবনা এবং কল্পনার ফসল।

কুম্ভ/ Aquarious রাশিফল ( Jan 21 Feb 19 )

ধর্মনিষ্ঠ এবং পবিত্র ভালোবাসার অভিজ্ঞতা অর্জন করুন। নতুন উদ্যোগ বা খরচকে পিছিয়ে দিন। আজকে আপনি হটাৎই কাজ থেকে ছুটি নেওয়ার পরিকল্পনা করতে পারেন।

মীন/ Pisces রাশিফল ( Feb 20 Mar 20 )

একটি আমোদপ্রমোদ এবং মজার দিন। আপনি যে কারও সাহায্যে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হতে পারেন। আপনার যা প্রয়োজন তা হল নিজেকে বিশ্বাস করা। যথাযথ ভাববিনিময় এবং সহযোগিতা স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক উন্নত করবে।


আরও খবর
নারীর জন্য প্রয়োজনীয় পাঁচ ভিটামিন

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

২৩ ফেব্রুয়ারি : ইতিহাসে আজকের এই দিনে

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মিয়ানমার সীমান্তে থেমে থেমে বিকট শব্দ, হেলিকপ্টারের চক্কর

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোহাম্মদ ফারুক, কক্সবাজার

Image

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে ঠিক কী হচ্ছে পরিষ্কার জানে না বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারীরা। তবে সংঘাত ক্রমাগত তীব্র হয়ে উঠেছে তা বোঝা যাচ্ছে। থেমে থেমে বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে। মর্টার শেল ও বুলেট এসে আঘাত করছে বাংলাদেশের ভেতরে। এমনকি বাংলাদেশে বাড়িঘরেও আঘাত করছে সেসব গোলাগুলি। এতে সীমান্তবাসীর মনে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে রবিবার (২৮ জানুয়ারি) সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল একেএম নাজমুল হাসান।

টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নংর আহমেদ আনোয়ারী বলেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে ঠিক কী হচ্ছে বলা মুশকিল। তবে কয়েক দিন ধরে বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে। ইতোমধ্যে মিয়ানমার থেকে ছোড়া মর্টার শেল ও বুলেট বাংলাদেশের অভ্যন্তরে এসেছে। উলুবনিয়ার সীমান্তের কাছাকাছি রবিবার বেশ কয়েকবার হেলিকপ্টার চক্কর দিতে দেখা গেছে। এতে সীমান্তের মানুষ উদ্বিগ্ন রয়েছে।

একইভাবে ঘুমধুম সীমান্তে হেলিকপ্টারের চক্কর ও বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য শফিকুল ইসলাম।

বিজিবি-৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক কর্নেল মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, বিজিবিপ্রধান যখন সীমান্তের হোয়াইক্যং এলাকায় অবস্থান করছেন তখন বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী মিয়ানমারের আকাশে চক্কর দিচ্ছিল হেলিকপ্টার। একই সঙ্গে থেমে থেমে গোলাবারুদের বিকট শব্দও শোনা গেছে। বিজিবি মহাপরিচালক হেলিকপ্টার চক্কর দেওয়ার দৃশ্য দেখতে পেয়েছেন একাধিকবার। একই সঙ্গে তিনি শুনেছেন বিকট শব্দও।

অধিনায়ক জানিয়েছেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে মিয়ানমার আর্মি ও বিজিপির সঙ্গে আরাকান আর্মির সংঘর্ষ চলমান রয়েছে। এ পরিস্থিতি শনিবার থেকে এ পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে ফায়ার করা অন্তত ১৩টি মর্টার শেল ও একটি বুলেট বাংলাদেশে এসে পড়েছে। এ নিয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে মিয়ানমারের বিজিপিকে প্রতিবাদলিপি পাঠানো হয়েছে।

মিয়ানমারের মংডু এলাকার সোজাপাড়া গ্রামের একজন রোহিঙ্গা বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন ও চিন রাজ্যের অধিকাংশ এলাকা এখন আরাকান আর্মির নিয়ন্ত্রণে। পুনঃনিয়ন্ত্রণের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। ফলে কয়েক দিন ধরে রোহিঙ্গা গ্রামে গোলাবারুদ বর্ষণ, আগুন ধরিয়ে দেওয়া শুরু করেছে। এতে রোহিঙ্গারা নিরাপদ স্থানের আশায় গ্রাম ছাড়ছে। ইতোমধ্যে মংডু শহরের দলিয়াপাড়া, সোজাপাড়া এলাকায় আগুন দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এই বক্তব্য কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাসকারী মাস্টার মোহাম্মদ রফিক। বার্মিজ ভাষায় পারদর্শী তিনি। রফিক বলেন, আরাকান আর্মির নিজস্ব বিবৃতি, ছবি ও রাখাইন অঞ্চলে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের দেওয়া তথ্যমতে বিদ্রোহীদের সশস্ত্র লড়াই ক্রমাগত তীব্র হয়ে উঠেছে। বিদ্রোহীরা একে একে সেনাবাহিনীর ঘাঁটি দখল করে নিচ্ছে। আত্মসমর্পণ করছে সেনাবাহিনীর অনেক সদস্য। ফলে তাদের সেনাবাহিনী ক্রমাগত দুর্বল হয়ে গেছে।

