আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

নেদারল্যান্ডসে ২৪০০ জলবায়ু কর্মী আটক

প্রকাশিত:রবিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

জীবাশ্ম জ্বালানি শিল্পের জন্য সরকারি ভর্তুকি বন্ধের দাবিতে নেদারল্যান্ডসের একটি মহাসড়কে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করে হাজার হাজার জলবায়ুকর্মী।

বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান ব্যবহার করে পুলিশ। এ সময় ২ হাজার ৪০০ জন জলবায়ুকর্মীকে আটক করা হয়।

স্থানীয় সময় শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দেশটির রাজধানী হেগের একটি প্রধান মোটরওয়ে জলবায়ুকর্মীরা অবরোধ করলে এসব ঘটনা ঘটে।

রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

২৪০০ বিক্ষোভকারীকে আটকের সত্যতা স্বীকার করে পুলিশ জানিয়েছে, জলবায়ুকর্মীদের কাউকে আঘাত করা হয়নি। মূলত ট্র্যাফিক কর্তৃপক্ষের সতর্কতা উপেক্ষা করে রাস্তা আটকে বিক্ষোভ করায় তাদের আটক করা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, জলবায়ুকর্মীদের নিয়ে শনিবার এক্সটিংকশন রেবেলিয়ন নামে একটি সংগঠন এই প্রতিবাদ-বিক্ষোভের আয়োজন করে। ১০ হাজারেরও বেশি বিক্ষোভকারী এ১২ হাইওয়ে ধরে হেগের দিকে মিছিল শুরু করে। এতে শিশু ও বয়স্করাও অংশ নেয়। মিছিল থেকে স্লোগান শোনা যাচ্ছিল, সমুদ্র বাড়ছে এবং আমরাও আছি।

সংগঠনটি বলছে, নেদারল্যান্ডস সরকার তেল ও গ্যাস শিল্পে ভর্তুকি দেওয়ার জন্য সরকারি তহবিল ব্যবহার বন্ধ না করা পর্যন্ত তারা বিক্ষোভ চালিয়ে যাবে।


আরও খবর



পিরোজপুরে আওয়ামী যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন আজ

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মশিউর রহমান রাহাত, পিরোজপুর

Image

দীর্ঘ ৫২ বছর পর ১৮ মে পিরোজপুর জেলা আওয়ামী যুবলীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলন ঘিরে পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে আনন্দ আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতা ও তাদের নিজ নিজ ছবি দিয়ে তোরণ-ফেষ্টুনে ছেয়ে গেছে রাস্তার দু’ধার। সম্মেলন উপলক্ষে সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মঞ্চ ও প্যান্ডেল তৈরি করার কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ও বরিশাল বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত বেশ কয়েকজন নেতা উপস্থিত থেকে এসব কাজ তদারকি করছেন। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

জানা গেছে, আজ শনিবার ১৮ মে সকাল ১১টায় ৫০ হাজার নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান ফুলুর সভাপতিত্বে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি শেখ ফজলে শামস পরশ। প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক, সংসদ সদস্য মো. মাঈনুল হোসেন খান নিখিল।

পিরোজপুর যুবলীগ সূত্রে জানাগেছে ১৯৭২ পরবর্তী জেলা আওয়ামী যুবলীগের ত্রি-বর্ষিক সম্মেলন ছাড়া শুধুমাত্র বর্ধিত সভা’ করার পর কেন্দ্রীয় কমিটি জেলা কমিটি ঘোষনা দিতো। শেষ ২০১০ সালে জেলা আওয়ামী যুবলীগের কমিটি দিয়েছিলো কেন্দ্রীয় কমিটি। দির্ঘ ১৪ বছর বিভিন্ন অযুহাতে কমিটি দেয়নি কেন্দ্রীয় কমিটি।

বর্তমান কমিটির সভাপতি আক্তারুজ্জামান ফুলু ইতোমধ্যে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, গাজী জিয়াউল আহসান জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন। এ ছাড়া এ কমিটির অন্যান্য সদস্যরাও আওয়ামীলীগের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন।

