আজঃ শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১
শিরোনাম

নববধূ হত্যায় শ্বশুরবাড়ির ৬ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিয়ের ১৫ দিনের মাথায় কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে রুবা আক্তার নামে এক নববধূকে হত্যার দায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্দুর রহিম এই আদেশ দেন। রায়ে প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডও করা হয়েছে।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- লুৎতু ওরফে রুকন, রুকনের চাচাতো ভাই শরীফ, শরীফের বাবা সোহরাব, সোহরাবের স্ত্রী জোৎস্না, মুসলিম ও মুসলিমের স্ত্রী নূর নাহার। এরা সবাই সম্পর্কে রুবার স্বামী শামীমের চাচা, চাচি, চাচাতো ভাই ও তার স্ত্রী। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০১ সালের ২০ মে করিমগঞ্জ উপজেলার ভাটিয়া মোগলপাড়া গ্রামের আ. কদ্দুসের ছেলে শামীমের সঙ্গে বিয়ে হয় তার চাচাতো বোন একই গ্রামের আবুবকর সিদ্দিকের মেয়ে রুবার। এ বিয়েতে শামীমের মত ছিল না।

বিয়ের ১৫ দিন পর ২০১১ সালের ৩ জুন রাতে আসামিরা শ্বাসরোধ করে রুবাকে হত্যা করে বাড়ির পেছনের ডোবায় ফেলে রাখে। খবর পেয়ে ওই রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় রুবার ভাই আলামিন বাদী হয়ে পরদিন রুবার স্বামীসহ সাতজনকে আসামি করে করিমগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে একই বছরের ৩০ ডিসেম্বর শামীম ছাড়া অপর ছয়জনের নামে আদালতে চার্জশিট দেন করিমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খন্দকার শওকত জাহান। দীর্ঘ সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে আদালত আজ এই রায় ঘোষণা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী সৈয়দ শাহজাহান। অন্যদিকে আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী অশোক সরকার।

Share



পদত্যাগের জন্য প্রস্তুত ইসি মাহবুব তালুকদার

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে পদত্যাগ করলে যদি লাভ হয়, দেশের যদি কোনো উপকার হয়, তাহলে আমি যেকোনো মুহূর্তেই পদত্যাগ করতে প্রস্তুত।

আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মাহবুব তালুকদার বলেন, এই দাবিটা সম্ভবত আমাদের কাছে নয়, এটা অন্যত্র দাবি করা হয়েছে। এর মধ্যে একটা কথা আছে। আমরাতো একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশনার হয়েছি। এখন যদি সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল আমাদের ব্যাপারে গঠিত হয়। আমাদের কোনোকিছু বক্তব্য তো নাই। ঠিক না? আর একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হওয়ার পরে আমি পদত্যাগ করে ফেললাম এটা কোনো বিষয় হয় না।

তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের আজ ৪ বছর পূর্ণ হলো। পেছনের দিকে তাকিয়ে মনে হচ্ছে আমাদের আত্মবিশ্লেষণ প্রয়োজন। প্রায় সব নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে আমরা তৃপ্তি বোধে করি। কিন্তু নির্বাচন বিষয়ে আমাদের সকল দাবি জনগণের উপলব্ধির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। কেবল রাজনৈতিক দল নয়, নীরব জনগোষ্ঠীর অশ্রুত ভাষা শ্রবণের প্রচেষ্টা থাকা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, বর্তমানে নির্বাচন এককেন্দ্রিক হয়ে যাচ্ছে। এককেন্দ্রিক নির্বাচন বহুদলীয় গণতন্ত্রের উপাদান হতে পারে না। যেহেতু নির্বাচন ছাড়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা যায় না, সেহেতু নির্বাচনের প্রতিটি আইনকানুন ও আচরণবিধি কঠোরভাবে পালনের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রকে পরিপালন ও সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু নির্বাচন প্রক্রিয়া যথাযোগ্য সংস্কার না করার কারণে নির্বাচন ব্যবস্থাপনা এখন গভীর খাদের কিনারে। এজন্য রাজনৈতিক দলগুলো এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সমঝোতা প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