মিয়ানমারে সংঘাতের একটি চিত্র পাওয়া যায় আমদানি-রপ্তানির তথ্যেও। টেকনাফ স্থলবন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক (হিসাব) মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, টানা ৪২ দিন বন্ধ থাকার পর গত ২৬ ডিসেম্বর সকালে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ ও শুকনা সুপারি নিয়ে একটি ট্রলার এসেছিল। আকিয়াব বন্দর থেকে আসা ট্রলারটিতে ১২০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ ও ৮০ মেট্রিক টন শুকনা সুপারি ছিল। এর পর থেকে নতুন করে আর কোনো পণ্যবাহী ট্রলার মিয়ানমার থেকে টেকনাফ আসেনি।

বিজিবিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ

পরিস্থিতি বিবেচনা করে মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় বিজিবিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে বিজিবি মহাপরিচালক এ নির্দেশনা দেন। এ সময় তিনি ৩৪ বিজিবির বিওপি এলাকায় দায়িত্ব পালনকারী বিজিবি সদস্য ও কর্মকর্তাদের দিকনির্দেশনা দিয়েছেন বলে বিজিবি সূত্র জানিয়েছে।

বিজিবি মহাপরিচালক বিজিবি-৩৪ ব্যাটালিয়নের পালংখালী বিওপি ও বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু বিওপি, ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা ও বিজিবি-২ ব্যাটালিয়নের হোয়াইক্যং বিওপিসহ তৎসংলগ্ন সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। সে সময় তিনি সীমান্তে দায়িত্বরত সকল পর্যায়ের বিজিবি সদস্যের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। তিনি সবাইকে সর্বোচ্চ পেশাদারত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সীমান্তে উদ্ভূত যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন। পরিদর্শনকালে তার সঙ্গে বিজিবি সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, কক্সবাজার রিজিওন কমান্ডার, রামু সেক্টর কমান্ডার ও সংশ্লিষ্ট ব্যাটালিয়নসমূহের অধিনায়কসহ বিজিবির অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ট্যাগ: কক্সবাজার

আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ফখরুল-খসরুর জামিন, মুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সল আতিক বিন কাদেরের আদালত দুজনকেই ৫,০০০ টাকা মুচলেকায় জামিনের এই আদেশ দেন।

ফখরুল-খসরুর বিরুদ্ধে হওয়া সবকটি মামলায় জামিন থাকায় তাদের কারামুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তাদের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ।

গত বছরের ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশকে ঘিরে সংঘর্ষের ঘটনায় ১১টি মামলা হয়েছিল বিএনপির মহাসচিবের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে ১০টি মামলায় জামিন পেয়েছিলেন তিনি। বাকি ছিল প্রধান বিচারপতির বাসভবনের হামলার অভিযোগের এই মামলাটি। আর আমীর খসরুর বিরুদ্ধে হয়েছিল ১০টি মামলা।

এর আগে, গত ৬ ফেব্রুয়ারি একই আদালতে মির্জা ফখরুল ও আমীর খসরুর জামিন চেয়ে আবেদন করেন তাদের আইনজীবীরা। ওই আবেদনের ওপর শুনানির জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি তারিখ ধার্য করেন আদালত।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে রাজধানীর কাকরাইলে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা, যানবাহন ভাঙচুর, পুলিশের ওপর হামলা ও কর্তব্যকাজে বাধা এবং ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জনমনে আতঙ্ক ও ত্রাস সৃষ্টির বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়। এর মধ্যে বিএনপির ৭২ জন নেতার নাম উল্লেখ করে কাকরাইল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মোফিজুর রহমান বাদী হয়ে রমনা মডেল থানায় একটি মামলাটি দায়ের করেন।

অন্যদিকে, ৫৯ জন বিএনপি নেতার নাম উল্লেখ করে সিদ্বেশ্বরী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. সহিদুল ওসমান মাসুম বাদী হয়ে রমনা থানায় আরেকটি মামলা দায়ের করেন। দুটি মামলাই ঘটনার পরদিন ২৯ অক্টোবর দায়ের করা হয়।

গত ২৮ অক্টোবর মির্জা ফখরুলের গুলশানের নিজ বাসা থেকে তাকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এরপর প্রধান বিচারপতির বাসভবনে ভাঙচুরের অভিযোগের মামলায় তাকে আদালতে হাজির করা হলে গত ২৯ অক্টোবর আদালত তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

