আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

নাটোর ও সিংড়া পৌরসভায় সাত দিনের লকডাউন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামীকাল ৯ জুন থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত নাটোর এবং সিংড়া পৌরসভায় সাত দিনের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। তবে মহাসড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। শুধুমাত্র পৌরসভা এলাকার ভেতরে কঠোর লকডাউন পালন করা হবে বন্ধ থাকবে দোকানপাট, সকল ধরনের যানবহন।

এছাড়া উপজেলাগুলোর কৃষিপণ্য বিশেষ করে এ মৌসুমের আম আড়তগুলো খোলা থাকবে সেখান থেকে আম পাঠানো হবে জেলার বাহিরে।

গত রাতে করোনা সংক্রান্ত জরুরি জুম ভার্চ্যুয়াল সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এদিকে করোনা রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে নাটোর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, এখানে ৩১ শয্যার বিপরীতে ভর্তি আছেন ৩৯ জন। রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধিতে ইয়েলো জোনের মাঝ দিয়ে আলমারি ও পর্দা টাঙিয়ে ভর্তি করা হচ্ছে করোনা রোগী এতে সংক্রমণ ছাড়িয়ে যাওয়ার আশংকা সাধারণের।

জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ জানান, লকডাউন চলাকালে সরবরাহ থাকবে জরুরি পণ্য। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না। মাস্ক পরিধান বাধ্যতামুলক, স্বেচ্ছাসেবকরা জরুরি পণ্য সরবরাহ করবেন।



আরও খবর



বোরকা পরে জামিন নিতে আদালতে

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ১৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
লাহোরের মিশ্রি সাহা এলাকায় বিয়ে করেছিলেন সরফরাজ। কিন্তু মেয়ের বাবা তার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা দেন। এদিন সেই মামলায় আগাম জামিন নিতে এসে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন তিনি

একটি অপহরণ মামলায় বোরকা পরে অন্তবর্তীকালীন জামিন নিতে আদালতে হাজির হন এক ব্যক্তি। পরে পুলিশের সন্দেহ হলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বুধবার পাকিস্তানের লাহোর হাইকোর্টে এ ঘটনা ঘটে।

খালিজ টাইমসের খবরে বলা হয়, গ্রেফতার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম সরফরাজ। তার বেশভুষা দেখে সন্দেহ হওয়ার পর তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপরই বেরিয়ে আসে আসল সত্য।

লাহোরের মিশ্রি সাহা এলাকায় বিয়ে করেছিলেন সরফরাজ। কিন্তু মেয়ের বাবা তার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা দেন। এদিন সেই মামলায় আগাম জামিন নিতে এসে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন তিনি।

গ্রেফতার হওয়ার পর সরফরাজ বলেন, মেয়ের পরিবারের সঙ্গে সংঘাত এবং গ্রেফতার এড়াতে বোরকা পরে আদালতে আদালতে হাজির হওয়ার সিদ্ধান্ত নেই।

এ ঘটনায় পুলিশ জানিয়েছে, সরফরাজের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজ ট্যাগ: লাহোর

আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




জয়বঞ্চিত হলো লুইস এনরিকের দল

প্রকাশিত:রবিবার ২০ জুন ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৪১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ম্যাচে বল দখল বা আক্রমণ, সবকিছুতেই পোল্যান্ডের থেকে পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে ছিল স্পেন। কিন্তু গোল তো মিস করলোই, পেনাল্টিও কাজে লাগাতে না পেরে জয়বঞ্চিত হলো লুইস এনরিকের দল।

সেভিয়ার লা কোর্তুয়ায় শনিবার রাতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে পোল্যান্ড-স্পেনের গ্রুপের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্রয়ে শেষ হয়েছে।

টানা দুই ড্রয়ে গ্রুপের শীর্ষ দুইয়ে থেকে পরের রাউন্ডে যাওয়ার পথ কঠিন হয়ে গেল লুইস এনরিকের দলের। ১৯৯৬ সালের পর ইউরোতে এবারই প্রথম দুই ম্যাচে জয়হীন থাকলো লা রোজারা।

অথচ ম্যাচের শুরু থেকেই বল নিয়ন্ত্রণে রেখে খেলছিল স্পেন। আক্রমণও চালাতে থাকে। পোল্যান্ডও প্রতি আক্রমণ করার চেষ্টা করেছে। তবে লক্ষ্যে ছিল না কেউই।

ম্যাচের ২৫ মিনিটে ঘুরে যায় মোড়। জেরার্ড মোরেনো ডান দিকে বক্সের বাইরে থেকে হঠাৎ ঢুকেই চোখের পলকে পাস দিয়ে দেন আলভারো মোরাতাকে। মোরাতা ডান পায়ের শটে বল জড়িয়ে দেন জালে।

লাইনসম্যান অফসাইডের বাঁশি বাজান। পোল্যান্ডের খেলোয়াড়রাও ভেবেছিলেন, গোল হয়নি। রেফারি ভিআরের সিদ্ধান্ত দেন। কিন্তু রিপ্লে দেখে অফসাইড বাতিল হয়। গোল পেয়ে যায় স্পেন

