আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম
স্পেনের কারাগারে ম্যাকাফি অ্যান্টিভাইরাস আবিষ্কারকের ‘আত্মহত্যা’ আগস্টে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে আরও ১৮ জনের মৃত্যু ‘আ.লীগ হীরার টুকরা, যতবার কেটেছে নতুন করে জ্যোতি ছড়িয়েছে’ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নামে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন স্বাক্ষর জালিয়াতি ও তথ্য গোপন করায় ছাত্র ইউনিয়নের দুই শীর্ষ নেতা বহিষ্কার ইতিহাসে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা সমার্থক হয়ে থাকবে: : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পরীমনির মামলায় সেই নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে ৯ দেশে ছড়িয়েছে ডেলটা প্লাস ধরন বিধিনিষেধের মধ্যেও শনাক্ত ও মৃত্যু বাড়ছে

নেত্রকোনায় আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়, শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০১ জুন ২০২১ | ১২৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় আকস্মিক ঘূর্ণিঝড় হয়েছে। এতে শতাধিক ঘর ও অসংখ্য গাছপালা উপড়ে গেছে। 

সোমবার (৩১ মে) বিকেলে উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের লস্করপুর, ভরাপাড়া গ্রাম ও নোয়াপাড়া ইউনিয়নের পুড়াবাড়ী গ্রামে ঘূর্ণিঝড় হয়। এতে সড়কে গাছপালা পড়ে যাতায়াত ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন খন্দকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, বিকেলে হঠাৎ করে দু-তিন মিনিটের ঘূর্ণিঝড়ে শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। অসংখ্য গাছপালা ও শাকসবজির ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। মঙ্গলবার (১ জুন) থেকে তাদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।


আরও খবর



তৃতীয়বারেও করোনা পজিটিভ ইমরুল কায়েস

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | ১৪৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) শুরুর আগে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হন ইমরুল কায়েসসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। সর্বশেষ তৃতীয়বারের করোনা পরীক্ষাতেও পজিটিভ হয়েছেন জাতীয় দলের এই ওপেনার। ফলে তার টুর্নামেন্টে খেলা নিয়ে বাড়ছে শঙ্কা।

আগামী ৩১ মে থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ডিপিএল। এর আগে ২৬ মের প্রথম করোনা পরীক্ষায় ক্রিকেটার ও ক্লাব কর্মকর্তাসহ মোট ৯ জন করোনা পজিটিভ হন। ডিপিএল উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার দ্বিতীয়বারের মতো সবার করোনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ইমরুল-তুষার ছাড়াও আরও ৩ জন ক্লাব কর্মকর্তা করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। তাদের আজ আবার করোনা পরীক্ষা করানোর কথা আছে। এছাড়া আগের পজিটিভ হওয়া ৯ জনের সবাই নেগেটিভ হয়েছেন।

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ১২টি দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। আজ শনিবার থেকে দলগুলোর জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করার কথা। ঢাকার চারটি হোটেলে এই জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করা হয়েছে। জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও এক দিন বিরতি নিয়ে আগামীকাল প্রিমিয়ার লিগের জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করবেন বলে জানা গেছে। গতকাল শেষ হওয়া শ্রীলঙ্কা সিরিজের পর পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য মাত্র এক দিন সময় পাচ্ছেন তামিম ইকবালরা। জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করতে হলে তাদেরও করোনা পরীক্ষা করাতে হবে।


আরও খবর



ঋতু পরিবর্তনের জ্বরে যেসব খাবার খাবেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১ | ১১৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঋতু পরিবর্তনের এই সময়ে সাধারণ জ্বর হচ্ছে। জ্বর হলেই করোনা হয়েছে ভেবে ভয় পাওয়া বা অযথা আতঙ্কিত হওয়া উচিত নয়। মনে রাখা দরকার, মন দুর্বল হয়ে গেলে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা কমে যায়। 

তবে জ্বর মানেই খাওয়ায় অরুচি। প্রিয় খাবারও জ্বরের সময় পানসে লাগে। জ্বর বেশি হলে হজম ক্ষমতা কমে যায় ও শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে। তবে দ্রুত সুস্থতার জন্য এসময় সঠিক খাদ্যতালিকা মেনে চলা প্রয়োজন। 

ভিটামিন প্রোটিন জাতীয় খাবার বেশি করে খেতে হবে। সেই সঙ্গে খেতে হবে-

তুলসি, আদা, লেবু ও লবঙ্গ চা। এই চা গলা ব্যথা, খুসখুসে কাশি ও মাথাব্যথার ভেষজ ওষুধ হিসেবে কাজ করে। 

জ্বরের সময় প্রচুর পানি করা প্রয়োজন। পানির পাশাপাশি বিভিন্ন মৌসুমী ফলের জুসও খেতে পারেন। এসময় লেবু কমলা ও মালটার জুস খেলে দ্রুত মুখে রুচি ফিরে আসবে