আর গত ২ নভেম্বর দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে আমির খসরুকে আটক করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। পরদিন ৩ নভেম্বর তার ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। ৯ নভেম্বর রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর থেকে তিনিও কারাগারে রয়েছেন।


আরও খবর



সাকিবের ব্যাটে ছক্কার ফুলঝুরি, ঢাকার টার্গেট ১৭৬

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

বিপিএল শুরুর আগে থেকেই চোখের সমস্যায় ভুগছিলেন সাকিব আল হাসান। বিপিএল খেলার সময় আরও ভালোভাবে টের পান সমস্যা। তাইতো শুরুর এক ম্যাচ খেলেই উড়াল দিয়েছিলেন সিঙ্গাপুরে। সেখানে চিকিৎসা শেষে বিপিএলে ফিরেও ব্যাটে রান পাচ্ছিলেন না তিনি। অবশেষে সাকিবের ব্যাটে দেখা গেল ছক্কার ফুলঝুরি।

মঙ্গলবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) দুর্দান্ত ঢাকার বিপক্ষে ৩টি ছক্কা হাঁকান রংপুর রাইডার্সের অলরাউন্ডার সাকিব। ২০ বলে করেন ঝোড়ো ৩৪ রান। তাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে রংপুর।

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে টস জিতে এদিন রংপুরকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ঢাকা। শুরু থেকেই ঢাকার বোলারদের ওপের আক্রমণ চালান রনি তালুকদার। আরেক ওপেনার বাবর খেলেন আস্তেধীরে। ওপেনিংয়ে দুজনে গড়েন ৬৭ রানের জুটি। মাত্র ৭ ওভার ৪ বলেই এই রান করে রংপুর। এই রানের মাথায় ২৪ বলে ৩৯ রান করে ফেরেন রনি। ৬টি চার ও ১ ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান তিনি।

এরপরই মাঠে নামেন সাকিব। বাবর আজমের সঙ্গে গড়েন ৫২ রানের জুটি। যেখানে একাই সাকিবের অবদান ৩৪ রান। ১১৯ রানে বাবর (৪৩ বলে ৪৭) ফিরলে ভাঙে এই জুটি। দ্রুতই আউট হয়ে যান সাকিব ও আজমাতুল্লাহ ওমারজাই।

ম্যাচের শেষদিকে দারুণ ব্যাটিং করেন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ও মোহাম্মদ নবি। শেষ ২২ বলে ৪৪ রান তোলে এই জুটি। শেষ পর্যন্ত সোহান ১০ বলে ১৬ ও নবি ১৬ বলে ২৯ রানে অপরাজিত ছিলেন।


আরও খবর
হাথুরুসিংহেকে ‘শোকজ’ করবেন পাপন!

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিলেটে মহাশশ্মান শবদাহের চুলা উদ্বোধন করলেন সিসিক মেয়র

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

সিলেট নগরীর চালিবন্দর মহাশশ্মানে নবনির্মিত শবদাহের চুলা উদ্বোধন করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় নগরীর চালিবন্দর মহাশশ্মানে শবদাহের চুলা উদ্বোধন কালে সিসিক মেয়র সিলেট নগরীকে অসাম্প্রদায়িক ও আদর্শ নগরী হিসেবে গড়ে তুলার প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি বলেন, সিলেটের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর সুনজর আছে। সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় নগরীর উন্নয়নে আমি আমার সর্বোচ্চটুকু দিয়ে কাজ করে যাবো। সিলেটকে সুন্দর পরিচ্ছন্ন এবং উন্নত নগরী হিসেবে গড়ে তুলে নগরবাসীকে একটি গ্রিন-ক্লিন-স্মার্ট সিলেট উপহার দিবো।

মেয়র আরও বলেন, সব ধর্মের লোক একটি বয়সের পর আমাদের পরকালের পথে যেতে হবে। তাই আমরা আমাদের কবর এবং শশ্মান পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করবো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছয়ফুল আমি বাকের, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর শাহানা বেগম শানু, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শান্তনু দত্ত শন্তু, ০৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জগদীশ চন্দ্র দাশ। প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বিজিত চৌধুরী, প্রদীপ ভট্টাচার্য, সিলেট জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোপীকা শ্যাম পুরকায়স্থ, মহানগর আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, এড. প্রশান্ত কুমার পাল, মলয় পুরকায়স্থ, এড. বিজয় কুমার দেব বুলু, দেবাংশু দাস মিঠু, চন্দন দাশ, বিশ্বজিত দেবরায় বিশু, কিশোর ভট্টাচার্য জনি, বিভাষ শ্যাম যাদন, জয়ন্ত দেব মিন্টু, রাখাল দে, অমিত দে, অংশুমান ভট্টাচার্য  রাকু, এড. দেবতোষ দেব, এড. সন্তু দাস,  উজ্বল দাস, অরূপ শ্যাম বাপ্পি, উত্তম ঘোষ প্রমুখ।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