এদিকে ১৪ বছর পর যুবলীগের নতুন কমিটিতে স্থান পাওয়ার জন্য পদ প্রত্যাশীরা কেন্দ্রে বায়োডাটা জমা দিয়ে তৎবির অব্যাহত রাখছেন। জেলা যুবলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক পদে একাধীক ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতা কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন।

এর মধ্যে সভাপতি পদের দৌড়ে আছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের কার্যনির্বহী সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক কামরুজ্জামান খান শামীম, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জাহিদ হোসেন পিরু, জেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল আহসান জিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক ভিপি মাকসুদুল ইসলাম লিটন, বর্তমান যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান মানিক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইরতিজা হাসান রাজু।

সাধারণ সম্পাদক পদের দৌড়-ঝাপ করছেন সদ্য উপজেলা চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক ভিপি এস এম বায়েজীদ হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব, পিরোজপুর পৌর যুবলীগের সভাপতি আবু সাঈদ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য আফজাল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ কে এম এ আউয়াল, পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সদস্য শ. ম রেজাউল করিম, পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিনমহারাজ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কানাই লাল বিশ্বাস, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান

সালমা রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান মালেক, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য তাজ উদ্দিন আহমেদ, মো. জসিম মাতুব্বর, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বরিশাল বিভাগের দয়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মুহাম্মদ বদিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক বরিশাল বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা কাজী মো. মাজাহারুল ইসলাম সহ-সম্পাদক মো. গোলাম ফেরদৌস ইব্রাহিম প্রমূখ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় থাকবেন জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী জিয়াউল আহসান।

এ ব্যাপারে জেলা যুবলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান ফুলু বলেন, কেন্দ্রের নির্দেশে আমরা ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করেছি। পিরোজপুরের যুবলীগের ৫২ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সারা জেলা থেকে যুবলীগের ৫০ হাজার নেতা কর্মীর উপস্থিতিতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে শুক্রবার বিকেলে পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য শ. ম রেজাউল করিম সম্মেলন স্থল পরিদর্শন করেন।


আরও খবর



ধান কাটতে গিয়ে বজ্রপাতে প্রাণ গেল দুই কৃষকের

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
গাইবান্ধা প্রতিনিধি

Image

ধান কাটতে গিয়ে বজ্রপাতে গাইবান্ধা সদর উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নে ফুল মিয়া এবং সাঘাটা উপজেলায় মুক্তিনগর ইউনিয়নের শিপন নামের দুই কৃষি শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) দুপুরে জেলার পৃথক জায়গায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ফুলমিয়া অন্যদের সঙ্গে গড়দীঘি গ্রামে জমিতে ধান কাটতে যায়। দুপুরে হঠাৎ করে বজ্রপাত হলে গুরুতর আহত হয় ফুল মিয়া। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। ফুল মিয়া গড়দীঘি গ্রামের জোবায়ের আলীর ছেলে।

অপরদিকে সাঘাটা উপজেলায় শিপন মিয়া বুধবার দুপুরের দিকে মুক্তিনগর ইউনিয়নের বেলতৈল গ্রামে হালিম মেম্বারের জমিতে শ্রমিক হিসেবে ধান কাটছিলেন। এরই মধ্যে মেঘাচ্ছন্ন আকাশে হঠাৎ বজ্রপাত হয়। এতে শিপন মিয়া গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে মুক্তিনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) প্যানেল চেয়ারম্যান শেফালী বেগম বলেন, বেলতৈল এলাকায় বজ্রপাতে এক শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি।

সাঘাটা থানার ওসি মো. মমতাজুল হক সন্ধ্যা ৬টায় কৃষি শ্রমিক শিপন মিয়ার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: বজ্রপাতে মৃত্যু

আরও খবর



উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৩০

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
উপজেলা প্রতিনিধি

Image

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বরগুনার পাথরঘাটায় দোয়াত-কলম প্রতীকের প্রার্থী এনামুল হোসেন ও কাপ-পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী মোস্তফা গোলাম কবিরের সমার্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রার্থীসহ প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৬ জনকে উন্নাত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজ শুক্রবার পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে আহতদের পক্ষে কাপ-পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী মোস্তফা গোলাম কবির সংবাদ সম্মেলনে করেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের কাটাখালী এলাকায় ও পরে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনা ৯ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আল মামুন।