বেশিরভাগ সময় ঠাণ্ডা থেকেই জ্বর হয়। জ্বরে আরাম পেতে দুবেলা টমেটো বা গাজরের স্যুপ খেতে পারেন। স্যুপ শরীরের ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধে সহায়তা করে। 

প্রায়ই বৃষ্টি হবে এখন থেকে। তাই করোনার এই সময়ে বাইরে গেলে ছাতার সঙ্গে অবশ্যই কাছে বাড়তি মাস্ক রাখতে হবে। কোনো কারণে বৃষ্টিতে ভিজে গেলে বা নষ্ট হলে বাড়তিটা কাজে দেবে। 

যদি জ্বর (১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি) অনুভূত হয়, সঙ্গে মাথাব্যথা,  শরীরে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, গলায় ব্যথা করে বা চোখ লাল থাকে, তবে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। 


আরও খবর
বাবার জন্য ভালোবাসা

রবিবার ২০ জুন ২০21




প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | ১২৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউরোপিয়ান শ্রেষ্ঠত্বের আসর উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছে ইংলিশ ক্লাব চেলসি। শনিবার রাতে ইংল্যান্ডেরই আরেক ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে ২০১২ সালের পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটি।

ম্যাচের স্কোরলাইন আরও বড় হতে পারত চেলসির পক্ষে। কিন্তু একের পর এক গোল মিস করে গেছেন দলের জার্মান ফরোয়ার্ড টিমো ওয়ের্নার। অবশ্য শেষ পর্যন্ত আরেক জার্মান কাই হ্যাভার্তজের করা একমাত্র গোলেই জয় পেয়েছে চেলসি।

চলতি মৌসুমে চেলসির সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় ২১ বছর বয়সী কাই হ্যাভার্তজ। জার্মান ক্লাব বেয়ার লেবারকুসেন থেকে তাকে দলে পেতে ৮০ মিলিয়ন ইউর গুনতে হয়েছিল চেলসিকে।

কিন্তু সে তুলনায় পুরো মৌসুমে তেমন পারফরম্যান্স উপহার দিতে পারেননি হ্যাভার্তজ। অবশ্য ম্যাচের শুরুর একাদশে ছিলেন ২১ বার, সবমিলিয়ে খেলেছেন ৪৪টি ম্যাচে। যেখানে ৯ গোল ও ৯ এসিস্ট করতে পেরেছেন তিনি।

সদ্য সমাপ্ত চ্যাম্পিয়নস লিগে চেলসির হয়ে ১১ বার মাঠে নেমেছেন হ্যাভার্তজ। আগের ১০ ম্যাচে একবারও গোলের দেখা পাননি তিনি। শনিবার রাতে আসরের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচেই তিনি বোকা বানালেন ম্যান সিটির রক্ষণকে।

পুরো আসর জুড়ে কোনো গোল না করে, চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালেই প্রথম গোল করলেন চেলসির সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। সবশেষ ২০১৩ সালের আসরে ফাইনালেই নিজের প্রথম গোল করেছিলেন আরেক জার্মান ফুটবলার ইল্কায় গুন্ডোগান।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে ফাইনাল ম্যাচে গোল করা ১১তম কনিষ্ঠ ফুটবলার হ্যাভার্তজ। ম্যাচের দিন তার বয়স ২১ বছর ৩৫২ দিন। সবচেয়ে কম ১৮ বছর ৩২৭ দিন বয়সে ফাইনালে গোল করার রেকর্ড প্যাট্রিক ক্লুইভার্টসের।

এছাড়া জার্মানির প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে জার্মানির বাইরে অন্য দেশের ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে গোল করেছেন হ্যাভার্তজ।


আরও খবর



ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে সমস্যার সুন্দর সমাধান হয় যেভাবে

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ৪০৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুজন মানুষ মিলে একটি সম্পর্কে দীর্ঘদিন থাকার ফলে মাঝে মধ্যে কথা কাটাকাটি বা তর্ক-বিতর্ক হতেই পারে। অনেক সময় ছোট ছোট বিষয় নিয়ে ঝামেলা হয়ে তা বিশাল সমস্যাও সৃষ্টি করে সম্পর্কের মধ্যে। এসব কারণে সম্পর্কে থাকা একজন তো অবশ্যই রেগে থাকেন। কিংবা ক্ষোভের জন্য তাৎক্ষণিক সময় ভুল সিদ্ধান্ত নেয়াও হয়। সঙ্গীর সঙ্গে বিভিন্ন সময় ঝামেলা কিংবা সমস্যা হতেই পারে, তবে তাৎক্ষণিক কোনো সিদ্ধান্ত নয়। এসব সমস্যা সমাধানে কিছু কার্যকরী উপায় তুলে ধরা হলো।

