আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

নাটোরে ট্রাক চাপায় দুই মাদ্রাসাশিক্ষক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নাটোরের সিংড়ায় ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই মাদ্রাসাশিক্ষক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও এক শিক্ষক। আজ শনিবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- নাটোর শহরের বড়গাছা দারুল উরুম মাদ্রাসার শিক্ষক খলিলুর রহমান ও বেলাল। এছাড়া আহত আব্দুল হামিদও একই মাদ্রাসার শিক্ষক। আহত হামিদকে সিংড়া উপজেলা কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সিংড়া থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক কিশোর কুমার রায় জানান, আজ শনিবার সকালে ৩ শিক্ষক মোটরসাইকেলে নাটোর শহর থেকে বগুড়া যাচ্ছিলেন। পথে পুরাতর ফেরিঘাট সংলগ্ন সিংড়া ব্রীজের পূর্ব পাশে একটি ট্রাক পেছন থেকে তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই খলিলুর রহমান ও বেলালের মৃত্যু হয়। এছাড়া আহত খলিলকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা সিংড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।

কিশোর কুমার রায় জানান, নিহত খলিলুর রহমান ও বেলাল নাটোর শহরের তেবাড়িয়া এলাকার বাসিন্দা। আর আব্দুল হামিদ নাটোর শহরের বড়গাছা এলাকার বাসিন্দা। তবে ট্রাকটি আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



ভারতে আবারও সাড়ে ৩ লাখের বেশি শনাক্ত, মৃত্যু ৩৪১৭

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার ভয়ংকর তাণ্ডবে ধুঁকছে ভারত। গত ২৪ ঘণ্টায় এ মহামারিতে প্রাণ গেছে আরো ৩ হাজার ৪শ ১৭ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরো ৩ লাখ ৬৮ হাজার ১১৭ জন। গতদিনের চেয়ে মৃত্যু ও শনাক্ত কমলেও সংখ্যার নিরিখ সেটা সামান্য।

সোমবার (৩ মে) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্র দিয়ে এ তথ্য জানায় টাইমস অব ইন্ডিয়া।

এর আগে রবিবার দেশটিতে নতুন আক্রান্ত হন ৩ লাখ ৯২ হাজার ৪৮৮ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৯৯ লাখ ২৫ হাজার ৬০৪ জনে। মৃত্যু হয় ৩৬৮৯ জনের। মোট মৃত্যু ২ লাখ ১৮ হাজার ৯৫৯।

ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্যমতে, ভারতে তৈরি হওয়া করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটির নাম গবেষকেরা দিয়েছেন বি-ওয়ান-সিক্সসেভেনটিন। গত অক্টোবরে এটি প্রথম শনাক্ত হয়।


আরও খবর



৫ মে পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন, প্রজ্ঞাপন জারি

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ এপ্রিল ২০২১ | ১৩৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি বিবেচনায় চলমান বিধি-নিষেধের (লকডাউন) মেয়াদ আরো এক সপ্তাহ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বুধবার (২৮ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী আগামী ৫ মে মধ্যরাত পর্যন্ত এ বিধি-নিষেধ বহাল থাকবে।

লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিং মল সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এছাড়া আগের মতো জরুরি সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠান ছাড়া যথারীতি সরকারি-বেসরকারি অফিস, গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। খোলা থাকবে শিল্পকারখানা।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকারঘোষিত দ্বিতীয় দফার সর্বাত্মক লকডাউন শেষ হচ্ছে বুধবার। এদিন থেকেই আরো এক সপ্তাহ লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার থেকে আবারো শুরু হয়ে লকডাউন চলবে আগামী ৫ মে পর্যন্ত।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে গত ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সে দিন থেকে দেশে জরুরি সেবা, ব্যাংক ও গার্মেন্ট কারখানা ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সেই সঙ্গে বন্ধ রয়েছে সব গণপরিবহন।

এর আগে, করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বগতির কারণে গত ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত সারাদেশে শপিং মল, দোকানপাট, হোটেল-রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পাশাপাশি গণপরিবহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও একজন। উপজেলার মহিষলুটি বাজার এলাকায় হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কে এবং ৯ নম্বর ব্রিজ এলাকায় আজ রবিবার সকালে এই দুর্ঘটনা দুটি ঘটে।

নিহত তিনজনের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি হলেন, উল্লাপাড়া উপজেলার পাগলা মধ্যপাড়া গ্রামের সলিম উদ্দিনের ছেলে শাহীন (৪৫)।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ হেল বাকি জানান, আজ সকালে মহিষলুটি বাজারে একটি ট্রাক দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় পেছন থেকে অপর একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে শাহীন নামের এক ব্যক্তি নিহত হন।

অপরদিকে, ৯ নম্বর ব্রিজ এলাকায় একই মহাসড়কে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞাত এক ব্যক্তি নিহত হন। এ সময় আহত হন আরও দুজন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকায় নেওয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর



মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম ভয়াবহ ষড়যন্ত্রের শিকার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ এপ্রিল ২০২১ | ৩৬৬২জন দেখেছেন
ফাহাদ মশিউর রহমান

Image

স্বাধীনতার পর থেকেই অবহেলিত জনপথ হিসেবে পিরোজপুর জেলা পরিচিত। বিশেষ করে পিরোজপুর-১ আসনের জন্য বিগত সময় উন্নয়নের জন্য বরাদ্ধ এলেও তা দিয়ে কতিপয় নেতার পকেট উন্নয়নের কাজ হয়েছে। উন্নয়নের সুফল প্রান্তিক জনগোষ্ঠির কাছে পৌছায় নি। এমনকি সাবেক সংসদ সদস্য একেএমএ আউয়াল এর বিরুদ্ধে দুদকে একাধিক মামলাও চলমান আছে। একেএমএ আউয়াল তার বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন বঞ্চিতও হয়েছেন।  

বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচনে পিরোজপুর-১ (পিরোজপুর-নাজিরপুর-স্বরূপকাঠি) মনোনয়ন পান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তৎকালীন আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম। বিপুল ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন, বিরোধীপ্রার্থী যুদ্ধাপরাধী দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর পুত্র হারিয়েছে জামানত।

অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহনের পরপরই পিরোজপুরবাসীদের জন্য আসে আরো একটি সুখবর। তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহনের আমন্ত্রণপত্র পান। তাঁর হাত ধরেই শুরু হয় উন্নয়নের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার পিরোজপুরের। একের পর এক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড শুরু হয় পিরোজপুর-১ আসনকে কেন্দ্র করে।

অগ্রগতি আর উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সুফল যখন পিরোজপুর-১ আসনের জনগণ পেতে শুরু করেছে তখনই শুরু হয়েছে উন্নয়ন বিরোধী ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রকারীরা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম ও তাঁর পরিবার নিয়ে প্রতিনিয়ত অনলাইন-অফলাইনে মিথ্য গুজব ছড়িয়ে যাচ্ছে। শুধু গুজব ছড়িয়েই খান্ত হয়নি ওই সব চিহ্নিত ষড়যন্ত্রকারীরা, তারা আজগুবী সব তথ্য দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

অনুসন্ধানে জানা যায়, পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সাংসদ একেএমএ আউয়াল ও তার ছোট ভাই পিরোজপুরের পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেকের বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত ও মামলা দায়ের হওয়ার পরে তাদের কিছু অনুসারি পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ বর্তমান সংসদ সদস্য ও মাননীয় মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিমকে দোষারোপ করে তাঁকে ভবিষ্যতে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ কিছু স্ট্যাটাস দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় অতি সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু ভূয়া আইডি থেকে মন্ত্রী মহোদয় ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও মানহানীকর তথ্য প্রচার শুরু হয়। অনুসদ্ধান করে দেখা গেছে ওই সব ভূয়া আইডি থেকে যাদের বক্তব্য প্রচার করা হচ্ছে তাদের অধিকাংশ নারী-পুরুষ পিরোজপুরের বাসিন্দা নয়, যারা বহু বছর আগে বাংলাদেশে ছেড়ে ভারতের স্থায়ী বাসিন্দা হয়েছেন। এছাড়া, চিহ্নিত জামায়াত-শিবির ও নেতা কর্মীরা এসব অপপ্রচারের সাথে যুক্ত রয়েছে।

একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়,  মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম এর হাত ধরে পিরোজপুরে ব্যপক উন্নয় ও সাধারণ জনগণের মধ্যে বর্তমান সরকার, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা তৈরী হওয়ায় ভবিষ্যতে শ ম রেজাউল করিমই পিরোজপুর-১ আসনের দলের মনোনয়ন পাবেন এমন রাজনৈতিক ভিতি থেকে পিরোজপুরের একটি রাজনৈতিক অপশক্তি, শ ম রেজাউল করিমকে রাজনৈতি ও সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে বহু বিতর্কিত প্রিয়া বালা সাহা, যুদ্ধাপরাধী ও স্বাধীনতা বিরোধী চক্র এবং হেফাজতে ইসলামের সাইবার ইউনিটকে  ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরণের অপ-প্রচারে লিপ্ত  আছে।