বরিশালের চিকিৎসাধীন হলেন, মোঃ রাকিব (২৮), তানভীর আহম্মেদ (৩৩), সবুজ গাজী (২৭), ফয়সাল আহম্মেদ (২৮), চয়ন (১৮), আহাদ হাওলাদার (১৬), তানভীর (১৭), শাহ আলী (২৯), সোলাইমান (২৮), সানি (১৬), ইউসুফ (২৮), ইফতি (১৯)। এরা সবাই কাপ-পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী মোস্তফা গোলাম কবিরের সমার্থক। এছাড়া আরও আহত হয়েছেন দেয়াত-কলম প্রতীকের প্রার্থী এনামুল হোসাইন ও তার সমর্থক সানি (২০)।

আটককৃতরা হলেন, মোঃ নাইমুল ইসলাম-(২১), মোঃ মনির হোসেন-(৩০), মোঃ হাবিবুর রহমান-(২৫), মোঃ মিজানুর রহমান-(২৫), মোঃ ইব্রাহিম -(২৫), মোঃ শাহাদাত হোসেন-(২৪), মোঃ আবু মুসা-(২৬), মোঃ শান্ত -(২৩), মোঃ খোকন মিয়া-(৩৮)। এরা সকলেই দেয়াত-কলম প্রতীকের প্রার্থী এনামুল হোসাইনের সমর্থক।

সংবাদ সম্মেলনে কাপ-পিরিচ প্রতীকের প্রার্থী মোস্তফা গোলাম কবির অভিযোগ করেন, কাপ-পিরিচ প্রচারণা চলাকালে দোয়াত-কলম সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির ও হতাহাতির ঘটনা ঘটে। বিষয়টি তাৎক্ষনিক স্থানীয়রা সমাধান করে দেয়। এর পরপরই এনামুল তার লোকজন নিয়ে আমার সমর্থকদের ওপর অতর্কিত ভাবে সশস্ত্র হামলা চালায়। আহতদের উদ্ধার করে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে গেলে পুনরায় অতর্কিত হামলা চালায়।

তিনি আরও বলেন, এ হামলার পিছনে কলকাঠি নাড়ছে দেয়াত-কলম এর প্রার্থী এনামুলের ভাই এএসপি নাজমুল ও সাবেক এমপি শওকাত হাসানুর রহমান রিমন। অভিযোগের বিষয় দেয়াত-কলম এর প্রার্থী এনামুল হোসাইনকে একাধিক বার ফোন দিলেও সে রিসিভ করেন।

এ বিষয় পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় সন্দেহজনক ৯ জনকে আটক করা আদালতের মাধ্যমে বরগুনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোন পক্ষই এখন পর্যন্ত মামলা না করেনি। যারা অপরাধের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাকিল আহমেদ, পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি

নিউজ ট্যাগ: পাথরঘাটা

আরও খবর



দেশব্যাপী নো হেলমেট, নো ফুয়েল কার্যকরের নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আজ থেকে দেশব্যাপী নো হেলমেট, নো ফুয়েল কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৭-এর অধীনে গঠিত উপদেষ্টা পরিষদের প্রথম বৈঠকে এ নির্দেশ দেন তিনি। বনানীতে বিআরটিএর সদর কার্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ঢাকার দুই সিটি মেয়র, বিআরটিএ চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বিআরটিএর প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এত উন্নয়নের পরও সড়ক, মহাসড়কে যানজট ও দুর্ঘটনা কেন?

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ থেকেই সারাদেশে মোটরসাইকেল আরোহীদের নো হেলমেট, নো ফুয়েল কার্যকর করার নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে হবে। শুধু ঢাকায় নয়, সারাদেশেই আজ থেকে মোটরসাইকেলে হেলমেট বাধ্যতামূলক করার নির্দেশনা কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে।


আরও খবর



২০০৯ সালের পর সর্বোচ্চ আসনে এগিয়ে কংগ্রেস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

এবারের লোকসভা নির্বাচনে ভারতীয় কংগ্রেস ১০০টি আসন জিততে চলেছে। ২০০৯ সালের পরে এবারই দলটি এত বেশি আসনে এগিয়ে রয়েছে। তাই বিষয়টিকে কংগ্রেসের উত্থান হিসেবে দাবি করছেন অনেকে।