গোল খেয়ে আক্রমণের ধার বাড়ায় পোল্যান্ড। বিরতির ঠিক আগে ৪৩ মিনিটে সমতায় ফিরতে পারতো তারা। কারল সুইডাস্কির শট দুর্ভাগ্যজনকভাবে পোস্টে লেগে ফেরত আসে। ফিরতি বলে লেভানদোভস্কিও গোল পেতে পারতেন, স্পেনের গোলরক্ষক উনাই সিমন সেভ করেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও আক্রমণের সেই ধারা ধরে রাখে প্রথমার্ধে মাত্র ২১ ভাগ বল দখলে রাখা পোলিশরা। গোল পেতে সময় লাগেনি।

৫৫ মিনিটে দলকে সমতায় ফেরান রবার্ট লেভানদোভস্কি। জজওয়াকের উঁচু ক্রস থেকে বল পেয়ে শূন্যে লাফিয়ে উঠে জোড়ালো এক হেডে পোস্টের বাঁ দিকের কর্নার ঘেঁষে গোল করেন পোলিশ স্ট্রাইকার।

এর দুই মিনিট পর পেনাল্টি পেয়েছিল স্পেন। পোলিশ মিডফিল্ডার জ্যাকুব মডের বিপজ্জনক জায়গায় ফেলে দেন জেরার্ডকে। ভারের সাহায্যে স্পট কিকের সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। কিন্তু জেরার্ড মরেনো মিস করে বসেন পেনাল্টি।

এরপরও মোরাতা-তরেসরা আক্রমণ সাজিয়ে গোলের দেখা পাননি। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলের ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়ে দুই দল।


আরও খবর
কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারাল ব্রাজিল

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




মোহাম্মদপুরে টিনের ঘরে আগুন, ২ বছরের শিশুসহ মা-বাবা দগ্ধ

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৯ মে ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা এলাকার নবদয় হাউজিংয়ের একটি টিনশেড বাসায় মশার কয়েল থেকে লাগা আগুনে এক শিশুসহ মা-বাবা দগ্ধ হয়েছে। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। দগ্ধরা হলেন- মো. সোহেল (৩৫), তার স্ত্রী লাবনী আক্তার হাওয়া (২৫) ও ২ বছরের ছেলে সন্তান মো. মোসালিন।

চিকিৎসকরা জানান, সোহেলের শরীরে ৭৫ শতাংশ দগ্ধ, লাবনীর ৩০ ও মোসালিন ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রাত ৩টার দিকে হঠাৎ তাদের রুমের ভেতরে চিৎকার শুরু হয়। পরে ঘুম থেকে উঠে তাদের রুমের সামনে গিয়ে সকলে দেখে রুমের ভেতর আগুন জ্বলছে, সোহেল ও লাবনী রুমের বাইরে, তাদের শরীরেও আগুন জ্বলছিলও। আর শিশুটি রুমের ভেতরেই ছিল। তখন তাকেও রুমের ভেতর থেকে বাইরে বের করে  সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

দগ্ধদের হাসপাতালে নিয়ে আসা প্রতিবেশী রুপা নামের এক নারী  বলেন, সোহেল বেকার। আর তার স্ত্রী অন্যের বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ করে। তাদের আরেক বড় মেয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকে। নবদয় হাউজিংয়ের সি ব্লকের ২নম্বর টিনশেড বাড়িতে ভাড়া থাকতো তারা। গত ২ মাস আগেই তারা এই বাসায় ভাড়া ওঠে। মশার কয়েল থেকে এই আগুন লাগতে পারে বলে তারা জানিয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার মাহফুজ রিবেন জানান, আমরা ২টা ৪৪ মিনিটে আগুনের সংবাদ পাই। এরপর আমাদের মোহাম্মাদপুর স্টেশনের ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু তারা যাওয়ার আগেই আগুন নিভে গেছে। এরপর ওই বাসার একই পরিবারের ৩ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে গ্যাস লাইন লিকেজ হওয়ায় রুমের ভেতর জমাট গ্যাস মশার কয়েলের সংস্পর্শে এসে এই আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুনে তিনজন দগ্ধসহ গৃহস্থালি মালামালও পুড়ে গেছে।


আরও খবর



স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই, গণপরিবহনে শুধু ভাড়া বাড়ল

প্রকাশিত:রবিবার ২০ জুন ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্তে গণপরিবহন চালু হলেও নজরদারির অভাবে তা ভেঙে পড়েছে। কেবল ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি ছাড়া অর্ধেক আসন শূন্য রাখা মাস্ক পরা বা দূরত্ব বজায় রাখার শর্তগুলো মানা হচ্ছে না। ফলে করোনা সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা বাড়ছে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক আসনে যাত্রী পরিবহনের শর্তে সবশেষে ২৪ মে থেকে গণপরিবহন চালু করে পরিবহণ মালিকরা। এক মাস না যেতেই বাস-মিনিবাসে শারীরিক দূরত্ব না মেনে পূর্ণ আসনে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়েছে। মাস্ক পড়তে চান না অনেকেই তবে ৬০ ভাগ বা তারও বেশি ভাড়া ঠিকই আদায় করা হচ্ছে।