Share



৩২৩ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন ১১ এপ্রিল

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৮২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রথম ধাপে দেশের ৩২৩ ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) আগামী ১১ এপ্রিল নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী মার্চের প্রথম সপ্তাহে এসব ইউপির তফসিল ঘোষণা করবে ইসি।

বুধবার ইসির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে সংস্থাটির সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

সচিব বলেন, দেশের ২০ জেলার ৬৩ উপজেলায় মোট ৩২৩টি ইউপিতে আগামী ১১ এপ্রিল ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেই লক্ষ্যে আগামী মার্চের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করা হবে।

দেশের প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউপির মধ্যে কয়েক ধাপে ভোট হবে। প্রথম ধাপে ৪১টি ইউপিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হবে। ১০টি আঞ্চলিক নির্বাচন অফিস বিবেচনায় নিয়ে এসব ইউপি বাছাই করা হবে।

তিনি জানান, ১১ এপ্রিল নয়টি পৌরসভায়ও ভোটগ্রহণ হবে। এগুলোতে ভোট নেওয়া হবে ইভিএমে।  কমিশনের লক্ষ্য একটাই, অবাধ, সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক ভোট গ্রহণ। এ জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ থাকবে বলেও জানান সচিব।

Share



শিকল খুলে হলে প্রবেশ করলেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
হলে উঠতে আমাদের তেমন কোনো বেগ পেতে হয়নি। হল গেইটের তালা আগেই খোলা ছিল। আমরা শুধু বড় গেইটের তালা ছাড়া আটকানো শিকল খুলে ভেতরে প্রবেশ করি। প্রায় এক বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয় বন্

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পর এবার জোরপূর্বক হলে প্রবেশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও। ইতোমধ্যে ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হল এবং অমর একুশে হলের ভেতরে অবস্থান নিয়েছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শহীদুল্লাহ্ হলের মূল ভবনের ফলকে তালা ছাড়া আটকানো শিকল খুলে ভেতরে প্রবেশ করেন তারা। এসময় প্রশাসন কর্তৃক কোনো বাধার সম্মুখীন হতে হয়নি শিক্ষার্থীদের।

শহীদুল্লাহ্ হলের শিক্ষার্থীরা জানান, হলে উঠতে আমাদের তেমন কোনো বেগ পেতে হয়নি। হল গেইটের তালা আগেই খোলা ছিল। আমরা শুধু বড় গেইটের তালা ছাড়া আটকানো শিকল খুলে ভেতরে প্রবেশ করি। প্রায় এক বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ। আমরা বাড়িতে থেকে থেকে বিরক্ত হয়ে গেছি। তাই জোর করে হলে উঠে গেছি। এখন হলেই অবস্থান করবো।

শহীদুল্লাহ্ হলের নিরাপত্তা কর্মী কামাল হোসেন বলেন, প্রথমে একজন শিক্ষার্থী হলের ভেতর থেকে মালামাল নেবে বলে প্রবেশ করে। পরবর্তীতে ৪০-৫০ জন জড়ো হয়ে হলে ঢোকার জন্য জোর করলে আমি তালা খুলে দেই।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক সৈয়দ হুমায়ুন আখতার বলেন, এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে। আমরা দেখছি কী করা যায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, আমরা এ বিষয়ে অবগত। ইতোমধ্যে হল প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি। শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করার জন্য সহকারী প্রক্টররা হলের দিকে যাচ্ছেন।