সঙ্গী কেন রেগে আছে বুঝার চেষ্টা করা : সঙ্গী কেন রেগে আছে তা অবশ্যই বুঝার চেষ্টা করতে হবে। আপনিই যে তার সুখ-দুঃখের সঙ্গী। আপনি যদি বুঝতে না চান তাহলে তার রাগ কিংবা ক্ষোভ ভেতরেই থেকে যাবে। হতে পারে এখান থেকে সম্পর্কের ইতি টানা।

অনুভূতি বুঝতে চাওয়া : প্রেমিকা ভালোবাসে আপনাকে। তাহলে তিনি কখনোই কারণ ছাড়া রাগ করবে না। অভিমান করেছে হয় তো, এর পেছনেও তো কারণ রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে সঙ্গীর অভিমান ভাঙানোর চেষ্টা করুন। সে কি চাচ্ছে তা বুঝার চেষ্টা করুন। দেখবেন সঙ্গীর মুখে মৃদু হাসি ফুটে উঠেছে।

নিজেকে নির্দোষ ভাববেন না : নিজেরও ভুল হতে পারে। মানুষ কখনো কোনো ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। সেদিক থেকে কোনো কারণে আপনারও ভুল হতে পারে। সঙ্গী যদি কখনো আপনার কোনো বিষয় ভুল বলে বিবেচনা করে তাহলে রেগে যাবেন না। আপনি সহজভাবে বিষয়টি নিয়ে ভাবুন। এতে আপনি ছোট হবেন না, বরং সম্পর্ক হবে আরও মজবুত।

প্রতিশ্রুতি : কখনো কোনো ভুল হয়ে থাকলে সেই ভুল মেনে নিন এবং কথা দিন যে, কখনো এমন ভুল হবে না। এতে সঙ্গী বুঝতে পারবে আপনি আপনার ভুলের জন্য অনুতপ্ত। আর ভুলগুলো মনে রাখার চেষ্টা করুন। দেখবেন পরবর্তীতে এমন ভুল হবে না।

সমাধান নিয়ে ভাবুন : প্রতিটি সমস্যারই সমাধান রয়েছে। ঝগড়া, সমস্যা ও তর্ক-বিতর্ক সম্পর্কের মাঝে থাকবেই। তাই বলে তা জটিল করবেন না। এসবের সমাধান রয়েছে। সমাধান নিয়ে ভাবুন। প্রয়োজনে সঙ্গীর সহায়তা নিন। দুজন একসঙ্গে সমাধান নিয়ে ভাবুন। সম্পর্ক গভীর হবে। সমস্যা সমাধান হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভালোবাসাও মজবুত হবে।


নিউজ ট্যাগ: ভালোবাসার মানুষ

আরও খবর
বাবার জন্য ভালোবাসা

রবিবার ২০ জুন ২০21




স্বাস্থ্যখাত নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ এখন ফ্যাশন : জাহিদ মালেক

প্রকাশিত:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্যখাতের বড় কোনো দুর্নীতি হয়েছে এমন প্রমাণ এখন পর্যন্ত কেউ দেখাতে পারেনি বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। শনিবার (১২ জুন) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এক অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

স্বাস্থ্যখাত নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদনে ভুল তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতির অভিযোগ করাটা এখন অনেকেরই একটি ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, বেসরকারি হাসপাতালের টেস্টিং জালিয়াতি, একজন ড্রাইভার বা নিম্নপদস্থ কর্মচারীর দুর্নীতি বা বিচ্ছিন্ন কোনো কর্মকর্তার মাধ্যমে অস্বচ্ছতার খবর ছাড়া কেউ স্বাস্থ্যখাতের বড় কোনো দুর্নীতি দেখাতে পারেনি। এক্ষেত্রে যারাই স্বাস্থ্যখাতে অনিয়ম করেছে, তাদেরকেই আইনের আওতায় এনে বিচার করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

তিনি বলেন, টিআইবি বলেছে দেশে কোভিড টেস্টিং সুবিধা বাড়ানো হয়নি। অথচ দেশে এখন করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য একটি থেকে পরীক্ষাগার ৫১০টি করা হয়েছে।

টিআইবি বলেছে, হাসপাতালে বেড বাড়ানো হয়নি, অথচ এখন দেশে করোনা বেড সংখ্যা ১৫ হাজারেরও বেশি। কিছুদিন আগেও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন হাসপাতালে প্রায় এক হাজার বেড বাড়ানো হয়েছে, যেখানে প্রায় সবই সেন্ট্রাল অক্সিজেন সুবিধাপ্রাপ্ত এবং সেখানকার অর্ধেক সংখ্যকেই আইসিইউ সুবিধা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনার এই কঠিন পরিস্থিতির সময় টিআইবি মাঠে নেমে কোনো কাজ করেনি। মাঠে কাজ করেছে দেশের স্বাস্থ্যখাতের চিকিৎসক, নার্সসহ অন্যান্য ফ্রন্টলাইন যোদ্ধারা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত রুমে বসে তারা মুখস্থ বিদ্যার মতো ঢালাওভাবে স্বাস্থ্যখাতের সমালোচনা করেছে।


আরও খবর