আবার কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়া জোট এগিয়ে রয়েছে ২৩০টি আসনে। জয় নিশ্চিত হয়েছে আরও একটি আসনে। এর মধ্যে কংগ্রেস এগিয়ে ৯৯ আসনে, জয়ী হওয়া আসনটিও তাদের। এছাড়া, সমাজবাদী পার্টি ৩৫, তৃণমূল কংগ্রেস ২৯, ডিএমকে ২২, আম আদমি পার্টি তিনটি আসনে এগিয়ে রয়েছে।

অন্যদিকে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট এগিয়ে রয়েছে ২৯০টি আসনে। এগুলো মধ্যে মোদীর দল এককভাবে ২৩৮টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ৫২টি ও ২০১৪ সালে মাত্র ৪৪টি আসনে জয়লাভ করেছিল কংগ্রেস উপমহাদেশের প্রাচীন দলটি। অথচ ২০০৯ সালে দলটি ইউনাইটেড প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্সের নেতৃত্বে ২০৬টি আসনে জিতেছিল।

২০১৪ সালে যা ঘটেছিল: ২০১৪ সালে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে কংগ্রেস নরেন্দ্র মোদীর বিজেপির মুখোমুখি হয়েছিল। ওই নির্বাচনে বিশাল পরাজয়ের মুখে পড়ে দলটি। সেবার তারা ১৬২টি আসন হারায় ও প্রায় ৯ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট হারায়। সেই সময় মোদির হাত ধরে হিন্দুত্ববাদের উত্থান ঘটে।

গুজরাট, রাজস্থান বিহার, ঝাড়খণ্ড ও মধ্যপ্রদেশে ব্যাপক ব্যবধানে জয়লাভ করে বিজেপি। ১০ বছর আগে ওই ভোটে দেশের ৫৪৩টি আসনের মধ্যে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ৩৩৬টিতে জয় পায়। আর এককভাবে বিজেপি পেয়েছিল ২৮২টি আসন।

এনডিএ জোট উত্তর প্রদেশে ৭৩টি, মহারাষ্ট্রে ৪১টি, বিহারে ৩১টি ও মধ্যপ্রদেশে ২৭টি আসন পায়। তাছাড়া গুজরাটের ২৬টি, রাজস্থানের ২৫টি, দিল্লির সাতটি, হিমাচল প্রদেশের চারটি ও উত্তরাখন্ডের পাঁচটি আসনে জেতে। সেই সঙ্গে ঝাড়খণ্ডের ১৪টির মধ্যে ১২টি, ছত্তিশগড়ের ১১টির মধ্যে ১০টি ও হরিয়ানার ১০টি আসনের মধ্যে সাতটিতে জয় লাভ করেছিল। সেবার কংগ্রেস উত্তর প্রদেশের মাত্র দুটি আসন আমেঠি ও রায়বরেলিতে জিতেছিল।

২০১৯ সালে কংগ্রেসের অবস্থা: ২০১৯ সালের নির্বাচনে বিজেপি এককভাবে আরও বেশি আসনে জয় পায়। সেবার মোদীর দল এককভাবে ৩০৩টি ও জোটবদ্ধভাবে ৩৫৩টি আসনে জয় লাভ করে। ওই বছর দলটি উত্তর প্রদেশে ৭৪টি, বিহারে ৩৯টি ও মধ্যপ্রদেশে ২৮টি আসন পেয়েছিল। সেই সঙ্গে গুজরাট, রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশ ও দিল্লিতেও জয়লাভ করে। এসব রাজ্য থেকে বিজেপি ৭৭টি আসন পায়। অন্যদিকে, ছত্তিশগড়ের ৯টি ও ঝাড়খণ্ডের ১১টিসহ এই অঞ্চল থেকে ২৩৮টি আসনে জয়লাভ করে বিজেপি।

সেবারের নির্বাচনে কংগ্রেস রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে নির্বাচনে অংশ নেয়। রাহুল গান্ধী আমেঠি আসনে বিজেপির স্মৃতি ইরানির কাছে বাজাভাবে পরাজিত হন। ওই পরাজয়ের পরেই কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন রাহুল।


আরও খবর