Share

এইচএসসি মানোন্নয়নের ফল রবিবার

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১




করোনায় বিশ্বে মৃতের সংখ্যা সাড়ে ২৪ লাখ ছাড়ালো

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ৬৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ১২ লাখ ৩৪ হাজার ৩৬৫ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ লাখ ৬২ হাজার ৭০৩ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৮ কোটি ৬১ লাখ ১১ হাজার ৪২৮ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৫ লাখ ৭ হাজার ৭৪৬ জন এখন পর্যন্ত মারা গেছেন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এই পর্যন্ত ২ কোটি ৮৬ লাখ ৩ হাজার ৮১৩ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ৮১ হাজার ৬৯৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৪ হাজার ৯৫৫ জনের। তবে মৃত্যু বিবেচনায় মেক্সিকোর অবস্থান তৃতীয়।

আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে চতুর্থ অবস্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৯ লাখ ৭৬ হাজার ৭৭৬ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৫৬ হাজার ২৪০ জনের।

Share

করোনা : দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৪১০

বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১

ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১




আল-জাজিরার উদ্দেশ্য হাসিল হবে না : সেনাপ্রধান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সেনাবাহিনীকে নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সেনাবাহিনী দেশের গর্ব। এটিকে নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে নানান গুজব ছড়ানো হচ্ছে। বাহিনী এখন অনেক সুসংহত। বাহিনী ঘৃণাভরে এসব প্রত্যাখান করেছে। পুরো চেইন অব কমান্ড সবাই-ই সতর্ক। সেনাবাহিনী সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। এসব প্রচারণায় কিছুই হবে না বাহিনীর। আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে আর্মি এভিয়েশনের বেসিক কোর্সের অ্যাওয়ার্ড সেরেমনি অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

তিনি আরও বলেন, তাদের (আল-জাজিরার) উদ্দেশ্য হাসিল হবে না। পরিবারের সদস্যরা অব্যাহতি পাওয়ার পরই ভাইয়েরা এসেছিল। সেনাবাহিনীর ভাবমূর্তি বজায় রাখতে কি করতে হবে সে ব্যাপারে আমি ওয়াকিবহাল। আল-জাজিরা যা করেছে সেটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের সময় চিত্রধারণ প্রসঙ্গ তিনি বলেন, পারিবারিক কাজে অফিশিয়াল প্রটোকল ব্যবহার করিনি। সে সময়ই এমন কাজগুলো উদ্দেশ্যমূলকভাবে এসবের চিত্রধারণ করা হয়েছে। সেনাপ্রধানকে হেয় করার মানে প্রধানমন্ত্রীকে হেয় করা। আমার কারণে সেনাবাহিনী ও সরকার যাতে বিব্রত না হয়, সে ব্যাপারে আমি পূর্ণ সচেতন। তারা কাটপিস দিয়ে এসব বানিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আপনাদের আমি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলতে চাই- সেনাবাহিনী অত্যন্ত প্রশিক্ষিত ও ওয়েল মোটিভেটেড একটা ফোর্স। আগের থেকে অনেক বেশি সুসংহত। সেনাবাহিনীর চেইন অব কমান্ড অত্যন্ত ইফেকটিভ। বাহিনীর প্রতিটি সদস্য ঘৃণাভরে এ ধরনের অপচেষ্টা অতীতেও প্রত্যাখ্যান করেছে, এখনও করছে। বর্তমানে যা আছে তা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে যাচ্ছে।

এর আগে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরায় প্রকাশিত অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন শীর্ষক প্রতিবেদনটির প্রতিবাদ জানিয়ে সেনা সদর বলেছে, বাংলাদেশ সরকার ও সেনাবাহিনীকে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষ্যে সেখানে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) থেকে সোমবার রাতে পাঠানো ওই প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়েছে, পেশাগতভাবে অত্যন্ত দক্ষ, সকলের কাছে অতি গ্রহণযোগ্য সেনাবাহিনী প্রধানকে কোনো তথ্য প্রমাণ ছাড়া আল জাজিরা কর্তৃক অসৎ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, ভিত্তিহীন এবং কাল্পনিকভাবে দুর্নীতির সাথে জড়িত করার অপপ্রয়াস সেনাবাহিনী ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে।

Share