এ বিষয়ে মন্ত্রী মহোদয়ের ছোট ভাই এস.এম. নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, রাজনৈতির প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে পিরোজপুরের একটি রাজনৈতিক অপশক্তি মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় এবং আমাদের পরিবারের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা ও বানোয়াট অপ-প্রচারে লিপ্ত আছে। এ বিষয়ে নাজিরপুর থানায় সাধারণ ডায়েরী এবং ঢাকার সিআইডি পুলিশ বিভাগের সাইবার ক্রাইম ইউনিটে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিরোজপুরের এক ব্যবসায়ী জানান, বিগত সময় পিরোজপুরে ব্যবসা করতে বিভিন্ন প্রকার চাঁদ দিতে দিতে ব্যবসা প্রায় বন্ধ হতে বসেছিল। মন্ত্রী মহোদয় সেই চাঁদাবাজদের হাত থেকে আমাদের বাঁচিয়েছে। এ কারণে অনেকের সমস্য হচ্ছে আর সেখান থেকেই তাঁর বিরুদ্ধে এই অপপ্রচার শুরু হয়েছে।

একই ভাবে মনের কষ্টের কথা জানান এক বাস ব্যবসায়ী। তিনি বলেন, একটি পরিবার পুরো পিরোজপুরের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছিল। মনে করতো তারা ছাড়া আর কেউ নেই। মন্ত্রী মহোদয় ক্ষমতায় আসার সাথে সাথে সেই সিন্ডিকেট ভেঙে দিয়েছে। এই অক্রোশে এই মিথ্যা গুজব ছড়াচ্ছে। কিন্তু জনগণ এখন জানে এবং বোঝে কোনটা সত্য আর কোনটা মিথ্যা। ষড়যন্ত্রকারীরা বিগত সময়ের মত মুখ থুবরে পরবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক এক সংবাদকর্মী জানান, বিগত সময়ে সত্য কথা লিখলে বা বললে মিলতো হুমকি অথবা মামলা। কিন্তু বর্তমান সময়ে সেই অবস্থা নেই। আমরা নির্ভয়ে সব সংবাদ প্রচার করতে পারি। বিগত সময়ে যারা দুর্নীতি করে সম্পদের পাহাড় গড়েছে তাদের বিরুদ্ধে নির্ভয়ে সংবাদ প্রকাশ করতে পারি। সেইসব দুর্নীতিবাজদের মুখোশ উন্মোচিত হয়ে যাওয়া মন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি একের পর এক মিথ্য প্রচার করে চলছে।

পিরোজপুর শহরতলীর বাসিন্ধা ইলিয়াস হোসেন বলেন, আমরা বিরোধী দলের রাজনীতি করি। কিন্তু তাই বলে মন্ত্রী মহোদয়ের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা অস্বীকার করতে পারিনা। তাঁর এই দুই বছরে যে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পিরোজপুরে শুরু হয়েছে তা অনেকেই হয়তো পছন্দ করতে পারেনি। সে কারণেই অনেকে তাঁর বিরুদ্ধে অনেক বাজে কথা বলে। কিন্তু আমি মনে করি মন্ত্রী মহোদয় তাঁর এই উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখলে এসেই অপপ্রচারকারীরাই আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবে।        

নারী নেত্রী দোলাগুহ বলেন, শুধুমাত্র উন্নয়ন কর্মকাণ্ড দেখে ভীত হয়ে এই অপপ্রচারে যারা লিপ্ত হয়েছে তারা পিরোজপুরের উন্নয়ন চায় না। সময়ের ব্যবধানে সব সত্যি একদিন প্রকাশিত হবে। যারা পিরোজপুরের উন্নয়ন বিরোধী এ এলাকার জনগণ তাদের প্রত্যাখান করবে।


আরও খবর



ভারতে করোনা কেড়ে নিল আরও প্রায় ৪ হাজার প্রাণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ | ৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়া করোনাভাইরাস একই দিনে আরো ৩ হাজার ৮৭৯ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এই ভাইরাসের ছোবলে এরই মধ্যে দেশটিতে মোট প্রাণহানি ছাড়িয়েছে আড়াই লাখ। এছাড়া একদিনে দেশটিতে ৩ লাখ ৩০ হাজারের কাছাকাছি মানুষের শরীরে শনাক্ত হয়েছে করোনা ভাইরাস।

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয় এবং ভারতীয় অশোক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মে মাসের শেষ নাগাদ প্রতিদিন সংক্রমণ ৮ লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে। আর বিজ্ঞানভিত্তিক জার্নাল দ্য ল্যানসেট জানিয়েছে, আগস্টের মধ্যে দেশটিতে মৃত্যু ছাড়াতে পারে ১০ লাখ।

করোনার বিস্তার রোধে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি লকডাউনের পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা। একইসঙ্গে সব বয়সী ভারতীয়কে টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আনারও আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

মহারাষ্ট্রে মার্চের পর প্রথমবার দৈনিক সংক্রমণ ৪০ হাজারের নিচে শনাক্ত হল। অন্যদিকে দিল্লিতে লকডাউনের সময়সীমা বৃদ্ধি করেও ঠেকানো যাচ্ছে না সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার। এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা মোট ২ কোটি ৩০ লাখের মতো।


আরও খবর