শিল্প কারখানা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আর সরকারি-বেসরকারি অফিস খুলে দেয়ায় যাত্রী চাপ বেড়েছে। এ অবস্থায় অর্ধেক আসনে যাত্রী পরিবহনের শর্তে ভাড়া বৃদ্ধির খেসারত সাধারণ যাত্রীদেরই দিতে হচ্ছে। কারণ গাদাগাদিতে সংক্রমণ ঝুঁকির সাথে অতিরিক্ত ভাড়া তাদেরই গুনতে হচ্ছে।

যাত্রী নিয়ে চালক-হেলপার বলেন, অফিস শুরু ও শেষের সময়ে যাত্রী চাপেই শর্ত মানা যাচ্ছে না। আর আমরা ইচ্ছে করে যাত্রী নেই না। তারাই জোর করে গাড়িতে উঠে।

ভাড়া নিয়ে যাত্রীরা বলেন, আগের ভাড়ায় নিরাপদ। কোন নিয়ম মানা হচ্ছে না। তাহলে শুধু শুধু আমরা কেন এত ভাড়া বেশি দিব।

স্বাস্থ্য বিধি মানা নিয়ে ওয়েলকাম ও মৌমিতা বাস ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. কালু শেখ বলেন, মালিক ও শ্রমিক সমন্বয়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাড়ি রাস্তায় চলছে। নিয়ম ভঙ্গ করছে সরকারি পরিবহন বিআরটিসির কর্মীরা।

এই সমস্যা বিষয়ে বুয়েটের এআরআই এর পরিচালক ড. মো. হাদিউজ্জামান বলেন, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রীদের উপর ভাড়ার চাপ না বাড়িয়ে পিক আওয়ারে বাসের রুট ভাগ করে পরিস্থিতি সামাল দেয়া যেতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: গণপরিবহন

আরও খবর



ডব্লিউএইচওর অনুমোদন পেল চীনের সিনোভ্যাকও

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেক কোম্পানির কোরোনাভ্যাক কোভিড টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

মঙ্গলবার ডব্লিউএইচও টিকাটি অনুমোদন করার কথা জানিয়েছে। এ নিয়ে চীনের উৎপাদিত করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় টিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেল।

স্বাধীন বিশেষজ্ঞদের প্যানেল এক বিবৃতিতে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য সিনোভ্যাকের এই টিকার দুই ডোজ সুপারিশ করেছে। দুই থেকে চার সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে।

এর আগে গত ৭ মে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত ওষুধ কোম্পানি সিনোফার্মের তৈরি দুটি টিকার মধ্যে বিবিআইবিপি-করভি (BBIBP-CorV) জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছিল ডব্লিউএইচও।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছ থেকে টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পাওয়ার মানে হল, বিশ্বের দেশগুলো এ টিকার মান ও কার্যকারিতায় আস্থা রাখতে পারে।

ডব্লিউএইচও চীনের সিনোভ্যাকের এই টিকাকে কোভ্যাক্স প্রোগ্রামের আওতায়ও আনবে। মূলত গরিব দেশগুলোর টিকাপ্রাপ্তি নিশ্চিত করতে কোভ্যাক্স নামের এই প্ল্যাটফার্ম গড়ে তোলা হয়েছে।

ডব্লিউএইচও এর আগে ফাইজার-বায়োএনটেক, অ্যাস্ট্রাজেনেকা, জনসন অ্যান্ড জনসন এবং মডার্নার টিকাও জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দিয়েছিল।

কিন্তু ভারত টিকা রপ্তানি বন্ধ রাখায় গরিব দেশগুলো টিকার পুরো চালান সময়মত পাচ্ছে না। যার কারণে অন্য উৎস থেকে টিকা সংগ্রহের উদ্যোগ নিতে হচ্ছে বিভিন্ন দেশকে।

চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেক কোম্পানি জানিয়েছে, তারা মে মাসের শেষ নাগাদ দেশে-বিদেশে এই টিকার ৬০ কোটিরও বেশি ডোজ সরবরাহ করেছে এবং ৪৩ কোটি ডোজ এরই মধ্যে মানুষকে দেওয়া হয়েছে।

ডব্লিউএইচও মঙ্গলবার চীনের সিনোভ্যাকের তৈরি কোভিড টিকা অনুমোদন করলেও বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে আগে থেকেই এ টিকার প্রয়োগ শুরু হয়েছে।

বিভিন্ন দেশে এই টিকার তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে টিকাটি ৫১ শতাংশ থেকে ৮৪ শতাংশ কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে বলে এর আগে এক পর্যালোচনা প্রতিবেদনে জানিয়েছিল বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত ডব্লিউএইচওস্ট্র্যাটেজিক অ্যাডভাইজরি গ্রুপ (এসএজিই)।

চীন ক্যানসিনো বায়োলজিক্সের তৃতীয় আরেকটি কোভিড টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তথ্যও জমা দিয়েছে। তবে এই তথ্য এখনও পর্যালোচনা করে দেখেনি ডব্লিউএইচও।


আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১